নাস্তিকতা :এক ক্রমবর্ধমান কুসংস্কার, এর বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসুন

মহাবিশ্বের সৃষ্টি নিয়ে বহুল আলোচিত তত্ত্ব “বিগ ব্যাং থিওরী” ‘র প্রবক্তা স্টিফেন হকিং বলেছেন ঈশ্বর বলতে কিছু নেই। বহু পুর্বে ‘কোন এক কারণে ‘এক বিশাল বিস্ফোরণ এর ফলে পুঞ্জ পুঞ্জ বস্ত চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে যার নাম বিগ ব্যাং বা মহাবিস্ফোরণ। তিনি বিগ ব্যাং তত্ত্বকে এইভাবে ব্যাখ্যা করেন যে, ‘একজন’ মাটিতে 5 মিটার গভীর গর্ত খুরলো আর এতে মাটির উপরে 5 মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট একটা টিলা তৈরি হল। এখন যদি ওই টিলার মাটি আবার গর্তে ফেলা হয় তবে তা আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। হিসাবটা এরকম +5-5=0 অর্থাৎ মহাবিশ্ব সৃষ্টি হয়েছে শুন্য থেকে আপনা আপনি, সৃষ্টিকর্তা বলতে কেউ নেই।

মহাবিশ্বের সৃষ্টি নিয়ে বহুল আলোচিত তত্ত্ব “বিগ ব্যাং থিওরী” ‘র প্রবক্তা স্টিফেন হকিং বলেছেন ঈশ্বর বলতে কিছু নেই। বহু পুর্বে ‘কোন এক কারণে ‘এক বিশাল বিস্ফোরণ এর ফলে পুঞ্জ পুঞ্জ বস্ত চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে যার নাম বিগ ব্যাং বা মহাবিস্ফোরণ। তিনি বিগ ব্যাং তত্ত্বকে এইভাবে ব্যাখ্যা করেন যে, ‘একজন’ মাটিতে 5 মিটার গভীর গর্ত খুরলো আর এতে মাটির উপরে 5 মিটার উচ্চতাবিশিষ্ট একটা টিলা তৈরি হল। এখন যদি ওই টিলার মাটি আবার গর্তে ফেলা হয় তবে তা আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। হিসাবটা এরকম +5-5=0 অর্থাৎ মহাবিশ্ব সৃষ্টি হয়েছে শুন্য থেকে আপনা আপনি, সৃষ্টিকর্তা বলতে কেউ নেই।
আফসোস একটা সহজ বিষয় তার বোধগম্য হল না। তার তত্ত্বে ‘কোন এক কারণ ‘ ও ব্যাখ্যায় ‘কেউ একজন যে গর্ত খুরেছিল’ সৃষ্টিকর্তাকেই নির্দেশ করে। তাই নিঃসন্দেহে নাস্তিকতা একধরণের নির্বুদ্ধিতা বৈ আর কিছু নয়। নাস্তিকরা বুঝতে পারছে না যে তাদের পায়ের তলায় মাটি নেই। কোনকিছু আপনা আপনি হয় না, একটা কারণেই হয়। এই বিষয়টি তারা মানে না যা নিতান্তই নির্বোধদের সারিতে তাদের স্থান পাকাপোক্ত করে দিয়েছে।
বিশ্বাস ও জীবন একই চোখের দুটি পাতা। আর নাস্তিকতায় বিশ্বাস নেই তাই জীবনের জন্য এটি অর্থহীন।
আপনি সৃষ্টিকর্তা থেকে যতই দূরে যেতে চান না কেন, আপনি ব্যর্থ হবেন কেননা তিনি তো আপনার মাঝেই! একটু খুঁজে দেখুন ঠিক পেয়ে যাবেন।
নাস্তিকদের অবস্থা অনেকটা অথৈ সাগরে ভাসমান কাঠের টুকরোর ন্যয় , যার গন্তব্যস্থল অনির্দিষ্ট। প্ল্যাটফরম হল বিশ্বাস তাই যাতে নাস্তিকতার মূল তত্ত্বের সাথে সাংঘর্ষিক। আমি যতই উপমা দিয়ে নাস্তিকতা বিবৃত করি না কেন নাস্তিকরা কিছুতেই আমার কথা মানবে না। কারণ আমার কথা মানতে হলে বিশ্বাস লাগবে যা তাদের কাছে নেই। তাই আমি আমার মত অরন্যে রোদন করলাম।

আমার লিখার উদ্দেশ্য কোন আদর্শে আঘাত করা নয়,কাউকে হেয় করা নয়, কোন ধর্ম প্রচার বা কটাক্ষ করা নয়। যদি কেউ মনে করেন আমি কোন বিশেষ গোষ্ঠিকে আঘাত করেছি তবে তিনি আমার লিখায় মর্মার্থ উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়েছেন।
আমার এই লিখা কোন নির্দিষ্ট ধর্মের জন্য নয় বরং এর দ্বারাএক ক্রমবর্ধমান কুসংস্কারকে সবার সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি মাত্র। হীন চিন্তাচেতনার বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসুন এই আহবান করে শেষ করলাম। ভাল থাকবেন।

৫৯ thoughts on “নাস্তিকতা :এক ক্রমবর্ধমান কুসংস্কার, এর বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসুন

  1. আমার কথা মানতে হলে বিশ্বাস

    আমার কথা মানতে হলে বিশ্বাস লাগবে যা তাদের কাছে নেই।

    আপনার কথা মানতে হলে বিশ্বাস লাগবে কেন? লাগার কথা প্রমাণ।

  2. ইশ্বর কি এমন একটি পাথর তৈরি
    ইশ্বর কি এমন একটি পাথর তৈরি করতে পারবেন?যে পাথর তিনি নিজেই ভাংতে পারবেন না।

    (বুঝে নিন,হয়তো বুঝবেন না কারন মাথা আপনাদের আকারে, জ্ঞানে নয়)

  3. অনেকে নিজেকে মহাজ্ঞানী মনে
    অনেকে নিজেকে মহাজ্ঞানী মনে করে।অন্ধকারে বসে থেকে আলোকে দেখা যায় ; কিন্ত অন্ধকারে থাকা ব্যক্তিটি বুঝতে পারলেও মানতে কষ্ট হয় যে সে অন্ধকারে।
    (বুঝে নিন, কঠিন কিছু বলিনি)

  4. তামাশায় তো দেখি জোকার নালায়েক
    তামাশায় তো দেখি জোকার নালায়েক কে ছাড়ায় গেছে এই লোক!!
    কোত্থেকে যে আসে এইসব… আজকের হাসির খোরাক ভালই দিল…

  5. তো মিস্টার “এবং আপনি”,আপনার
    তো মিস্টার “এবং আপনি”,আপনার দৌর কতদূর তা প্রথম লাইন পরেই বুঝতে পেরেছি।আপনি মনেহয়,না দাঁড়ান আগে একটু হাইসা লই। :হাহাপগে: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:
    আপনি মনে হয় নাস্তিকদের উপর বিরক্ত হইয়া শেষমেস ব্রিফ হিস্টরি বই খানা পরছেন ইদানিং।
    আর তাই চিংড়ি মাছের মত লাফাইতেছেন।কিন্তু হায়, কি হায় ??
    কিন্তু হায় আপনি মনে হয় জানেন না ঐ বিং ব্যাঙ থিওরিটা অনেক পুরানো। আর ঐ বইতে বেচারা ঈশ্বরের অস্তিত্ব নাকচ করেন নাই।নাকচ করছেন তার পরে আরেক ভদ্রলোকের সাথে যৌথভাবে আরেকটা বই লেখছেন সেই বইতে।বইডার নাম মনে হয় জানেন।দি গ্রান্ড ডিজাইন।
    আপনি নিজেরে কাকের মত বুদ্ধিমান ভাবছেন।আর অন্যদের জ্ঞানী বুলে তামাশা করছেন।
    এবং তারাও আপনাকে ভাবছে আপনি এত্ত গুলা আবুল।
    আপনি ইনফ্লেসন থিয়োরি, স্টিং থিওরি,এম থিয়োরি,হেইম এঁর মাল্টি ডাইমেন্সন নিয়া একটু নারা ঘাটা কইরা তারপর পাবলিক প্লেসে লেখতে আইসেন।
    তা না হইলে পশ্চাৎ দেশে কালি দিয়ে দেবে লোকজন।আরে ভাই বুঝেন না, সবাই তো আর এত্ত গুলা ভাল মানুষ না !!!!!!!!!!
    আপনি নাস্তিক নামক খারাপ লোকদেরকে না-ইবা দেখতে পারেন। তাতে সমস্যা নাই।কিন্তু পন্ডিতি পাবলিক প্লেস এ না ? কেমন ? মিস্টার “এবং আপনি ???
    ==============================================

    1. নাহ! ভাই পাবলিক প্লেসে আর না।
      নাহ! ভাই পাবলিক প্লেসে আর না। খাতা কলম রেডি করেন এর পরের লিখাটা নাহয় আপনার টেবিলেই লিখব। আর হ্যাঁ ঐ বইগুলো যেন থাকে রেফারেন্স দরকার আছে না? কি বলেন?

  6. আপনি নাস্তিক নামক খারাপ

    আপনি নাস্তিক নামক খারাপ লোকদেরকে না-ইবা দেখতে পারেন। তাতে সমস্যা নাই।কিন্তু পন্ডিতি পাবলিক প্লেস এ না ? কেমন ? মিস্টার “এবং আপনি ??? – See more at: http://www.istishon.com/node/5037#sthash.ZhHvPy4B.dpufআপনি নাস্তিক নামক খারাপ লোকদেরকে না-ইবা দেখতে পারেন। তাতে সমস্যা নাই।কিন্তু পন্ডিতি পাবলিক প্লেস এ না ? কেমন ? মিস্টার “এবং আপনি ???

    কিছু বলার নাই যা বলার হিমাংশু কর বলে দিয়েছেন।

  7. ভালো লিখেছেনঃ অনেকে আপনাকে
    ভালো লিখেছেনঃ অনেকে আপনাকে কটাক্ষ করলেও,আমি করছি না।

    আপনি এমন একটা বিষয়ে লিখেছেনঃ যা সম্পর্কে মানুষের জ্ঞানের কমতি নেই। তাই,আরো বিশাল /তথ্য বহুল /রেফারেন্স যুক্ত -বিশ্লেষণ চাই!!

    কেননা,এসব বিষয়ে দ্বিমুখী যুক্তি খাটে। উক্ত পোস্টের একটি কমেন্টে তার প্রমাণ এবং আপনার আলো/অন্ধকারের যুক্তিতে উপযুক্ত প্রমাণ।

    লিখে যান…..তর্ক কমিয়ে,যুক্তিবাদী হবেন। এমন রেফারেন্স একাট্টা করুন, যাতে পোস্ট ইউনিক হয়।

    আপনি এখানে মাত্র একটি ব্যাখ্যা, দুটি যুক্তি দেখালেন। এই কারনে,যথেষ্ট হাসির খোরাক হয়েছে, সত্যি! তবে লিখা নয়,উপস্থাপনাটা।

  8. শিখা দিদি এবং আপনি।আপনারা একই
    শিখা দিদি এবং আপনি।আপনারা একই দলে।
    দিদিমনির আপনার লেখা পছন্দ হয়নি তো কি হইছে।
    আরে, সে যে আপনার দলে গো দাদা।আপনি আপনার জন্য না হলেও দিদিমনির জন্য এখন ই বাজার থেকে যুক্তির মালা গেথে নিয়ে আসুন দেকি-নি।আপনার পুস্টের গলায় দেই।
    সত্যি কথা বলতে কি, আপ্নারা পায়েস করিম সাহেব কেও ছারিয়ে গেছেন।

    সবাই তাই করে।কিছুই বুঝতে চায় না।জানতেও চায় না।যুক্তি খোজে, কিন্তু নিজের দলের বা নিজের মতের পক্ষে। আচ্ছা যদি এভাবেই আমরা সবাই নিজের মতের পক্ষের যুক্তি খুজে বেরাই আর অন্য সব কিছু এরিয়ে যাই তাহলে আমরা কখনই সত্যের ধারের কাছেও যেতে পারব না।

    তাই সবারই উচিত শিখা দিদিমনির মত নিজের পক্ষের যুক্তি না খোজা।এইভাবে খুজতে থাকলে আমরা জাতি হিসেবে কোনদিন ও কিছু করতে পারব না।

    ============================================

  9. জনাব, আপনি আমার কমেন্টের
    জনাব, আপনি আমার কমেন্টের ইচ্ছেমত ব্যাখ্যা (অপব্যাখ্যা) দাড় করিয়েই খ্যান্ত হননি বরং আমাকে একটি বিশেষ শ্রেনীতে ঢেলে দিলেন।

    ধন্যবাদ। আমাদের নদীতে কূল কিনারা নেই।

  10. ও মাঝি বাইয়া যাও
    ও মাঝি বাইয়া যাও রে…………………
    অকূল দরিয়ার মাঝে আমার ভাঙ্গা নাও রে মাঝি
    বাইয়া যাও রে…।।

    দিদিমনি, আমি আপনাকে অবশ্যই একটি দলে ফেলেছি।কিন্তু আসলেই কি আপনি সেই দলে নন?
    হাঁ,
    সে দলে আপনি না থাকতে পারেন, কিন্তু আপনার কমেন্টে আপনি যা বোঝাতে চেয়েছেন তাতে তাই মনে হয়।
    আপনি যেই দলের ই হন না কেন,আমাদের সবার উচিত সত্যকে মেনে নেওয়া।তাই কোন পক্ষে তা থেকে সত্যের পক্ষে থাকাই ভাল।
    ====================================================

  11. আবারো নিজের মন্তব্যের সত্যতা
    আবারো নিজের মন্তব্যের সত্যতা জাহিরে ব্যাস্ত হয়ে পড়লেন!

    যা হোক,না আমি আপনাকে মানতে যাচ্ছি, যা আপনি আমায়। না আমি নিজেকে শুধরে নিচ্ছি, না আপনি।তাই,যুক্তি কিংবা তর্ক -সবই বৃথা।

    আপনার মন্তব্যের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ রইলো। তাই,আমার উপর আরোপিত যুক্তি নাকোচ করে দিচ্ছি।

  12. বুঝতে পারলাম না । এখনে কি
    বুঝতে পারলাম না । এখনে কি সবাই এই কজেই আসে?
    পারলে দেখান আমি কি ভুল করেছি। নাহয় যুক্তি দু একটা দিয়েছি … বাহ! আজব তো! এতেই হাসির খোরাক হয়ে গেলাম! আহা! কি বিচিত্র ইস্টিশন বিচিত্র তার যাত্রী।
    ধন্যবাদ টা কেবল শিখা আপুর প্রাপ্য।
    বাকিদের সাথে আজাইরা প্যাচাল পারার ইচ্ছা আমার একান্তই নেই।

  13. সবার লিখাকে আমি সম্মান জানাই।
    সবার লিখাকে আমি সম্মান জানাই। অনেকের মতো কাউকে উড়িয়ে দেবার স্বভাব আমার নেই। এজন্য আমাকে আলাদা ভাবে ধন্যবাদ দিয়ে অনেকের চোখে সন্দেহের তীরে পরিণত না করবার জন্য অনুরোধ (!) জানাই।

  14. ধন্যবাদটা আমার দলভুক্ত হওয়ার
    ধন্যবাদটা আমার দলভুক্ত হওয়ার জন্য দিই নি। সেটা পেয়েছেন আপনার স্বভাবের জন্য। আর মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি একান্তই ব্যক্তিগত। তার যা ভাবার সে ভাববেই। কেউ চা’ক বা না চা’ক। এটা সহজাত প্রবৃত্তি যা দমন করার সাধ্য আমার আপনার মত মানুষের নাই।

  15. ভালই বলেছেন, এবং আপনি।
    দাঁড়ান

    ভালই বলেছেন, এবং আপনি।
    দাঁড়ান একটু হাইসা লই। :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

    এটুকুতো বোঝেন,
    যে হাসির খোরাক হয় তার মাথায় কখনই ঢুকে না যে সে কেন হাসির খোরাক হইল।
    কারন তা ঢুকলে সে হাসির খোরাক হইত-ই না।
    =======================================

    1. মানুষ তার নিজের মত প্রতিষ্ঠায়
      মানুষ তার নিজের মত প্রতিষ্ঠায় বিপরীত মত কে উড়িয়ে দেয়ার সবচেয়ে কার্যকর উপায় হল তা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করা যা বাংলাদেশের রাজনীতিতে সাধারণ বিষয়। আপনিও তার ব্যতিক্রম করেন নি।

  16. আবারো মনে পরল ১০০ জন আপনার মত
    আবারো মনে পরল ১০০ জন আপনার মত মানুষ নিয়া স্বর্গে গিয়াও শান্তি নাই।
    যাই হোক,
    পাগলামি এবং আতলামি একই সাথে শুরু করছেন।
    আপনি মনে মনে আপনার যুক্তির জাল বুনতে থাকুন। আপনার জন্য শুভকামনা রইল।
    আপনার সাথে আর কোন পোস্টেই কথা হবে না।
    সময়ের অনেক দাম রে ভাই !!

    ==================================================

  17. শিখা ম্যাডামের প্রথম
    শিখা ম্যাডামের প্রথম মন্তব্যটির সাথে সহমত ।মানষের জ্ঞান সীমাবদ্ধ ।আর সেই সীমাবদ্ধ জ্ঞান দিয়ে স্টিফেন হকিংসদের ইশ্বর আবিস্কার করা বোকামিই বটে ।

    1. এইটুকু বোঝাতে গিয়ে হাসির
      এইটুকু বোঝাতে গিয়ে হাসির খোরাক হয়ে গেলাম।
      আমার লেখার উদ্দেশ্য কোন বিশেষ শ্রেণীকে আঘাত করা নয় তবুও তারা বারবার আহত পাখির মত হাসছে। বিচিত্র!

    2. সেক্ষেত্রে কিন্তু বলা যায়,
      সেক্ষেত্রে কিন্তু বলা যায়, স্টিফেন হকিংয়ের তুলনায় আমার জ্ঞান আরও সীমাবদ্ধ। তিনিই ইশ্বর আবিষ্কার করতে পারলেন না, আর তার তুলনায় মূর্খরা ঈশ্বর আবিষ্কার করে বসে থাকল। তাহলে ঈশ্বর কি শুধু মূর্খদের মাঝে বাস করেন???

  18. মিঃএবং আমি, আপনি চেতলেন কেন?
    মিঃএবং আমি, আপনি চেতলেন কেন? আপনি এখানে নাস্তিকতাকে কুসংস্কার বললেন কোন যুক্তিতে? স্টিফেন হকিংস এর জ্ঞান সীমিত মানলাম। কিন্তু তার জ্ঞান তো অন্তত আপনার চাইতে বেশি। তাইনা?? আপনার চাইতে বেশি জ্ঞান নিয়ে তিনি ঈশ্বর আবিস্কার করতে পারেন নাই। আর আপনি কেমনে পারবেন? পোস্টে আপনি যদি যুক্তি দেখাইতেন তাও হইতো। কিন্তু আপনি পুরো একটা অযৌক্তিক জিনিস দিয়ে পোস্ট লিখছেন। ধর্মকে কুসংস্কার বললে আপনাদের ধর্মানুভূতিতে আঘাত লাগে, তো নাস্তিকতাকে কুসংস্কার বললে নাস্তিকদের অনুভূতিতে আঘাত লাগেনা?? নিজে কি অনুভূতির ব্যবসা খুলে বসছেন নাকি?

    1. নাস্তিকতাকে কুসংস্কার বললে

      নাস্তিকতাকে কুসংস্কার বললে নাস্তিকদের অনুভূতিতে আঘাত লাগেনা??

      :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

    2. 6
      অংকটা দেখা যাচ্ছে যে এটা

      6
      অংকটা দেখা যাচ্ছে যে এটা ছয়।
      যদি উল্টে দিই তবে সেটা হবে 9 ।
      একই লিখা আপনার কাছে ছয় আর আমার কাছে নয়।
      বুঝেছেন?

    1. যাদের সবচে’ ঘৃণা করি সেই
      যাদের সবচে’ ঘৃণা করি সেই একাত্তরের ঘাতক দালাল জামাত-হেফাজতের কাতারে আমাকে ফেলবেন না।
      আর সত্যকে এইভাবে কটাক্ষ করা সমীচীন নয় মনে করি।

  19. রাতুল ভায়া…আপনার প্রশ্নটা
    রাতুল ভায়া…আপনার প্রশ্নটা খুভই চমৎকার।

    আচ্ছা,তার আগে একটু জানাবেন….ইশ্বর এমন কাজ কেনো করবেন? !! ইশ্বর তো উদ্দেশ্য ছাড়া কিছুই করেন না।

    এমন কাজ যেহেতু আপনি ইশ্বর -কে দিয়ে করাতে চাইছেন। অতপর এর ইশ্বরকে এর উদ্দেশ্যে সম্পর্কে অবগত হওয়া চাই! তাই না? যেহেতু প্রশ্ন আপনার, সেহেতু উদ্দেশ্যে টাও আপনিই বলে দিন।

    পোস্ট দাতার কাছে রাতুল ভায়ার করা প্রশ্নের উত্তর চাই।

    1. প্রশ্নটা আসলে উনি পারবেন কিনা
      প্রশ্নটা আসলে উনি পারবেন কিনা সেটা নিয়ে, কেন করবেন তা নিয়ে নয়।প্রসঙ্গে থাকুন।
      উনি সর্বশক্তিমান বলে জানি আমরা।তাই পারবেন কিনা তাই নিয়ে প্রশ্নটা দিদিমনি !!!
      আরে দিদিমনি, যে মানুষ, সামান্য কিট-পতঙ্গের সমান গুরুত্ত যার মহান ঈশ্বরের কাছে নাই, সেই ই উদ্দেশ্য ছাড়া কত কিছু করতে পারে।
      আর উনি সর্বশক্তিমান হয়েও যদি উদ্দেশ্য ছাড়া কিছু না করতে পারেন তাহলে তো উনি আপনাদের ধারনায় অনেক পরাধীন একটা সত্তা।
      তার এত পরাধীন পরিচয় তো কোন ধর্ম গ্রন্থে পাই নাই।
      যিনি হও বললেই কোন কারন ছারাই সব হয়ে যায়।
      তিনি তো এমন না।
      আর সেটা বড় কথা না।
      কারন,প্রশ্নটা হল উনি পারবেন কিনা?
      আরেকটা প্রশ্ন করি, উনি কি নিজেকে নিজে ধংস করেতে পারবেন?
      আরেকটা করি উনি কি উনার চাইতে বেশি ক্ষমতার কাউকে বানাতে পারবেন, যার কাছে উনি নিজেই হেরে যাবেন ?
      আরও একটা করি? না থাক।
      তবে একটা কথা পরম বিশ্বাসী কবি দিদিমনি , উনি কে ? কি রকম ? তার একটা সুস্পষ্ট সংজ্ঞা তৈরি করে তারপর তার তত্ত্ব প্রচার করতে আইসেন।
      জানি সেটা অনেক কষ্ট হবে আপ্নাদের।
      খামখা পানি ঘোলা কইরেন না, পাবলিক প্লেসে।
      ==================================

  20. এখানে দেখছি হুদাই হাসাহাসির
    এখানে দেখছি হুদাই হাসাহাসির কম্পিটিশন চলছে ……পাগলে ৩বার হাসে,প্রথমবার না বুঝে হাসে ,দ্বিতীয় বার বুঝে হাসে আর শেষের বার, না বুঝে হাসছিল এটা বুঝে হাসে ………কারো লেখার কোনো অংশে যদি কারো আপত্তি থাকে তবে তা নিয়ে আলোচনা চলতে পারে দল বেধে হাসাহাসি না ……

    1. আমার মনে হয় এনাদের বর্ণান্ধতা
      আমার মনে হয় এনাদের বর্ণান্ধতা গোছের ব্যাধি রয়েছে। যা দেখে সব একরকম।
      আমি যদি মর্মস্পর্শী কথাও বলতাম তাও এরা হাসত।
      লেখাটার ভুলত্রুটি নির্ণয় নয় ,আমাকে উড়িয়ে দেয়াই এদের উদ্দেশ্য।

    2. হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ

      হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ
      হাঁ হাঁ হাঁ একটু বেশি হেসে ফেললাম। রাগ করবেন না।
      আমি আবার আগে জানতাম না হে হাসলে পাপ হয়।
      ============================================

  21. পোস্টে হাহাপগে ট্যাগ দিলেন না
    পোস্টে হাহাপগে ট্যাগ দিলেন না কেন বুঝলাম না??? আফটার অল, সেটাই সবচেয়ে পারফেক্ট হত…

  22. আপনি হারুন ইয়াহিয়ার কোনো বই
    আপনি হারুন ইয়াহিয়ার কোনো বই পড়েছেন? হারুন ইয়াহিয়াও কিন্তু একই ভাবে এইধরনের অযৌক্তিক যুক্তি দিয়ে হাসির পাত্র হয়েছেন। দল বেঁধে সবাই তাকে নিয়ে হেসেছে। জাকির নায়িক যখন তার ‘কুরআন ও আধুনিক বিজ্ঞান’ বইতে বলেছে “ছায়াপথের দূরত্বকে প্লাজমা বলে” তখন সেটা নিয়েও সবাই দল বেঁধে হেসেছে। কারন হাসি সংক্রামক আর উদ্ভট যুক্তিতে যে কেউই হাসবে। এটাই স্বাভাবিক। আপনাকে উড়িয়ে দেয়া আমাদের লক্ষ্য নয়। আমাদের একটাই লক্ষ্য আর সেটা হল প্রান খুলে হাসা। হাহাহাহাহাহাহাহাহাহা….. :হাহাপগে:

    1. (No subject)
      :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: 😀 😀 😀 😀 😀 😀 😀 :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :পার্টি: :পার্টি: :পার্টি: :পার্টি: :পার্টি: :পার্টি: :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান: :শয়তান:

  23. ভাইয়া “এবং আমি” ধন্যবাদ আপনার
    ভাইয়া “এবং আমি” ধন্যবাদ আপনার সিরিয়াস লেখাটির জন্যে । নাস্তিক দের কে মাফ করে দেন, ওরা আপনার লেখা নিয়ে হাসাহাসি করেছেন । আমি ভীষণ ভাবে একমত যে মানুষের জ্ঞান সীমাবদ্ধ । সৃষ্টি কর্তার (অথবা কর্তা দের) জ্ঞান অসীম । একটা প্রশ্ন আপনার কাছে, যেহেতু আপনার লেখায় বেশ ভালো confidence আছে তাই আপনাকে জিজ্ঞাসা করছি – পৃথিবীতে ৭৩০ টির মোট ধর্ম আছে (যারা আবার প্রায় ৩২০০ ভাগে বিভক্ত) । major religion বলে আবার ২০ টিকে ভাগ করা হয়েছে । এক হিন্দু ধরমেই কয়েক লক্ষ দেবতা / দেবি , দেবতারা সৃষ্টি কর্তা কিনা সেই বিতর্কের কারনে হিন্দু ধর্মের কথা বাদ দিলাম । বাকি উনিশ টি ধর্মের সৃষ্টি কর্তা দের মধ্যে কে আসলে পৃথিবী টাকে তৈরি করেছেন, জানেন কি ? নাকি সবাই মিলেই ভাগাভাগি করে তৈরি করেছেন ? একটু ক্লু দিতে পারেন ? আপনার লেখা থেকে একটা ধারনা হতে পারে যে সৃষ্টি কর্তা মনে হয় একজন ই (সম্ভবত আপনি যে ধর্মের, সেই সৃষ্টি কর্তা), তাই প্রশ্ন তা আরও জরুরি । ধন্যবাদ । আপনার কাছ থেকে এই রকমের আরও লেখা চাই ।

      1. তাইলে তো ধর্ম ও একটাই, শুধু
        তাইলে তো ধর্ম ও একটাই, শুধু বিভিন্ন নামে ডাকা হয় নাকি ? কারন সৃষ্টি কর্তা যদি একজনই হয় ভিন্ন ভিন্ন নামে তাইলে ধর্ম ও একটাই না, কারন সৃষ্টি কর্তা তো ধর্মের সাথেই TAGGED ? কি বলেন ভাই এবং আমি ?

  24. ফেম বাড়ানোর আরও কত পথ আছে,
    ফেম বাড়ানোর আরও কত পথ আছে, সেইগুলাতে হাটেন। নাস্তিকতা কুসংস্কার!!!!

    বাই, ও বাই, আমারে এক দুই কেজি নাস্তিক দিবেন? আমিও খাইতাম। না কি নাস্তিকতা মাথায় দেয়?

  25. (No subject)
    :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *