কাদের সিদ্দিকি সাহেব!!

মিস্টার কাদের সিদ্দিকি,

আপনাকে আগেই বলে নিচ্ছি আমি আমার মায়ের কসম খেয়েছি, আপনার নামের সাথে আপনার বীরত্ব খেতাবটি আমি আর কোনদিন লাগাব না। লাগাব না বঙ্গবীর খেতাবটিও। আমি মনে করি এতে করে এই দুইটি খেতাবের অমর্যাদা হবে।

বেশ কিছুদিন আগে আমি আমার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছিলাম মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে। যেই সকল মুক্তিযোদ্ধা যারা রাস্তায় দাড়িয়ে ভিক্ষা করে বা রিক্সা চালায়। সেই সকল মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে যাদের সারা দিনে এক মুঠ খাবার কপালে জুটে না। আমি আজ তাদের কাছে ক্ষমা চাই। জানি আমার ক্ষমা চাওয়ার মুখ নাই তবুও চাই। হয়তো একদিন মহান আল্লাহ আমাকে সুজুগ দিবেন তাদের জন্য কিছু করার।

মিস্টার কাদের সিদ্দিকি,

আপনাকে আগেই বলে নিচ্ছি আমি আমার মায়ের কসম খেয়েছি, আপনার নামের সাথে আপনার বীরত্ব খেতাবটি আমি আর কোনদিন লাগাব না। লাগাব না বঙ্গবীর খেতাবটিও। আমি মনে করি এতে করে এই দুইটি খেতাবের অমর্যাদা হবে।

বেশ কিছুদিন আগে আমি আমার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছিলাম মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে। যেই সকল মুক্তিযোদ্ধা যারা রাস্তায় দাড়িয়ে ভিক্ষা করে বা রিক্সা চালায়। সেই সকল মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে যাদের সারা দিনে এক মুঠ খাবার কপালে জুটে না। আমি আজ তাদের কাছে ক্ষমা চাই। জানি আমার ক্ষমা চাওয়ার মুখ নাই তবুও চাই। হয়তো একদিন মহান আল্লাহ আমাকে সুজুগ দিবেন তাদের জন্য কিছু করার।
কিন্তু আজ মনে হচ্ছে আমাকে তারা ক্ষমা করলেও আপনাকে তারা কোন দিন ক্ষমা করবে না। করতে পারে না। কারন কি জানেন? আপনি রাজাকারের টাকার কাছে বিক্রি হয়ে নিজের সাথে সাথে তাদের কেও অপমান করেছেন।

সেই দিন দেখলাম প্রজন্ম চত্বরের স্লোগানকে ব্যাঙ্গ করে আপনি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনে লিখেছেন “ রাজাকারের ফাঁসি চাই , মুক্তি যোদ্ধাদের খবর নাই”
এই কথাটি যখন ঐ পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধার কানে পৌঁছাবে যে শাহবাগে স্লোগান দিছে, দিচ্ছে তরুণদের উৎসাহ তখন তার কি ইচ্ছা করবে জানেন? আবার হাতে থ্রি নট থ্রি তুলে নিতে। আবার যুদ্ধে যেতে। খতম করতে আপনার মত নব্ব রাজাকার কে।
সেই মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে যদি খবর যায় আপনার এই কথাটি যারা তরুণদের পাহারা দিবে বলে পণ করে শাহবাগে বসে আছে। যারা ঐ সব তরুণদের জামাত শিবিরের আততায়ীর হাত থেকে বাচাবে বলে বসে আছে। তারাও আপনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করবে।

আপনার মত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে যেখানে তরুণ প্রজন্মের গর্ব করার কথা ছিল, আপনার মত বীর হওয়ার স্বপ্ন দেখার কথা ছিল তাদের, সেখানে আজ আপনার নাম শুনলে তারা ঘৃণায় মুখ ফিরিয়ে নেয়।

মজার ব্যাপার কি জানেন? আমার বাসার আমার ছোট্ট ভাগ্নি যখন আপনাকে দিগন্ত টিভিতে দেখে তখন আমাকে জিজ্ঞাস করে মামা ও কি রাজাকার? আমি লজ্জায় জবাব দিতে পারি না। কিভাবে বলি নারে মা ওনারে নিয়া আমাদের গর্ব করার কথা উনি রাজাকার ছিলেন না। কিন্তু আজ তিনি নিজেকে বিক্রি করে দিয়েছেন রাজাকারদের কাছে।
নাহ আপনার দাড়ি দেখে কিন্তু সে এই কথা বলে নাই, আমার আব্বারও দাড়ি আছে উনি একজন মুক্তিযোদ্ধা।
জানেন আমার ভাগ্নিটি আমার আব্বাকে দেখলে দাড়িয়ে যায় । কেন জানেন? সে জানে আমার আব্বা তাকে দেশ দিয়েছে। দিয়েছে স্বাধীন জন্মভূমি।
আপনাকেও কিন্তু ঐ ভাবেই চেনার কথা ছিল, কিন্তু সে চিনল না। সে জানে দিগন্ত রাজাকারের টিভি। আমরাই তাকে তা বলেছি। তার জানা উচিত বলেই বলেছি। তাই সে আপনাকে রাজাকার হিসাবে ধরে নিয়েছে।
যাকগে সে সব কথা।

আজ টিভি তে দেখলাম শাহবাগ প্রজন্ম চত্বরে আমার বয়সী এক ভাই প্লে কার্ড নিয়ে গেছে আপনার নামে। কি লেখা জানেন? “কাদের সিদ্দিকি আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের আর অপমান করবেন না। আর জামাতের দালালি করবেন না।”
ভাবতে পারেন ওইখানে আপনার প্রতি কতটা ঘৃণা লুকিয়ে ছিল? কতটা কষ্ট লুকিয়ে ছিল।

আমার মনে হয় না আপনি কোনদিন ক্ষমা পাবেন কারো কাছে। না নতুন প্রজন্মের তরুণ যোদ্ধাদের কাছে। না ৭১-এর আপনার সহযোদ্ধাদের কাছে।
তবুও বলব দেশের মানুষের কাছে ক্ষমা চান। বাঙ্গালীরা ক্ষমা করতে জানে।
আর নিজেকে ঘৃণিত করবেন না।
আর মুক্তিযোদ্ধাদের কষ্ট বারাবেন না।
আর অপমান করবেন না আমার বঙ্গ মাতাকে।

৬ thoughts on “কাদের সিদ্দিকি সাহেব!!

  1. কাদের সিদ্দিকীর অনেক দুর্নীতি
    কাদের সিদ্দিকীর অনেক দুর্নীতি আছে। সে সরকার থেকে টাকা নিয়ে খাম্বা করছে কিন্তু আর কাজ করে নি। সব কিছু মেনে নিতাম কিন্তু রাজাকারদের সাথে হাত মেলানোর পর আর ছাড় দেওয়া সম্ভব না। টাকার জন্য সবাই বিক্রী হয় এটা ভুল। আশেপাশের অনেক সাধারণ মানুষ দেখি যারা হাজারো অভাবে থেকেও রাজাকারের ব্যাংক থেকে শুরু করে কোন কিছু থেকে সুযোগ পেলেও নেয় না। কিন্তু আপনি মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করলেন। আপনাকে আমি রাজাকার বলব না তবে আপনি আমার কাছে আর মুক্তিযোদ্ধা নন।

    লেখা ভাল হয়েছে।

  2. কাদের সিদ্দিকী রাজাকারও না,
    কাদের সিদ্দিকী রাজাকারও না, মুক্তিযোদ্ধাও না। এইটা একটা চরম টাইপের ভন্ড, প্রতারক। আর রাজাকার এখন একটা গালি। তাকে এই গালিটা দিতে পারলে মনটা ঠান্ডা হয়।

    ভাল লিখছেন। :থাম্বসআপ:

  3. এরচে জোরে চড় মারা বোধ হয়
    এরচে জোরে চড় মারা বোধ হয় সম্ভব না। এই লোকটাকে যতই দেখি ততই বিস্ময়ে হতবাক হই।
    লেখা অত্যন্ত জোরাল হইছে। :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  4. আমি কাদের সিদ্দিকি সম্পর্কে
    আমি কাদের সিদ্দিকি সম্পর্কে যা শুনেছি তাতে তার কাছ থেকে রাজাকারদের পক্ষ নিয়ে কথা বলাটা আমার কাছে দু:ক্ষ জনক। এটা আশা করি নাই। সে একজন মুক্তিযোদ্ধা হয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের বিরোধিতা করে কেমনে ? বাবার কাছে তার সম্পর্কে ইতিবাচক যা কিছু শুনেছি এবং এই মুহুর্তে যা দেখছি ঐ শোনা আর এই দেখা ও শোনা কে কিভাবে কিরুপ বিচার করব তার সম্মন্ধে বুঝতে পারছি না। :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

Leave a Reply to এম আর খান Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *