একটি জলপদ্মের কথা

আমি তো চাইনি ভ্রুণ প্রসফুটিত হয়ে
জলপদ্ম হয়ে জন্মাতে তোমাদের এই জলাশয়ে
তবু জন্মেছি তোমাদের সাধ মেটাতে।
আমি তো চাইনি ফুলের পবিত্রতা হারিয়ে
ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে নষ্ট হয়ে যেতে,
তবু তো তোমরা এই জলাশয়ে
নোংরা আবর্জনায় পূর্ণ করে
নিজেদের নষ্ট করে
আমার পবিত্রতা কেড়ে নিলে,
নিঃশেষ কাকচক্ষু জলটুকু বিষাক্ত করে তুললে,
জলাশয়ের সাথে সাথে আমায় ভরিয়ে দিলে দুর্গন্ধে।
আমি এখন কী করতে পারি?
নিজেকে পবিত্র করার দায় ভারী
তার চেয়ে শক্ত জলাশয়ের কথাটি।
ওফ্!বিষাক্ততায় মরে যাচ্ছি জলাশয় আর আমি
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
তোমরা নিজেরাও যে শেষ হয়ে যাচ্ছ
বুঝতে পারছো না কেন বলো দেখি?

আমি তো চাইনি ভ্রুণ প্রসফুটিত হয়ে
জলপদ্ম হয়ে জন্মাতে তোমাদের এই জলাশয়ে
তবু জন্মেছি তোমাদের সাধ মেটাতে।
আমি তো চাইনি ফুলের পবিত্রতা হারিয়ে
ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে নষ্ট হয়ে যেতে,
তবু তো তোমরা এই জলাশয়ে
নোংরা আবর্জনায় পূর্ণ করে
নিজেদের নষ্ট করে
আমার পবিত্রতা কেড়ে নিলে,
নিঃশেষ কাকচক্ষু জলটুকু বিষাক্ত করে তুললে,
জলাশয়ের সাথে সাথে আমায় ভরিয়ে দিলে দুর্গন্ধে।
আমি এখন কী করতে পারি?
নিজেকে পবিত্র করার দায় ভারী
তার চেয়ে শক্ত জলাশয়ের কথাটি।
ওফ্!বিষাক্ততায় মরে যাচ্ছি জলাশয় আর আমি
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
শেষ হয়ে যাচ্ছি!
তোমরা নিজেরাও যে শেষ হয়ে যাচ্ছ
বুঝতে পারছো না কেন বলো দেখি?
আহ্!কত সুন্দর স্বপ্ন দেখেছিলাম আমি
একটি সুন্দর গোধুলিতে তোমরা আর আমি,
একটি রক্তিম সূর্যে আলোকিত তোমরা আর আমি,
একটি স্নিগ্ধ জলাশয়ে তোমরা আর আমি,
কিন্তু তোমরা নিজেরা জলপদ্মেরা পঁচে গলে নষ্ট হয়ে
বিষাক্ত করে তুললে নিজেদের,জলাশয়কে আর আমাকে।

-ব্যর্থ কবি-

৪ thoughts on “একটি জলপদ্মের কথা

    1. আসলে ভাই গতকাল খুব তাড়াতাড়ি
      আসলে ভাই গতকাল খুব তাড়াতাড়ি পোস্ট দিয়ে বের হয়ে গিয়েছিলাম।তাই দেখতে পাইনি সমসাময়িক দিছি নাকি হাহাপগে।আর তাছাড়া আমার আবার চোখে একটু সমস্যা।১০০০ পাওয়ারের উপরে চশমা ব্যবহার করি।আজ আপনার কমেন্ট দেখার পর দিখি যে সমসাময়িক হাহাপগে হইয়া গেছে।ঠিক করে দিলাম এখন।খুব খারাপ হইছে কি কবিতাটি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *