মিনতি

হে সৃষ্টিকর্তা
আমাকে বিশালকায় হাতি কিংবা ক্ষুদ্রকায় পাতি বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি যাতাকলে চাপা পরতে চাই না
আমাকে প্রচন্ড সুন্দরী কিংবা কুত্সিত বান্দরী বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি দোটনায় লড়তে চাই না
আমাকে প্রচন্ড সত্যবাদী কিংবা মিথাবাদী বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে সত্য আর মিথ্যার অল্প ব্যবধান বুঝতে চাই না
আমাকে বাকশালী কিংবা মা কালী বানিয়ে দাও

হে সৃষ্টিকর্তা
আমাকে বিশালকায় হাতি কিংবা ক্ষুদ্রকায় পাতি বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি যাতাকলে চাপা পরতে চাই না
আমাকে প্রচন্ড সুন্দরী কিংবা কুত্সিত বান্দরী বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি দোটনায় লড়তে চাই না
আমাকে প্রচন্ড সত্যবাদী কিংবা মিথাবাদী বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে সত্য আর মিথ্যার অল্প ব্যবধান বুঝতে চাই না
আমাকে বাকশালী কিংবা মা কালী বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি নিরপেক্ষ হতে চাই না
আমাকে বদ্ধ পাগল কিংবা শ্রেষ্ঠ ছাগল বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে আমি গোলামী করতে চাই না
আমাকে পরশ্রীকাতর কিংবা পর দুখে কাতর করে দাও
কারণ মাঝামঝি অবস্থানে থেকে আমি মেকি হাসি হাসতে চাই না
আমাকে মহামানব কিংবা মহাদানব করে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে দেখেও না দেখার ভান করতে চাই না
আমাকে ধর্মভীরু কিংবা নাস্তিক হিরু বানিয়ে দাও
কারণ মাঝামাঝি অবস্থানে থেকে বেহেস্ত আর দোজখের মাঝখানে ঝুলেতে চাই না
আমাকে বিত্তশালী কিংবা পথের ধুলো বালি বানিয়ে দাও
কারণ আমি মধ্যবিত্ত হয়ে মরতে চাই না

হে সৃষ্টিকর্তা
এতসব চাওয়ার কারণ একটাই ,আমি সাধারণ হয়ে বাচতে চাই না
আমি সৃষ্টির সেরা তাই শ্রেষ্ঠত্ব থেকে মুক্তির গান গাই না……

১৫ thoughts on “মিনতি

  1. থিমটা খুব চমৎকার ছিলো।
    থিমটা খুব চমৎকার ছিলো। শব্দচয়নে মনযোগী হলে খুব সার্থক একটা কবিতা হতে পারতো। শুভকামনা রইলো :ফুল:

    1. প্রথমে তালি পরে চিন্তিত তারপর
      প্রথমে তালি পরে চিন্তিত তারপর মাথা ঝাকালেন ,ঝাকাতে ঝাকাতে আবার ফুল ও দিলেন ,দেয়া শেষে আবার ভেংচি ও কাটলেন …..সব মিলিয়ে মিলাতে পারলাম না রাহাত ভাই

  2. আমি খুবই কম পড়াশোনা করি,কালে
    আমি খুবই কম পড়াশোনা করি,কালে ভদ্রে প্রথম থেকে লাগলে ভালো লাগলে শেষ করি,তা না হলে মাঝ পথে থেমে যাই।যতই পড়িবে ততই শিখিবে এ লাইন টা জানার জন্য জানা ,অন্তর দিয়ে মানি না যার ফলে আমার ভান্ডার ফকফকা শূন্য।দ্রুপদ রঞ্জন মিত্র আপনি পারফেক্ট বলেছেন .লেখার সময় আমি নিজেও সেটা বোধ করেছিলাম।

    1. সমালোচনা ধনাত্মক ভাবে গ্রহণ
      সমালোচনা ধনাত্মক ভাবে গ্রহণ করেছেন দেখে ভাল লাগলো। এটা একজন লেখকের জন্য অনেক জরুরী। আমাদের অধিকাংশই সমালোচনা নিতে পারেনা। রেগে যায়। শুভকামনা রইলো

      1. রেগে যায় বিশেসজ্ঞ রা ….আমি
        রেগে যায় বিশেসজ্ঞ রা ….আমি বিশেষ জ্ঞানে অজ্ঞ তাই রাগ নাই..দোয়া করবেন যাতে একটু লিখিয়া পড়িয়া তারপর লিখতে বসি ….এতটুকু ধৈর্য্য যেন আমার হয়।দ্রুপদ রঞ্জন মিত্র

  3. হে সৃষ্টিকর্তা! আপনি লেখিকা
    হে সৃষ্টিকর্তা! আপনি লেখিকা কে আরও ধৈর্য্য দান করুন, যাতে আমরা আরও ভাল কবিতা পড়তে পারি॥

    1. যাতে নাগরিক চট্টগ্রাম আর
      যাতে নাগরিক চট্টগ্রাম আর তারাননুম তারার কবিতার মধ্যে একটা ব্যলেন্স রক্ষা করা সম্ভব হয়।আমীন

  4. কেন?আপনি কি তবে প্রাথনা উঠিয়ে
    কেন?আপনি কি তবে প্রাথনা উঠিয়ে নিলেন …!!!তাহলে তো আমার কখনো ভালো লেখিকা হওয়া ও হবে না আর আপনাদের ভালো কবিতা উপহার দেয়াও হবে না।

  5. আমি প্রার্থনা উঠায় নাই॥ আপনি
    আমি প্রার্থনা উঠায় নাই॥ আপনি লিখবেন , আমরা পড়ব॥ আমি কখনও ভাল লিখতে পারব না। তাই আপনার সাথে ব্যালেন্স থাকবে না॥

  6. আচ্ছা তার মানে ইঙ্গিতে আপনি
    আচ্ছা তার মানে ইঙ্গিতে আপনি আমাকে আপনার জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রাথনা করতে বলছেন …….আমি কিন্তু এই বিষয়ে কৃপণ,প্রাথনা খাই কিন্তু দেই না …..আপনাদের প্রাথনা নিয়ে নিয়ে ঠিকই একদিন ব্যলেন্স করে ফেলবো ইনশাল্লাহ।

  7. জ্বি না । আমি আমার জন্য
    জ্বি না । আমি আমার জন্য আপনাকে প্রার্থনা করতে বলি নাই॥
    প্রার্থনা করে লাভ হবে না, কারন আমি কখনও লিখার জন্য চেষ্টা করি না॥
    আর যার চেষ্টা নাই তার জন্য বৃথা প্রার্থনা করা সৃষ্টিকর্তা পছন্দ করেন না॥

    “”তারাননুম তারা হবে একদিন কবিতা জগতের উজ্জ্বল তারা, ইনশাল্লাহ””

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *