আসুন, সংঘবদ্ধভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই… “”একটি শীতবস্ত্র হোক,একজন অসহায় শীতার্ত মানুষের অস্ত্র””


উত্তরবঙ্গের শীত সম্পর্কে সম্ভবত সারা বাংলাদেশের মানুষের ধারনা আছে । যেখানে শীতকালে বৃষ্টির পানির মত কুয়াশা পড়ে। তীব্র শীতে স্থবির হয়ে যায় সব কিছু। শীতকালের প্রস্তুতি হিসেবে এখনই গরম জ্যাকেট, মোটা কম্বল গুলো বের করে রাখা শুরু করেছি আমরা। কিন্তু জানেন কি?? কোনমত একটা চাদর গায়ে দিয়ে শীতটা পার করেন এখানকার অনেক গরীব মানুষ!!! বিশ্বাস করতে পারবেন না, এখানকার অনেক অভাবী মানুষ আছে যাদের একটি গরম কাপড় ও নেই। আপনি যখন গরম কাপড় চড়িয়ে চা কিংবা কফির কাপ হাতে নিয়ে শীত উপভোগ করেন তাঁরা তখন সামান্য আগুনের খোঁজ করে উষ্ণতা পাবার আশায়। আর শহরের চেয়ে গ্রামের অবস্থাটা আরো করুন!

গতবছর আমরা ২ হাজারের উপরে শীতার্ত মানুষকে সহায়তা করেছিলাম। আবারো মাঠে নামতে যাচ্ছে শীতার্তদের পাশে দাড়ানোর জন্য, উদ্দেশ্য এক হাজার কম্বল বিতরন। সেই সাথে তিন হাজার জনকে পুরোনো কাপড়। তাই আপনাদের সাহায্য একান্ত প্রয়োজন। এগিয়ে আসতে পারেন আর্থিক সাহায্য দিয়ে কিংবা আপনারা অনেকে হয়তো কিছু কাপড় জমিয়ে রেখেছেন বা গ্রুপ করে এই কাজগুলো করে থাকেন। তারা আমাদের মাধ্যমে কাপড় বিতরন করতে চাইলে যোগাযোগ করুন। আমরা আগামী ১৬ ডিসেম্বর রাজশাহীর কোন প্রত্যন্ত অঞ্চলে এগুলো বিতরন করবো। গতবার আমরা রাজশাহীর তানোরের দরিদ্র মানুষের মাঝে কাপড় বিতরন করেছিলাম।

আসুন, সংঘবদ্ধভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই ইভেন্টে আজ পর্যন্ত জমা হয়েছে ৬১৮০১ টাকা ও ১৭০.৩৬ ডলার। যুক্তরাজ্য থেকে তাসলিমা আপু আমাদের আসুন, সংঘবদ্ধভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই ইভেন্টে ২০০ পাউন্ড অর্থাৎ বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ২৫,০০০ টাকা পাঠিয়েছেন। বিকাশের মাধ্যমে সারাদেশ থেকে ভাই বোনেরা পাশে দাঁড়িয়েছেন ও প্রবাসী ভাই বোনেরা পেপল ও ব্যাঙ্ক একাউন্টের মাধ্যমে অবদান রেখেছেন এই ইভেন্টে…

… বলা চলে আমরা প্রায় সাড়ে ৩০০ কম্বল কিনার জন্যে ফান্ড কালেক্ট করতে পেরেছি। টার্গেট ১৫০০ কম্বল। ১৫০০ কম্বল মানে ১৫০০ অসহায় শীতার্ত পরিবার… আপনার এগিয়ে আসার অপেক্ষায় আমরা। একটি কম্বল ২০০ টাকা, একটি অসহায় পরিবারের দায়িত্ব নিতে পারেন আপনিও।।

আর্থিক সাহায্য পাঠানোর ঠিকানাঃ
বিকাশ নাম্বারঃ
১) ০১৬৭২৪১১৪৮৭ ( পারসোনাল নাম্বার)
২) ০১৭৫৫১০৭৯৮৭ ( পারসোনাল নাম্বার)

ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টঃ

Account name: HASAN MD. ASHIQUR RAHMAN
ACCOUNT NUMBER:4202427791300
SWIFT CODE: ABBLBDDH AB BANK, RAJSHAHI BRANCH , BANGLADESH

যারা বিদেশ থেকে paypal এর মাধ্যমে টাকা পাঠাতে চাচ্ছেন , তাঁদের জন্যঃ

আমাদের পেপাল অ্যাকাউন্টঃ ashraf.sadi@gmail.com যারা পাঠাবেন প্লীজ তাঁরা অবশ্যই সাবজেক্টে এইটা লিখবেন ” Somanupatic Fund”

যারা পুরোনো কাপড় পাঠাতে চান তাঁরা আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেনঃ

বিশেষ অনুরোধঃ

১)বিকাশ করার পর অবশ্যই ঐ নাম্বারে ফোন দিয়ে কনফার্ম হয়ে নিবেন। প্রতিদিন আমাদের কাছে আশা টাকার পরিমান ও উৎস জানতে ক্লিক করতে পারেন গুগল ডকের এই লিঙ্কেঃhttp://goo.gl/7OTB8M

২) অনুগ্রহ পূর্বক আপনার বন্ধু কিংবা আত্নীয় স্বজন কে জানাবেন আমাদের ইভেন্টের কথা। চেষ্টা করবেন যেন আপনার কাছের কেউ একটু হলেও কন্ট্রিবিউট করে।

যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগঃ
_______________________

এ এন ফয়সাল আহমেদ (মেকানিক্যাল ০৯, রুয়েট) –01672411487
মোঃ শাহজাহান সিরাজ(ইটিই ০৮, রুয়েট) – 01741076781
আশিকুর রহমান অমিত (মেকানিক্যাল ০৯, রুয়েট) -01715841459

আপনিও এগিয়ে আসুন। মিলিত ভাবে শীতার্তদের পাশে দাড়াই। পূর্ব অভিজ্ঞতার আলোকে কিছু কথা বলি,

১ আমরা বিশ্বাস করি, যারা শীতার্তদের জন্য এগিয়ে এসেছেন তারা সংঘবব্ধভাবে মন থেকেই শীতটাকে রুখে দিতে চাই

২ আপনি প্রথমেই চিন্তা করুন আপনার পক্ষে এই শীতার্তদের সাহায্যে কতটুকু কি করা সম্ভব। তারপর সেটাকেই লক্ষ্য হিসেবে ঠিক করুন। এর বেশি করার প্রয়োজন হবে না। সবাই মিলে এতটুক করলেই আমরা পারবো।

৩ আপনার নিজেদের ভার্সিটিতে, স্কুলে , কলেজে , এলাকায় বা আত্বীয়স্বজনদের কাছে যান। নিজে অথবা ছোট কোনো গ্রুপ করে। শীতবস্ত্র কালেক্ট করুন বা শীতবস্ত্র কেনার জন্য অর্থ সংগ্রহ করুন।

৪ বিতরন কে,কিভাবে,কোন ব্যানারে করবে তা মুখ্য নয়। শীতার্তদের কাছে সাহায্য পৌছানোটাই মুখ্য। আর এজন্য সবার আগে বিপুল পরিমানে সংগ্রহটা জরুরী।

৫ সংগ্রহ করা হয়ে গেলে এলাকা ঠিক করুন কোথায় বিতরন করবেন। বিতরনের জন্য সেই এলাকার জনপ্রতিনিধি বা স্কুল কলেজের প্রধান শিক্ষকের সহায়তা নিয়ে বিতরন করুন।

৬ আগেই ঠিক করুন কারা কারা আসলেই শীতার্ত ও সাহায্য পাওয়ার উপযুক্ত। দরকার হলে আগেই লিস্ট করে টোকেন বিতরন করুন।

৭ আপনারা জানেন উত্তর বঙ্গের তাপমাত্রা শীতকালে শূন্যের কাছাকাছি নেমে যায়। এই এলাকায় শীতার্তরা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে থাকে ।আমরা তাই উত্তরবঙ্গেই বিতরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

৮ যদি উত্তরবঙ্গে এসে বিতরন করতে চান তবে আমরা আপনাদের ভলান্টিয়ারি সাহায্য দিতে প্রস্তুত আছি। যদি আপনাদের প্রয়োজন হয়।

৯ যদি আপনাদের নিজেদের পক্ষে সশরীরে এসে বিতরন করা সম্ভব না হয় তবে আমাদের কুরিয়ার করেও আপনার সংগৃহীত শীতবস্ত্র পাঠাতে পারেন। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও খুলনাতে আমাদের প্রতিনিধি রয়েছে যারা আপনাদের সাহায্য করবেন।

আমাদের ইভেন্টের নাম- আসুন, সংঘবদ্ধভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই..

## আমরা কারা??

সমানুপাতিক A Voluntary Group of RUETians
আমাদের পূর্বে করা ইভেন্টগুলো দেখতে পারেন অফিসিয়াল পেজের এবাউট এ গিয়ে www.fb.com/somanupatic/info

ইভেন্ট লিংক- https://www.facebook.com/events/1430679373810679/?source=1

আসুন, ইভেন্টের নামটি কে স্বার্থক করে তুলি। সংঘবদ্ধভাবেই রুখে দেই শীতটাকে।
… আপনার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন।

একটি শীতবস্ত্র হোক,একজন অসহায় শীতার্ত মানুষের অস্ত্র

এই আয়োজন এবং পোস্টের কৃতজ্ঞতায়…মোঃ শাহজাহান সিরাজ(ইটিই ০৮, রুয়েট)

৩১ thoughts on “আসুন, সংঘবদ্ধভাবে শীতার্তদের পাশে দাঁড়াই… “”একটি শীতবস্ত্র হোক,একজন অসহায় শীতার্ত মানুষের অস্ত্র””

  1. পোস্টটি স্টিকি করা হউক॥
    আপাতত

    পোস্টটি স্টিকি করা হউক॥
    আপাতত আমি নিজে কাউকে সাহায্য করতে পারছি না, তাই দু:খিত॥ তবে ভবিষ্যতে সব পুষিয়ে দিবো॥

  2. রাজশাহী থেকেও বেশি শীত পড়ে
    রাজশাহী থেকেও বেশি শীত পড়ে আরও উত্তরের জেলা যেমন দিনাজপুর, রংপুর, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁ, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম ইত্যাদি তে। আপনারা কি সেইসব জেলায় ইভেন্ট করতে পারেন? একটা প্রস্তাব দিলাম। চাইলে ভেবে দেখতে পারেন। যেহেতু গতবার রাজশাহীতেই ইভেন্ট করেছেন এইবার অন্য কোথাও করলে মনে হয় ভালো হয়। আর রাজশাহীতেই যদি হয় তাহলে এই ইভেন্টে নিজে উপস্থিত থাকার ইচ্ছে আছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করায় একটা আলাদা টান আছে এইখানকার প্রতি।

    1. ভাইরা, তিস্তার চরের মানুষরা
      ভাইরা, তিস্তার চরের মানুষরা যে কি কষ্টটা করে শীতে তা প্রতিবছর নিজ চোখেই দেখে আসছি। এখন অবশ্য সেখানে অনেক গ্রুপ শীতবস্ত্র নিয়ে যায়। এবারেও একটা যাচ্ছে। নাহলে আপনাদেরকে অনুরোধ করতাম। শঙ্খচিল ভাইয়ের সাথে সহমত। দুই জায়গা অর্থাৎ রাজশাহী ও রংপুরের থাকার কারণে এটা আমার জানা যে শীতটা রংপুর দিনাজপুর অঞ্চলেই বেশী পড়ে। আর এই অঞ্চলের মানুষের শুরু থেকেই অভাবী।

    2. পুরোপুরি সহমত শঙ্খচিলের ডানা
      পুরোপুরি সহমত শঙ্খচিলের ডানা ভাই। তবে তিস্তা পারের ওই জেলাগুলোতে দরিদ্র চ্যারিটি ফাউন্ডেশন নামের আরেকটা সংস্থা যাচ্ছে। তাই আপাতত রাজশাহীতেই আমাদের এই কার্যক্রম চালিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে যদি তারা সামাল দিতে না পারে, আমরা তো আছিই… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

      আর আপনার ইচ্ছা শুনে প্রচণ্ড উৎসাহ পেলাম ভাই। আশা করি আপনি আমাদের সাথে থেকে আমাদের ক্রমাগত উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দিয়ে যাবেন। পোস্টে যে তিনজনের সেলফোনের নাম্বার দেয়া আছে, উনারা বর্তমানে সবকিছু সমন্বয় করছেন। এই তিনজনের যে কারোর নাম্বারে একটা কল দিলেই হবে। অশেষ কৃতজ্ঞতা রইল ভাইজান… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :বুখেআয়বাবুল:

  3. কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও আর
    কুড়িগ্রাম, ঠাকুরগাঁও আর পঞ্চগড় এই তিন জেলায় যেতে পারলে ভাল হয়। আমি ওই এলাকায় কাজ করেছি কিছুদিন একটা প্রোগ্রামে, তাদের গরম কাপড় তো দূরের কথা অনেক মানুষের পরার জন্য একটার বেশি পোশাক নাই। বিশ্বাস করুন আমি মিথ্যা বলছি না। এটাই আসল চিত্র।

    1. খুব দুঃখজনক হলেও প্রচণ্ড সত্য
      খুব দুঃখজনক হলেও প্রচণ্ড সত্য কিরন ভাই… :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :ভাঙামন: :মনখারাপ: তাই আমাদের এই সামান্য প্রচেষ্টা… :ভাবতেছি: :কেউরেকইসনা: :দেখুমনা: :আমারকুনোদোষনাই:

    1. অসংখ্য কৃতজ্ঞতা জানবেন আকাশ
      অসংখ্য কৃতজ্ঞতা জানবেন আকাশ ভাই :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: … আপনার আমার এই সামান্য চেষ্টায় যদি ওই মানুষগুলো একটু ভালো থাকে, তবেই এই আয়োজনের সার্থকতা… :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

  4. গতবার একটা উদ্যোগের সাথে জড়িত
    গতবার একটা উদ্যোগের সাথে জড়িত ছিলাম। দিনাজপুরে গিয়েছিলাম আমরা। এবার কি হবে জানিনা। উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছি। যে যার সাধ্যমত এগিয়ে আসবেন আশা করি।

    1. সে এক ঐতিহাসিক অভিজ্ঞতা!
      সে এক ঐতিহাসিক অভিজ্ঞতা! স্মরনীয় সফরও বটে। দিনাজপুরে আপনার সেই ডুপ্লেক্স ভিলা আর স্টার্ট বন্ধ হওয়া মটর সাইকেল মিস কববো এই শীতে।
      শীতার্ত মানুষের পাশে দাড়ানোর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। মানুষ মানুষ নিয়ে ভাবে দেখলেই ভালো লাগে, মানুষ হিসেবে গর্ব হয়

      1. মিতু আপা, আমরা শুধু চেষ্টা
        মিতু আপা, আমরা শুধু চেষ্টা করছি মাত্র :লইজ্জালাগে: :খুশি: … সাথে থাকবেন আশা করি… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ফুল:

    2. উৎসাহ দেবার জন্য অশেষ ধন্যবাদ
      উৎসাহ দেবার জন্য অশেষ ধন্যবাদ আতিক ভাই :ধইন্যাপাতা: … আমরা সবাই মিলেই শীতের হিমশীতল ছোবল রুখবো… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :বুখেআয়বাবুল:

    1. আশা করি পাশে থাকবেন শাহিন ভাই
      আশা করি পাশে থাকবেন শাহিন ভাই … :থাম্বসআপ: :বুখেআয়বাবুল: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ:

  5. ভাল উদ্যোগ, এইধরনের ইভেন্টের
    ভাল উদ্যোগ, এইধরনের ইভেন্টের আয়োজন আমরাও করে থাকি।সাধারণত শীতের মাঝামাঝি সময়টাকে বেছে নেই।

    1. শুনে খুবই খুশি হলাম ভাই
      শুনে খুবই খুশি হলাম ভাই :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: … আপনাকেও চাই এই আয়োজনে :ভাবতেছি: … সবাই মিলেই শীতার্ত ওই মানুষগুলোকে উষ্ণ রাখব… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :বুখেআয়বাবুল:

  6. প্রতিবছর আমরা আমাদের সংগঠন
    প্রতিবছর আমরা আমাদের সংগঠন থেকে এই ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করে থাকি আশা করি এইবারও তার ব্যাতিক্রম হবেনা ।। ধন্যবাদ এই ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করার জন্য …… :ফুল:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *