আত্মকথন…

জীবনের মাঝে জীবনকে চিনেছি
নিজেকে বহুবার ভেঙ্গে বহুবার গড়েছি,
গোলাপের কাঁটায় রক্ত ঝড়িয়েছি
এক বুক ব্যাথা নিয়ে বাঁচতে শিখেছি।।

স্বপ্ন দেখেছি- স্বপ্নচূর্ণ হতে’ও দেখেছি
পাওয়া- না পাওয়ার হিসেব কষেছি,
অর্বাচীনের মত কত অবজ্ঞাও সয়েছি
কখন’ও কেঁদেছি- কখন’ও কেঁদে হেসেছি।।



জীবনের মাঝে জীবনকে চিনেছি
নিজেকে বহুবার ভেঙ্গে বহুবার গড়েছি,
গোলাপের কাঁটায় রক্ত ঝড়িয়েছি
এক বুক ব্যাথা নিয়ে বাঁচতে শিখেছি।।

স্বপ্ন দেখেছি- স্বপ্নচূর্ণ হতে’ও দেখেছি
পাওয়া- না পাওয়ার হিসেব কষেছি,
অর্বাচীনের মত কত অবজ্ঞাও সয়েছি
কখন’ও কেঁদেছি- কখন’ও কেঁদে হেসেছি।।

অমানিশার নিকষ আঁধারে ডুবেছি
পূর্ণিমার আলোয় ভাসতে চেয়েছি,
কাছের- দুরের দহনে জ্বলেছি
কখন’ও হেরেছি- কখন’ও হেরে জিতেছি।।

বিষাদ-সিন্ধুর ভাগ্যকে মেনেছি
ভাগ্য না’মানার জেদ’ও করেছি,
নিজেতে ক্ষয়েছি- নিজেতে জুড়েছি
জীবনের মাঝেই জীবনকে চিনেছি।।

৪ thoughts on “আত্মকথন…

    1. কবিতা ভাই,শেষের লাইনে “মাঝেই”
      কবিতা ভাই,শেষের লাইনে “মাঝেই” শব্দটি ব্যাবহার করা হয়েছে।যা প্রথম লাইনে করা হয়নি। ফুল দেবার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *