তোমার জন্য

তুমি থাকো দিগন্ত রেখা হয়ে নীলিমা জুড়ে জোছনা ভাঙা বালুচরে
ক্যামেরায় ফ্রেমে বন্দি অথবা রঙ্গ তুলিতে আঁকা ‘মেঘ’ তুমি তপ্তখরা শেষে
আমি ভিজে যাই,ভিজে যাই তোমার প্রবল ভালোবাসার শ্রাবণে
স্বপ্নীল কোনো এক দীপ্তি রয়ে যায় যত দূরে যেতে চাই নিলীমার পথে।

তোমায় ঘিরে কত অবুঝ চাওয়া,একা একা ছুটে যাওয়া, কত দূরের পথ
ক্লান্তিরা সব নীলিমার পানে মুগ্ধ চোখে নিরবে চেয়ে আকাশে হারিয়ে যাক।
আবছা ঘরের কোণ, ধুলো মাখা বইয়ের তাক অথবা শ্রান্ত ঘুঘুর ডাক,
অলস মেঘলা মন যেন বলে চলছে,তারা সব আজ তোমার অপেক্ষাতেই থাক।

তোমার জন্য রৌদ্র মেখে দূর আকাশে মেলে দেয় গাঙচিল ডানা

তুমি থাকো দিগন্ত রেখা হয়ে নীলিমা জুড়ে জোছনা ভাঙা বালুচরে
ক্যামেরায় ফ্রেমে বন্দি অথবা রঙ্গ তুলিতে আঁকা ‘মেঘ’ তুমি তপ্তখরা শেষে
আমি ভিজে যাই,ভিজে যাই তোমার প্রবল ভালোবাসার শ্রাবণে
স্বপ্নীল কোনো এক দীপ্তি রয়ে যায় যত দূরে যেতে চাই নিলীমার পথে।

তোমায় ঘিরে কত অবুঝ চাওয়া,একা একা ছুটে যাওয়া, কত দূরের পথ
ক্লান্তিরা সব নীলিমার পানে মুগ্ধ চোখে নিরবে চেয়ে আকাশে হারিয়ে যাক।
আবছা ঘরের কোণ, ধুলো মাখা বইয়ের তাক অথবা শ্রান্ত ঘুঘুর ডাক,
অলস মেঘলা মন যেন বলে চলছে,তারা সব আজ তোমার অপেক্ষাতেই থাক।

তোমার জন্য রৌদ্র মেখে দূর আকাশে মেলে দেয় গাঙচিল ডানা
তুমি পথচলা,একা কথা বলা, দুচোখে বেঁধেছ মায়ায়, হৃদয়ে ফেলেছ ছায়া।
বহু দূরে কোন খোলা জানালায় খেলে যখন অবেলায় উদাসী মেঘেরা
তেমনি কোন বাদলা দিনে, তুমি বৃষ্টি হয়ে ঝরে পরো মেঘ হয়ে থেকো না।

২ thoughts on “তোমার জন্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *