জাফর ইকবাল ক্ষমা করুন আমাদের ।

‘যাঁরা আমাদের স্বজন, যাঁদেরকে পাশে নিয়ে কাজ করে এসেছি—তাঁরা যদি আমাদের পাশে না থাকেন, তাহলে বুঝতে হবে অবশ্যই এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমাদের বিদায় নেওয়ার সময় হয়েছে।’
— জাফর ইকবাল
বিশিষ্ট মানুষদের সাথে আমার কখনও দেখা হয়না । সেইরকম জাফর স্যার কে ও আমি কখনও কাছ থেকে দেখিনি । হুমায়ুন আহমেদের বই পড়ার আগে আমি তাকে ঠিক চিনতাম ও না । কার কাছ থেকে জানি স্যাররের জলমানব বইটা চুরি করে পড়ছিলাম । সেই প্রথম । তারপর তার মোটামুটি সবকটি সায়েন্সফিকশন শেষ করলাম ।

‘যাঁরা আমাদের স্বজন, যাঁদেরকে পাশে নিয়ে কাজ করে এসেছি—তাঁরা যদি আমাদের পাশে না থাকেন, তাহলে বুঝতে হবে অবশ্যই এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমাদের বিদায় নেওয়ার সময় হয়েছে।’
— জাফর ইকবাল
বিশিষ্ট মানুষদের সাথে আমার কখনও দেখা হয়না । সেইরকম জাফর স্যার কে ও আমি কখনও কাছ থেকে দেখিনি । হুমায়ুন আহমেদের বই পড়ার আগে আমি তাকে ঠিক চিনতাম ও না । কার কাছ থেকে জানি স্যাররের জলমানব বইটা চুরি করে পড়ছিলাম । সেই প্রথম । তারপর তার মোটামুটি সবকটি সায়েন্সফিকশন শেষ করলাম ।
স্যার কে প্রথম দেখছিলাম শাহবাগের মহাসমাবেশে । ওইদিন আমি মূল মঞ্চের পাশে থাকার কারণে কাছ থেকে দেখেছিলাম ।
বাংলাদেশে কেন মেধাবিরা থাকে না আজ খুব পরিষ্কার হল । স্যার আমেরিকায় ভালো চাকরি পাওয়ার পর ও শুধু মাত্র দেশপ্রেমের কারণে ফিরে এসেছেন ।
পদত্যাগ করা আমাদের দেশের মানুষদের জন্য খুব বিরল । এইটা খুব বেশি হয়না । কেন হয়না ?
অনেক মাননীয় ভিসি কীভাবে পদ আঁকড়ে রাখার জন্য একটার পর একটা ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় অচল করে রাখে। সম্মানটাই বড় বিষয় ।
কেন শুধুমাত্র নষ্ট রাজনীতির শিকার হতে হবে আমাদের বার বার । কেন নেতারা স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি হতে যান । কেন কেন কেন !!!!! আপনারা আপনাদের রাজনীতি করুন । অন্তত এই রাজনীতি থেকে শিক্ষা কে বাদ দিন । কি লাভ আপনাদের এইসব অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের সভাপতি সেক্রেটারি হয়ে । সম্মান ? যে সম্মান পাওয়ার অধিকার রাখে সে এমনিতেই সম্মান পায় ।
জামাতের এজেন্ডা বাস্তবায়ন হয়ে গেলো। তাদের জন্য খবরটা খুশির। কিন্তু বাঙ্গালীদের জন্য খবরটা লজ্জার! আশাকরি সাস্টের শিক্ষার্থীরা স্যারকে ফিরিয়ে আনতে পারবেন।
আমি জানিনা একজন আদর্শ শিক্ষক কি পরিস্তিতিতে পদত্যাগ করেন তা ভাবনার বিশয়। সবকিছু সত্যিই নষ্টদের অধিকারে যাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।

শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা জাফর স্যারকে ফেরাবে। আমার বিশ্বাস।
Salute Zafor Sir. This country is not educated enough to respect you.

১০ thoughts on “জাফর ইকবাল ক্ষমা করুন আমাদের ।

  1. আলেকজেন্ডার উপমহাদেশে পা
    আলেকজেন্ডার উপমহাদেশে পা দিয়ে অবাক হয়ে প্রধান সেনাপতি সেলুকাস কে বলেছিলেন,- ‘সত্যিই সেলুকাস। কি বিচিত্র এই দেশ!’
    সত্যিই, মাঝে মাঝে অবাক হতে ভুলে যাই আমার এই দেশের কিছু মানুষ নামের কিছু অদ্ভুত পদার্থের বিচিত্র কাজ দেখলে… :ক্ষেপছি:

    প্রচণ্ড কষ্ট হচ্ছে স্যার। এভাবেই কি আমাদের আলোকবর্তিকাগুলো আমাদের কাছ থেকে নীরবে স্বরে যাবেন?? :মনখারাপ: আবারও কি ওই মৌলবাদের হিংস্র ভয়াল থাবায় রক্তাক্ত হবে আমার বাংলা মা :মাথাঠুকি: … জাফর ইকবাল স্যার, ফিরে আসুন প্লিজ… আপনাকে এই দুর্গম বন্ধুর পথে আজ বড়ই দরকার…

    হে শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, ফিরিয়ে আনুন স্যারকে… প্লিজ… :অপেক্ষায়আছি:

  2. ‘যাঁরা আমাদের স্বজন, যাঁদেরকে

    ‘যাঁরা আমাদের স্বজন, যাঁদেরকে পাশে নিয়ে কাজ করে এসেছি—তাঁরা যদি আমাদের পাশে না থাকেন, তাহলে বুঝতে হবে অবশ্যই এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমাদের বিদায় নেওয়ার সময় হয়েছে।’
    — জাফর ইকবাল

    এভাবে হার মানলে হবেনা স্যার।আপনিইতো শিখিয়েছিলেন,দুস্টের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হয় আমৃত্যু।

  3. কিছু মানুষ এই অভাগা দেশে
    কিছু মানুষ এই অভাগা দেশে জন্মেছেন যারা বামনের দেশে গালিভারের মত; যাঁদের মূল্য আমরা সময় থাকতে বুঝিনা। জাফর ইকবাল স্যার তেমনই একজন। :মনখারাপ: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:
    আশা করছি শাবিপ্রবি প্রশাসনের বোধোদয় হবে, ফিরিয়ে আনবেন স্যারকে। :অপেক্ষায়আছি:

  4. স্যার যে আমি এত পছন্দ করি আগে
    স্যার যে আমি এত পছন্দ করি আগে সত্যিই ভাবতে পারিনি!
    :কানতেছি:

    বিশ্বাস করি স্যার অবশ্যই ফিরে আসবেন!

  5. আমিও স্যার কে প্রথম দেখছিলাম
    আমিও স্যার কে প্রথম দেখছিলাম শাহবাগের মহাসমাবেশে, মানুষের মাঝে বসে ছিল সাধারনের মতো, পরে ডেকে মঞ্চে নিয়ে আসে, তরুনের প্রতি স্যারের অনেক আভেগ ও ভালবাসা,
    ….অবশেষে স্যার থাকলেন সাস্টেই,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *