আমার প্রিয় কিছু হুমায়ূন আজাদ প্রবচন

হুমায়ূন আজাদের প্রবচন ভাল্লাগে।অবসর সময়ে এগুলো পড়লে মজা পাই।কেউ যদি আমার কাছে অবসর সময় উৎকৃষ্টভাবে কাটানোর পরামর্শ চায় আমি বলব হুমায়ূন আজাদের প্রবচন পড়।

পছন্দের কিছু প্রবচন সংগ্রহ করার চেষ্টা করলাম।

[১]
মানুষ সিংহের প্রশংসা করে, কিন্তু আসলে গাধাকেই পছন্দ করে।

[২]
আগে কারো সাথে দেখা হলে জানতে ইচ্ছে হতো সে কী পাশ। এখন কারো সাথে দেখা হলে জানতে ইচ্ছে করে সে কী ফেল।



হুমায়ূন আজাদের প্রবচন ভাল্লাগে।অবসর সময়ে এগুলো পড়লে মজা পাই।কেউ যদি আমার কাছে অবসর সময় উৎকৃষ্টভাবে কাটানোর পরামর্শ চায় আমি বলব হুমায়ূন আজাদের প্রবচন পড়।

পছন্দের কিছু প্রবচন সংগ্রহ করার চেষ্টা করলাম।

[১]
মানুষ সিংহের প্রশংসা করে, কিন্তু আসলে গাধাকেই পছন্দ করে।

[২]
আগে কারো সাথে দেখা হলে জানতে ইচ্ছে হতো সে কী পাশ। এখন কারো সাথে দেখা হলে জানতে ইচ্ছে করে সে কী ফেল।

[৩]
‘মিনিস্টার’ শব্দের মূল অর্থ ভৃত্য। বাঙলাদেশের মন্ত্রীদের দেখে শব্দটির মূল অর্থই মনে পড়ে।

[৪]জনপ্রিয়তা হচ্ছে নেমে যাওয়ার সিঁড়ি।অনেকেই আজকাল জনপ্রিয়তার পথে নেমে যাচ্ছে।

[৫]
আমাদের অঞ্চলে সৌন্দর্য অশ্লীল, অসৌন্দর্য শ্লীল।রুপসীর একটু নগ্ন বাহু দেখে ওরা হৈ চৈ করে, কিন্তু পথে পথে ভিখিরিনীর উলঙ্গ বাহু দেখে একটুও বিচলিত হয় না।

[৬]
বাঙালি মুসল্মানের এক গোত্র মনে করে নজরুলই পৃথিবীর একমাত্র ও শেষ কবি। তাদের আর কোন কবির দরকার নেই।

[৭]
বাঙালি যখন সত্য কথা বলে তখন বুঝতে হবে পেছনে কোন অসৎ উদ্দেশ্য আছে।

[৮]
আবর্জনাকে রবীন্দ্রনাথ প্রশংসা করলেও আবর্জনাই থাকে।

[৯]
বেতন বাঙলাদেশের এক রাষ্ট্রীয় প্রতারণা।এক মাস খাটিয়ে এখানে পাঁচ দিনের পারিশ্রমিক দেওয়া হয়।

[১০]
শিক্ষকের জীবন থেকে চোর ,চোরাচালানি, দারোগার জীবন অনেক আকর্ষণীয়। এ সমাজ শিক্ষক চায় না চোর-চোরাচালানি-দারোগা চায়।

[১১]
বাঙালি একশ ভাগ সৎ হবে, এমন আশা করা অন্যায়।পঞ্চাশ ভাগ সৎ হলেই বাঙালিকে পুরস্কার দেওয়া উচিৎ।

[১২]
এরশাদের প্রধান অপরাধ পরিবেশ দূষণ : অন্যান্য সরকারগুলো পুরুষদের দূষিত করছে, এরশাদ দূষিত করছে নারীদেরও।

[১৩]
বাঙালি আন্দোলন করে, সাধারণত ব্যর্থ হয়, কখনোকখনো সফল হয়; এবং সফল হওয়ার পর মনে থাকেনা কেন আন্দোলন করেছিল।

[১৪]
একটি নির্বোধ তরুণীর সাথে আধঘণ্টা কাটালে যে জ্ঞান হয়, আরিস্ততলের সাথে দু-হাজার বছর কাটালেও তা হয়না।

[১৫]
তৃতীয় বিশ্বের নেতা হওয়ার জন্য দুটো জিনিশ দরকার: বন্দুক ও কবর।

[১৬]
এদেশে সবাই শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক : দারোগার শোকসংবাদেও লেখা হয়, “তিনি শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক ছিলেন!”

[১৭]
বাঞ্চিতদের সাথে সময় কাটাতে হলে বই খুলুন, আর অবাঞ্চিতদের সাথে সময় কাটাতে হলে টেলিভিশন খুলুন।

[১৮]
ধনীরা যে মানুষ হয়না তার কারণ তারা কখনো নিজের অন্তরে যায়না।দুঃখ পেলে ব্যাংকক যায়, আনন্দে আমেরিকা যায়।কখনো ওরা নিজের অন্তরে যেতে পারেনা, কেননা অন্তরে কোন বিমান যায়না।

[১৯]
কারো প্রতি শ্রদ্ধা অটুট রাখার উপায় হচ্ছে কখনো তার সাথে দেখা না করা।

১৯ thoughts on “আমার প্রিয় কিছু হুমায়ূন আজাদ প্রবচন

  1. মানুষ হিসেবে তিনি কেমন ছিলেন
    মানুষ হিসেবে তিনি কেমন ছিলেন তা আমার জানা নেই তবে লেখক হিসেবে তিনি এক নতুন অধ্যায়ের সূচনাকারী….

  2. অত্যধিক সত্য প্রবচন। আগে
    অত্যধিক সত্য প্রবচন। আগে ইস্টিশনে ড.আজাদের ২০০টা প্রবচন নিয়ে একটা পোস্ট হয়েছিলো। :থাম্বসআপ:

    1. এমন কি প্রতি মাসে কেউ না কেউ
      এমন কি প্রতি মাসে কেউ না কেউ নিজ দায়িত্বে জাতীয় স্বার্থে এই কাজখানা করতে পারে… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :bow: :bow:
      স্যার-কে স্যালুট নিরন্তর :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute: :salute:

  3. লেখককে।
    এবং হুমায়ুন আজাদ

    :গোলাপ: :গোলাপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :তালিয়া: :তালিয়া: লেখককে।
    এবং হুমায়ুন আজাদ স্যারের জন্য :salute: :salute: :salute: :salute: :salute:

  4. আমার বড় দুঃখ হয় এমন মানুষকে
    আমার বড় দুঃখ হয় এমন মানুষকে আমরা বাচাতে পারিনাই। তিনি আসলেই গুরু ছিলেন। :salute: :salute: :salute:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *