আর কত রক্ত দিতে হবে ?

আবারও শিবিরের হামলার শিকার হলেন গণজাগরণ মঞ্চের একজন কর্মী। প্রায় ১০ ঘণ্টা আগে রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলের সামনে আরিফ নূর নামের এই কর্মী হামলার শিকার হন।

আরিফ নূর


আবারও শিবিরের হামলার শিকার হলেন গণজাগরণ মঞ্চের একজন কর্মী। প্রায় ১০ ঘণ্টা আগে রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলের সামনে আরিফ নূর নামের এই কর্মী হামলার শিকার হন।

আরিফ নূর

জানা যায় উদীচী শিল্পগোষ্ঠীর সদস্য আরিফ নূর হার্টের রোগী ছিলেন। হার্টে তিনটি ব্লক নিয়েও স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী এই ব্যাক্তি স্লোগানে মুখর ছিলেন… প্রশ্ন হচ্ছে, আর কত? আর কত রক্ত দিতে হবে এদের? তন্ময়, ত্বকী, দ্বীপ, আরিফের মত আর কত মুক্তিযুদ্ধের চেতনাধারীদের এদেশের শত্রুদের কাছে হার মানতে হবে? আজ আরিফ হামলার শিকার হয়েছেন, কাল আপনাকেও কোপানো হবে…

এর সমাধান কি আমি জানিনা… আর কত এভাবে দেশকে ভালবাসার অপরাধে অমানবতা প্রতিষ্ঠা পাবে… আপনি কি জানেন? জামাতিরা কি এতে করে আরও বেশি সাহস পেয়ে যাচ্ছে না?

আরিফ নূরের বর্তমান অবস্থা

এই প্রসঙ্গে একটা ঘটনা শেয়ার করি। কয়েকদিন আগে এক কাজে এক লোকের সাথে আমার পরিচয় হয়। ভালই মনে হল লোকটার সাথে কথা বলে। অত্যন্ত মিষ্টিভাষী আর অমায়িক। দিন যায়, লোকটাকে কেমন যেন মনে হতে থাকে, আমি সেই কাজটির সুত্র ধরে লোকটির কাছে কিছু অর্থ পেতাম। সে আমাকে টাকাটা দিচ্ছিল না, আমি অনেকবার চাইলাম। শেষমেশ বাধ্য হয়ে রাগারাগিও করলাম। এবার থলের বেরাল বেরিয়ে এলো। দাড়িওয়ালা এই লোক আমাকে জামাত-শিবিরের হুমকি দিল। আমিতো হেসেই কুল পাই না। কিন্তু জামাত-শিবিরেরা যে কত শক্তিশালী আর সুগঠিত তা টের পেলাম যখন দেখলাম লোকটা আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধুটিকে খুঁজে বের করে আমাকে সাবধান করে দিতে বলেছে। দেখুন তাহলে কি অবস্থা এদের। মানুষকে ঠকিয়ে আবার ধর্মের নামে এক রাজনৈতিক দলের ক্ষমতার হুমকি দেয়। এদের সৃষ্টিকর্তা কি এসব করতে বলেছেন? আমি যতদূর জানি কোন ধর্মই তো খারাপ কাজ করতে বলেনা। তাহলে এরা কি আসলেই মুসলিম? মিথ্যাচারের লিমিট কি জিনিস এটা এরাই আমাদের দেখিয়েছে।

এভাবেই জামাত শিবির ধর্মকে অস্ত্র বানিয়ে আপনাকেও কোপাবে কোন এক রাস্তার পাশে। আরিফ, ত্বকীদের নির্মম সহিংসতার শিকার হতে হবে। খুঁজে দেখুন, ওদের ছাগুমার্কা পেজগুলোতে কি লিখে রেখেছে। প্রকাশ্যে হুমকি দেবার মতো করে লিখেছে, অনেকদিন নাস্তিক মরে না, শীঘ্রই মরবে…

দেশকে ভালোবাসা, স্বাধীনতার পক্ষে চিন্তা করা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হওয়া কি এতটাই অপরাধ? আর কত রক্ত দিতে হবে? বলতে পারেন কি?

২৬ thoughts on “আর কত রক্ত দিতে হবে ?

    1. ঠিক বলেছেন, খুবই কঠিন সময় পার
      ঠিক বলেছেন, খুবই কঠিন সময় পার করছি আমরা। ভাবুন একবার জামাত শিবির সমর্থিত সরকার এলে আমাদের কি অবস্থা হবে… :চিন্তায়আছি: :মনখারাপ: :ভাঙামন:

  1. যতদিন না পর্যন্ত ওই পাকি
    যতদিন না পর্যন্ত ওই পাকি জারজগুলার বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে সবকিছু বাজি রেখে হাতে হাত ও কাঁধে কাধ মিলিয়ে না দাড়াতে পারব, ততদিন ওই হায়েনারা একে একে পিছন থেকে আমাদের শেষ করতেই থাকবে। প্রশ্নটা হল, তন্ময়, ত্বকী, দ্বীপ, আরিফদের উপর এরকম হামলা দেখেও কি আমরা চোখ বুজে নিজেদের মধ্যে দলাদলি আর কামড়াকামড়ি করতে থাকব??? :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: আমাদের ঘুম কি ভাংবে না… :টাইমশ্যাষ: :টাইমশ্যাষ: :অপেক্ষায়আছি:

    1. কী জানি রাআদ ভাই?তবে ঘুম
      কী জানি রাআদ ভাই?তবে ঘুম ভাঙবো কেমনে?আমরা সবাই যে ফ্রিজিয়ামের থেকেও শক্তিশালী ঘুমের ওষুধ আর নাকে তেল দিয়া ঘুমাইতেছি!!!

    2. ঘুমটা ভেঙ্গে আমরা কি করতে
      ঘুমটা ভেঙ্গে আমরা কি করতে পারি বলেন… ওদের যে কি পরিমাণ একতা তা তো জানেনই, আমাদের এই একটা জিনিসের খুবই অভাব… :ভাঙামন: :ঘুমপাইতেছে: :ভাঙামন: :চিন্তায়আছি:

      1. যদি সত্যিই মুক্তিযুদ্ধের
        যদি সত্যিই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বুকে ধারন করে থাকি আমরা, তবে ঘুম ভাঙ্গলেই চলবে… তখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনাই আমাদের আবার ৭১রের মত এক করবে :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: … সমস্যাটা হল ঘুমটা ভাঙ্গবে কবে আর ভাঙ্গাবে কে?? :কনফিউজড: :কনফিউজড: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

  2. আশা করি পুলিশি তদন্তে
    আশা করি পুলিশি তদন্তে বদমাইশগুলা ধরা পড়বে। :অপেক্ষায়আছি:
    তবে ঘটনাটা খুবই আশংকাজনক। :চিন্তায়আছি: :চিন্তায়আছি: :চিন্তায়আছি:

  3. কিছু কিছু প্রশ্ন থাকে যার কোন
    কিছু কিছু প্রশ্ন থাকে যার কোন উত্তর নেই। এটাও হয়তো তেমনই কোন প্রশ্ন।

    কিন্তু, আমার মাথায় ঘুরছে অন্য কিছু। এখন লীগের শাসনামলেই যদি তারা এতটা বীভৎস হামলা করতে পারে তাহলে ভবিষ্যতে বি.এন.পি. জামাত জোট আসলে পরিস্থিতি কী হবে? আমাদের একজনেরও কোন বেঁচে থাকার নূন্যতম সম্ভাবনা থাকবে তখন?

      1. এতোটা সোজা যদি নাই হবে, তাহলে
        এতোটা সোজা যদি নাই হবে, তাহলে প্রশ্ন থাকল, রাজীব – দীপ – তুহিন – তন্ময় – রুহুল আমিন – আরিফ নূর এর রক্ত ঝরল। আমরা অনলাইনে দু’চার’পাঁচটা লাফ দেয়া ছাড়া কী করলাম?

        1. আন্দোলন করবেন সন্ত্রাসীদের
          আন্দোলন করবেন সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আর সেখানে রক্ত দেখলে ভয় পাবেন তা তো হতে পারে না! রক্তপাতে এতো ভয় পান কেন?

    1. কেন আপনার এমন মনে হল
      কেন আপনার এমন মনে হল কালবৈশাখি সাব… যদি ওরা মারতে আসেই(আসবে তা জানি),তবে আমরা এতো সহজে ছেড়ে দেব তা কি করে ভাবলেন… :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: একেবারে নিশ্চিহ্ন না করে মরব না… 😀

      1. হ্যাঁ, তা ঠিক। আঘাতটা যখন
        হ্যাঁ, তা ঠিক। আঘাতটা যখন একেবারে অস্তিত্বের ওপর আসে তখন আমরা জানপ্রাণ দিয়ে প্রতিহত করি। কিন্তু, কী জানেন? বাঙালি বড্ড শ্লথ জাতি। একেকটা স্বৈরশাসককে দূর করতে তার দশ বছর করে লাগে (আইয়ুব, এরশাদ ) যতদিনে আমরা প্রত্যাঘাত করতে শিখব, ততদিনে না ওরা আমাদের মেরুদণ্ডই ভেঙ্গে দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *