ভেঙে পড়ছে ইস্টিশন: আমার কিছু কথা

ছোট মুখে কিছু বড় কথা বলে ফেলি।

ইস্টিশন ভেঙে পড়বে শীঘ্রই


ছোট মুখে কিছু বড় কথা বলে ফেলি।

ইস্টিশন ভেঙে পড়বে শীঘ্রই

এখানে সংগত কারণেই একটা ভুল বোঝাবুঝি দেখা যাচ্ছে অনেক দিন ধরেই। এসব কিছুর অবসান করতে ইস্টিশন মাস্টারের পক্ষ থেকে একটা পোস্ট দিয়ে সব ক্লিয়ার করা হোক। সত্যিই একটা বিষয় খুব চিন্তা করার মত যখন গতকাল অনেক ভালো ভালো পোস্ট স্টিকি হয়নি। বিগত মাসে তারিক লিংকন ভাইয়ের কথা বলবো। অনেকেই তাকে নিয়ে বিতর্ক করেছেন। কিন্তু নিজের কাছেই দুঃখ লাগলো যখন তার কয়েকটি গবেষণা ধর্মী মৌলিক পোস্ট স্টিকি হয়নি। আমি এখানে কারো পক্ষে বা বিপক্ষে বলতে আসিনি। বলছিও না। কিন্তু যেই কয়দিন ইস্টিশনে আছি,দেখছি কিছু নির্দিষ্ট টাইপের ব্লগ স্টিকি করা হয়। যার ফলাফল হাতেনাতেই পাওয়া গেল-“এক রাশ বিতর্ক আর দলাদলি।” দলবাজি এখন ইস্টিশনেও ঢুকে গেছে। আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি কেউ কোনো সুনির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের অন্ধ ভক্ত হয়ে গেলে কোনোদিন তার কাছ থেকে ভালো পরামর্শ আশা করা যায়না।

ইস্টিশনে স্বভাবতই ভিন্ন মতের ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গীর মানুষ থাকতে পারে কারণ এইটা মুক্ত ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে সবাই নিজের না বলা কথা গুলো বলবে। সেটা পছন্দ না হলে কেউ বিরোধিতা করবে। যুক্তি পাল্টা যুক্তি দিয়ে টপিক গুলো প্রাণবন্ত করে তুলবে। এখানে নিজস্ব দলীয় চিন্তা নিয়ে টানাটানি সমর্থনযোগ্য নয়। তাছাড়া এখানে পোস্ট স্টিকি কিসের ভিত্তিতে করা হয় জানিনা। কিন্তু আমি নিজেই অনেক মৌলিক পোস্ট কে স্টিকি হতে না দেখে দুঃখ পেয়েছি, তার চেয়ে বড় কথা সন্দেহ পোষোণ করেছি। এই জিনিস নিয়ে প্রায় প্রত্যেকদিন ব্লগে কোনো না কোনো বিতর্ক হচ্ছেই। কিন্তু আমায় যেটা সবচেয়ে বেশি হতাশ করেছে তা হল ইস্টিশন মাস্টারের নির্লিপ্ততা!

ইস্টিশনের মডারেশন প্যানেলের উপর আমার পরিপূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস আছে। এখানে এক বিন্দু পরিমাণ ঘাটতি নেই। ইস্টিশনে আমরা সবাই একটা পরিবারের মতই। ভুলে গেলে চলবে না যে, আমরা সবাই সংঘবদ্ধ হয়ে সত্যের তলোয়ার আইডি টি ব্যান করিয়েছি। আবার আমরা সবাই সংঘবদ্ধ ভাবেই ভিন্ন ভিন্ন মতামত অনেক দিন যাবৎ এই ব্লগে প্রকাশ করছি। এখানে আমাদের কোনো প্রাপ্তি নেই। আছে এক বুক সন্তুষ্টি। তাই, কিছুটা সময় বাবার পকেটের টাকা খরচ করে ব্লগিং করলেও আমাদের এক বিন্দু খারাপ লাগে না। আমাদের তুষ্টি খুবই অল্পতে। আমরা সাধারণ আমজনতা বলে এমনিই নিজের মত প্রকাশ করতে পারিনা। মডারেশন প্যানেল আমাদের এই সুযোগ করে দিয়েছে। আমরা নিজেদের সসীম জ্ঞান দিয়ে অসীম কিছু ব্যাখ্যা করার প্রয়াস পেয়েছি। হোক সেটা ঠিক কিংবা ভুল। পেয়েছি কিছু ভার্চুয়াল বড়ভাই, আর ছোটভাই। তাই আমাদের কৃতজ্ঞ না হয়ে উপায় নেই। কিন্তু প্রায় সবাই যখন একতাবদ্ধ হয়ে ইস্টিশন মাস্টারের হস্তক্ষেপ কামনা করছে তখন তিনি উধাও! তার নিজের হাতে গড়া ব্লগকে তিনি কামড়াকামড়ি মুক্ত করতে এগিয়ে আসছেন না দেখে আমি অবাক হচ্ছি। বাংলা ব্লগে এই কামড়াকামড়ি হচ্ছে অনেক দিন ধরে। বিশেষ করে আমারব্লগের উদাহরণ দেয়া যায়। এই একই নিকে আমার একটা আইডি ছিল আমারব্লগে। কিন্তু ঐ ব্লগে যখন ঢুকতাম তখন নিজেকে ভদ্র মানুষ বলে মনে হত না। যেন একজন একজনের জনম জনমের শত্রু। বিশ্রী ভাষা প্রয়োগে সেখানে সবাই নিজের জন্মপরিচয় দিয়ে দেয়। আরেক টার্ম হল ট্যাগবাজি। আপনি যদি আস্তিকতা সমর্থন করে পোস্ট দেন তাহলেই আপনি ট্যাগের শিকার। অথচ আমার জানামতে অনেক আস্তিক আওয়ামী বিএনপি আছেন।

কেন ভেঙে পড়বে এই প্লাটফর্ম: ইতোমধ্যেই এই প্রশ্নের ব্যাখ্যা আমি প্রায় দিয়ে দিয়েছি। তাও বলছি। ইস্টিশন মাস্টার এই ব্লগের সৃষ্টিকর্তা। ইস্টিশন তারই সৃষ্টি। সেই সৃষ্টি নিয়ে কেউ প্রশ্ন তুললে অবশ্যই তার নিজের দায়িত্ববোধ থেকে এগিয়ে এসে সেই প্রশ্নের গ্রহণযোগ্য সমাধান দিতে হবে। কিন্তু আমি সেইক্ষেত্রে ইস্টিশন মাস্টারের কর্মকান্ড দেখে হতাশ হয়েছি। অলরেডি একটা স্টিকি পোস্টে আমি গালাগালির যথেচ্ছ ব্যবহার দেখে টাস্কিত হয়েছি যে মডারেশন প্যানেল এইসব ঋণাত্মক মন্তব্য মুছে ফেলছে না কেন!! যার ফলে সবার মাঝেই কোনো একটা নির্দিষ্ট ব্যাপারে সন্দেহ হওয়া আবশ্যক যে এই ব্লগের মূল দায়িত্বে কে আছেন, এবং তার সাথে গুটিকয়েক ব্লগারের সম্পর্কসূত্র আছে কিনা! যদি না থাকে বা যদি থাকে তবে ইস্টিশন মাস্টার নিজে এসে এই ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করুন ইস্টিশন কে। সত্যি বলতে কি প্রথম ব্লগ হিসেবে ইস্টিশনের প্রতি একটা টান থেকে গেছে। তাই অন্যান্য ব্লগ ছেড়ে দিলেও এখনো ইস্টিশনে পড়ে আছি। নিজের ক্ষুদ্র জ্ঞান দিয়ে একটু ভালো মন্তব্য করতে প্রয়াস পাচ্ছি। সেখানে আবার অন্য ব্লগারের তর্ক বিতর্কে সেটা আড্ডাখানা বলেই মনে হয়। খুব ভালো লাগে এসব। কিন্তু ব্লগের বর্তমান পরিস্থিতি খুবই নাজুক। পোস্ট খুব একটা বেশি পড়া হচ্ছে না কারোই। পোস্ট দেয়ার ক্ষেত্রেও আগ্রহ কমে গেছে সবার। মন্তব্যের কথা না ঈ বললাম। পুরনো নিয়মিত ব্লগাররাও যেন উধাও হয়ে গেছেন। ইস্টিশনের নিজের ইমেজ ধরে রাখতে নিজস্ব প্রয়াস প্রসংশনীয়। এখানে ছাগুবাদ টলারেট করা হয়না। তাছাড়া আরো অনেক কিছু। যা এই ব্লগকে নিঃসন্দেহে আরামপ্রদ করেছে। কিন্তু এই যে বারবার বলছি বিতর্কের অবসান চাই, প্রশ্নের যুক্তিযুক্ত জবাব চাই, নির্দিষ্ট নীতি নির্ধারনী ব্যবস্থা চাই, পোস্ট স্টিকিতে ব্লগারদের সমর্থন চাই, শিকল টানুন পেইজে ইস্টিশন মাস্টারের কাছে চাওয়া সাহায্যের রিপ্লাই চাই, ব্লগ নীতিমালায় নতুন ব্লগারদের অগ্রাধিকার চাই ইত্যাদি । এসব পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলেই ভালো হয়। নয়তো হয়তো এমন খারাপ ঘটবে যার জন্য কেউই প্রস্তুত থাকবেনা।

করণীয়: ব্লগের নির্মাতার চাইতে আমি কোনো কিছুই ভালো বুঝিনা।যারা এই ব্লগ তৈরী করেছে তাদের প্রতি সম্মান রেখেই কিছু দাবী পেশ করবো;সময়ের দাবী।
১। ইস্টিশন বিধির প্রয়োগ আরো কঠোর হবে এই আশা করছি। দেখা যাচ্ছে, প্রয়োগ ঠিকই আছে, কিন্তু তার বাস্তবায়ন হচ্ছে না। বা হলেও আমাদের চোখে পড়ছে না। তাই আমাদের চোখে পড়ার মত কোনো কর্মকান্ড আশা করছি।
২। পোস্ট স্টিকি নিয়ে অনেক ব্লগারই সন্দেহের মাঝে আছেন। আসলে এইটি স্পষ্ট নয়যে আসলে কিসের ভিত্তিতে পোস্ট স্টিকি করা হচ্ছে। অনেকেই অভিযোগ তুলেছেন যে কিছু নির্দিষ্ট ব্লগারের পোস্ট স্টিকি করা হচ্ছে। ইস্টিশন মাস্টারের নির্লিপ্ততা এই সন্দেহের পথ আরো বেশি ঘনীভূত করছে। এই সমস্যা বা বিতর্ক নিরসনে ইস্টিশন মাস্টারের পক্ষ থেকে সাময়িক উত্তর আশা করছি। দায়সারা নয়, সময়োপযোগী এবং যুক্তিযুক্ত উত্তর যাতে ব্লগারদের মাঝে হতাশা দূর হয়।
৩। প্রথম পেইজ নীতিমালা নিয়ে আগেও একটা পোস্টে আমি সহ আরো দুই একজন ব্লগার নিজস্ব মতামত দিয়েছিলাম। ঐসব মতামত গুলো হয়তো বা ইস্টিশন মাস্টারের চোখে পড়েছে। আমি বলছি না যে আমরা যাই বলছি তাই বাস্তবায়ন করা হোক। রাজদন্দ যার হাতে তিনিই এইসব পর্যবেক্ষনের দায়িত্ব ও যোগ্যতা রাখেন। শুধু আমার একটি অভিমত হল, যাতে কোনো ভিজিটর ব্লগে ঢুকে হতাশ না হয়। প্রয়োজনে ভালো পোস্ট গুলো প্রথম পেইজে স্টিকি করা হোক। ক্ষেত্র বিশেষে পোস্টের গুরুত্ব উপলব্দি করে দুই এর অধিক পোস্ট স্টিকি করা হোক। আর ক্যাটাগরি সিস্টেমের প্রয়োগ করা যেতে পারে। তাছাড়া অন্য কারো এই প্রথম পেইজের নীতিমালা নির্ধারণে মতামত থাকলে বলতে পারেন।
৪। পোস্ট স্টিকি করার ক্ষেত্রে ব্লগারদের মতামত বিবেচনা করা হোক। কোনো পোস্টে ব্লগারদের মন্তব্যের গুরুত্ব পর্যালোচনা করে পোস্ট স্টিকি করা হলেই ভালো। কারণ এতে কেউ হয়তো এই প্রশ্ন তুলবে না যে ইস্টিশনে নির্দিষ্ট ব্লগারদের পোস্ট স্টিকি করা হয়। দেখা যায়, অনেক ছোট খাট কথার গুরুত্ব বেশি হয় যায়, যা স্টিকি করার দাবী রাখে। ছোট একটি কথাও একটি জাতিকে নাড়িয়ে দিতে পারে। যেমন ধরুন,” এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।” তাই, এক্ষেত্রে ব্লগারদের মতামত জরুরী। পোস্ট স্টিকি করার ক্ষেত্রে মন্তব্যে ব্লগাররা পোস্ট স্টিকি করার দাবী জানবেন। তার মানে এই নয় যে, কেউ একজন বললেই পোস্ট স্টিকি করা হবে। এখানে মন্তব্যের গুরুত্ব ও ব্লগ পোস্টের গভীরতা ভার আমি ইস্টিশন মাস্টারকেই অনুধাবন করতে বলবো। তার প্রতি আমার বিশ্বাস আছে। কিন্তু, শুধু এই স্টিকির ক্ষেত্রে যদি অন্য ব্লগারদের মতামত নেয়া যায় তবেই মঙ্গল।
৫। ব্লগে গালাগালি বিষয়ে সুস্পষ্ট প্রতিবন্ধকতা চাই। যেখানেই গালাগালির সূত্রপাত হবে সেখানেই ইস্টিশন মাস্টারের হস্তক্ষেপ চাই। প্রয়োজনে বিতর্কিত পোস্ট ব্লগারদের মতামত অনুযায়ী ডিলিট করে অন্তত এই গালাগালি থেকে ব্লগকে মুক্ত করে সুন্দর ব্লগিং পরিবেশ সৃষ্টি করা হোক। তবে এখানেও ব্লগারদের মতামতের উপর ভিত্তি করে। স্বেচ্ছাচারিতা নিন্দনীয়।
৬। যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণে আগে ইস্টিশন মাস্টার একটি পোস্ট লিখে ব্লগারদের মতামত গ্রহণ করবে এইটাই কাম্য। ছাগুমুক্ত ব্লগিং এর ক্ষেত্রে এই নিয়ম খুবই প্রযোজ্য।
৭। প্রত্যেক মানুষের নিজস্ব দলীয় মতাদর্শ থাকতে পারে। তাই, দলীয় ভিত্তিতে ব্লগারদের মাঝে যাতে ব্যক্তিগত রেষারেষি সৃষ্টি না হয়। এক্ষেত্রে অন্য ব্লগারদের স্বউদ্যোগে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানাই। তবে ছাগুকে যেকোনো মুল্যে ব্লগ থেকে সর্বসম্মতি ক্রমে নক আউট করা হোক। মনে রাখতে হবে যে ছাগুবাদ কোনো রাজনৈতিক মতাদর্শ নয়, এইটা সম্পূর্ণ জঙ্গী মতবাদ যা ব্লগ ধ্বংস করে দিতে যথেষ্ট।

আরো বিভিন্ন টার্ম হয়তো এখানে কাজ করতে পারে। সেক্ষেত্রে ব্লগারদের আমন্ত্রন জানাচ্ছি নিজেদের মতামত প্রদান করতে। সর্বোপরি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ব্লগিং পরিবেশ আশা করছি। ইস্টিশনকে এই ভেঙে পড়ার হাত থেকে বাঁচাতে হলে আগে আমাদের ব্লগারদেরই এগিয়ে আসতে হবে। সমস্ত দ্বিধা দ্বন্দ্ব ভুলে আসুন, আমরা প্রানে প্রান মেলাই।

৮৬ thoughts on “ভেঙে পড়ছে ইস্টিশন: আমার কিছু কথা

  1. অলরেডি একটা স্টিকি পোস্টে আমি

    অলরেডি একটা স্টিকি পোস্টে আমি গালাগালির যথেচ্ছ ব্যবহার দেখে টাস্কিত হয়েছি যে মডারেশন প্যানেল এইসব ঋণাত্মক মন্তব্য মুছে ফেলছে না কেন!!

    কোন পুলিশ নিজেই ক্রাইম করলে নিজের বিরুদ্ধে নিশ্চয় কেইস নিবে না? (যদি না অতি সৎ হয়)

    1. আপনি মনে হয় ইস্টিশন মাস্টার
      আপনি মনে হয় ইস্টিশন মাস্টার কে চিনে ফেলে বেশ একটা আত্মতুষ্টিতে
      ভুগছেন ? সে যাহোক ইস্টিশন মাস্টার কে চিনলেন কি চিনলেন না সেই দিকে
      মনোযোগ কিছুটা কম দেওয়া সমীচীন নয় কি ?
      অফ টপিক – এতদিন ধইরা ব্লগিং কইরাও আমি তারে আজো চিনতে পারলাম না
      আর আপনি কতো সহজে চিনে ফেললেন … আপনাকে স্যালুট :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

        1. অমিত ভাই, কমেন্ট টা আরেকবার
          অমিত ভাই, কমেন্ট টা আরেকবার করুন। আর গুরুত্বপূর্ণ কমেন্টের ক্ষেত্রে স্ক্রিন শট নিয়ে রাখলেই ভালো।

          আসলে সন্দেহ হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু নিশ্চিত করে কিচ্ছুই বলা যায়না।

          1. ইলেকট্রন ভাই,এর আগে কমিউনিস্ট
            ইলেকট্রন ভাই,এর আগে কমিউনিস্ট পার্টির এক নেতার জবানবন্দি নিয়ে পোস্টেও ব্লগার চন্দ্রবিন্দুর কমেন্ট দু দুবার মুছে ফেলা হয়েছিল।এর মধ্যে একটি কমেন্ট ছিল যেখানে চন্দ্রবিন্দু এই মুছে ফেলা নিয়ে অভিযোগও করেছিলেন।কোনো সদুত্তর মনে হয় দেওয়া হয়নি।
            সব পরিচয়ের উর্দ্ধে থেকে সুন্দর ও মননশীল ব্লগই কাম্য।

          2. কমেন্ট মুছে ফেলার কোনো
            কমেন্ট মুছে ফেলার কোনো যৌক্তিকতা আছে? আমি ঠিকভাবে বুঝতে পারছিনা। ইস্টিশনে যদি এভাবেই বাক স্বাধীনতা রহিত করা হয়, তাহলে বাক স্বাধীনতার সমর্থনে রচিত পোস্ট স্টিকি করার কি অর্থ!! আমি কিচ্ছু বুঝতেছিনা। :মাথানষ্ট:

        2. অমিত,
          ঘটনাটা এই মাত্র দেখলাম

          অমিত,
          ঘটনাটা এই মাত্র দেখলাম । আমি একটা কমেন্ট করেছি ওই পোস্টে , পড়ে দেখতে
          পারেন । ” সে তুমি যতো বড় ব্লগার হও না কেন রাহাত মুস্তাফিজ সত্য বলতে ও নীতির প্রশ্নে আপোষ করেনা । ” আনিস রায়হান কেও সে ছেড়ে দেয় নি । এই ব্লগের পরিবেশ রক্ষা করার জন্য আমরা অনেকেই কাজ করে যাচ্ছি । সুতরাং কর্তৃপক্ষ যদি আমাদের কথার কোন মূল্য না দেয় সেটা এই ব্লগের জন্যই খারাপ দৃষ্টান্ত হবে । সবাইকে নিয়ন্ত্রিত আচরণ প্রদর্শনে আহ্বান জানাচ্ছি ।

    1. ইস্টিশন মাস্টারের পরিচয় আমি
      ইস্টিশন মাস্টারের পরিচয় আমি একদমই চাচ্ছিনা। পরিচয় অপ্রকাশিত থাকুক। কিন্তু তিনি অন্যান্য ব্লগারদের সন্দেহ দূর করছেন না কেন??

  2. ইস্টিশন মাস্টারকে জবাবদিহিতার
    ইস্টিশন মাস্টারকে জবাবদিহিতার মুখোমুখি করতে চাইনা। কিন্তু ইস্টিশনের স্বার্থে একটা গ্রহণযোগ্য ব্যাখ্যা চাই।

  3. ইস্টিশনে মৌলিক লেখা পড়ার
    ইস্টিশনে মৌলিক লেখা পড়ার পরিমাণ আসলেই কমে যাচ্ছে। নির্দিষ্ট কিছু লেখার প্রতি বিশেষ আগ্রহ আছে। যাহোক এখানে পাঠকের একটা বিশাল ভুমিকা আছে।

    আর ব্লগ কোন পুতু পুতু ভাবে কথা বলার জায়গা না। পারলে আপনি মার্জিত ভাবে সরাসরি বলেন। কে ইস্টিশন মাস্টার বা তিনি আওয়ামীলীগ, বিএনপি নাকি বাম এটা কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় না; বিষয় হচ্ছে তিনি তার পদের মূল্য রাখতে পারছেন কিনা।

    খুব বেশি রাগলে গালি আসতে পারে আর যার শব্দ ভাণ্ডার কম তার কথাতেই গালি বেশি চলে আসে। গালি না দিয়েও মার্জিত ভাষায় মনে হয় কথা বলা যায়।

    আর ভাই কিছু হইলেই ‘ইস্টিশন পরিবার’ এটাও একটা পুতু পুতু টাইপ কথা। আলোচনা সমালোচনা এরকম উত্থান পতনের মাধ্যমেই বল্গিং এগিয়ে যাবে।

    আরেকটি কথা কয়েক জন ব্লগার অভিযোগ করেছেন যে তাদের কমেন্ট ডিলিট করা হয়েছে, যদি সত্যিই এটা করা হয়ে থাকে তাহলে এই কাজের তীব্র নিন্দা জানাই। যদি প্যানা নিতে নাই পারেন তাইলে এই পথে পা বাড়াইছেন কেন।

    শেষ কথা বেশি আইন কানুন ভাল না। মেনে চললে ইস্টিশনের বর্তমান আইনই যথেষ্ট।

    1. আমার মূল লিখা ছিলো ‘স্টিকি
      আমার মূল লিখা ছিলো ‘স্টিকি পোস্ট বিতর্ক’। আমি এখানে মন্তব্যের সমালোচনার বিরোধিতা করিনি। সেই হিসেবে মনে হচ্ছে আপনি পুরো পোস্ট না পড়েই কমেন্ট করেছেন। যাই হোক, স্টিকি পোস্ট নিয়ে বিতর্কের অবসান ঘটাতে ইস্টিশন মাস্টারের হস্তক্ষেপ দরকার বলেই আমি মনে করি।

      1. আমি আপনার পোস্ট এবং তার
        আমি আপনার পোস্ট এবং তার প্রেক্ষিতে কমেন্ট গুলো পড়ে ওভার অল মন্তব্য করেছি। হয়ত বিষয় গুলো একবারে লিখছি জন্য আপনার কাছে এমন মনে হতে পারে। এই পোস্টে এবং তার প্রেক্ষিতে মন্তব্যের বাইরে আমি আলোচনা করেছি বলে মনে হয়না।

    2. ‘ইস্টিশন পরিবার’
      – আপনার

      ‘ইস্টিশন পরিবার’

      – আপনার কাছে মনে হতে পারে ‘ পুতুপুতু ‘ কিন্তু অনেকের কাছে এটা বন্ধনের প্রতিশব্দ ।
      তারমানে এই না আমারা একে অন্যের লেখায় সমালোচনা করি না । বরং অনেক বেশি করি শ্লীলতা, সুস্থতা
      বজায় রেখে । আমার মনে হয়না বিশেষ করে এই ব্লগের যারা নিয়মিত তারা কোন গ্রুপিং বা সিন্ডেকিটিজম এর সাথে জড়িত । তাই ইস্টিশন পরিবারে আমাদের ( নিয়মিতদের) অসুবিধা হচ্ছেনা ।

      1. অসাধারণ মন্তব্যের জন্য
        অসাধারণ মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ রাহাত ভাইকে। সমালোচনা গ্রহণযোগ্য তবে সেটা অবশ্যই সীমার মধ্যে। পরিবার শব্দের ব্যবহার আমার কাছে অবাঞ্চিত মনে হচ্ছে না।

        1. অঘূর্নায়মান ইলেকট্রন ভাই
          অঘূর্নায়মান ইলেকট্রন ভাই আমার মন্তব্য কোথায় সীমার বাইরে গেছে বলে আপনার মনে হল। দেখালে খুশি হব।

          1. ভুল বুঝেছেন। আপনি বলেছেন,
            আর

            ভুল বুঝেছেন। আপনি বলেছেন,

            আর ভাই কিছু হইলেই ‘ইস্টিশন পরিবার’ এটাও একটা পুতু পুতু
            টাইপ কথা। আলোচনা সমালোচনা এরকম উত্থান পতনের মাধ্যমেই বল্গিং এগিয়ে যাবে।

            এই কথার জবাবে আমি ঐ কথা বলেছি। আপনাকে উদ্দেশ্য করে কথাটা বলা হয়নি। আপনি বলেছেন,আলোচনা সমালোচনা করতে। আমি বলেছি, সমালোচনা সীমার মাঝে করতে হবে। এইটাই বুঝিয়েছি। আশা করি, এইবার বুঝতে পেরেছেন।

      2. রাহাত ভাই আপনি এই ব্লগের
        রাহাত ভাই আপনি এই ব্লগের অভিভাবক দের একজন। কেউ বা কোন গোষ্ঠী সিন্ডিকেট করে এ উদ্দ্যেশে আমি কথাটা লিখিনি। আপনি এই ব্লগের সর্বচ্চো মন্তব্য কারীদের মাঝে অন্যতম, আপনি লক্ষ্য করে থাকবেন যে কোন বিষয় নিয়ে একটু বিতর্ক বেশি হলেই অনেকে পরিবার শব্দটা টেনে নিয়ে আসছে। আমার মনে হয়েছে অনেক ক্ষেত্রেই পরিবার শব্দের যথেচ্ছ ব্যবহার হয়েছে। যার কারণেই আমি কথাটা লিখেছি।

        আর ভাই, সবার পক্ষে হয়ত নিয়মিত ভাবে লেখা বা কমেন্ট করা সম্ভব হয়না। কিন্তু আপনার মত সিনিয়র ব্লগাররা যখন

        তাই ইস্টিশন পরিবারে আমাদের ( নিয়মিতদের) অসুবিধা হচ্ছেনা ।

        এই কথাটা লেখেন তখন খারাপ লাগে।

        যাহোক, আমার মন্তব্যে কেউ অপমানিত বোধ করলে বা কষ্ট পেয়ে থাকলে আমি তার জন্য দুঃখিত।

        1. কিরন শেখর ,
          বুঝতে পারলাম ।

          কিরন শেখর ,
          বুঝতে পারলাম । আমারও মনে হয়েছে ” ইস্টিশন পরিবার ” ব্যাপারটার একটা
          ব্যাখ্যা দেওয়া দরকার । ব্যাখ্যার প্রয়োজনে কথা গুলো লিখতে হয়েছে । একটা
          বিষয় পরিষ্কার ইস্টিশনের নীতি – আদর্শের সাথে যে বা যারা ষড়যন্ত্র করবে তাদের
          সনাক্ত করতে আমরা যারা নিয়মিত এখানে লিখি তাদের খুব কষ্ট করতে হবেনা ।
          এবং সেটা আমরা ইতোপূর্বে ” সত্যের তলোয়ারের ” ক্ষেত্রে প্রমাণ করেছি । ইস্টিশনের
          একজন রেগুলার ব্লগার হিসেবে আপনার মতামত গুরুত্বপূর্ণ । আশা করি ভুল বুঝবেন না ।

      3. সব্বার প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি,
        সব্বার প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি, আসুন আমরা আরও সহনশীল হই। নোংরামি মুক্ত ব্লগ হিসেবে ইষ্টিশন ব্লগের যে ভাবমূর্তি গড়ে উঠেছে তা যেন অটুট থাকে। নাহলে আমরা যারা দলবাজি করিনা, কোন নির্দিষ্ট মতকে অন্ধ সমর্থন করি না, তারা কোথায় যাবো? নিজেদের স্বার্থেই সকল প্রকার ভুল বুঝাবুঝির অবসান হওয়া উচিৎ। আর ইষ্টিশন মাষ্টার একটা পোষ্টের মাধ্যমে সব ধরণের ভুল বুঝাবুঝির অবসান ঘটাবেন এই প্রত্যাশা রইলো।

  4. কি এমন ঘটে গেলো যে এমন কঠিন
    কি এমন ঘটে গেলো যে এমন কঠিন লেখা লিখলেন????
    ইস্টিশন ব্লগ অন্যান্য অনেক দলাদলির ব্লগের চেয়ে অনেক গুন ভালো।

    1. ইস্টিশন যে অন্য ব্লগের চেয়ে
      ইস্টিশন যে অন্য ব্লগের চেয়ে কোটি গুণ ভালো সেটা আমি পোস্টেই উল্লেখ করেছি আমারব্লগের প্রসঙ্গ টেনে এনে। এখানে কঠিন কিছুই বলা হয়নি। খেয়াল করলেই বুঝবেন ইস্টিশনে গত মাস থেকেই স্টিকি পোস্ট নিয়ে বিতর্ক চলছে। সেক্ষেত্রে ইস্টিশন মাস্টার অনেকটাই নির্লিপ্ত। আজও আনিস রায়হান ভাইয়ের পোস্টে কিছু তর্ক বিতর্ক হয়েছে যেটা স্বভাবতই ব্লগারদের মাঝে ভাঙন সৃষ্টি করেছে। তাই, ইস্টিশন মাস্টারের দৃষ্টি আকর্ষণ আমার কাছে অবাঞ্চিত মনে হয়নি।

      1. ভাই, কিছু মনে করবেন না। আমার
        ভাই, কিছু মনে করবেন না। আমার কাছে ব্যাপারটা গুরুত্বপূর্ণ মনে হচ্ছে না। কেমন যেন ঈর্ষান্বিত মনে হচ্ছে।
        কেউ কেউ তো অবশ্যই সবসময় থাকবে যারা এসে ক্যাচাল লাগাবে। কিন্তু নিজেরাই যদি ছোটোখাটো বিষয় নিয়ে ক্যাচাল লাগিয়ে দেই তাহলে অন্য ব্লগ থেকে পার্থক্য রইলো কই।
        পার্থক্য এই, অন্য ব্লগে জামাত ছাগু বিএনপি ছাগু আস্তিক নাস্তিক খাসী লীগ নিয়ে তর্ক হয় আর এখানে নিজেরা নিজেরাই ক্যাচাল বাধাই।
        শুধু শুধু ব্যপারটাকে এতো বড় করে দেখিয়েন না।

        1. ঈষার্ন্বিত বলে মনে হতেই পারে।
          ঈষার্ন্বিত বলে মনে হতেই পারে। আমার কাছেও প্রথমে মনে হয়েছিল। কিন্তু এইটা অস্বীকার করতে পারিনা যে অনেক মৌলিক ও গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট স্টিকি হয়না মাঝে মাঝে। আমি তো বলেছি, এখানে আমি কাউকে দোষ দিচ্ছিনা। কিন্তু এত বিতর্ক তৈরী হওয়ার পরও কেউ এই ব্যাপারটা ক্লিয়ার করছেনা এমনকি স্বয়ং ইস্টিশন মাস্টার। অথচ এইটা নিয়ে কিছুদিন আগেও কয়েকজন ব্লগারের মাঝে মান অভিমান হয়। আজকেও আনিস ভাইয়ের পোস্টে অনেক ঋণাত্মক কমেন্ট হয়েছে। আনিস ভাইয়ের পোস্ট গুলো অবশ্যই নিঃসন্দেহে তথ্যবহুল এবং সময়োপযোগী। অতএব স্টিকিযোগ্য। কিন্তু অন্য ব্লগাররা এখানে কিছু প্রশ্ন তুলছেন। এইসব নিয়ে অনেকে অভিমান করে অনিয়মিত হয়ে গেছেন যেটা ব্লগের জন্য পজিটিভ ইঙ্গিত নয়। আবার অনেক কমেন্ট ডিলিট করে দেয়া হচ্ছে। আমি বর্তমান কর্মকান্ডে হতাশ। মডারেশন প্যানেলের উপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে। কিন্তু এসব জিনিসের ব্যাখ্যা না পেলে ব্লগ ভেঙে পড়বে।

  5. ইস্টিশন মাস্টার বা কতৃপক্ষের
    ইস্টিশন মাস্টার বা কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে আমার কোন অভিযোগ নেই তবে একটি প্রশ্ন আছে, আনিস রায়হানের সব লিখা স্টিকি হয় অথচ পাঠক ব্লগারদের অনুরোধ থাকা সত্বেও কোন কোন লিখা স্টিকি হয় না কেন?

    1. আচ্ছা , আনিস রায়হানের কোন
      আচ্ছা , আনিস রায়হানের কোন লেখাটা স্টিকি হওয়ার যোগ্য ছিল না। যোগ্য হলে একই ব্যক্তির পোস্ট বার বার স্টিকি তো হবেই। উত্তর বাঙলার পোস্টও স্টিকি হয়েছে অনেকবার। তার গুলো যোগ্য ছিল। আজ পর্যন্ত কোন পোস্ট দেখি নি যা যোগ্য না। কার পোস্ট স্টিকি হয় এটার চেয়ে কি এটা গুরুত্বপূর্ণ না যে কি লেখা স্টিকি হচ্ছে?

      1. আনিস রায়হানের সব লিখাই স্টিকি
        আনিস রায়হানের সব লিখাই স্টিকি হওয়ার যোগ্য, স্বীকার করে নিলাম। কিন্তু অন্য ব্লগারদের কি সুযোগ দেয়া উচিত নয়? তারিক ভাইয়ের কথাই ধরি। বেচারার কয়েকটি গবেষণা মূলক পোস্ট স্টিকি করা হয়নি যেগুলো সর্বাধিকার ভিত্তিতে স্টিকি যোগ্য। কি স্টিকি হচ্ছে সেটা গুরুত্বপূর্ণ। এই জন্যেই বলছি, পোস্ট স্টিকি করার বিষয়ে ব্লগারদের মতামত নেয়া হলে, এইখানে আর বিন্দুমাত্র প্রশ্ন থাকেনা।

      2. উত্তর বাংলার স্টিকিকৃত
        উত্তর বাংলার স্টিকিকৃত পোস্টগুলির প্রায় সবকটিতেই স্টিকি করার জন্য পাঠক ব্লগারদের অনুরোধ ছিল ।আনিস সাবের লিখা কারো অনুরোধ ছাড়াও স্টিকি হয়ে যায়!
        হ্যা, ভাল লিখা হলে অবশ্যই স্টিকি হওয়া উচিৎ এতে যে কারোরই যতটা পোস্ট হোক না কেন ।আমরাও চাই, পক্ষপাতহীনভাবে ভাল ভাল ও প্রয়োজনীয় পোস্ট স্টিকি হোক ।

  6. ধন্যবাদ ইলেকট্রন ভাই আড়ালের
    ধন্যবাদ ইলেকট্রন ভাই আড়ালের বিষয়টি সামনে আনার জন্য ।আপনার লিখায় ইস্টিশন বিষয়ে আমাদের দাবীদাওয়া, ক্ষোভ, পুঞ্জিভুত প্রশ্নসহ সব কিছুই উঠে এসেছে ।নতুন করে আর কিছু বলার নেই ।এখন ইস্টিশন মাস্টারের কাছ থেকে উপযুক্ত জবাব সহ একটি পোস্ট আশা করছি ।

    1. এখন ইস্টিশন মাস্টারের কাছ

      এখন ইস্টিশন মাস্টারের কাছ থেকে উপযুক্ত জবাব
      সহ একটি পোস্ট আশা করছি।

      :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  7. ইস্টিশনে পৃথু স্যানাল নামে
    ইস্টিশনে পৃথু স্যানাল নামে একজন ব্লগার আছেন ।আমি উনার দৃষ্টি আকর্ষন করে বলছি, [শিবিরের সুনামগঞ্জের নেতা ছিলো পৃথু স্যানাল ওরফে পিক্সেল মারুফ।]
    বন্ধনীর ভিতরের কথাটি কি সত্যি?
    ব্যাখা দিবেন কি?

    ইস্টিশন মাস্টারের দৃষ্টি আকর্ষন করছি, এই লিংকটি দেখুন http://www.sangbadsamoy24.com/1202 এবং ছন্দবেশীদের বিশেষভাবে নজরে রাখুন ।

    1. ইষ্টিশন মাস্টারের কাছ থেকে
      ইষ্টিশন মাস্টারের কাছ থেকে দ্রুতই একটা ক্লারিফিকেশন পোস্ট আশা করছি… আর শাহিন ভাইয়ের তোলা প্রসঙ্গটার ব্যাপারে আলাদাভাবে খোজখবর করা হোক… যেহেতু সে(পৃথু স্যানাল ) পুরোপুরি নিশ্চুপ ও অথর্ব হিসাবে ইষ্টিশনে আছে, তার পক্ষে শিবিরের হয়ে গোয়েন্দাগিরি করা অসম্ভব কিছু না… দয়া করে ব্যাপারটা সিরিয়াসলি দেখবেন মাস্টার সাব… :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:

    2. শাহিন ভাই, সেটা একটা গ্যাং
      শাহিন ভাই, সেটা একটা গ্যাং ছড়াচ্ছে। উনি শিবির কর্মী না। আমার বাড়ি সুনামগঞ্জ। যদি সত্যি হয় তাহলে আমাকে ক্ষমা করবেন। আমি যতটুকু জানি বললাম

      1. অমিত ভাই, কষ্ট করে একটু
        অমিত ভাই, কষ্ট করে একটু নিশ্চিত করতে পারবেন? আপনি কিভাবে জানলেন? আপনি তাকে চিনেন?

        আর আসলে এইটা কোনো একটা গ্যাং ছড়াতেও পারে। লৌকিক ভাইকে আমি অনেক দিন ধরেই ভার্চুয়ালি চিনি। সামান্য দুইটা স্ক্রিন শট দেখেই কিছু নিশ্চিত বলা যায়না। গ্রাফিক্স ও ফটোশপের যুগে এইসব বাম হাতের খেলা।

        1. আমি মুটামুটি নিশ্চিত। তার
          আমি মুটামুটি নিশ্চিত। তার পরিবার জামাত করে। তিনি করেন না। তিনি সম্পূর্ণ রুপে নাস্তিক।
          আমার এই লেখা টা পড়তে পারেন হতাশা

          1. পৃথ্যু আর লৌকিক ভাইকে অনেক
            পৃথ্যু আর লৌকিক ভাইকে অনেক আগে থেকেই ফেবুতে ভার্চুয়ালি চিনি। খবরটা দেখে খারাপ লাগলো।

  8. শাহীন ভাইয়ের মন্তব্য আসলেই
    শাহীন ভাইয়ের মন্তব্য আসলেই ভেবে দেখার মত। কিন্তু ইস্টিশনে আমি দুইজন পৃথ্যু স্যানাল দেখছি। একজন আজ থেকে ৩৩ সপ্তাহ আগে আইডি খুলছেন, অথচ আজ পর্যন্ত কোনো পোস্ট নাই! আরেকজনের পোস্ট দেখে তো শিবিরের এজেন্ডা বাস্তবায়নের কাজে নামছে বলে মনে হয়না। তাও, ইস্টিশন মাস্টার আছেন। তিনিই খতিয়ে দেখবেন বলে আশা করি।

  9. পোস্ট স্টিকি হওয়ার ব্যাপারে
    পোস্ট স্টিকি হওয়ার ব্যাপারে ইস্টিশনবিধিতে বিস্তারিত কিছু লেখা না থাকলেও একটা কথা স্পষ্টভাবে আছে, যদি কারো পোস্ট ইস্টিশন ছাড়াও অন্যকোন ব্লগে প্রকাশিত হয়ে থাকে তাহলে সেই পোস্ট স্টিকি হবে না। বারবার তারিক লিংকন ভাইয়ের কথা আসছে, তাই উনার নাম উল্লেখ করেই উদাহরণ দিচ্ছি। তারিক লিংকন উনার একই পোস্ট ইস্টিশন ছাড়াও অন্য ব্লগে পোস্ট করেন। তাই হয়ত উনার পোস্ট স্টিকি করা হয় না।
    আর ব্ল্যাক বোল্টের উদ্দেশ্য নিয়ে আমি সন্দিহান। ক্যাচাল লাগানোই উনার উদ্দেশ্য মনে হচ্ছে। উনার প্রতি মডারেশন প্যানেলের সার্বক্ষনিক নজর রেখে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানাচ্ছি। ভিন্নমত হলেই তাকে মুখ চেপে ধরতে হবে এটা আমি সমর্থন করিনা। কিন্তু কারো উদ্দেশ্যই যদি থাকে গ্যাঞ্জাম করা সেক্ষেত্রে দুষ্ট গরু আর শুন্য গোয়ালের প্রবাদের প্রয়োগ চাই।

    1. যেটাই হোক, স্টিকি বিতর্ক আর
      যেটাই হোক, স্টিকি বিতর্ক আর সহ্য হইতেছে না। পরিষ্কার প্রোক্লেমেশান চাই। মূল্যবান মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

      1. কেউ যদি নীতিমালা না মানে
        কেউ যদি নীতিমালা না মানে সেক্ষেত্রে ব্লগের মডারেশন প্যানেলের কিছু করার আছে কি? শুরু থেকেই ইস্টিশনে আছি, প্রচুর মন্তব্যও করেছি একসময়। কিন্তু আমার পোস্ট স্টিকি হয় না কেন এই নিয়ে নাকিকান্না কেঁদে ব্লগ ভাষাই নাই কখনও। শুরু থেকেই কাউকে কাউকে দেখছি এই নিয়ে মান-অভিমানের বন্যা বইয়ে দিয়েছেন, অথচ নিজেরাই ব্লগের নীতিমালা মনোযোগ দিয়ে পড়লে এই বিতর্কের সূচনা হয় না।

        1. আতিক ভাই, এই স্টিকি প্রশ্নটা
          আতিক ভাই, এই স্টিকি প্রশ্নটা আমি কখনোই তুলিনি। স্টিকি করার মত পোস্ট আমি কখনোই দিই নি, দেয়ার ক্ষমতাও নেই। কিন্তু অনেকদিন ধরেই এইটা নিয়ে ক্যাঁচাল দেখছি। এইখানে মন্তব্যেও কিছু ব্লগার সহমত দিয়েছেন। তাই, বিতর্কিত এই জিনিসের ব্যাখ্যা ইস্টিশন মাস্টারের কাছে চাওয়া হয়েছে ইস্টিশনের স্বার্থেই।

    2. আতক ভাই, সুন্দর মন্তব্য
      আতক ভাই, সুন্দর মন্তব্য করেছেন। তারিক লিঙ্কন এর পোস্ট নিয়ে এতো ক্যাচাল, কেন তার পোস্ট স্টিকি হয় না আনিস রায়হানের পোস্ট স্টিকি হয় তার কারণ বলেছেন। এরপরও কারো মাথা ব্যথা থাকলে কিছু করার নাই।
      একটা বিষয় স্পষ্ট, কোন নির্ভেজাল কিছু ভাঙার জন্য, জামাত শিবির বিএনপির দরকার নাই, অযথা কথা বাড়ানোই যথেষ্ট। নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাঁধানোর জন্য “কেন স্টিকি হয়, কেন হয় না ” এমন ঈর্ষামূলক পোস্ট যথেষ্ট

      1. আনিস ভাইয়ের পোস্ট অবশ্যই
        আনিস ভাইয়ের পোস্ট অবশ্যই স্টিকি যোগ্য। এই বিষয়ে তর্কের প্রয়োজন নেই। এখানে কারো কোনো মাথাব্যথার কারণ দেখছি না। কৌতুহল হতেই পারে। আর কৌতুহল মেটানোর ভার কর্তৃপক্ষের উপর পড়তেই পারে। তাইনা?

        1. আপনার কৌতূহল দ্বন্দ্ব
          আপনার কৌতূহল দ্বন্দ্ব বাঁধাচ্ছে, এটাও কি বুঝেন না? ইস্টিশন বিধি পড়তে বলল, আতিক ভাই। পড়ে দেখেন। তাহলে কেন এমন কৌতূহল জাগবে?
          শান্তিতে ছিল ইস্টিশন। হায়… শান্তি গেলো !

          1. আপনি বোধয় ভুল বুঝতেছেন।
            আপনি বোধয় ভুল বুঝতেছেন। কৌতুহল আমার না। মন্তব্যগুলো পড়ে দেখেন, কৌতুহল প্রায় সবার আছে। পোস্টে আমি ইস্টিশন মডারেশন প্যানেলের উপর যথেষ্ট আস্থা দেখিয়েছি। আমার বিন্দুমাত্র কৌতুহল নেই। আমি ইস্টিশন মাস্টারকে নিজ উদ্যোগে এই সমস্যার সমাধান দিতে আহ্বান করেছি। দ্যাটস ইট।

    3. আতিক ভাই, আনিস রায়হানের একটা
      আতিক ভাই, আনিস রায়হানের একটা কমেন্টের রিপ্লাই আমার ডিলিট করা হয়েছে। ব্যাপারটা সন্দেহজনক নয় কি?

  10. অমিত লাবন্য ভাই, পৃথু
    অমিত লাবন্য ভাই, পৃথু স্যানালকে বা পিক্সেল মারুফকে কি আপনি ব্যাক্তিগতভাবে চিনেন?পিক্সেল মারুফ নামে কি কারো অস্থিত্ব আছে? চিনলে পরিচয় দিন ।বিষয়টা সুরাহা হবার প্রয়োজন আছে ।বর্তমানে অনলাইনে নিজেদের মাঝে যে পুন্দাপুন্দি চলতেছে তার পেছনের কারনটাও উদগাঠিত হওয়া দরকার ।

    পৃথু স্যানাল বা লৌকিকের সাথে আমার কোন বিরোধ নেই বা তাদেরকে হেয় প্রতিপন্ন করতে এখানে বিষয়টা তুলিনি ।যেহেতু ইস্টিশনে স্যানাল আছেন সেহেতু উনার কাছ থেকে বন্ধুসুলভ ব্যাখা দাবী করতেই পারি ।তাছাড়া এ ব্যাপারে আমি কোন উড়ো খবর ও বলিনি ।আমি নির্ভরযোগ্য একটি লিংক সহ মুল খবরটি প্রকাশ করেছি ।আশা করি আমাকে ভুল বুঝবেন না ।

    1. শাহিন ভাই, উনার ফুল ফ্যামিলি
      শাহিন ভাই, উনার ফুল ফ্যামিলি জামাত। কিন্তু উনি বাড়ি ছেড়েছেন অনেক আগে। কারন উনি জামাত-শিবির এবং ধর্ম বিরোধী

  11. ইস্টিশন ভেঙে পড়ছে! কস্কি
    ইস্টিশন ভেঙে পড়ছে! কস্কি মমিন? বান্দারা সব কি কিয়ামতের ডাক দিল নাকি?

    ব্ল্যাক বোল্ট নামক রিভার্স ছুপা আইডিটার ব্যান চাই। সাথে একটা উষ্ঠা ফ্রি।

    1. ….(মডারেটেড)
      আপনাকে সহ

      ….(মডারেটেড)

      আপনাকে সহ সকলকে সতর্ক করা হচ্ছে। শিষ্ঠাচার বহিভুর্ত মন্তব্য থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে সকলকে।

      —ইস্টিশন মাস্টার

      1. অবশেষে জনাবের দেখা মিলল।
        অবশেষে জনাবের দেখা মিলল। আমাকে বাদে আর কাকে সতর্ক করা হল বুঝলাম না। আফটার অল ক্যাচাল তো আমি একাই লাগাচ্ছি,রাইট? 😀

  12. গুছানো পোস্ট । ইস্টিশনের শুরু
    গুছানো পোস্ট । ইস্টিশনের শুরু থেকেই আছি । এর সাফল্য চাই । দলাদলি , গালাগালি মুক্ত সুন্দর ব্লগ ফোরাম আশা করি

  13. আসেন ক্যাচাল করি। ক্যাচাল না
    আসেন ক্যাচাল করি। ক্যাচাল না করলে বাঙালির পেটের ভাত হজম হবে ক্যামনে। অনেকদিন ক্যাচাল না করে পেটের ভাত সব হাঁসফাঁস করতেছে।

    1. সহমত আতিক ভাই।
      কিছু পুরাতন

      সহমত আতিক ভাই।
      কিছু পুরাতন ব্লগারের ব্যবহার দেখে টাস্কিত। তারাই যদি এমন ছেলেমানুষি করে তবে আর অন্যদের বলে কি হবে। :অসুস্থ:

  14. শিশুতোষ আলোচনা… এইটা
    শিশুতোষ আলোচনা… এইটা বুজানোর জন্য কোন ইমোকটিন না পাইয়া লিখলাম!

    এই ব্লগে যারা লিখেন তাদের মধ্যে আনিস রায়হানের লিখা ভিন্ন ধরনের। বিষয়, যুক্তি, লেখনী এবং উপস্থাপনার কারনে তার লিখা সুখপাঠ্য। পোষ্টের গুরুত্ব বিবেচনায় লেখা গুলো হাইলাইট হয়। এতে দোষের বা মাষ্টাটের আত্নপক্ষ সমর্থনের কোন কারন দেখিনা। আতিক সাহেব বুজানোর পরও যাদের মনে হয় মাষ্টাররেই কইতে হবে তাদেরকে বলি, মরিয়া মরন প্রমানের কিছু নাই।
    অনেকের কমেন্টে পান্ডিত্য ও আত্নবিশ্বাসের ছাপ দেখতে পাচ্ছি। তাদেরকে বলি, এত চাপ নেওয়ার কিছু নাইরে ভাইরা! বহতা নদী কি আর শেওলায় ডাকা পড়ে?

  15. সকল ব্লগারদের দৃষ্টি আকর্ষন
    সকল ব্লগারদের দৃষ্টি আকর্ষন করা হচ্ছে। প্রথমত পোস্টে এবং মন্তব্যে অশালীন ও ব্যক্তি আক্রমনাত্মক বক্তব্য দেওয়ার ব্যাপারে সকলকে কঠোরভাবে সতর্ক করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে অশালীন ও ব্যক্তি আক্রমণাত্মক বক্তব্যের ক্ষেত্রে ইস্টিশন কর্তৃপক্ষ কঠোর মনোভাব পোষণ করে ব্যবস্থা গ্রহনে বাধ্য হবে। কাউকে বিশেষ ভাবে উল্ল্যেখ না করে সকলের উদ্দেশ্যেই এটা বলা হচ্ছে।

    আমরা দুঃখিত যে ব্লগের বাগজনিত সমস্যার কারনে নতুন এবং পুরাতন কিছু পোস্টের মন্তব্য মুছে গেছে। এই ব্যাপারে আমাদের কারিগরি টিম কাজ করে যাচ্ছে। আশা করি অতি দ্রুত এই সমস্যা কেটে যাবে। কোনভাবেই ইস্টিশন কর্তৃপক্ষ কারো বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপে বিশ্বাস করে না। ইস্টিশন কোন বিশেষ দল বা মতের প্রতি অন্ধ সমর্থন পোষণের ইচ্ছাও রাখেনা। ব্লগারদের বাক স্বাধীনতায় বিশ্বাস রাখে ইস্টিশন। তবে বাক স্বাধীনতার নামে যথেচ্ছাচারও ইস্টিশন সমর্থন করবে না।

    স্টিকি পোস্ট নিয়ে যেই আপত্তি উঠেছে সেই ব্যাপারে মডারেশন প্যানেলের বক্তব্য খুব স্পষ্ট। ইস্টিশন সবসময় দেশের জনগুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে মাথায় রেখেই পোস্ট স্টিকি করার চেষ্টা করে। এক্ষেত্রেও মডারেশন প্যানেলের সম্মিলিত সিদ্ধান্তই বাস্তবায়িত হয়, কারো একক সিদ্ধান্তে পোস্ট স্টিকি করার কোন সুযোগ নেই। ইস্টিশনবিধিতে স্পষ্ট উল্লেখ আছে কোন পোস্ট একইসাথে একাধিক ব্লগে প্রকাশিত হলে তা স্টিকি করার জন্য এবং অন্যান্য বিশেষ বিবেচনার ক্ষেত্রে মনোনীত হবে না। সবাইকে ইস্টিশনবিধি মনোযোগ সহকারে পড়ার পরামর্শ দেওয়া হলো। পোস্ট স্টিকি করার ক্ষেত্রে লেখকের চেয়েও লেখার মান ও বিষয় গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা হয়। এখানে উল্লেখ্য যে ইস্টিশনে একেবারেই নতুন ব্লগারের প্রথম পোস্টও স্টিকি করার নজীর রয়েছে। এমনকি লেখার মান ও বক্তব্য বিবেচনায় গল্পও স্টিকি করা হয়েছে। তাই এই বিষয়ক আপত্তি বা অভিযোগ ভিত্তিহীন।

    অনেকেই অভিযোগ করছেন ইস্টিশন মাস্টারকে সবসময় তৎপর দেখা যায় না। এখানে মনে রাখা প্রয়োজন ব্লগাররা কেউই শিশু নন। তাই সার্বক্ষনিক খবরদারী করাটা অভব্য বিবেচনায় রেখে ইস্টিশন মাস্টার অতীব প্রয়োজন ছাড়া প্ল্যাটফর্মে আসার প্রয়োজন মনে করেন না। আমরা মনে করি এই প্ল্যাটফর্ম আপনাদের সবার। তাই ছোট খাটো সমস্যা নিজেরা নিজেরা মিটিয়ে নিলেই ব্লগারদের মধ্যে সুসম্পর্ক এবং ব্লগের সুস্থ পরিবেশ বজায় থাকবে। আপনাদের অভিযোগের ব্যাপারে আমাদের সার্বক্ষনিক নজর রাখার চেষ্টা থাকে এবং সেই মতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেওয়া হয়। আশা করি যারা ইতিমধ্যে শিকল টানুনে বা আমাদের মেইলে তাদের অভিযোগ জানিয়েছেন তারা এই ব্যাপারে ভালো জানেন। নিতান্তই কারো অভিযোগ কর্তৃপক্ষের তাৎক্ষণিক নজর এড়িয়ে গেলেও পরবর্তিতে আমাদের নজরে পড়া মাত্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়। যেহেতু এখানে সবাইই স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে থাকেন, তাই এইটুকু ভুলত্রুটি ইস্টিশন পরিবারের সদস্য হিসেবে মেনে নিয়েই একসাথে যাত্রা অব্যহত রাখবেন বলে আশা করা যায়।

    পরিশেষে আবারও বলতে চাই, ইস্টিশন কোন একক দল বা মতের অন্ধ সমর্থনে বিশ্বাস রাখে না। দেশদ্রোহী বা সাম্প্রদায়িক দল বা ব্যক্তি ব্যাতিত ইস্টিশন সকল দল বা মতের মতামত প্রকাশের ব্যাপারে আপোষহীন থাকবে। এক্ষেত্রে ব্লগারদের সহযোগিতার মনোভাব একান্তভাবেই কাম্য। ব্লগের পরিবেশ সুস্থ এবং মননশীল রাখার ক্ষেত্রে ইস্টিশন কর্তৃপক্ষ যে কোন কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে পিছপা হবে না। সবার ব্লগিং আনন্দময় এবং সুস্থ হোক।

    1. ইস্টিশন মাস্টার কে ধন্যবাদ
      ইস্টিশন মাস্টার কে ধন্যবাদ তার ( তাদের ) বক্তব্যর জন্য । আসুন আমরা সৃজনশীল ও মননশীল লেখা লেখিতে মনোনিবেশ করি । আর কার পোস্ট স্টিকি হলো কারটা হলো না এই বিষয়ে এতো তীক্ষ্ণ নজর না দিয়ে মনোযোগটা জামাত – শিবির- হেফাজত – ছা – পোষা দালাল – সাম্প্রদায়িক মৌলবাদী গোষ্ঠী – রাজাকার এদের প্রতি রাখি । আরও বেশি করে নজরদারী বাড়াই তাদের বিরুদ্ধে যারা আমাদের দেশের স্বার্থ বিকিয়ে দেয় সাম্রাজ্যবাদী শোষকের কাছে ।

      আর ইস্টিশন মাস্টার, আপনি কিন্তু শিকল টানুনে করা প্রশ্নের উত্তর খুব কম দেন । সাধারণত সিনিয়র ব্লগার রা এই প্রশ্ন উত্তর পর্ব চালিয়ে নিচ্ছেন । এক্ষেত্রে আতিক ভাই’র কথা উল্লেখ করতেই হবে । তাছাড়া একসময় মোশফেক আহমেদ উত্তর দিতেন । কিন্তু, কিছু নীতিগত প্রশ্ন থাকে যার উত্তর আতিক ভাই বা অন্য কারো পক্ষ্যে দেওয়া সম্ভব হয়না । যেমন – আমি ” আইন বিভাগ ” নামে একটা বিভাগ খোলার কথা বলেছি । সে ব্যাপারে উত্তর দেওয়ার সময় করে উঠতে পারেন নি অদ্যাবধি । ভালো থাকবেন আপনি এবং আপনারা । :গোলাপ: :গোলাপ: :গোলাপ:

    2. অনেক অনেক ধন্যবাদ মাস্টারকে
      অনেক অনেক ধন্যবাদ মাস্টারকে বিষয়টা ব্যাখ্যা করাবার জন্য :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: … তবে রাহাত ভাইয়ের “আইন বিভাগ” খোলার প্রস্তাবটার ব্যাপারে কিছু বক্তব্য আশা করেছিলাম। আশা করি বিষয়টা বিবেচনা করবেন… :গোলাপ: :গোলাপ: :ফুল:

  16. ইস্টিশন ব্লগটা এত ক্যাচালময়
    ইস্টিশন ব্লগটা এত ক্যাচালময় কবে হইল??? এত দিন ইনঅ্যাকটিভ থাইক্কা তো অনেক ক্যাচাল তাইলে মিস করছি। এই ক্যাচাল দেইখা আবার ইনঅ্যাকটিভ হইতে মুঞ্চায়। :ভাঙামন: :ভাঙামন: :ভাঙামন:

  17. অবশেষে গ্রহণযোগ্য একটা
    অবশেষে গ্রহণযোগ্য একটা ব্যাখ্যা দেয়াতে ইস্টিশন মাস্টারকে ধন্যবাদ। বিতর্কটা গতমাস থেকেই চলতেছিলো বলে একটা ব্যাখ্যা চেয়েছি। আশা করি এই স্টিকি বিতর্ক এইবার বন্ধ হবে।

  18. মাস্টার সাহেব আরো কঠোর
    মাস্টার সাহেব আরো কঠোর হোন।
    এই পোস্টের শিরোনাম নিয়ে আমার আপত্তি ছিল। মাস্টার সাহেব বক্তব্য দিয়ে দেওয়াতে তেমন কিছু বললাম না। তবে এতটুকু বলে যাই, ইস্টিশনব্লগ বানের জলে ভেসে আসা কোন গুল্মলতা নয় যে কয়েকজন নয়া বাল গঁজানো এক্টিভিস্টের এজেন্ডাভিত্তিক ব্লগিং-এর কারণে ভেঙে পড়বে।

    আরেকটা কথা সকলের জানা উচিত, এই মহুর্তে ইস্টিশন ব্লগই একমাত্র বাংলাব্লগ, যার মডারেশন প্যানেল সব সময় একটিভ থাকে। কথায় কথায় ইস্টিশন মাস্টারের মন্তব্য করা বা সাইন ইন করে ঝগড়া মেটানোর দায়িত্ব ইস্টিশন মাস্টারের নয়। কমিউনিটি ব্লগে ব্লগারাই এই দায়িত্ব পালন করে। ব্লগাররা ব্যর্থ হলেই মডারেশন প্যানেল মাথা ঘামানোর কথা। ব্লগারদের বিবাদ মেটানোর দায়িত্ব মডারেশন প্যানেলের হাতে যাওয়াটা কোনভাবেই শোভনীয় নয়। এসব কাজে মডারেশন প্যানেলের বেশী পরিমাণ সংশ্লিষ্টতা মডারেশন প্যানেলকে আরো বেশী বিতর্কিত করে তুলবে। কারণ, আইন অন্ধ। আশাকরি এই কথাগুলো সকলেই মনে রাখবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *