~দ্বন্দ্ব~

আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
সুফিয়া-তসলিমা-আজাদ-ব্যেভোয়ারের কথা;
আর সে আমাকে শোনাতো
সীতা-রাধা আর বেহুলার কথা।
আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
স্বাধীনতার মন্ত্র;
আর সে চেয়েছিল
পরাধীন দাসত্ব ।
আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
সাম্যবাদের কথা ;
আর সে আমাকেই ভেবেছিল
স্বামীরুপ প্রভু।
আমি তাকে বলেছিলাম
প্রথা ভাংতে;
আর সে চেয়েছিল প্রথা দিয়েই
আমাকে বাঁধতে।
আমি চেয়েছিলাম তার
বাক-স্বাধীনতা;
আর সে হরণ করতে চেয়েছিল
আমারই মুখের কথা।
আমি চেয়েছিলাম
তাকে মুক্ত করতে;
আর সে চেয়েছিল
আমাকেই বন্দী করতে।
আমি বিকশিত করতে চেয়েছিলাম
তার মনকে;
আর সে বিকশিত করেছিল
তার রূপকে।
আমি চেয়েছিলাম
একটা মানুষকে;

আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
সুফিয়া-তসলিমা-আজাদ-ব্যেভোয়ারের কথা;
আর সে আমাকে শোনাতো
সীতা-রাধা আর বেহুলার কথা।
আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
স্বাধীনতার মন্ত্র;
আর সে চেয়েছিল
পরাধীন দাসত্ব ।
আমি তাকে শুনিয়েছিলাম
সাম্যবাদের কথা ;
আর সে আমাকেই ভেবেছিল
স্বামীরুপ প্রভু।
আমি তাকে বলেছিলাম
প্রথা ভাংতে;
আর সে চেয়েছিল প্রথা দিয়েই
আমাকে বাঁধতে।
আমি চেয়েছিলাম তার
বাক-স্বাধীনতা;
আর সে হরণ করতে চেয়েছিল
আমারই মুখের কথা।
আমি চেয়েছিলাম
তাকে মুক্ত করতে;
আর সে চেয়েছিল
আমাকেই বন্দী করতে।
আমি বিকশিত করতে চেয়েছিলাম
তার মনকে;
আর সে বিকশিত করেছিল
তার রূপকে।
আমি চেয়েছিলাম
একটা মানুষকে;
আর সে আমাকে উপহার দিয়েছিল
একটা নারীকে।
আমি চেয়েছিলাম
তার মানবসত্ত্বাকে;
আর সে আমাকে দিয়েছিল
তার নারীসত্ত্বাকে।

দ্বিমত বাড়ছিল, বিভেদ তৈরী হয়েছিল,
চিড় ধরেছিল সম্পর্কের দেয়ালে।
নীতিগত-আদর্শিক সংঘর্ষের জের ধরে-
দু’টো মন বিচ্ছিন্নই হয়ে গেল।

আমার দেখানো স্বাধীনতার স্বপ্ন
তার মনো:পূত হয়নি; তাই-
পরাধীনতার শিকলকেই
সে আপন করে নিয়েছে।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *