“অভিমানি বালিকা”

“অভিমানি বালিকা”

তোকে জ্বালাতন করি
বড্ড বেশি নারে?
কি করব বল
তোকে না জ্বালালে
আমার দিনটাই
যে মাটি হয়।
তাই ইচ্ছে করে সারাক্ষণ
জ্বালিয়ে মারি তোকে।
বক বক করে
কান ঝালা পালা
করতে ইচ্ছে করে।
বক বক করি
ইচ্ছে করে
যেন তুই বকিস
খুব করে।
তোর কণ্ঠের
বকা শুনতে
ইচ্ছে ভীষণ করে।
ভাবতে চাই না তবু
ভাবনা আসে ভেসে,
এই তো কদিন
সহ্য কর একটু মুখ বুজে।
কদিন পর বিচ্ছেদ হবে
শহরে যাবি তুই চলে,
এর পর তো
কেও তোকে
জ্বালাবে না ইচ্ছে করে।
এই ভেবে তুই
স্বস্তির নিঃশ্বাস
নিবি ধিরে ধিরে।
ভাববি যাক বাবা
বাঁচলাম ঝগড়াটে
মেয়েটির হাত থেকে।
অভিমানে আমি তখন
যদি যায়
চিরতরে মুছে।

“অভিমানি বালিকা”

তোকে জ্বালাতন করি
বড্ড বেশি নারে?
কি করব বল
তোকে না জ্বালালে
আমার দিনটাই
যে মাটি হয়।
তাই ইচ্ছে করে সারাক্ষণ
জ্বালিয়ে মারি তোকে।
বক বক করে
কান ঝালা পালা
করতে ইচ্ছে করে।
বক বক করি
ইচ্ছে করে
যেন তুই বকিস
খুব করে।
তোর কণ্ঠের
বকা শুনতে
ইচ্ছে ভীষণ করে।
ভাবতে চাই না তবু
ভাবনা আসে ভেসে,
এই তো কদিন
সহ্য কর একটু মুখ বুজে।
কদিন পর বিচ্ছেদ হবে
শহরে যাবি তুই চলে,
এর পর তো
কেও তোকে
জ্বালাবে না ইচ্ছে করে।
এই ভেবে তুই
স্বস্তির নিঃশ্বাস
নিবি ধিরে ধিরে।
ভাববি যাক বাবা
বাঁচলাম ঝগড়াটে
মেয়েটির হাত থেকে।
অভিমানে আমি তখন
যদি যায়
চিরতরে মুছে।
কি হাসবি না!
আনন্দে দাত কেলিয়ে।
আর ভাবিস না বেশি
এই তো কদিন সত্যি সত্যি
আমায় আর না পাবি।
নিরবে নিভৃতে হারিয়ে যাব
তোর জীবন হতে,
চলে যাব বহু দূরে
তুই টেরও না পাবি।

অনেক দিন পর
ভবিষ্যতের কোন এক দিন
যখন কাটাবি একাকী সময়,
তোর সেই শান্তির
ভুবনে সুখের জীবনে
কদাচিৎ কি পড়বে মনে?

কখনো কি ভুল করেও
পেতে ইচ্ছে করবে
মনের কোনে
একান্ত করে এই আমাকে?
আমার খুব ইচ্ছে করবে
তোকে আবার একটু জ্বালাতে
তোর বকা খেতে
তোর সঙ্গে আড্ডা দিতে
জানি অপূর্ণই থেকে যাবে।
তুই যে তখন অনেক দূরে
অনেক দিন
আমার কাছ হতে।
অবুঝ বালক আজ
যোজন যোজন দূরে
অভিমানি বালিকার
কাছ হতে।

মহাকাব্য নয়, একটি গল্প বললাম এই আর কি!!

“অভিমানি বালিকা” তোকে জ্বালাতন করিবড্ড বেশি নারে?কি করব বল তোকে না জ্বালালে আমার দিনটাই যে মাটি হয়।তাই ইচ্ছে…

Posted by Golam Maula on Friday, July 19, 2013

৪ thoughts on ““অভিমানি বালিকা”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *