বৈষম্য সৃষ্টিকারী ঈদ

নিরিহ প্রাণী হত্যা করে পাশবিকতা প্রদর্শন করাটা সমস্যা না , এবং তা নিয়ে হাপিত্যেশ করারও কিছু নাই । কারণ আমরা সকলেই কম বেশী আমিষ ভক্ষণ করি । কিন্তু এই ঈদুল আযহা বৈষম্যের সৃষ্টিকরে , এবং আসল সমস্যাটা এখানেই । ধনী এবং গরিবের বৈষম্য । এমনকি ধনী এবং মধ্য বিত্তের আবার মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্তের মধ্যকার বৈষম্য । ধনীরা পাহাড় প্রমাণ গরু কুরবানী দেয় , তাও আবার একা । মধ্যবিত্তরা কুরবানী দেয় শরীকে । এক গরুতে সাত নামে সাত ভাগ দেয়া যায় । তাই মধ্যবিত্তরা পুরো গুরুটা না , একটি গরুর একটি বা দুটি ভাগ ক্রয় করে । এদিকে আবার নিম্নবিত্তের কপালে জুটে মানুষের বাড়ির মাংস । তবে সকলের কপালে তাও জুটে না ।


নিরিহ প্রাণী হত্যা করে পাশবিকতা প্রদর্শন করাটা সমস্যা না , এবং তা নিয়ে হাপিত্যেশ করারও কিছু নাই । কারণ আমরা সকলেই কম বেশী আমিষ ভক্ষণ করি । কিন্তু এই ঈদুল আযহা বৈষম্যের সৃষ্টিকরে , এবং আসল সমস্যাটা এখানেই । ধনী এবং গরিবের বৈষম্য । এমনকি ধনী এবং মধ্য বিত্তের আবার মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্তের মধ্যকার বৈষম্য । ধনীরা পাহাড় প্রমাণ গরু কুরবানী দেয় , তাও আবার একা । মধ্যবিত্তরা কুরবানী দেয় শরীকে । এক গরুতে সাত নামে সাত ভাগ দেয়া যায় । তাই মধ্যবিত্তরা পুরো গুরুটা না , একটি গরুর একটি বা দুটি ভাগ ক্রয় করে । এদিকে আবার নিম্নবিত্তের কপালে জুটে মানুষের বাড়ির মাংস । তবে সকলের কপালে তাও জুটে না ।

এসব দেখতে দেখতে যখন একটি নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান বেড়ে ওঠে , তখন প্রতিবছরই তার মনে ক্ষোভ জমতে থাকে । কারণ প্রতি বছরই তার চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়া হয় , ‘ তুই ছোটলোক । তাই তোর জন্য কুরবানী ফরজ না । ‘ মধ্যবিত্তের সন্তানেরা আশায় বসে থাকে , এর পরের বছর হয়তো একা একটা গরু কুরবানী দেয়া সম্ভব হবে । অপরদিকে ঈদুল আযহাকে কেন্দ্র করে ধনীর দুলালদের দাম্ভিকতা মাত্রা অতিক্রম করার জোগাড় হয় ।

এভাবেই পশু কুরবানীর নামে যুগে যুগে মুসলিম শিশুদের মনে জন্ম নিচ্ছে এক একটি পশু । কারো কারো মনে পশু জন্ম নিচ্ছে অতিক্ষোভে দুঃখে , আবার কারো কারো অতিউত্‍সাহে ।

আসুন , বনের পশুর না , মনের পশুর কুরাবানী দেই ।

সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা

১০ thoughts on “বৈষম্য সৃষ্টিকারী ঈদ

  1. এভাবেই পশু কুরবানীর নামে যুগে
    এভাবেই পশু কুরবানীর নামে যুগে যুগে মুসলিম শিশুদের মনে জন্ম নিচ্ছে এক একটি পশু । === মাথা মনে হয় আজকাল একটু বেশীই কাজে লাগাচ্ছেন। অল্প জ্ঞান ভয়ংকর।

  2. কুরবানিরর কিন্তু একটি ভাল দিক
    কুরবানিরর কিন্তু একটি ভাল দিক ও আছে, সারাবছর যারা মাংস চোখে দেখেনা তারা এই দিনে অন্তত সেরখানেক মাংস পায়। মন্দ কি বলুন..
    “আসুন , বনের পশুর না , মনের পশুর
    কুরাবানী দেই ” ভাল লাগল কথাটা…

  3. কি বলব বুঝতে পারছিনা।
    কি বলব বুঝতে পারছিনা।
    :মাথাঠুকি: :মানেকি: :ঘুমপাইতেছে: :-B :মনখারাপ: :চিন্তায়আছি: :কনফিউজড: :খাইছে: :পার্টি: :টাইমশ্যাষ: :মাথানষ্ট: :অপেক্ষায়আছি:

  4. সৃষ্টি টাই তিন ভাগে বিভক্ত
    সৃষ্টি টাই তিন ভাগে বিভক্ত ….সেখানে আর কোরবানিটা আর নতুন কি ……….!!!
    তবে ভালো লেগেছে শেষের কথা।

  5. নিরুপায় হয়ে এক বৃদ্ধ পথে
    নিরুপায় হয়ে এক বৃদ্ধ পথে নামছে রিকশা চালাইতে। রিকশা চালায়ে দুই পয়সা কামাই না হলে নিজে সহ বাড়ির সবাই উপোষ থাকবে। কিংবা হয়ত বৃদ্ধা অসুস্থ্য স্ত্রীর ওষুধ কেনা হবে না। এইদিকে মানবতাবাদী আমরা মানবতা দেখায়া কেউই বৃদ্ধ মানুষের রিকশায় চড়তে চাচ্ছিনা।

    অবস্থা হইছে এইরকম।

    1. এরকম কিছু আমি বলতে যাচ্ছিলাম।
      :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য:
      এরকম কিছু আমি বলতে যাচ্ছিলাম। তারপর খেয়াল করলাম ডাক্তার সাব হাজির! এই লোকটা অলওয়েজ আমার মুখের কথা কেড়ে নিয়ে আগে আগে বলে ফেলে… :মাথাঠুকি:
      সুতরাং এখন নতুন করে ভাবতে হবে- কী বলব? 😛

  6. আমরা রাস্তা ঘাটে পথ শিশুদের
    আমরা রাস্তা ঘাটে পথ শিশুদের দেখি। তারাও আমাদের আভিজাত্য দেখে…
    ব্র্যাক স্কুলে বস্তির শিশুরা পড়ে। ইংলিশ মিডিয়ামে উচ্চবৃত্তের সন্তানেরা…
    ফুটপাতের দোকান থেকে সওদা করে অনেকে। কিছু লোক বড় বড় মার্কেটেও যায়…
    কেউ কেউ পাজেরো-প্রাডোতে চড়ে। লোকাল বাসের হ্যান্ডেলেও ঝুলে অনেকে…
    … … …
    … … …
    এতো কিছুতেও ধনী গরিবের মনের অভিব্যক্তিতে কোন প্রভাব পরে না। প্রভাব পরে হইলো গিয়া কোরবানীর ঈদে!
    তাইতো বলি দেশে এতো ছাগল ক্যান?

    কোথা থেকে যে আসে এরা!!! :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

  7. এইরাম আজাইরা ফেবু পোস্টের
    এইরাম আজাইরা ফেবু পোস্টের মানে কি???? :মানেকি: :মানেকি: যত্তসব আজিব প্রাণী… :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি:

Leave a Reply to সফিক এহসান Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *