অগ্নিপরীক্ষা

ঘৃত-অগ্নি দুই’ই আছে-
দক্ষ যজ্ঞের অপেক্ষায়।
পতঙ্গসম হৃদয় আমার,
সব জেনেও ছুটে যায়।

নদীর সাথে ছুটে চলে- চাঁদ;
অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ-
মন তো বলেই দিয়েছে-
ক্ষতি কি? যদি ভাঙ্গে বাঁধ



ঘৃত-অগ্নি দুই’ই আছে-
দক্ষ যজ্ঞের অপেক্ষায়।
পতঙ্গসম হৃদয় আমার,
সব জেনেও ছুটে যায়।

নদীর সাথে ছুটে চলে- চাঁদ;
অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ-
মন তো বলেই দিয়েছে-
ক্ষতি কি? যদি ভাঙ্গে বাঁধ
নদীর জলের, গুনবে প্রমাদ।

কম্পাস নাও, বৃত্ত আঁক;
বৃত্তের মাঝে ঢুকে পড় বিন্দু হয়ে-
শাঁখচিল সেই ঘিরেছে বিন্দু-
ডানা ঝাপটে,সোনালী ডানা-
রোঁদের আঁচড় না লাগে আর-
শুভ্র বকের নরম গায়ে।

হিয়া খান্ডব হয়েছে বহুবার-
বহুবার হয়েছে কৃষ্ণচূড়ার ফুল।
সিক্ত শ্রাবণে খুঁজেছে বসন্ত-
কত কতবার ভুলে গিয়েছে মন;
ভুলে গিয়েছে কতখানি ভুল।

হয় যদি হয় এবার- শেষবার;
শেষবারেও যদি জ্বলে যাই-
আরেকটি প্রলয়ংকরী দক্ষ যজ্ঞে;
তবে বলে যাই, কখনোই আর-
হবেনা গাওয়া পাতা কুড়ানির গান;
হবেনা মরুতে গড়া ফুলের বাগান।

এই মাত্র কবিতাটি লিখলাম। আমার জীবনে লেখা সবচেয়ে প্রিয় কবিতা হয়ে গেছে এটি। আর প্রিয় জিনিষ প্রিয় মানুষকেই দিতে হয়। তাই কবিতাটা-
তোমায় দিলাম- অনিন্দিতা

২৩ thoughts on “অগ্নিপরীক্ষা

    1. কবিতাটা ছন্দময় কিন্তু মোটেও
      কবিতাটা ছন্দময় কিন্তু মোটেও সহজ না। 🙂

      নদীর সাথে ছুটে চলে- চাঁদ;
      অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ-
      মন তো বলেই দিয়েছে-
      ক্ষতি কি? যদি ভাঙ্গে বাঁধ
      নদীর জলের, গুনবে প্রমাদ।

      এই ৫ লাইনের ব্যাখ্যা দাও তো জয় 🙂

      1. নদীর সাথে ছুটে চলে
        নদীর সাথে ছুটে চলে চাঁদ;——- নদীর প্রতি তীর থেকেই তো চাদ দেখা যায়। দু:খের সাথে যেমন চাঁদ হেটে বেড়ায় তেমন ।

        অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ—– প্রেম তো শুধু নিয়ম ভেঙ্গেই চলে, সকল সূত্রকে ভুল করে দেয় এই প্রেম।

        মন তো বলেই দিয়েছে-
        ক্ষতি কি? যদি ভাঙ্গে বাঁধ
        নদীর জলের, গুনবে প্রমাদ।—— এখানে বিচ্ছেদের কথা বলেছেন, যদি সেই প্রেমের মানুষটির ব্যবহারে যদি মন ভাঙ্গে তো ভাঙ্গুক। সেই নদীর জল অর্থাৎ প্রেমের মানুষটির কথা ভেবেই সময় কাটানো যাবে। তার কথা ভেবেই পাগলামি করা যাবে। তাকে নিয়ে নেশার ঘোরে আবোলতাবোল বলা যাবে।

        কি হয়নি তাই না? 🙁 ব্যর্থ একটা প্রয়াস।
        আমি কবিতা খুব কম বুঝি তো।
        সঠিক ব্যক্ষাটা দিয়েন।

    1. নদীর সাথে ছুটে চলে- চাঁদ;==
      নদীর সাথে ছুটে চলে- চাঁদ;== আমি ভাবতেসি সে আমার সাথেই আছে, তাকে ভালবাসছি
      অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ-==আসলে কিন্তু সে আমার সাথে নেই বৈজ্ঞানিক ভাবে। তাই এটা অবৈজ্ঞানিক প্রেমের আবাদ
      মন তো বলেই দিয়েছে-
      ক্ষতি কি?== কিন্তু মন তা মানতে চাইছেনা
      যদি ভাঙ্গে বাঁধ
      নদীর জলের, ==যদি বড় ধরনের বিপত্তি ঘটে কখনো ভালবাসতে গিয়ে
      , গুনবে প্রমাদ।= তখন কোন দিকে যাবে কুল পাবেনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *