প্রতিদানে তবুও বন্ধু হতে চাই…

২/৩দিন আগে আমার ফেসবুকের আইডিটা হ্যাক হয়েছিল… ২টা দিন একটা অপ্রীতিকর সময়ের মধ্যদিয়ে যেতে হয়েছে আমাকে। আজ বিকেলে আইডিটা রিকভার করার পর তাই একটা দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিলাম। ফেসবুক স্ট্যাটাস ব্লগে শেয়ার করার একটা কারণ আছে… ইস্টিশনের কিছু স্বজন-বান্ধব ঐ ২দিন আমাকে যে মানসিক সাপোর্ট দিয়েছে তা ভোলার নয়! তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেই মূলতঃ এটা পোস্ট দেয়া। ২/১জনের নাম বিশেষ ভাবে বলতে ইচ্ছা করছে… কিন্তু ইস্টিশন একটা পরিবার। এখানে কারো নাম উল্লেখ করে বেশি ভালোবাসা প্রকাশের কারণ দেখি না! ওরা তো জানেই কার কার নাম বলব…!

২/৩দিন আগে আমার ফেসবুকের আইডিটা হ্যাক হয়েছিল… ২টা দিন একটা অপ্রীতিকর সময়ের মধ্যদিয়ে যেতে হয়েছে আমাকে। আজ বিকেলে আইডিটা রিকভার করার পর তাই একটা দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিলাম। ফেসবুক স্ট্যাটাস ব্লগে শেয়ার করার একটা কারণ আছে… ইস্টিশনের কিছু স্বজন-বান্ধব ঐ ২দিন আমাকে যে মানসিক সাপোর্ট দিয়েছে তা ভোলার নয়! তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেই মূলতঃ এটা পোস্ট দেয়া। ২/১জনের নাম বিশেষ ভাবে বলতে ইচ্ছা করছে… কিন্তু ইস্টিশন একটা পরিবার। এখানে কারো নাম উল্লেখ করে বেশি ভালোবাসা প্রকাশের কারণ দেখি না! ওরা তো জানেই কার কার নাম বলব…!
[বিঃদ্রঃ এতো আনন্দিত হবার আরো একটা কারণ হচ্ছে- “সামু’র আইডিটা একেবারেই বরবাদ হয়ে গেছে” এটা যতটা না কষ্টের তারচেয়ে বেশি কষ্ট হতো যদি ইস্টিশনের আইডিটা হ্যাক হতো! সামু হচ্ছে হাট-বাজার… ওখানে তেমন কেউ আমাকে চেনে না। হাট-বাজারে পকেট মারের হাতে সব খোয়া গেলে কষ্ট হয়, তবে সেটা মেনে নেয়া যায়। কিন্তু পরিবারের (ইস্টিশনের) লোকেরা ভুল বুঝলে সেই দুঃখ সইবার নয়…! ভাগ্যিস তেমন কিছু হয়নি! আল্লাহর কাছে সেজন্য অশেষ শুকরিয়া…]
==========================০===============================

আল্লাহ যা করেন তা ভালোর জন্যই করেন… (আলহামদুলিল্লাহ!)

কথাটা সব সময় শুনে আসছি… কিন্তু আমার আইডিটা যে গত ১২ তারিখ থেকে ১৪ তারিখ পর্যন্ত হ্যাকড ছিল- এর ভাল দিক কী কে জানে? আমার মত একজন নিরিহ মানুষের আইডি হ্যাক করে হ্যাকারের কী লাভ হয়েছে জানি না। তবে হ্যাকার যে খুব গুণী লোক- তাতে কোন সন্দেহ নাই! সে প্রথমে আমার জিমেইল আইডি হ্যাক করেছে। সেখান থেকে সে একই সাথে আমার ফেসবুক, “সাম হোয়্যার ইন ব্লগ”, আমার এক কাজিনের জিমেইল ও ফেসবুক আইডি হ্যাক করেছে! তাতে করে তার যে খুব লাভ হয়েছে তা নয়…
তবে আপাতত আমার যা যা ক্ষতি হয়েছে তা হলঃ
১. গুগুল ড্রাইভে কিছু ব্লাড ডোনারের তথ্য ছিল সেখান থেকে Jafrin Barsha আপুর নাম্বারে ফোন করে তাকে হয়রানি করা হয়েছে যার ফলে জাফরিন আপু আমার ওপর (খুব সম্ভবতঃ) কিছুটা বিরক্ত হয়ে আছেন…!
২. “সামু”তে আমার অনেক মূল্যবান কিছু পোস্ট ছিল যেগুলোর কোন ব্যাকআপ কপি আমার কাছে নেই। সেই সাথে ছিল সেসব পোস্টে অনেক তথ্যবহুল কিছু কমেন্ট। হ্যাকার আমার সবগুলো পোস্ট চিরতরে ডিলেট করে দিয়েছে।
৩. আপন ছোটভাই সম Vodro Chele (মাফি) ও Niloy Nir, বন্ধু Faisal H Talukder, Rasel Ahmed ও Mómiñül Islám Hridóysñ, Shams Uddin Nayeem Shovan, অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় বড়ভাই Munshi Ashik Mahmud আর বোন তুল্য Puspita Priya ও Tania Afrin এর সাথে প্রচণ্ড অশালীন ভাষায় নোংরা কথা বলে আমার ব্যক্তি ইমেজ নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছে।
৪. বিভিন্ন পোস্টে অশালীন কথা বলে বিভ্রান্ত করা হয়েছে ইমরান হোসেন ভাইয়ের মত অনেক সল্প পরিচিত বন্ধুদের যারা ঠিক আমার সম্পর্কে পূর্ণাংগ ধারনা না থাকায় প্রচণ্ড ভুল বোঝা বুঝির সৃষ্টি হয়েছে।
৫. কয়েকটা অশালীন পেজে লাইক দিয়ে সেসব পেজে ফ্রেন্ড লিস্টের সবাইকে ইনভাইট করে ও পোস্ট শেয়ার করে ফ্রেন্ড লিস্টের সবাইকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলে দিয়েছে…

সর্বশেষ পয়েন্টটা আমার সবচেয়ে বেশি খারাপ লেগেছে। কারণ আমার প্রোফাইল ইনফো বা টাইম লাইনে সে যা যা লিখেছে সেটা তার নিজের কুরুচিপূর্ণ মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ… তাতে আমার খুব একটা কিছু এসে যায় না। কিন্তু আমার টাইম লাইনে শেয়ার করা পোস্টগুলো আমার ফলোয়ার ও ফ্রেন্ডলিস্টের সবাইকে যে পরিমান বিব্রত করেছে সেটা একেবারেই অন্যায়। শত্রুতা যদি কিছু থেকে থাকে তো সেটা ছিল আমার সাথে… আমার জন্য আমার নিরাপরাধ “ফ্রেন্ড”দের বিব্রত করাটা আমাকে সবচেয়ে বেশি আহত করেছে… এজন্য আমি প্রত্যেকের কাছে আলাদা ভাবে দুঃখিত ও ক্ষমা প্রার্থি!

এতো কিছুর পরেও কিছু “ভাল” কিন্তু সত্যিই হয়েছে! নিউটনের গতি জড়তার তৃতীয় সূত্র অনুযায়ী “প্রত্যেক ক্রিয়ারই… …” আর এই স্ট্যাটাসের প্রথম লাইনটার স্বার্তকতাও বুঝি এটাই!
আমার আইডির এই দুই দিন হ্যাক হয়ে থাকার কিছু “ভাল” দিক হলো-
১. ১২ তারিখ রাত থেকেই আমি প্রতি ঘণ্টায় প্রায় ৪/৫টা করে ফোন পেয়েছি… এরা প্রত্যেকেই আমার শুভাকাঙ্খি এবং আমার আইডি থেকে শেয়ার হওয়া পোস্টগুলো দেখেই তাদের সন্দেহ হয়েছে বলে ফোন করেছে শিউর হবার জন্য! অনেক সল্প পরিচিতরা পর্যন্ত আরেকজনের কাছ থেকে আমার নাম্বার জোগাড় করে তারপর ফোন দিয়েছে! আমার অনলাইনের ভার্চুয়াল জীবনে সবচেয়ে বড় স্বার্থকতা বোধহয় এটাই যে আমাকে সত্যি সত্যি কিছু লোক এতোটা ভালোবাসে, এতোটাই বিশ্বাস করে আর আমার সম্পর্কে তারা এতোটাই উচ্চ ধারনা পোষণ করে যে সামান্য বাচনভঙ্গির পরিবর্তনেই তারা বুঝে ফেলে এটা সফিক এহসান-এর ভাষ্য নয়! আর যাই হোক আমি কিছু লোকের মাঝে “সফিক এহসান” এর একটা সাবলীল প্রতিমা তৈরী করতে পেরেছি… তারা এর নাড়ি নক্ষত্র জানে! মানুষের বিশ্বাস অর্জন করার চেয়ে বড় পাওয়া এই দুর্মূল্যের বাজারে আর কী হতে পারে?
২. কিছু কিছু ফেসবুক সেলিব্রেটি আছে যারা স্বভাবতই ফ্রেন্ডলিস্টের সাধারণ ফ্রেন্ডদের নোটিফিকেশন (পোস্ট/লাইক/কমেন্ট) নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় পান না। অথচ আমার আইডি থেকে “অস্বাভাবিক নোটিফিকেশন” পাওয়া মাত্র পাভেল মহিতুল আলম -এর মত ফেসবুক সেলিব্রেটি আমাকে সেটা ম্যাসেজ করে জানিয়েছে! যদিও সে হয়তো এখনও আমার সম্পর্কে একটা বাজে ধারনা নিয়ে বসে আছে… কিন্তু তবুও সে যে আমার কার্যকলাপে অনুরিত হয় এটাই বা আমার জন্য কম কিসে?
৩. খারাপের ভাল আরেকটা হলো- কিছু কিছু ফ্রেন্ড চ্যাটে তাদের অনেক গোপন বাসনা প্রকাশ করেছেন! (জাস্ট কিডিং… কারণ আমি জানি আপনারা হ্যাকার নিশ্চিত হয়েই কথাগুলো বলেছেন, সিরিয়াসলি নয়।) তবে সেখান থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে…!
যেমনঃ গাজি ফাতিহুন নূর -এর কাছে আমি ২০০ টাকা পাই, এটা যে সে ভুলে নাই সেটা সে হ্যাকারকে পর্যন্ত স্বাক্ষী রেখে বলে বুঝিয়ে দিয়েছে! [গাজির জন্য তাই একটা বিঃদ্রঃ তোর যদি টাকাটা নিয়ে মনের ভেতর কোন খচখচানি থেকেই থাকে তো যেকোন সময় দিয়ে দিস। তুই ফেরত দিলে আমি নেব না- এমন ভাবার কোন কারণ নাই! ]
৪. সর্বপরি আমাকে হ্যাকার চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে- আমি যে সরল মনে গণ হারে যে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করি আর ভাবি “সব মানুষই আসলে ভাল!” সেটা একদমই সঠিক নয়। “আমার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টের প্রায় এক হাজার “ফ্রেন্ড” এর মধ্যেই ঠিকই তার মত নোংরা মানসিকতার একজন লুকিয়ে আছে” -এই শিক্ষাটা আমার দরকার ছিল…! কারণ আমি আগে ভাবতাম- যেহুতু আমি রক্তের পোস্ট দেয়া সহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী কাজ করি তাই আমার ফ্রেন্ড লিস্টে যত বেশি মানুষ থাকবে ততই কাজটা বেশি ইফেক্টিভ হবে। এজন্য কেউ ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠানো মাত্র যাচাই বাছাই না করেই তাকে একসেপ্ট করার বদভ্যাসটা আমার আছে… হ্যাকার আমাকে জানিয়ে দিলো- নিজেকে এতোটা “পাবলিক প্রোপার্টি” বানানো ঠিক না।

সে যাকগে। শেষ কথা হলো- আইডিটা ফেরত পাবার ক্ষেত্রে বিপদের বন্ধু Sufian Sanaul আর তার ছোটভাই Sujan অনেক কষ্ট করেছে। সাহায্য করেছে Md Al-amin ভাইও…
তাদের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। (যদিও তারা আবার আগেই KFC-তে খাওয়ার বায়না ধরে রেখেছে… এটা আবার একটা “ভালোর খারাপ”!) অন্যান্য ভাবে সাহায্য করেছেন Jewel Sarker ভাই ও Rasel মামা… তাদের প্রতিও রইল পাহাড় সম কৃতজ্ঞতা।

তবে শেষ করার আগে যে কথাটা না বললেই নয়, সেটা হচ্ছে- জনাব হ্যাকার…!
যেহুতু আমি কাউকেই আমার ফ্রেন্ডলিস্ট থেকে ডিলেট করিনি সেহেতু আমি জানি আপনিও এই স্ট্যাটাসটি পড়ছেন। দেখুন, আমি চাইলেই গণহারে সন্দেহভাজন সবাইকে “আনফ্রেন্ড” করে দিতে পারতাম। আপনার ইমেইল আইডি ও মোবাইল নাম্বারগুলো আমার কাছে আছে, আমি চাইলে ওগুলো ব্যবহার করে আপনার বিরুদ্ধে বিভিন্ন এঙ্গেলে ব্যবস্থাও নিতে পারতাম। (কারণ, এটা ভাবার কোন কারণ নেই যে- আপনার চেয়ে বড় কোন হ্যাকার কিংবা আইন-শৃংখলা বাহিনির উচ্চপদস্থ কেউ আমার পরিচিত বন্ধু-বান্ধবের মাঝে নেই।) নিদেনপক্ষে আপনাকে মুখ ভরে গালাগাল তো করতে পারতামই…!
কারণ, আপনার সাথে আমার শত্রুতা তেমন কিছু ছিল না। ছিল খুব বড়জোর কিছু যুক্তি-তর্কের কটূক্তি… যুক্তির বিপরীতে যুক্তি দিয়েই পরাস্থ করা উচিৎ।
সেটার প্রতিদানে কারো আইডি হ্যাক করে তাকে লোকের চোখে অপদস্ত করার মাঝে কোন বীরত্ব বা প্রাসংগিকতা নেই। এটা নিতান্তই বিকৃত মানসিকতার পরিচয়…!
কিন্তু তবু আমি সেসব কিছুই করতে চাই না। আপনি বিশ্বাস করুন আর না-ই করুন, আমি কেবল মাত্র আপনাকে ডেডিকেট করেই আমার কভার ফটোটি আপলোড করেছি! আমি মিত্রতায় বিশ্বাসী- শত্রুতায় নয়…
যা হোক, এখনও আমার ২টা জিমেইল আইডি এবং একটা ব্লগ ও একটা ফেবু আইডি আপনার দখলে আছে… ওগুলো আপনার কাছে রেখে দিলেও আদৌ আপনার কোন কাজে আসবে না। আর এই আইডিটা যেহেতু রিকভার করতে পেরেছি সেহেতু ওগুলোও পারবো- এটা জেনে রাখুন। তবে আপনি চাইলে শত্রুতা ভুলে আমাকে আর কষ্ট না করিয়ে নিজেই আইডিগুলো ফেরত দিতে পারেন… (জাস্ট আইডি ও পাসওয়ার্ডগুলো মোবাইলে ম্যাসেজ করে দিলেই হবে) তাতে করে আমার এবং আরো অনেকেরই কিছুটা উপকার হবে আরকি!

আমি আপনার দেয়া সকল আঘাত ভুলে বন্ধুত্বের হাত প্রসারিত করে বসে রইলাম। হাতটা ধরা না ধরা একান্তই আপনার ব্যাপার…!

-সফিক এহসান
১৫ নভেম্বর ২০১৩
(অপরাহ্ন)

৫ thoughts on “প্রতিদানে তবুও বন্ধু হতে চাই…

  1. আপনার আইডি থেকে কিছু অশ্লীল
    আপনার আইডি থেকে কিছু অশ্লীল পেইজের লাইক ইনভাইটেশন পেয়ে ভেবেছিলাম বোধ হয় স্প্যামিং হচ্ছে। অনেক সময়ই হয় এরকম। ভেবেছিলাম আপনাকে ম্যাসেজ দেবো। ম্যাসেজ দিলে লাভ হতো না। কারন ওটা যে হ্যাক হয়েছিলো সেটা আমার জানা ছিলোনা। পরে আপনার খোলা নতুন আইডির ম্যাসেজ পেয়ে জানলাম। এইসব হ্যাক থুঃ গ্রুপ এসব করে কি মজা পায় কে জানে? এদের বোধ হয় খেয়ে দেয়ে কোন কাজ নেই। কে কেমন সেটা মনে হয় অয়াবলিক জানে না। তাই বাজে জিনিস শেয়ার দিয়ে ইমেজ নষ্ট করার প্রচেষ্টা হাস্যকর। যাই হোক, আইডি ফেরত পেয়েছেন এটাই সুখবর। ইমেইল এবং ফেসবুকের সিকিউরিটি বাড়ান। বেশ কিছু অপশন আছে সিকিউরিটি বাড়ানোর। আর অপরিচিত আইডির রিকু যে হুট করে একসেপ্ট করা উচিৎ না সেই শিক্ষা হয়েছে নিশ্চয়ই? আমি যে করিনা সেটা তো নিজেই টের পাইছেন। জীবন ঠেকে নেওয়া শিক্ষা। 😀

    1. সফিক ভাই এর আইডিতে ফুল
      সফিক ভাই এর আইডিতে ফুল সিকুরিটি দেয়া ছিল। লগ ইন এপ্রুভাল সহ।
      হ্যাকার আগে জিমেইল আইডি হ্যাক করেছে। আমার ধারণা মত সফিক ভাই ফিসিং সাইটের ক্ষপ্পরে পরে ছিল। এর পর ফেসবুক হ্যাক হল। সফিক ভাই যখন প্রথম বার রিকভার করলো তখন আগের ইমেইল মোবাইল নম্বর সব রিমুভ দিয়েছিল। কিন্তু হ্যাকার মশাই বড্ড চতুর্। সে ইতি মধ্যেই মেবি সিকুরিটি কশ্চেন এড করে দিয়েছিল। ইমেইল রিমুভ দেয়ার পর ইমেইল এ একটা ইমেইল যায় । যে ইমেইল রিমুভ যদি আপনি না করেন এই লিঙ্কে যান। ওখান থেকে ইজি এক্সেস সিস্টেমের মাধ্যমে পাসওয়ার্ড ছাড়াই লগ ইন করে কিছু ঝামেলা বাধায় লগ ইন এপ্রুভাল। সেটাও বাই পাস করে। এটার সিস্টেম আমার জানা নেই এটা আজ পর্যন্ত বাই পাস করতে পারি নাই আমি। দেন এখানে হ্যকার মশাই এর সাহায্য করে সেই সিকুরিটি কশ্চেন। আইডেন্টি ফাই করে আবার হ্যাক ।

      আর কত সিকুরিটি দেবে বস???

  2. কি অবস্থা! খ্যাতির বিড়ম্বনা
    কি অবস্থা! খ্যাতির বিড়ম্বনা বোধহয় একেই বলে! হ্যাকার মহাশয়কে শুদ্ধ ভাষায় যা বলেছেন তাতে তার মাথায় যদি ঘিলু থাকে (থাকার কথা না, কিন্তু তারপরও…) তাহলে লাইনে চলে আসবে বলে মনে হয়।
    আর নিতান্তই যদি কিছু না হয় তাহলে আধ্যাত্মিক পথ ধরেন। আপনার হ্যাকড মেইলের জন্য একটা গায়েবানা জানাজা পড়ায় দেন। বহুত ফায়দা হবে। জানাজা শেষে তবারকের ব্যাবস্থা রাখবেন আশা করি। তবারক ছাড়া আজকাল দোয়া খায়ের করতে ইচ্ছা করে না।

    :ভেংচি:

    1. বিঃদ্রঃ আইডি পুনঃরুদ্ধার করা
      বিঃদ্রঃ আইডি পুনঃরুদ্ধার করা গেছে এবং সে উপলক্ষ্যে তবারকের ব্যাবস্থাও করা হয়েছে!
      সো আমার টাইম লাইনে চোখ রাখুন!
      😀

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *