হরেক রকম ছাগু রে ভাই

ছাগুর জন্য কোন মানবতা নেই , ছাগুর জন্য খুব বেশি হলে থাকতে পারে কাঁঠাল পাতা ,

বর্তমানে দেশে বেশ কয়েক প্রকার ছাগু দেখা যায় –

১.শিবির ছাগু ,

২.বি এন পি ছাগু ,

৩.আওয়ামিলিগ ছাগু ,

৪.হেফাজতি ছাগু ,

৫.নাস্তিক ছাগু ,

৬.ধর্মান্ধ ছাগু (এরা–শিবির ছাগু আর হেফাজতি ছাগুর সমন্বিত রূপ)।

আসুন দেখি ছাগু গুলোর বিস্তারিত জানার চেষ্টা করি


ছাগুর জন্য কোন মানবতা নেই , ছাগুর জন্য খুব বেশি হলে থাকতে পারে কাঁঠাল পাতা ,

বর্তমানে দেশে বেশ কয়েক প্রকার ছাগু দেখা যায় –

১.শিবির ছাগু ,

২.বি এন পি ছাগু ,

৩.আওয়ামিলিগ ছাগু ,

৪.হেফাজতি ছাগু ,

৫.নাস্তিক ছাগু ,

৬.ধর্মান্ধ ছাগু (এরা–শিবির ছাগু আর হেফাজতি ছাগুর সমন্বিত রূপ)।

আসুন দেখি ছাগু গুলোর বিস্তারিত জানার চেষ্টা করি

১.শিবির ছাগুঃ এরা বাংলাদেশ জামাতে ইসলামির (মহা ছাগু) ছাত্র গ্রুপ , এদের মুখের দাড়ির পরিমাণ ইঞ্চি খানেক , এরা মউদুদি নামক এক শুকুর ছানার মতবাদে বিশ্বাসী , এদের প্রিয় খাবার কাঁঠাল পাতা , এরা কাঁঠাল পাতা খাওয়ার কারণে মাথায় কিঞ্চিৎ সমস্যা আছে , মাঝে মাঝে এরা সমকামিতায় ও জড়িয়ে পরে , এদের কে অনেক ছোট থেকে ব্রেন ওয়াশ করে জামাতের খিদমতগার বানানো হয় , ইসলাম কায়েমের জন্য এরা আল্লাহ নবীর চাইতে মউদুদি নামক শুকুর ছানার লেখা বইয়ের কথা বেশি বিশ্বাস করে , গো আজম, নিজামি , সাইদি এদের পীর তাদের কথাই এরা যে কোন সময় পায়জামা খুলে হুজুরের খেদমতে লাগতে পারে । এদের ছাত্রী সংস্থার আর এক নাম কলিজু , তবে ময়না , টিয়া ইত্যাদি নামে ডাকতে শোনা গেছে , এরা ধর্মের নাম দিয়ে যে কোন মিথ্যাচার অবলীলায় করে যায় , বর্তমানে তাদের নেতা গন একে একে ঝুলানোর আদেশ শুনে এরা এখন কার্ত্তিক মাসের কুকুরের মত খেপে আছে , বহুদিন মেশিনে ব্ল জব দিতে না পেরে তারা গোলাপি আপার আচলের তল থেকে মাঝে মাঝে চিতকুর মারে আর খালি কাঁঠাল পাতা কাঁঠাল পাতা কইয়া জিকির করে । এরা ভয়ানক রকমের মানসিক রোগী এদের ধরে ধরে খাসি না করলে এদের সামলানো সম্ভব নয় ।

২.বি এন পি ছাগুঃ এদের ভিতর এককালে মানুষের অল্প কিছু গুনাগুণ থাকলেও গোলাপি আপার নিয়মিত গাঞ্জাখুরী ভাষণ শুনে এরা এখন ছাগ্লামির পথে একধাপ এগিয়ে , গোলাপি আপাই যা কয় এরা তা চোখ কান বন্ধ করে ম্যা ম্যা করে সমর্থন করে , অনেক সময় এদের কে শিবির ছাগু দের পিছন পিছন ঘুরতে দেখা যায় , কাঁঠাল পাতা এদের খুব বেশি পছন্দ না হইলেও শিবির ছাগুদের সাথে মেশার দরুন কাঁঠাল পাতা এদের প্রত্যেকদিনের মেনু তে থাকে , এদের নেতাদের নামের সাথে লেদা , দুদু নামক অশোভন শব্দের ব্যবহার দেখা যায় ।

৩.আওয়ামিলীগ ছাগুঃ এরা কিছুটা চুষিল ছাগু ও বটে , এরা মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে অনেক বেশি পড়াশোনা করে , কেউ কেউ নিজেকে ফ্রি থিঙ্কার বলে জাহির করতে পছন্দ করে , কিন্তু কেউ লিগের সমালোচনা করলেই এরা ম্যা ম্যা হাম্বা করে তার প্রতিবাদ করতে করতে পরনের জিন্স ছিড়ে ফেলে , হাসিনা আপায় এদের ছোট খাটো ধর্ম গুরু তার কোন দোষ এদের চোখে পড়েনা । এরা সবসময় নেত্রি তোষণে নিয়োজিত থাকে , এরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ভাঙ্গিয়ে খায় বলে ও অভিযোগ আছে , এরা কাঁঠাল পাতা খেতে পছন্দ করে না , কিন্তু নেত্রি দিলে তা খুব আহ্লাদের সাথে গ্রহণ করে বলে জানা যায় , এরা ফেসবুক ব্লগে মাস্তানি করতে পছন্দ করে থাকে । এরা ভদকা অত্যধিক পছন্দ করলেও রাশিয়া কে সহ্য করতে পারে না । এবং পার্কে বসে প্রেমিকার সাথে কেজি খানেক চীনা বাদাম চিবালেও চীন কে একদম সহ্য করতে পারে না ।

৪.হেফাজতি ছাগুঃ এরা মূলত ব্লগ দিয়ে ইন্টারনেট চালায় , মাথার মধ্যে মগজের পরিমাণ আশঙ্কাজনক ভাবে কম থাকার কারণে এরা অতি বেশী পরিমাণ কাঁঠাল পাতা খেয়ে থাকে , এবং অন্যান্য ছাগুদের খেলার গুটি তে পরিণত হয় , এরা মন্ত্রী হওয়ার শখ নিয়ে আন্দোলন করে , এদের কে কপটারে চড়তে ও দেখা গেছে তবে ডিবি ধরলে এরা পায়জামা ভরে ইয়ে করে দেয় ।

৫.নাস্তিক ছাগুঃ এরা সবসময় অনলাইন থাকে , নাস্তিকতা বিষয়ে অল্প ধারনা থাকায় এদের মেজাজ অত্যধিক গরম থাকে তাই জায়গায় অজায়গায় এরা একটু গালাগাল করতে পছন্দ করে থাকে , কাঁঠাল পাতা এরা একদম পছন্দ করেনা , তবে আস্তিক দের কাঁঠাল পাতা খাওয়াতে গিয়ে এরা একটু চেখে দেখে , অনেক নাস্তিক ছাগু কেই পরবর্তীতে চরম আস্তিক আচরণ করতে দেখা গেছে , বিপদ দেখলেই এরা নিজেকে আস্তিক বানিয়ে ফেলে । এদের কে সুবিধাবাদী নাস্তিক ও বলা যায় ।

৬.ধর্মান্ধ ছাগু (এরা–শিবির ছাগু আর হেফাজতি ছাগুর সমন্বিত রূপ)ঃ এরা ধর্ম কে নিয়ে কোন যুক্তি শুনতে রাজি না , কারো নামের সাথে ইসলাম থাকলেই এরা তার অন্ধ সমর্থক হয়ে যায় । এদের মাথায় ও ঘিলু যথেষ্ট পরিমাণ কম থাকে , এরা চোখ থাকলেও অন্ধ সেজে পথ চলতে পছন্দ করে , এরা ই পরবর্তীতে শিবির ও হেফাজতে যোগ দেয়, এরা ফেসবুকে চটী পেজ অত্যধিক পছন্দ করে থাকে , সানি লিওন এদের প্রিয় অভিনেত্রী , আবার রাসুলের সুন্নত অনুযায়ী চলতে ও ধর্মের জন্য জিহাদ করার ইচ্ছা ও পোষণ করে , এরা নাস্তিক দেখলেই তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠে , নাস্তিক দের গালাগালি শেষে এরা পর্ণ দেখে উত্তেজনা প্রশিমিত করে । কাঁঠাল পাতা দেখলেই এরা লোভাতুর হয়ে পরে , ধীরে ধীরে এরা কাঁঠাল পাতায় আকৃষ্ট হয়ে শিবির ও হেফাজতে পরিণত হয় ।

এই সমাজে আর ও অনেক রকম ছাগু দেখা যায় , তবে কাঁঠাল পাতা প্রিয় ছাগু গন হইল জামাত শিবির এবং হেফাজত এদের থেকে দূরে থাকাই মঙ্গলজনক । বর্তমানে বি এন পি জামাতের অঙ্গ সংগঠন হিসেবে আত্ম প্রকাশের পর থেকে এদের কে ও আশঙ্কাজনক হারে কাঁঠাল পাতা খেতে দেখা যাচ্ছে । তাই এদের থেকে ও দূরে থাকা বাঞ্ছনীয় । বর্তমানে ব্রা স্টার আন্দালিভ পার্থ , আসিফ নজরুল এদের কে চুষিল ছাগু বলা হয় , এদের থেকে ৫০০ হাত দূরে থাকুন টি ভি তে এদের টক শো দেখতে বসলে বমির ট্যাবলেট হাতের কাছে রাখুন ।

সতর্কতাঃ ছাগুকে জ্ঞান দান করতে যাবেন না , এদের কমন ডায়লগ আপনি আমত্তে বেশি বুঝেন ?

ব্লগে ছাগু দেখলে গদাম দিন , ফেসবুকে ব্লক মারুন ।
হ্যাপি ব্লগিং হ্যাপি ফেসবুকিং

(চার পা ওয়ালা ছাগল আই মীন গট গন অনুভূতিতে আঘাত পেলে আমি দুঃখিত তবে এখানে যে প্রজাতি গুলো নিয়ে আলোচনা করা হল তারা অনুভূতিতে আঘাত পেলে দূরে গিয়ে মুড়ি খাও অক্কে )

৯ thoughts on “হরেক রকম ছাগু রে ভাই

  1. আওয়ামীলীগ এ ছাগু থাকতে
    আওয়ামীলীগ এ ছাগু থাকতে পারেনা।….আপনি আওয়ামী সমর্থকদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছেন।তীব্র নিন্দা জানাই।

  2. লেখা শুরুটা ভালোই ছিল কিন্তু
    লেখা শুরুটা ভালোই ছিল কিন্তু যেই মুহূর্তে আওয়ামীলীগের মধ্যে ছাগু আবিস্কার করে বসলেন, সেই মুহূর্ত থেকে এই পোস্ট একটা অযথা এবং আজইরা সময় নষ্টতে পরিনত হইল… ইভেন ছাগুরাও এই পোস্ট দেখলে হাসতে হাসতে কাইন্দা দিব… :এখানেআয়: :এখানেআয়: ভালমতন আগে ছাগু কি আর কথাটা কিভাবে আসলো সেই ইতিহাস জানেন… এইসব আজাইরা আবালতত্ত্ব বইলা আর মানুষ হাসাইয়েন না… :মানেকি: :মানেকি: :ক্ষেপছি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *