সাচ্চি কর্ম

[এক চেনা বেকার কবির লেখা কবিতা। ভাল লাগল। সে নেট ইউস বুঝে না। তাই আমিই লিখে দিলাম আরকি।]
কর্ম চাই এক সাচ্চি কর্ম
সে যাই হোক না কেন
সে কোন এক ধর্ম
এই বাংলার ধরণীতেই সে তার জন্ম!
দলাদলিতে কি বোঝা যায়
এ জীবনের মর্ম।।



[এক চেনা বেকার কবির লেখা কবিতা। ভাল লাগল। সে নেট ইউস বুঝে না। তাই আমিই লিখে দিলাম আরকি।]
কর্ম চাই এক সাচ্চি কর্ম
সে যাই হোক না কেন
সে কোন এক ধর্ম
এই বাংলার ধরণীতেই সে তার জন্ম!
দলাদলিতে কি বোঝা যায়
এ জীবনের মর্ম।।

কর্ম চাই কর্ম
সত্য এক সাচ্চি কর্ম।
কেউবা গরিব অবলা এতিম
কেউবা সংগ্রামী মুসাফির- মুকরিম
কে দিবে তারে জীবন নীরের দ্বারে দ্বারে
একমাত্র সত্যিকারের কর্ম।
কর্ম চাই, এক সাচ্চি কর্ম।
নিষ্পাপ জনতা, জীবন ও কর্মে চাই সমাজ,
হাতে হাতে হাত রেখে
দেখায় বড্ড মৌনতা।
ধর্মে মর্মে পরস্পরে
সকলেই সকলের পিরিতের টানে
ফুটে উঠে এক মহা মানবতা।
কর্ম চাই এক সাচ্চি কর্ম।
কে আছে আপন ও পর
কোথায় রবে ওই অফিস ও ঘর
দেখছ তুমি! ওখানেতে আছে দারিয়ে
ঘুষখোরের পেট গেছে
ফুলিয়ে, এক চর্বি চর্ম।
সেকি অমন দিবে রে ভাই
তোমার হাতে জীবনযুদ্ধের এক খানি বর্ম
দেখছ না তুমি
ওইখানেতে এক ব্যাবস্যায়ী
সুদের পিছে মনিব মুদে
সঙ্গে অসহায় গলাম খুদে
তারা একেকজন সুদারু সুদে।।
তাই কর্ম চাই এক কর্ম।
জীবনযুদ্ধে এক সাচ্চি কর্ম।
থানার অসি, জেলার ডিসি এস্পি মন্ত্রী মিনিস্টার
ঠাণ্ডা মাথায় তারা আচ্ছা প্লেয়ার
ওরা যেন গভির জলে
হয়ে উঠে এক ক্ষুধার্ত হাঙ্গার
সবে বলে হ্যালো হ্যালো
হ্যালো নামে জাদু খেল
কারো পৌষ এল কারো বা সর্বনাশ হল।
বুঝেও কি ওরা বোঝে না ইমানের কি মর্ম।
তাই সবার জন্য চাই এক সঠিক পথের ধর্ম।
তাই কর্ম চাই, এক সাচ্চি কর্ম।
টাকা নামে জুয়াবাজি
ভদ্দর লোকের ছদ্ম পাজি
জীবনযুদ্ধে গরিবের বিরুদ্ধে
অর্থ ছাড়া পক্ষে নেই চাকুরি
ধনের ধন এসবের উর্ধে
কর্মেই হয় গাজি
কর্ম চাই, এক সাচ্চি কর্ম।
চাইনা অবৈধ পাউন্ড ডলার
চাইনা হতে এক বড় ডিলার
চাইনা ধন দউলত চাইনা দামি অট্টালিকা
চাই আমি এক সত্যলিকা
চাই হতে যে পরিশ্রমী পিপীলিকা
চাই আমি ছোট জীবনে এক সাচ্চি কর্ম ভিক্ষা
ওরে
তোরা মরে দিসনে ধিক্কা
শৈশব হতে পাঠশালায় ঘুরে
পাইছি গুরুর ধর্ম শিক্ষা।
তিনি কহে
সদা সত্য কথা বল
সরল পথে চল
যেমন কর্ম তেমন ফল
ধর্মে কর্মে জীবনের মর্মে
সুখে দুখে সবে একসাথে মিলেমিশে চল।
বলরে বল একতাই বল
ধর্মের সবি কর্ম ফল।

২ thoughts on “সাচ্চি কর্ম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *