ভালবাসার রুদ্রদহন

রাত ১টা বাজে।একটার পর একটা সিগারেট টেনে চলেছে রুদ্র।ক্ִদিন আগেও রুদ্রর কাছে সিগারেটের অপর নাম ছিল বিষ।আর এখন মনে হয় আত্মার আত্মিয়।মাঝে মাঝে পকেটে টাকা থাকে না তখন পাগলের মত হয়ে যায় রুদ্র,বাবার পকেট মারে,মায়ের জিনিস চুরি করে শুধু মাত্র সিগারেটে অমীয় সুধা পান করার জন্য।তাই পরিবারের কাছেও বিষ হয়ে গেছে রুদ্র।তার মা বাবা তাকে এখন মৃত ছেলে ভাবে।

সিগারেট টানতে টানতেই সৃতির সাগরে ঢুব দেয় রুদ্র।ঢুব দিয়ে বেশিক্ষন থাকতে পারে না,দম বন্ধ হয়ে আসে,বাচার জন্য ছট্পট করে উঠে সে।

রাত ১টা বাজে।একটার পর একটা সিগারেট টেনে চলেছে রুদ্র।ক্ִদিন আগেও রুদ্রর কাছে সিগারেটের অপর নাম ছিল বিষ।আর এখন মনে হয় আত্মার আত্মিয়।মাঝে মাঝে পকেটে টাকা থাকে না তখন পাগলের মত হয়ে যায় রুদ্র,বাবার পকেট মারে,মায়ের জিনিস চুরি করে শুধু মাত্র সিগারেটে অমীয় সুধা পান করার জন্য।তাই পরিবারের কাছেও বিষ হয়ে গেছে রুদ্র।তার মা বাবা তাকে এখন মৃত ছেলে ভাবে।

সিগারেট টানতে টানতেই সৃতির সাগরে ঢুব দেয় রুদ্র।ঢুব দিয়ে বেশিক্ষন থাকতে পারে না,দম বন্ধ হয়ে আসে,বাচার জন্য ছট্পট করে উঠে সে।
তারপরেও ঢুব সাতার খেলতে থাকে সে কারন কল্পনার জগতে ঢুব দিলে রুহিতার মুখ টা রুদ্রর চোখে ভেসে উঠে।তখন তার ভালো লাগে।রুহিতা কে আলতো করে ছুয়ে দেখে…

অথচ কিছু দিন আগেও পৃথীবিটা ছিল তার কাছে স্বর্গের মত।রুহিতা কে সে অনেক ভালবাস, এখনো বাসে।
সব সময় আগলে রাখত পাজর দিয়ে।
আজো তার পাজর খা খা করছে রুহিতা কে আগলে ধরতে।

শেষ যে বার রুহিতা সাথে দেখে হয়েছিল সেই দিন রুহিতা কে অনেক ভয়ংকর দেখাচ্চিল।রুদ্র কে সে ভালবাসে না এক নিমিষেই বলে ফেলল।

রুহিতার শেষ কথা গুলো মনে পড়লে রুদ্র ঘুমের মাঝেও আতকে উঠে,হাউ মাও করে কাদতে থাকে।

কি দরকার ছিল ভালবাসার অভিনয় করার?খুব বেশি কি দরকার ছিল আমার হাত ছেড়ে মাঝ পথে অন্য কার হাত ধরার?
তুমি না বলতে আমার কস্ট হলে তোমারো কস্ট হয়?
আজ আমার অনেক কস্ট হচ্ছে রুহিতা,মৃত্যু যন্ত্রনা আমাকে ঘিরে রেখেছে। তোমার কি একটুও কস্ট হয় না?

রুহিতা আজ অনেক সুখি, রুদ্র তার অতীত।
তাই সে রুদ্রর প্রশ্নের উত্তর দিতে সে বাধ্য নয়।

আর রুদ্র অতীত মনে রেখে ধুকে ধুকে মরছে।উত্তর না পেয়ে
রুদ্র অভিমান করেছে,অভিমান করে কল্পনা করা বন্ধ করে দিয়েছে কারন রুহিতার মুখ দেখলে সে বেশিক্ষন অভিমান করে থাকতে পারবে না…

৫ thoughts on “ভালবাসার রুদ্রদহন

  1. বানানের দিকে সবসময় খেয়াল রাখা
    বানানের দিকে সবসময় খেয়াল রাখা উচিত।
    কষ্ট দূর করার জন্য নেশার সাগরে কেন ডুব দিতে হবে তা বোধগম্য নয় ॥

    1. কষ্ট দূর করার জন্য নেশার

      কষ্ট দূর করার জন্য নেশার সাগরে কেন ডুব দিতে হবে তা বোধগম্য নয়

      কি যাতনা বিষে বুঝিবে সে কিসে কভু আশীবিষে দংশেনি যারে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *