মরতে হলেও কপাল লাগে

দেশে আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে গেছে। মানুষ কি করে এতো সুন্দর পৃথিবী থেকে জোরপুর্বক বিদায় নেয় বুঝিনা।দুদিন আগে আমাদের পাশের বাসার একটা মেয়ে আত্মহত্যা করল। এর কিছুদিন আগে একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলে-মেয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিল। আজ খবরে দেখলাম, একসঙ্গে ঘর বাঁধার স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন প্রেমিক-প্রেমিকা।তাদের বাড়ি চট্রগ্রামে।

আত্মহত্যাই কি সবকিছুর সমাধান? বুঝিনা আমি।

ম্যাক্সিম গোর্কি আত্মহত্যার চেষ্টা করে বেঁচে গেলে তাঁর এক বন্ধু রসিকতা করে বলেন, ‘কী হে, ঈশ্বরের কাছে তো প্রায় চলে গিয়েছিলে, তা তিনি কী বললেন?’

দেশে আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে গেছে। মানুষ কি করে এতো সুন্দর পৃথিবী থেকে জোরপুর্বক বিদায় নেয় বুঝিনা।দুদিন আগে আমাদের পাশের বাসার একটা মেয়ে আত্মহত্যা করল। এর কিছুদিন আগে একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলে-মেয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিল। আজ খবরে দেখলাম, একসঙ্গে ঘর বাঁধার স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন প্রেমিক-প্রেমিকা।তাদের বাড়ি চট্রগ্রামে।

আত্মহত্যাই কি সবকিছুর সমাধান? বুঝিনা আমি।

ম্যাক্সিম গোর্কি আত্মহত্যার চেষ্টা করে বেঁচে গেলে তাঁর এক বন্ধু রসিকতা করে বলেন, ‘কী হে, ঈশ্বরের কাছে তো প্রায় চলে গিয়েছিলে, তা তিনি কী বললেন?’
গোর্কি মৃদু হেসে বলেন, ‘ঈশ্বর বললেন, আরেকবার চেষ্টা কর।’
বলাই বাহুল্য, গোর্কি দ্বিতীয়বার আত্মহত্যার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন :পার্টি: ।

এক লোক আত্মহত্যা করতে গিয়ে অনেকবার ব্যর্থ হয়েছে।
এইবার সে ঠিক করল একদম কোমর বেঁধে নামবে। বাজারে গিয়ে এক
বোতল বিষ, এক টিন কেরোসিন, একটা পিস্তল, একটা দড়ি, একটা ম্যাচ কিনল।
এইসব কিনে সে চিন্তা করল বিষ খাবে, গায়ে আগুন ধরাবে, দড়িতে ঝুলবে,
আবার পিস্তল দিয়ে মাথায় গুলি করবে। লও ঠ্যালা! নির্জন এক পুকুর পাড়ে গেল
সে। প্রথমে গাছে উঠল। গলায় দড়িটা বেঁধে, গায়ে কেরোসিন দিল, তারপর বিষটা খেয়েই
গায়ে আগুন দিল। এরপর হাতে পিস্তল নিয়ে গাছ থেকে ঝুলে পড়ল। দড়িতে ঝুলতে ঝুলতে পিস্তল
দিয়ে মাথায় গুলি করতে গিয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট হল। দড়িতে গুলি লেগে দড়ি কেটে গেল।
সে গিয়ে পড়ল পানিতে। আগুন গেল নিভে। অতিরিক্ত পানি খেয়ে বিষক্রিয়া নষ্ট
হয়ে গেল। মরতে পারল না এবারও। :মাথানষ্ট:

মরতে হলেও কপাল লাগে :মাথাঠুকি:

২ thoughts on “মরতে হলেও কপাল লাগে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *