শাবিপ্রবি আর হাউ কাউ

সবাই শাবিপ্রবি নিয়ে স্ট্যাটাস দিচ্ছে, ব্লগ কাপিয়ে দিচ্ছে, আমিই বা বাদ যাবো কেন? আমিও দিলাম।

শেষতক সচেতন সিলেটবাসী তাদের অসচেতন দাবী আদায় করে ছাড়লো প্রায় । ৫০% আসন! আহা! আর কি লাগে? কোনমতে পাশ করলেই শাবিপ্রবিতে পড়ার সুযোগ! আর কি চাই! ওরে কালিয়া চোলাই মদ বের কর। আজ পার্টি হবে। কি খুশি তাই না? ৫০% আসন চাই আপনাদের এইতো? তা তথাকথিত সচেতন জনগণ, সিলেটের ঘরে ঘরে খুঁজে বেড়ালেও এই ৫০% আসন পূরণ করার মতন আদম হাওয়া পাওয়া যাবে না। আমার কথাটা আক্রমনাত্মক মনে হতে পারে, কিন্তু কথাটা



সবাই শাবিপ্রবি নিয়ে স্ট্যাটাস দিচ্ছে, ব্লগ কাপিয়ে দিচ্ছে, আমিই বা বাদ যাবো কেন? আমিও দিলাম।

শেষতক সচেতন সিলেটবাসী তাদের অসচেতন দাবী আদায় করে ছাড়লো প্রায় । ৫০% আসন! আহা! আর কি লাগে? কোনমতে পাশ করলেই শাবিপ্রবিতে পড়ার সুযোগ! আর কি চাই! ওরে কালিয়া চোলাই মদ বের কর। আজ পার্টি হবে। কি খুশি তাই না? ৫০% আসন চাই আপনাদের এইতো? তা তথাকথিত সচেতন জনগণ, সিলেটের ঘরে ঘরে খুঁজে বেড়ালেও এই ৫০% আসন পূরণ করার মতন আদম হাওয়া পাওয়া যাবে না। আমার কথাটা আক্রমনাত্মক মনে হতে পারে, কিন্তু কথাটা ভুল নয়। নাহলে শাবিপ্রবি সিলেটিদের পদচারণায় মুখর থাকতো। সেটা হয়নি। আমি বলছি না সিলেটিরা আবাল, ভোগচোদ ক্যাটাগরীর পাবলিক। আমি বলছি, ৫০% যোগ্য শিক্ষার্থী কি আপনাদের আদৌ আছে? মনে হয় না।

আমি জাফর স্যারের পদত্যাগ নিয়ে বিশেষ কিছু বলবো না। বলার কিছু নেই। যার কারণে আজও নন-সিলেটি বাংলাদেশীরা(এখন সেটাই বলা শ্রেয়) শাবিপ্রবিতে এত ঝক্কি ঝামেলা বয়ে পরীক্ষা দিতে আসে, পড়তে আসে, তাকে সরানোর পায়াতারা শুধু বেঈমানরাই করতে পারে। আমি কিন্তু সিলেটিদের বেঈমান বলিনি। আমি কিছু সচেতন মানুষকে বলেছি।

কথায় আছে, যে জাতি গুণীর কদর জানে না সে জাতিতে গুণী জন্মায় না। আমরা প্রতিনিয়ত গুণীদের অপমান করে যাচ্ছি তারপরও বিস্ময়করভাবে আমাদের দেশে মেধাবীদের সংখ্যা কমছে না, তবে তাদের পথ দেখানোর লোকের সংখ্যা ঠিকই কমছে। আমরা সেই জাতি, যারা ব্র্যাজার্সের ভিডিও দেখে হস্তমৈথুনের সময় ইহকাল পরকাল দেখি না, চিন্তাও করি না, কিন্তু ধর্ম নিয়ে বাকবাকুম ঠিকই করি। ভিডিও দেখা বা হস্তকর্মের সময় ধর্মের কথা মনে থাকে না। আমরা সেই জাতি যারা ল্যাং মেরে বলি, ল্যাং মারা আন্তর্জাতিকমানের হয়নি। আমরা সেই জাতি, যারা নিজের বিনাশের সব উপকরণ নিজেই বয়ে চলি। কিন্তু অপরকে উপদেশ বিলাতে পিছপা হই না, যদিও, নিজের ঘরেই আগুণ লেগে আছে।

আমার গৃহশিক্ষক শাহীন ভাই বলতেন, এই জাতিটাকে আমি ঘৃণা করি। এর জন্য এক মিনিট ভাবাও সময়ের অপচয়। কতটা হতাশ হলে একজন মানুষ নিজের জাতি সম্পর্কে এমন বলতে পারে? আমি জানি না। তবে কথাটা ঠিক। এ জাতির জন্য ভাবা সময়ের অপচয়। এ জাতি এগোতে চায় না। অনেকটা নন্দলালের মতন এই হব সেই হব বলে কোনমতে খেয়ে পড়ে সটান হতে পারলেই তারা খুশি। সবাই হিপোক্রেট। আপনি আমি আমরা সবাই।

আমি এই জাতি বিষয়ক লেখা আর লিখবো না। লেখার চিন্তা ছিল, কিন্তু সেটা এখন সময়ের অপচয়। আমি হিপোক্রেট হয়ে থাকতে চাই না। বড় কথা আমি চুতিয়াদের মাঝে থাকতে চাই না। এই দেশটা নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখতাম, আর দেখবো না। সব বোগাস! সব রাবিশ!

৮ thoughts on “শাবিপ্রবি আর হাউ কাউ

  1. প্রায়। জাফর স্যারকে সরিয়েছে।
    প্রায়। জাফর স্যারকে সরিয়েছে। প্রশাসনের সভা বসিয়েছে। গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *