দুটি কবিতা।।

১.
মাঝ বরাবর, দুধের যে ভাজ
সে খাজে সুখ রাখিস কি?
হাত ওঠালে বগলের ভাজ
নাক ঘষে ঘষে গন্ধ নি।
মাতাল করা, মিষ্টি সে বাস
মন ভরে যায়, হায় আমার
উরুসন্ধিতে উরুর সে ভাজে
উথলে উঠে দীর্ঘশ্বাস
মত্ত হওয়ার, শেষ বাসনা



১.
মাঝ বরাবর, দুধের যে ভাজ
সে খাজে সুখ রাখিস কি?
হাত ওঠালে বগলের ভাজ
নাক ঘষে ঘষে গন্ধ নি।
মাতাল করা, মিষ্টি সে বাস
মন ভরে যায়, হায় আমার
উরুসন্ধিতে উরুর সে ভাজে
উথলে উঠে দীর্ঘশ্বাস
মত্ত হওয়ার, শেষ বাসনা
শান্ত হয় না, নারীর চাপ।
উর্ধচাপ আর নীম্নচাপে
ঘটায় আমার সর্বনাশ।

মাঝ বরাবর দুধের যে খাজ
সে খাজে সুখ খুজবো কি
হাত ওঠালে বগলের ভাজ
নাক ঘষে ঘষে গন্ধ নি।
২.
পতির সাথে, পরের প্রিয়া
সমান সমান পরকীয়া।
বউ যদি না, থাকে ঘড়ে
অন্য কারো বাহু ডোরে।
মানসপটে জ্বালায় দিয়া
সমান সমান পরকীয়া।
মনও ছড়ায়, মনও ছিটায়
এমনি করে ভিটায় ভিটায়।

৪ thoughts on “দুটি কবিতা।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *