দূর্বা

বুকপকেটে আজও আছে-তোমার ছবি।
রাত-দুপুরে ট্রেনে করে
তোমার স্মৃতি খুঁজে ফিরে-
যত্নে রাখা ক্ষত।
জেনো, তোমায় কেউ খুঁজেনা
আজও আমার মত।
আগলে রাখা শীতে,
তোমার পদ্মপাতা হতে;
জন্ম যেথা পায় যে ব্যাথা
মরনেরই হাতে।



বুকপকেটে আজও আছে-তোমার ছবি।
রাত-দুপুরে ট্রেনে করে
তোমার স্মৃতি খুঁজে ফিরে-
যত্নে রাখা ক্ষত।
জেনো, তোমায় কেউ খুঁজেনা
আজও আমার মত।
আগলে রাখা শীতে,
তোমার পদ্মপাতা হতে;
জন্ম যেথা পায় যে ব্যাথা
মরনেরই হাতে।
আবার তবে সেই অভিলাষ,
খুঁজতে চায় পুরনো আবাস;
শিশিরেরা ঝরে পড়ে ঘাসের বুকে কত।
আজও আমায় কেউ বোঝেনা
করে তোমার মত।
একটি ধবল বক আর একটি সাদা চাঁদ-
অল্প কিছু জোনাক- অপূর্ণ কিছু সাধ
যদি না হয় পূরণ? যদি না হয়
পূর্ণিমাতে ছায়ার অকাল বোধন?
তবে চোখের জলে চোখ রাখিব-
গুনব দিবস তত,
পদ্মপাতায় জল রাখিতে লাগবে সময় যত।

৭ thoughts on “দূর্বা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *