এক্সপেরিমেন্টাল

উৎসর্গঃ রাহাত মুস্তাফিজ

পরীক্ষামুলক লেখা লেখলাম। আপনাদের সমালোচনার অপেক্ষায়। বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গল্প টি একলাইনের।

”লোকটা যখন ঘুম থেকে জাগল, ডায়ানোসরটা তখনো সেখানে দাঁড়িয়ে”

এটা একটা ছোট গল্প। এক লাইনের এই গল্পটির নাম ‘ডায়ানোসর’। লিখেছেন গুয়েতামালার লেখক অগাস্তো মনটেরোসর। গল্পে সবরকমের উপাদানে উপস্থিত। চরিত্র আছে, নাটকীয়তা আছে, আইডিয়া আছে। ফ্যান্টাসি আর রিয়েলিটি একাকার হয়ে গেছে গল্পটিতে। নিচে আমি লেখার চেষ্টা করলাম তিনটি গল্প। আশা করি আপনাদের ভাল লাগবে।

বনফুল


উৎসর্গঃ রাহাত মুস্তাফিজ

পরীক্ষামুলক লেখা লেখলাম। আপনাদের সমালোচনার অপেক্ষায়। বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গল্প টি একলাইনের।

”লোকটা যখন ঘুম থেকে জাগল, ডায়ানোসরটা তখনো সেখানে দাঁড়িয়ে”

এটা একটা ছোট গল্প। এক লাইনের এই গল্পটির নাম ‘ডায়ানোসর’। লিখেছেন গুয়েতামালার লেখক অগাস্তো মনটেরোসর। গল্পে সবরকমের উপাদানে উপস্থিত। চরিত্র আছে, নাটকীয়তা আছে, আইডিয়া আছে। ফ্যান্টাসি আর রিয়েলিটি একাকার হয়ে গেছে গল্পটিতে। নিচে আমি লেখার চেষ্টা করলাম তিনটি গল্প। আশা করি আপনাদের ভাল লাগবে।

বনফুল

ঠিকমত হাঁটতে পারছেনা শেফালী। ঠোঁটের এক কোনে রক্ত জমে আছে। গালে, কপালে বেশ কয়েকটা খামছির দাগ;বাতাসে খোলা চুল এলোমেলোভাবে উড়ছে।
পড়নের কামিজটা কাঁধের দিকে অনেকটা ছেঁড়া। মাথা নিচু করে সুরমা বাইপাস ব্রীজ এর উদ্দেশ্যে টলোমলো পায়ে হাঁটছে শেফালী। আজ আকাশে চাঁদটা অনেক বড়।

স্মৃতির পাতায়

সোনারগাঁও কমিউনিটি সেন্টারে বসে মুরগির হাড় চিবোতে চিবোতে রাজেশের মনে পড়ে যায় তাহরিনের সাথে তার প্রথম পরিচয়ের স্মৃতি। ভেবে বিষণ্ণ একটা হাসি দেয় রাজেশ নিজের মনেই। লাল বেনারসিতে তাহরিন কে আজ দুর্দান্ত লাগছে।

অশ্রু কথা কয়

-চাচা কান্দো কেন?
সদ্য কোমরে লাথি খাওয়া ষাটোর্ধ রিকশাওয়ালা প্রশ্নকর্তা যুবকের দিকে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে। তার মুখে কোনো কথা নেই, কপোল ঘেঁষে গড়িয়ে পড়া অশ্রুবিন্দুগুলো শুধু কথা বলছিলো।

৩৩ thoughts on “এক্সপেরিমেন্টাল

      1. কেন? কি সমস্যা? অগাস্তো
        কেন? কি সমস্যা? অগাস্তো মনটেরোস লিখতে পারলে আপনি পারবেন না কেন? আমার তো মনে হয় আরও ভালো কিছু লিখতে পারবেন।

        অগাস্তো মনটেরোস কিন্তু নিচের সেই দুই লাইন লিখতে পারেনি==

        অপেক্ষায় আছি ।যদি ফিনকি দিয়ে
        কয়েক ফোঁটা কবিতা বেরিয়ে আসে,
        ক্ষণে ক্ষণে ভালবেসে, মনে মনে ভালবেসে-
        বিভাবরী স্বপ্নের প্রতীক্ষায়।

        :চা:

  1. আহ!! ইস্টিশনে দেখি উৎসর্গ
    আহ!! ইস্টিশনে দেখি উৎসর্গ মৌসম চলছে। কিন্তু আফসোস আমার প্রিয় এই ব্যক্তি বর্গের উৎসর্গ করার মত কোন লিখা লিখতে পারি নি।
    🙁

    যাই হোক আমার কাছে প্রথম টা ভাল লাগেছে।

    কিন্তু ডাইনাসোর গল্পটা কিছুই বুঝলাম না বুঝিয়ে দিবেন।

  2. এই সুযোগে পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট
    এই সুযোগে পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট ভূতের গল্প টা বলে যাই। গল্পটি লিখেছেন আমেরিকান লেখক ফ্রেডরিক ব্রাউন।

    গল্প: “পৃথিবীর সর্বশেষ জীবিত মানুষটি একটি বদ্ধ ঘরে বসে ছিলো। এমন সময় কে যেন দরজায় নক করলো।….”

  3. আমিও রাহাত ভাইকে উৎসর্গ করে
    আমিও রাহাত ভাইকে উৎসর্গ করে একটা ফালতু ভূতের গল নাজিল করে দিলাম।

    লোকটি ইলেকট্রনকে জিজ্ঞেস করলো,”তুমি ভূত বিশ্বাস কর?” ইলেকট্রন বললো,”না।” তারপর লোকটি হাওয়ায় মিলিয়ে গেল।

  4. অশ্রু কথা কয়
    ———-
    -চাচা

    অশ্রু কথা কয়
    ———-
    -চাচা কান্দো কেন?
    সদ্য কোমরে লাথি খাওয়া ষাটোর্ধ রিকশাওয়ালা প্রশ্নকর্তা যুবকের দিকে ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে।

    এইটুকুনই যথেষ্ট ছিল!! আর এইটাই সবচে চমৎকার হয়েছে… অমিত চলুক সকল পরীক্ষা… ভাল কিছুর অপেক্ষায়!!

  5. গল্পগুলো আরও ছোট করলে উত্তম
    গল্পগুলো আরও ছোট করলে উত্তম হতো। আপনারগুলো অনুগল্পের স্টাইলে হয়ে গেছে। নিরীক্ষাকে স্বাগত জানাই।

    1. ধন্যবাদ আতিক ভাই। ঠিক বলেছেন
      ধন্যবাদ আতিক ভাই। ঠিক বলেছেন আরও ছোট করার চেস্টা করতে হবে :ফুল: :ফুল: আমার শেষ ২-৩ টা কবিতায় আপনার মন্তব্য মিস করেছি 🙁

  6. আতিক ভাইয়ের সাথে সহমত। আর
    আতিক ভাইয়ের সাথে সহমত। আর একটু ছোট করতে পারলে ভাল হত। তবে প্রথম চেষ্টা হিসেবে খারাপ করেন নি…

      1. অর্থের ক্রমবৃদ্ধি-মান চাহিদার
        অর্থের ক্রমবৃদ্ধি-মান চাহিদার কাছে নব বধূর মায়া হার মানায় সে কর্মস্থলে ফিরে আসে।

        এটা হবে হার টা দিতে ভুলে গিয়েছি 😀

      1. সব শালা কবি হবে–রফিক আজাদের
        সব শালা কবি হবে–রফিক আজাদের কবিতার লাইন।এরশাদকে উদ্দেশ্য করে লেখা।
        কিন্তু কবির নামক চরিত্রটি কবি হতে চায় না। মানে শালা হতে চায় না।

        1. সেইটে বুঝলাম কিন্তু আমার
          সেইটে বুঝলাম কিন্তু আমার পোস্টের সাথে সম্পর্ক কি বুঝলাম না…আমার মাথায় ঘিলু কম মনে হয় :মনখারাপ: :মনখারাপ:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *