অলীক ( একটি কাল্পনিক কল্পকাহিনী ) পর্ব-২…………

রিনিঃ দুঃসংবাদ তো প্রতিদিনই একটা না একটা পাচ্ছি আবার নতুন করে কি পাবো আর !!

রিনিঃ দুঃসংবাদ তো প্রতিদিনই একটা না একটা পাচ্ছি আবার নতুন করে কি পাবো আর !!
রিনি বিরক্ত নিয়ে ফোনের লাইনটা কেটে দিলো !! কিন্তু রিনির মনের মাঝে অজানা ভয় কাজ করতে লাগলো যদিও রিনি আদিভোতিক কিংবা সুপারন্যাচারাল কিছু বিশ্বাস করেনা তার পরেও ভয় জিনিসটা সবার মাঝেয় আছে বেশি অথবা কম !! ফোন দিলো হাসপাতালে এবং জিজ্ঞেস করে নিলো সাব্বির কেমন আছেন ওপাশ থেকে নার্স বললেন আগের মতই রিনি কিছুটা স্বস্তি নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ল কাল সকালে ভোরে উঠে সাব্বিরকে দেখতে যাবে !! আজ রিনির ছুটির দিন তাই সকালে ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হয়ে সাব্বিরকে দেখতে গেলো !! সাব্বিরের কেবিনের পাশে সাব্বিরের আত্নীয়দের ভির দেখে রিনির মনে কেমন জানি ভয় হতে লাগলো ?? এগিয়ে গিয়ে সাব্বিরের মাকে জিজ্ঞেস করল সাব্বির কেমন আছে সাব্বিরের মা কান্নাজরিত কন্ঠে জবাব দিল সাব্বির কোমায় চলে গেছে আর ডাক্তার বলেছে ওর বাঁচার আশা মাত্র ১০ % !! রিনি কান্নায় ভেঙে পরলো এবং বার বার মনে হতে লাগলো এই কি সেই দুঃসংবাদ ছিলো ?? রিনি সাব্বিরকে দেখতে গেলো লাইফ সাপোর্ট দিয়ে সাব্বিরকে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে !! রিনি কান্না ভেজা চোখে নিয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় চলে আসলো !! রাত আবারো ঠিক ৩ টা……
রিনিঃ হ্যালো
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ কেমন আছেন রিনি ??
রিনিঃ আপনি আবারো ফোন করেছেন আপনাকে না মানা করেছি আমাকে আর ফোন দিবেন না !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আমি তো আপনার উপকারের জন্য ফোন দিই !!
রিনিঃ আমার উপকার আপনাকে চাইতে হবেনা দয়া করে আমাকে আর বিরক্ত করবেন না !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আমি কিন্তু আপনার ক্ষতি করবনা !!
রিনিঃ আপনি তো আমার ক্ষতি করেই দিয়েছেন যদি আপনি আমার ভালো চাইতেন তাহলে আজ সাব্বিরকে কোমায় থাকতে হতনা !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আমি সমাধান দেওয়ার আগেয় তো আপনি ফোনের লাইনটা কেটে দিলেন !!
রিনিঃ আপনি আবার ফোন করলেই তো পারতেন আজকে আমাকে এত কষ্ট পেতে হতনা !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আমার শুধুমাত্র একদিনে একবার ফোন করার অনুমতি আছে তাই ইচ্ছে হলেও আর ফোন করতে পারিনা !!
রিনিঃ মানে ঠিক বুঝতে পারলাম না কি বলছেন আর একদিনে কেনো দুইবার ফোন করলে কি ক্ষতি হয় ??
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ একদিনে দুইবার ফোন দিলে আর কোনদিন আপনার সাথে যোগাযোগ করতে পারবোনা !!
রিনিঃ আপনার কথার মাথামুণ্ডু কিছুই বুঝতে পারছি না আচ্ছা আপনার নাম টা কি বলবেন আর আপনি কোথায় থেকে আমার মোবাইল নং পেলেন এবং আমার নাম ই বা জানলেন কিভাবে ??
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আমার কোন নাম নেই কিন্তু আমাদের কোড নং রয়েছে আমার কোড নং PF1680 কিন্তু আপনি যদি চান তাহলে আমাকে আপনার ইচ্ছে মত নাম দিতে পারেন আর আপনার মোবাইল নং আমি পেয়েছি আমাদের ফোন ডাইরেক্টরি থেকে শুধু আপনার নয় ওখানে আপনাদের পৃথিবীর সবার ফোন নং রয়েছে আমার আপনার নং টা ভাল লাগল তাই আপনাকে কল দিলাম আর আপনার মোবাইল নং এর পাশেই আপনার নামটা ছিলো !!
রিনি কিছুটা অবাক হয়ে গেল প্রথমে ভাবল পাগল কিন্তু গতকালের ঘটনার পর থেকে আর যায় বলা যায় কিন্তু পাগল বলা যায়না !!
রিনিঃ PF1680 মানে কি আর আপনি থাকেন কোথায় ??
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ PF1680 মানে হল Planet Of Future আর 1680 মানে হল আমার জন্ম সন !! মানে আপনাদের বছর মতে আজ থেকে ৩৩৩ বছর আগে আমাকে বানানো হয়েছিলো আমার বয়স এখন ৩৩৩ বছর ১১ মাস ২৮ দিন আর আমরা থাকি Planet Of Future যার অর্থ হল ভবিষ্যতের গ্রহ আর আমরা সবার ভবিষ্যত দেখতে পারি !!
রিনি অবাক হয়ে শুনতে লাগলো আর মনে হতে লাগলো যেনো কোন কল্পনার রাজ্য বাস করছে ও !! কেমন জানি মাথাটা ভন ভন করছে অব কিছু এলোমেলো মনে হচ্ছে !!
রিনিঃ কি বলছেন এইসব আপনি কি আমার সাথে রসিকতা করছেন ??
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আপনার সাথে আমার কি রসিকতার সম্পর্ক ??
রিনিঃ আপনার সাথে আমার কোন সম্পর্ক নেয় আর ভবিষ্যতে হবেনা !! আপনি আমাকে ফোন দিলে আমি পুলিশকে জানাতে বাধ্য হব !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ আপনি ভবিষ্যত দেখতে পারেন না আমি পারি আর আমি বলছি আপনার সাথে আমার খুব তাড়াতাড়ি ভাল বন্ধুত্ব হবে কিন্তু দুঃখের বিষয় আপনি সেদিন আমাকে পাবেন না !! পুলিশকে জানিয়ে কোন লাভ হবেনা কারণ আপনারা আমাদের দেখতে পারবেন না আর পুলিশের কাছে অদৃশ্য যে কোন কিছুই মূল্যহীন !!
রিনিঃ আপনি এখন যান না হলে আমি চিৎকার করব !!
অচেনা কণ্ঠস্বরঃ ঠিক আছে কিন্তু আপনি আগামীকাল অফিসে যাবেন না আপনার বিপদ হতে পারে !!
রিনিঃ আমার বিপদ হলে আপনার কি আপনি কি আমাকে ভয় দেখাচ্ছেন কিন্তু আমি ভয় পাচ্ছিনা দয়া করে আমাকে আর ফোন দেওয়ার চেষ্টা করবেন না রাখছি !!
রিনি ফোনের লাইনটা কেটে দিলো রাগের মাথায় !! রিনি কেমন যেনো অস্থির অস্থির লাগছে কিছুতেই ভাল লাগছে না মনে হতে লাগলো সাব্বিরের কোমায় যাওয়ার জন্য নিজেকে দায়ী মনে হতে লাগলো !! কিন্তু এই অচেনা মানুষের কথাটা খুব বেশি ধাক্কা দিচ্ছে মনের মাঝে আসলেই কি আগামীকাল তার কোন বিপদ হবে ??

প্রথম পর্বের লিঙ্কঃ http://istishon.blog/node/5805#sthash.S8qVkLzG.X1OJTfDr.dpbs

৫ thoughts on “অলীক ( একটি কাল্পনিক কল্পকাহিনী ) পর্ব-২…………

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *