তুই,তোর রাগ,তোর ঠোটের বাকা চাঁদ।

তবু যদি তুই বলিস…
আমি থাকব দাড়িয়ে সেখানটায়…
যেখানে তোর স্মৃতির সুবাস তাড়িয়ে বেড়াবে আমায়…

কখনো হাসাবে…
কখনো কাদাবে…
কখনো হঠাৎ কণ্ঠে বেজে উঠবে কোন বিশেষ গানের সুর…

আমি থমকে দাড়িয়ে যাব দেখে দূরের একটা চিরচেনা ছায়া,



তবু যদি তুই বলিস…
আমি থাকব দাড়িয়ে সেখানটায়…
যেখানে তোর স্মৃতির সুবাস তাড়িয়ে বেড়াবে আমায়…

কখনো হাসাবে…
কখনো কাদাবে…
কখনো হঠাৎ কণ্ঠে বেজে উঠবে কোন বিশেষ গানের সুর…

আমি থমকে দাড়িয়ে যাব দেখে দূরের একটা চিরচেনা ছায়া,
চেয়ে আছে তার মনিব আমার দিকে,
মুখে নিয়ে অপূর্ব এক মায়া,
সে মায়ারে মুগ্ধ আমি,
মুগ্ধ অন্তঃপুর।

এগিয়ে আসবি আমার কাছে…
কাছে এসে গাল ফুলিয়ে ঠোট ফুলিয়ে বলবি অনেক কিছু…

আমি শুধু দেখব তোকে চেয়ে…
রাগলে তোকে আমার ভীষণ ভালো লাগে,
এর জন্য কান ধরাবি তাতেও আমি রাজি,
নীল ঐ নয়নে চেয়ে…
নিজেকে ধরতে পারি বাজি।
শেষে তোর ঠোটের কোণের একটা বাকা চাঁদ,
বাডিয়ে দেবে আমার শত বছর বেচে থাকার স্বাদ।

এ হাতে রাখবি যখন পুষ্পপত্র হাত,
চাইব… এভাবে তোকে পাশে রেখে কাটাতে
জীবনের বাকি সব দিন রাত।

২ thoughts on “তুই,তোর রাগ,তোর ঠোটের বাকা চাঁদ।

  1. লেখা ভালো হয়েছে ,তবে
    লেখা ভালো হয়েছে :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :বুখেআয়বাবুল: ,তবে বানানগুলোর ভুল চোখে লাগছে :মাথাঠুকি: :আমারকুনোদোষনাই: … ঠিক করে দেন… :দেখুমনা: :অপেক্ষায়আছি:

    আরও ভালো কিছুর প্রত্যাশায়… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :অপেক্ষায়আছি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *