ফেলানি হত্যার বিচার পরবর্তী আমার তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া

আধিপত্যবাদী কথিত বৃহৎ গণতন্ত্রের দেশ ভারতের, আইনের শাসনের নমুনা এই !?!?! ফেলানি হত্যার আসামী বিএসএফ সদস্য অমিয় ঘোষকে খালাস দিয়ে ভারত প্রমাণ করলো সে খুনীদের আশ্রয় স্থল !!!

ফারাক্কা বাঁধ নির্মাণ করে এই ভারত উজানে বয়ে চলা পানির স্বাভাবিক গতি রুদ্ধ করে আমার দেশের অসংখ্য নদী শুকিয়ে মেরে ফেলেছে । এই ভারত তিস্তার পানি বণ্টনে ন্যায্য চুক্তি করতে তাল বাহানা করে যাচ্ছে, আর দোষ চাপাচ্ছে মমতার উপর । যেন মমতা ভিনগ্রহের কেউ । এইসব পলিটিক্স আমরা বুঝি । প্রতিদিন সীমান্তে আমাদের অসহায়, দরিদ্র নাগরিক মরছে বিএসএফ এর গুলিতে । অথচ এ দেশের সরকার এর কোন সমাধান করতে পারছেনা ।


আধিপত্যবাদী কথিত বৃহৎ গণতন্ত্রের দেশ ভারতের, আইনের শাসনের নমুনা এই !?!?! ফেলানি হত্যার আসামী বিএসএফ সদস্য অমিয় ঘোষকে খালাস দিয়ে ভারত প্রমাণ করলো সে খুনীদের আশ্রয় স্থল !!!

ফারাক্কা বাঁধ নির্মাণ করে এই ভারত উজানে বয়ে চলা পানির স্বাভাবিক গতি রুদ্ধ করে আমার দেশের অসংখ্য নদী শুকিয়ে মেরে ফেলেছে । এই ভারত তিস্তার পানি বণ্টনে ন্যায্য চুক্তি করতে তাল বাহানা করে যাচ্ছে, আর দোষ চাপাচ্ছে মমতার উপর । যেন মমতা ভিনগ্রহের কেউ । এইসব পলিটিক্স আমরা বুঝি । প্রতিদিন সীমান্তে আমাদের অসহায়, দরিদ্র নাগরিক মরছে বিএসএফ এর গুলিতে । অথচ এ দেশের সরকার এর কোন সমাধান করতে পারছেনা ।

কিন্তু ঠিকই পদ্মার ইলিশ, রাজশাহী সিল্ক, ঢাকাই জামদানী তে বছরে কয়েকবার সোনিয়া, মমতারা আপ্যায়িত হচ্ছেন ! পা চাটা সরকার পারে বাংলাদেশকে ভারতের উন্মুক্ত বাজারে পরিণত করতে । পারে ওদের অখাদ্য টি ভি স্যাটেলাইট চ্যানেলের অবাধ প্রবেশাধিকার দিতে । পারে সীমান্তের সবকটা করিডোর খুলে দিতে বা খুলে দেওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে থাকতে ।

কিন্তু পারেনা আকাশসম বাণিজ্য ঘাটতি দূর করে সমান সমান অংশিদারিত্ব নিশ্চিত করতে । পারেনা সীমান্তে বি এস এফ এর গুলি বন্ধ করতে । পারেনা ভারতের দাদাগিরী, খবরদারী, প্রচ্ছন্ন হুমকির কার্যকর জবাব দিতে ।

নতজানু সরকার তোমাকে বলছি শোনো, ফেলানি হত্যার সঠিক বিচারের জন্য যতো ধরণের কূটনৈতিক তৎপরতা দরকার চালাও । অথর্ব পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কে সক্রিয় করতে ও চালাতে আশু ব্যবস্থা গ্রহণ কর । আমরা দল, মত, পথ নির্বিশেষে এই হত্যার ন্যায় বিচার চাই !

ভারতীয় আধিপত্য নিপাত যাক ! মানবতা মুক্তি পাক !

৩৩ thoughts on “ফেলানি হত্যার বিচার পরবর্তী আমার তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া

    1. নাভিদ আপনাকে ধন্যবাদ !
      সবশেষে

      নাভিদ আপনাকে ধন্যবাদ !
      সবশেষে আমার লেখার স্লোগানে মানবতা মুক্তি পাক প্রাসঙ্গিক । তাই সম্পাদনা করে দিলাম ।

  1. দুপুরে খবরটা দেখেই মাথা দুলে
    দুপুরে খবরটা দেখেই মাথা দুলে উঠলো। কিছুদিন আগেও ফেলানী হত্যার বিচার শুরু করায় ভারতের গুণকীর্তন করে ফেবুতে স্ট্যাটাস ঝাড়ছিলাম। এখন ভারতের পল্টি দেখে নিজেই বেকুব বনে গেলাম। এক্কেবারে বেকসুর খালাস! সত্যিই, আমরা দিন দিন ভারতের পা চাটা কুত্তা হয়ে যাচ্ছি। এই দেশের প্রতি ভারতের এতো অত্যাচার দেখেও যারা ‘ভাদা প্রেমী’ সেজে বসে থাকে, ঐসব দলকানার জন্যও রইলো কয়েক টন থুথু।

    ভারতীয় আধিপত্য নিপাত যাক !
    মানবতা মুক্তি পাক !

    1. ইলেকট্রন ভাই, আপনার মন্তব্যে
      ইলেকট্রন ভাই, আপনার মন্তব্যে মনে হচ্ছে আপনি গড্ডালিকা প্রবাহে গা ভাসিয়েছেন। রাহাত ভাইয়ের পোস্টটা কিন্তু সেই প্রবাহে গা ভাসানো মানুষদের জন্য না। এখানে অনেক চিন্তা করার বিষয় আছে। শুধু থু দিয়ে যদি ভাবেন, যে “যাক কাজ শেষ” == তাহলে বুঝে নিতে হবে আমাদের দেশটাকে আরও কিছুদিন ইন্ডিয়ার শোষণের শিকার হতে হবে।

  2. আমরা এই প্রহসনের রায় মানিনা,
    আমরা এই প্রহসনের রায় মানিনা, মানবো না ।ন্যায় বিচারের স্বার্থে বাংলাদেশ সরকারকে দ্রুত আশু পদক্ষেপ গ্রহণের দাবী জানাই ।

  3. এই প্রথমবারের মতো যখন কোন
    এই প্রথমবারের মতো যখন কোন সীমান্ত হত্যাকাণ্ড আদালতে গড়ালো আমরা আশাবাদী হয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের প্রত্যাশায় কালিমা লেপন করে আরও একবার হত্যা করা হলো ফেলানীকে। হত্যা করার লাইসেন্স দেয়া হলো ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকে। এটা কোন ভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

  4. আবেগী কথাবার্তা!
    মূল বিষয়ের

    আবেগী কথাবার্তা!
    মূল বিষয়ের বাইরে ভারত বিরোধীতাই প্রধান হয়ে উঠেছে!
    বেকুসুর খালাস কোন কোন কারনে হতে পারে জানাবেন…
    আর শাস্তিই যদি বাধ্যতামূলক হয় তাহলে বিচারের প্রয়োজন আছে কি?
    আইনী বিশ্লেষন চাই, পল্টনের ভাষন চাই না

    1. ভারতীয় দালালদের কথার কোন
      ভারতীয় দালালদের কথার কোন উত্তর দেওয়ার ইচ্ছে আমার নেই ।
      আপনার আবেগ আপনার পেয়ারের ভারতের কাছে বন্ধক রেখে এসেছেন
      বলে এ দেশের সবার আবেগ ওখানে জমা আছে ভাবছেন নাকি ?

        1. অমিত,
          ভারত আমাদের প্রতিবেশী

          অমিত,
          ভারত আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র হিসেবে না । মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান প্রত্যেক বাঙালির চিরদিন স্মরণে রাখতে হবে । কিন্তু তাই বলে দেশের, দেশের মানুষের স্বার্থ না ভেবে অন্ধ ভারত
          প্রেম আর পাকিস্তান – জামাত প্রেম একই কথা । আমার কাছে সবার আগে আমার দেশের
          স্বার্থ অনেক বড় । আওয়ামী সমর্থনের নামে ভারত প্রেম অনেক দেখেছি । কই ভারত তো তার হিস্যা ষোল আনা বুঝে নিতে একটুও ছাড় দেয় না । তাদের জাতীয় ইস্যুতে তাদের দেশের ডান – বাম -মধ্য ডান দলের মধ্যে এবং ভারতীদের মধ্যে কোন বিভক্তি নেই । কিন্তু এই আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে বিভিন্ন রাষ্ট্র তথা পাকিস্তান – ভারতী কেন্দ্রিক দালাল গিজ গিজ করে । আমি এদের দুই চক্ষে দেখতে পারি না । এদের কাছে ফেলানি ইস্যু কেবল মাত্র আবেগিও বিষয় হিসেবে ধরা পড়ে । বলি, এই আবেগ কি অন্যায় , অন্যায্য … ?

    2. ব্রহ্মপুত্র ভাই, আপনি হয় খুব
      ব্রহ্মপুত্র ভাই, আপনি হয় খুব বাস্তববাদী মানুষ অথবা চূড়ান্ত Pessimist. ব্লগে যারা আসে তাদের প্রতিবাদের অস্ত্র হল লেখনী। আর লিখিত প্রতিবাদে আবেগ তো থাকবেই।

  5. রবীন্দ্র নাথের দালালি করে
    রবীন্দ্র নাথের দালালি করে সকাল শুরু হয়ে সুনীল শরত্‍ আর পত্রীতে কেটে যায় প্রেমের প্রহর! অন্জন নচিকেতায় অলস দুপুর বুদ হয়ে রয় জগজিত্‍ আশা লতা বা হেমন্তে! মান্নার কফি হাউজে দালালি করে বিপ্লব করি ঘোষ চারু আর সুভাষ বোসের হাত ধরে! রাতে উত্তম সুচিত্রার পাছালি প্রেমিক মনকে প্রেয়সীর দালাল করে দেয়!
    এত দালালীর বেড়াজালের জীবন, অন্যরে দালাল কেমনে বলি?

    1. কথা সত্য। ক্যানসার তো আর সাধে
      কথা সত্য। ক্যানসার তো আর সাধে বলি নাই। কিন্তু তাই বলে কি এভাবেই চলবে? পরেরটা পড়ে দেখা যাবে এখন আমি বলি
      “LET’S KILL INDIAN CHANNELS!”

    2. ব্রহ্মপুত্র, আপনার সমস্যাটা
      ব্রহ্মপুত্র, আপনার সমস্যাটা বুঝলাম না। এইখানে রবীন্দ্র শচীন মান্নার কথা কেন আসলো? মূল টপিক নিয়ে কথা বললেই কি ভালো নয়? আমরা নিজেরাই নিশ্চিত নই আমাদের সংস্কৃতি সম্পর্কে। ভারতীয় অপসংস্কৃতি আমাদের দরকার নেই তো। ভালোবাসা থেকেই রবীন্দ্র শচীন শুনি। ঠিক টেন্ডুলকারকে যেমন সম্মান করি, শেবাগ কে তেমনি ঘৃণা করি। আপনি যদি এসবের দোহাই দিয়ে ফেলানী হত্যাকে অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে চান তাহলে সেটা নিয়ন্ত্রিত ভাবেই করুন, যাতে কেউ টের না পায়। গতকাল অনেকেই উত্তেজিত ছিলো। উত্তেজনার বশে এই ইস্যু নিয়ে আবেগী পোস্ট হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু আপনি প্রত্যেক পোস্টের সমালোচনা করে এসেছেন। হ্যাঁ, আমরা আবেগ দেখিয়ে অন্যায় করেছি। সুশীলদের মত আমাদেরও উচিত ছিলো টকশোতে যাওয়া, মহান নীতি বাক্য আওড়ানো, বিশ্ব আইনের শাসন নিয়ে হতাশা দেখানো, ভারতীয় সমালোচনা লিমিটের মাঝে করা, বিগত ৪২ বছরে ভারতের কাছ থেকে পাওয়া সাহায্য (!) ফ্লাশব্যাক করা আর এভাবেই আগামীতে আরো শত শত ফেলানী হত্যার লাইসেন্স তুলে দেয়া এইতো??

      আর রাহাত ভাই, গতকাল ঘুমের ঘোরে আপনার এখানে মন্তব্য করেছি। অন্যদের কাছে যেমনই লাগুক, আপনার পোস্ট আমার বরাবরের মতই ভালো লাগছে। আমরা পথে নেমে আসছিনা কেন? ইটস নট অ্যা ডেলিকেট ম্যাটার। উই হ্যাভ টু পানিশ দোজ সিলি এন্ড ইনহিউমেন মার্ডার। ইটস টাইম টু ফাইটব্যাক এন্ড এক্সপ্রেস আওয়ার সেলভস।

      মানুষ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে, পরাজিত হতে পারেনা।

      1. মানুষ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে,

        মানুষ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে, পরাজিত হতে পারেনা।

        আসলেই … :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :থাম্বসআপ: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

  6. পৃথিবীতে সম্ভবত আমরাই একমাত্র
    পৃথিবীতে সম্ভবত আমরাই একমাত্র জাতি, যারা স্বাধীন হবার জন্য এতটা রক্ত দিয়েছি।

    পৃথিবীতে সম্ভবত আমরাই একমাত্র জাতি, যারা স্বাধীনতার সময়কার বন্ধুদের ঋণ শোধ করতে স্বাধীন জাতি হয়েও এতটা রক্ত দিচ্ছি।

  7. কি আর বলব বলুন জাতি হিসেবে এই
    কি আর বলব বলুন জাতি হিসেবে এই ইন্ডিয়ান দের আরও আগে থেকেই ঘৃণা করি কিছু কারণে। আবার কিছু কিছু কারণে তাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ।

    কিন্তু এই কাজ ভারত ঠিক করে নি! দোষিকে শাস্তি প্রদানের মাধ্যমে ভারত পারতো এক নতুন মাইল ফলক স্থাপন করতে।
    কিন্তু হায়!!!

    দল মত নির্বিশেষে ফেলানি হত্যা মামলার সঠিক বিচার চাই।
    আর বাংলাদেশের বর্ডার গার্ড অফিসার রা বন্দুক কি শুধু মহড়া দেবার জন্য ব্যবহার করে??

  8. ভাই ইলেকট্রন
    আপনি এবং আপনারা

    ভাই ইলেকট্রন
    আপনি এবং আপনারা আবেগ দেখাইতে থাকেন তাতে অন্তত কিছু যদি হয়!
    যে জাতি স্বাধীনতা বিরোধীদের … ফালাইতে পারেনা, যে জাতি জনকের হত্যার বিচার করে ২১ বছর পর, যে জাতি জাতীয় নেতাদের বিচার করতে পারেনি, যে জাতি নিজ বাহিনীর হাতে খুন হয়ে যায় প্রতিদিন প্রতিরাতে, যে জাতির স্বাভাবিক মরনের গ্যারান্টি নাই, যে জাতির অধিকাংশ মানুষ দ্বিচারী, যে জাতির নিজের মননে পরিবারে সমাজে রাষ্ট্রে গনতান্ত্রিক পরিবেশ নাই, যে জাতি মুরগী কেনা ছাড়া বাকি সব বিষয়ে বিদেশ প্রেমী, যে জাতি আপাদমস্তক বিজাতীয়তায় ডুবে থাকে তাদের কেউ কেউ যখন হঠাত্‍ মরদ হয়ে যায় তখন আমি বিনোদিত হই। মনে পড়ে যায় আমিও ম্যারাডোনার বহিস্কারের প্রতিবাদে বাংলাদেশে মিছিল ভাংচুর করেছিলাম!
    ফেলানী হত্যার দায় বাংলাদেশের। অথচ আমরা গালি দেই ভারতকে। উদোর পিন্ডি বুদোর গাড়ে চাপানোর কাজে এ জাতি সীদ্বহস্ত। নিজ নাগরিককে অবৈধ অনুপ্রবেশ থেকে বিরত রাখা, সীমান্তের চোরদের আইনের আওতায় না আনা, সীমান্ত হত্যায় বিচার প্রক্রিয়া শুরু না করার দায় বাংলাদেশের। অথচ এই সমস্যার মূলে না গিয়ে ভারতের পিন্ডি চটকানো হচ্ছে। হচ্ছে হোক, একই সাথে নিজেদের শুদ্বির কথা বলা হচ্ছেনা কেন? ভারতীয় চ্যানেল বন্ধ করার কথা বলা হয় কিন্তু ভারত সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ বন্ধ করার কথা বলা হয়না কেন? আমদানি করা পেয়াজ, না আনার কথা বলা যায় কিন্তু স্মাগলিং করে গরু, কাপড় চোপড় আনার বিরুদ্বে কিছু বলা হয় না কেন? চোরের মায়ের বড়া গলা ঠিকনা। বড় গলা করতে হলে আগে চুরি ছাড়তে হবে। না হয় ছুড়ি পরতে হবে…

    1. বাহ!! আমাদের উচিত ছিলো
      বাহ!! আমাদের উচিত ছিলো ফেলানীকে থাবড়াইয়া জন্মের শিক্ষা দেয়া? আর অমিয় উচিত কাজ করছে? গুলি করা কাঁটাতারে ৪ ঘন্টা ঝুলিয়ে রাখা হইছে মেয়েটাকে। এক গ্লাস পানিও খাইতে পারলোনা? ঠিকাছে, দায় আমাদের। ফেলানী চোর। দায় আমাদের। আমরা চোরের জাতি। দায় আমাদের। কিন্তু ঐ মেয়েটাকে এইভাবে মেরে ফেলা আপনারা কিভাবে সমর্থন করতেছেন। আমরা তো এখানে মানবতা জোর করে দেখাইতেছিনা। অটোমেটিক চলে আসতেছে!

      আর আপনার বর্ণিত অপরাধের বিচার আমরা করতে পারিনাই। তার মানে আমরা কোনো বিচার চাইতে পারবোনা? বিচার চাইলে সেইটা ন্যাকামি! বাহ! বাহ! বাহ!

      ধরেন, কোনো এক কুত্তা আমারে কামড়াইয়া পালাই গেল। ঐ কুত্তারে আমি কিছুই করতে পারিনাই। তাহলে, অন্য সব কুত্তা এইবার আমারে কামড়াক! নব্য কুত্তাদেরও আমি শাস্তি দিতে পারবোনা। কারণ, আমি আগের কুত্তাকে শাস্তি দিতে পারিনাই। তাই এইসব কুত্তাকে কেন শাস্তি দিবো?

      এইটা আপনার যুক্তি? আমরা কোনো একটা অপরাধের বিচার করতে পারিনাই বলে আমাদের উপর কৃত অপরাধের লাইসেন্স দিয়ে দিচ্ছি???? স্যালুট আপনাদের!! :স্যালুট:

      1. কোনো এক কুত্তা আমারে কামড়াইয়া

        কোনো এক কুত্তা আমারে কামড়াইয়া পালাই গেল। ঐ কুত্তারে আমি কিছুই করতে পারিনাই। তাহলে, অন্য সব কুত্তা এইবার আমারে কামড়াক! নব্য কুত্তাদেরও আমি শাস্তি দিতে পারবোনা। কারণ, আমি আগের কুত্তাকে শাস্তি দিতে পারিনাই। তাই এইসব কুত্তাকে কেন শাস্তি দিবো?

        :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:

    2. অথচ এই সমস্যার মূলে না গিয়ে

      অথচ এই সমস্যার মূলে না গিয়ে ভারতের পিন্ডি চটকানো হচ্ছে। হচ্ছে হোক, একই সাথে নিজেদের শুদ্বির কথা বলা হচ্ছেনা কেন? ভারতীয় চ্যানেল বন্ধ করার কথা বলা হয় কিন্তু ভারত সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ বন্ধ করার কথা বলা হয়না কেন? আমদানি করা পেয়াজ, না আনার কথা বলা যায় কিন্তু স্মাগলিং করে গরু, কাপড় চোপড় আনার বিরুদ্বে কিছু বলা হয় না কেন?

      তাহলে আপনার কি মত?
      ১) রায় ঠিক আছে, আমরা হুদাই চিল্লাপাল্লা করছি?
      ২) আমরা সবাই চোর বাটপারের দল?
      ৩) সীমান্তে বি জি বি বসে বসে আঙ্গুল চুসছে?
      ৪) ভারতীয় চ্যানেল বন্ধ করার কথা বলতে হলে আগে ভারত সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ বন্ধ করার কথা বলতে হবে?

      একটা অন্যায়ের প্রতিবাদে সবাই কথা বলছে। হয়তো এই কথা বলায় কিছুই হবে না। কিন্তু এই ধরনের ঋণাত্মক মন্তব্য শুধু একটা জিনিষই হবে। আর সেটা হল – বিভক্তি। আপনি কি সেটাই চান?

      1. উনার কথা শুনে তো তাই মনে
        উনার কথা শুনে তো তাই মনে হচ্ছে, নাভিদ ভাই… :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: বিষয়টার মূলে না গিয়ে উনি চারপাশে চক্কর দিচ্ছেন… :মানেকি: :ক্ষেপছি:

        1. রাআদ ভাই, সবার কনসার্ন কিন্তু
          রাআদ ভাই, সবার কনসার্ন কিন্তু একটাই। সেটা হল বাংলাদেশ। ব্রহ্মপুত্র ভাই-ও আমাদের কিছু মূল সমস্যার কথাই বলেছেন। সেটা কি জানেন? সেটা হল জাতি হিসেবে আমরা সিরিয়াস না। মুখে অনেক কথাই বলি কিন্তু কাজের বেলায় কেউ নাই। সে হিসেবে উনার কথাও ঠিক। কিন্তু কথাগুলো মারাত্মক ঋণাত্মক! এটাই সমস্যা।
          আরে ভাই, আমরা তো ভালো কিছু করার চেষ্টাতেই আছি! ভুলভাল তো কিছু হবেই, সমস্যা কিছু রয়ে যাবেই। তাই বলে সরে গেলে কি হবে?

    3. বড় গলা করতে হলে আগে চুরি

      বড় গলা করতে হলে আগে চুরি ছাড়তে হবে। না হয় ছুড়ি পরতে হবে…

      আপনার কথা শুনে মনে হচ্ছে চোরাকারবারি শুধু আমার দেশের মানুষগুলো, ওইপারের স্মাগলার জানোয়ারগুলো পুরোপুরি ধোয়া তুলসী পাতা… :মানেকি: :মানেকি: :মানেকি: বড়ই আজব আপনাদের এই ভাদানীতি… :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি:

  9. ব্রহ্মপুত্র ভাই কিন্তু অনেক
    ব্রহ্মপুত্র ভাই কিন্তু অনেক কথায় ঠিক বলেছেন। আজ ভারত অন্যদেশ জন্যই আমারা এমন কঠিন প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারছি। আমার দেশের মাঝে যদি আইনের শাসন থাকত বা আমার রাষ্ট্রীয় ভাবে যদি নৈতিকতা নিয়ে গড়ে উঠতে পারতাম তাহলে অন্য রাষ্ট্র এই আচরণে সাহস পেত না।

  10. রাহাত ভাই
    -১) বাংলাদেশে কত

    রাহাত ভাই
    -১) বাংলাদেশে কত মেয়ে লাঞ্ছিত হয় প্রতি বছর? দিল্লির ঐ মেয়েটির মত এক বাঁধনও বাংলার রাস্তায় ধর্ষিত হয়েছিল! আমরা কি করেছি? পুরুষতান্ত্রিকতা বই লিখে কম পোশাকের মেয়েরায় দায়ী বলে… আজও শতশত নারী ধর্ষিত হয় প্রতিনিয়ত! কোন প্রতিবাদ কি করেছি আমরা? তাহলে কোন নৈতিক অবস্থান থেকে আপনি-আমি তাদের উপর আঙ্গুল তুলব!!
    -২) রোউমারিতে বছর দশেক আগে এক অপেরেশন বাঙলাদেশের আর্মি/বিডিআর ভারতীয় একটা পুরা ব্যাটালিয়ন ধ্বংস করে দিয়েছিল। জানেন কিনা জানি না… প্রাণহানি হয়েছিল ২০০+!! আমাদের দেশের পত্রিকায় ঐভাবে আসে নি… ভারতীয় মিডিয়াও তাদের ইগো সমস্যার কারণে এইসব প্রকাশ করে নি!! ভারতে মরলেও মানুষ আমাদের মরলেও তাই…
    সীমান্তে মানবতা লাঞ্ছিত এইটাই দুঃখের!!
    -৩) আবারও বলি ‘রাষ্ট্রীয় শাসন ব্যবস্থায় মানুষ কখনও স্বাধীন নয় কেননা স্বাধীন সমাজ ব্যাবস্থার অন্যতম প্রধান অন্তরায় হচ্ছে বর্ডার!! এইবার দেখি সীমান্তের মানুষদের স্বাধীনতা কেমন? গরু চুরি? ফেন্সিডিল পাচার? ইন্ডিয়ান কম দামী পন্য বাংলাদেশে এনে দেশীয় পন্যের বাজার নষ্ট করা এবং উচ্ছ মুনাফা করা? বাংলাদেশের তেল বা এমন পন্য যেসবের দাম এই পাড়ে কম ঐসব ঐপাড়ে পাচার অথবা বিপরীতভাবে রাষ্ট্রীয় স্বার্থবিরোধী কাজ করা? নারী এবং শিশুকে ব্যাপকহারে এইসব কাজে ব্যাবহার করা? পরিনামে বিএসএফ-বিজিবি’র আইনের অতিপ্রয়োগ অথবা অপপ্রয়োগ…
    -৪) কি অবাক করা কাণ্ড… তাহের পুত্র খুন করে রাষ্ট্রপতির ক্ষমা পেয়ে যান, বিশ্বজিতের হত্যার বিচার আজও হয় নি, হাজার হাজার ধর্ষিতা নারী আজও নির্বিচারে কাদে, কই কোন কিছুই তো আমরা করতে পারি নি! এমনকই আজও কিছু স্বীকৃত রাজাকারদের ফাঁসিতে ঝুলাতে পারি নি।। অথচ তারা একটা প্রহসনের বিচার করেছে বলে আজ বিদ্বেষের ঝড় বয়ে যাচ্ছে ফেসবুকে… এদিকে সানি লিওনের জামা দিয়ে মার্কেট ভরা, প্রথমে বাজারে গিয়েই ইন্ডিয়ান পন্য খুনে আমাদের বাড়ির মেয়েরা।
    -৫) তুমি অধম তাই বলে আমি উত্তম হইব না কেন? ১৯৭১-এর ১০ মাস যে সাপোর্ট দিয়েছে তার জন্য আমারা আমাদের কূটনৈতিক সৌজন্যতা আমারা দেখাবই… তারা যদি নিজেদের আত্মসম্মানবোধ নিজেরা নষ্ট করে তার জন্য আমরা আমাদের সরকারের প্রতি মাঊন্ট কেন হয় বুঝে আসছে না…
    -৬) বানিজ্য ঘাটতি কতটা কমেছে একটু পরিসংখ্যান দেখতে চাই, রাহাত ভাই…
    -৭) ‘নতজানু সরকার তোমাকে বলছি শোনো…’– এইটা যথেচ্ছাচার হয়ে গেল। এই প্রথম বাংলাদেশের জনগণের অতিপ্রয়োগকৃত আইনে মৃত মানুষের বিচার করছে ভারতীয় সরকার, আর বেকসুর খালাশ পাওয়ায় আজ আমরা তীব্র প্রতিবাদে ফেটে পরছি কিন্তু একবারও কি খেয়াল করে দেখেছি এইটাই মানবতার জয় যে সীমান্তের মৃত্যুর ব্যাপারে দুইসরকার কিছু একটা ভাবছে…

    রাহাত ভাই কথাগুলো এইজন্যেই বললাম যে, আপনার মহৎ উদ্যোগও ভুল পথে চলে যেতে পারে যা আপনার-আমার ভবিষ্যৎকে আরও ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলবে… খামোখা ভারতীয় বিদ্বেষের চুলোয় জ্বালানী দিয়ে লাভ নেই… এই ধারাবাহিকতায় যে অর্জনটা হবে পরবর্তীতে তার থেকেও বঞ্ছিত হবে বাংলাদেশ… আশাকরি বুঝতে পেরেছেন কই বলছি!!
    ভাল থাকবেন… মানুষ মরলেই আমি আহত হয় সে যেই পাড়েরই হোক না কেন…
    কেননা দুইপারের মানুষেরই সমান স্বপ্ন নিয়ে বেঁচে থাকা…

Leave a Reply to অঘূর্নায়মান ইলেকট্রন Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *