পরমাণু গল্প ১ [রিমি]

গটগট করে পাশে এসে বসল আঁচল, ” তুমি কি করছো? ”
– বই পড়ছি
: কি বই?
– উপন্যাস একটা।
: তোমার মেয়েটাকে একটু ঘুম পাড়াও না!!!
– তুমি কি করছো?
: রান্নাঘরে কাজ জমে আছে। সেগুলো করছি। তুমি যাও একটু ..।

উঠে দাঁড়ালাম, ” এ আর এমন কি কাজ!! এখনই ঘুম পাড়িয়ে দিবো ..। মামণি, কোথায় তুমি? ”

গটগট করে পাশে এসে বসল আঁচল, ” তুমি কি করছো? ”
– বই পড়ছি
: কি বই?
– উপন্যাস একটা।
: তোমার মেয়েটাকে একটু ঘুম পাড়াও না!!!
– তুমি কি করছো?
: রান্নাঘরে কাজ জমে আছে। সেগুলো করছি। তুমি যাও একটু ..।

উঠে দাঁড়ালাম, ” এ আর এমন কি কাজ!! এখনই ঘুম পাড়িয়ে দিবো ..। মামণি, কোথায় তুমি? ”

রিমি বের হলো ঘর থেকে, ” এই তো বাপি, আমি এখানে! ”
“চলো মামনি , এখন ঘুমানোর সময়!! চলো চলো!! ”

রিমিকে কাঁধে করে এনে বিছানায় শুইয়ে দিলাম। এখন গল্প বলতে হবে আমাকে। গল্প না শুনে ঘুমোতে পারে না ও।
– মামনি , আমি তো গল্প জানি না তেমন!!
: ওই যে, তুমি একটা লুপকথার গল্প বলেছিলে, ওইটা বল।
– আবার শুনবে?
: হ্যাঁ

গল্পটা বলার চেষ্টা করলাম।
গল্প বলতে বলতে আমিই তন্দ্রায় চলে গেলাম । রিমি পাশেই শুয়ে ছিলো ।দুবার বাপি বলে ডাকলো ।আমি একটু উঃ শব্দ করলাম ।
রিমি বুঝতে পারলো আমার খুব ঘুম পাচ্ছে । সে আমার কপালে একটা চুমো দিয়ে বললো, “লক্ষ্মী ছেলের মত ঘুমাও ।”

তারপর বিছানা থেকে নেমে ওর
মাকে বলতে শুনলাম, “আম্মু , বাপিকে ঘুম পাড়িয়ে দিয়ে এসেছি ….”

আঁচলের একটা হাসির শব্দ শুনলাম ।তারপর হারিয়ে গেলাম ঘুমের রাজ্যে ….

৬ thoughts on “পরমাণু গল্প ১ [রিমি]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *