প্রাকৃতিক বিস্ময় : ছেলের ডাকে, পিতা জীবিত

অবাক প্রকৃতিকে কে কবে চিনেছে? প্রকৃতির খেলা কারো বুঝার সাধ্য নাই॥ কখন যে কি খেলা দেখাবে বলারো সাধ্য নাই॥
প্রাকূতির তেমনি একটা খেলা এটা॥

বাংলাদেশে যখন তার মা বাবাকে নৃশংসভাবে হত্যা করণে ঐশিকে নিয়ে তোলপাড় ও আলোচনা ঝড় উঠেছে॥ তখনই যুক্তরাষ্ট্রে ঘটে গেল বিশ্ময় কর ঘটনা॥

অসুস্থতার কারণে হাসপাতলে ভর্তি হয়েছিল টনি ইয়াহলকে॥

অবাক প্রকৃতিকে কে কবে চিনেছে? প্রকৃতির খেলা কারো বুঝার সাধ্য নাই॥ কখন যে কি খেলা দেখাবে বলারো সাধ্য নাই॥
প্রাকূতির তেমনি একটা খেলা এটা॥

বাংলাদেশে যখন তার মা বাবাকে নৃশংসভাবে হত্যা করণে ঐশিকে নিয়ে তোলপাড় ও আলোচনা ঝড় উঠেছে॥ তখনই যুক্তরাষ্ট্রে ঘটে গেল বিশ্ময় কর ঘটনা॥

অসুস্থতার কারণে হাসপাতলে ভর্তি হয়েছিল টনি ইয়াহলকে॥
হঠাত্‍ “টনি ইয়াহলকে” মৃত ঘোষণা করেছেন চিকিৎস করা হল॥ নার্সরা হাসপাতালের আনুসাঙ্গিক নিয়ম-কানুন শেষ করে লাশ পরিবারের হাতে তুলে দিতে ব্যস্ত॥ নিকট আত্মীয়দের কেউ কেউ বেশ আগেই চলে এসেছিলেন॥ কেউ চোখ মুছছেন টিস্যুতে॥ কেউ আবার প্রথা অনুযায়ি অন্যকে শান্তনা দিয়ে যাচ্ছেন॥ টনি ইয়াহলের টিনেজ ছেলে লরেন্সের চোখে-মুখে সবচেয়ে কাছের বন্ধু প্রিয় পিতাকে হারানোর বিষাদের ছায়া॥ তবে এখনও তার বিশ্বাস তার পিতা এত তাড়াতাড়ি তাকে ছেড়ে চলে যেতে পারে না॥ তিনি উঠবেনই জেগে॥ মৃত মানুষ যে কোন আবেগে সাড়া দেয় না এটাও লরেন্সের অজানা নয়॥ বিয্ময়কর ঘটনা ঘটল তখনই॥ সবাইকে অবাক করে দিয়ে জেগে উঠলেন টনি ইয়াহল! সন্তানের ভালবাসার কাছে যেন হেরে গেল প্রকৃতির নিয়ম॥
ঘটণাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে॥ মৃত ঘোষণার পর বেঁচে ওঠার এ ঘটনায় হতভম্ব বনে গেছেন চিকিৎসকরা॥ নার্সরা জানান, ৫ দিন অনেকটা অচেতন অবস্থায় হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ছিলেন টনি ইয়াহল॥ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হওয়ায় পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেছিলেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা॥ কিন্তু, ৪৫ মিনিট পর তিনি নড়ে ওঠেন॥ রক্ত সঞ্চালন শুরু হয়॥ বিষয়টি শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই নয়, সারাবিশ্বে চিকিৎসকদের আলোচনার স্থান পেয়েছে॥ ঝড় তুলেছে ফেসবুক ও টুইটারে॥
ওহিয়োর বাসিন্দা ও পেশায় কার্ডিওলজিস্ট ডক্টর রাজা নাজির বলেন, টনির বেঁচে ওঠা এখন চিকিৎসকদের আলোচনার বিষয়বস্তুতে পরিণত হয়েছে॥ মৃত ঘোষিত টনির টিনএজ বয়সী ছেলে লরেন্স ইয়াহল তার নিশ্চল পিতার কাছে গিয়ে বলেছিল,
“তিনি ওই দিন মৃত্যুবরণ করবেন না॥”
লরেন্স বলল,
“এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর তার পিতা চেতনা ফিরে পান।”

মানুষের বিচিত্র এই পৃথিবীতে যে কত বিশ্ময় কর ঘটনা ঘটছে ও হয়ত ভব্যিয্যাত্‍ ও ঘটবে॥ এঘটনা গুলোর মাধ্যমে সৃষ্টিকর্তা তার অস্তিত্ব ঘোষণা করছে॥ সৃষ্টিকর্তা বৃদ্দমান॥ যারা এটা মানেন না সেটা তাদের ব্যাপার॥
সৃষ্টিকর্তা কে যুক্তিতে না বিশ্বাসে পাবেন॥ কিছু কিছু জিনিসের যুক্তি থাকলেও তা বিশ্বাসের মাধ্যমে গ্রহন করতে হয়॥ কথায় আছে
“বিশ্বাসে মেলায় বস্তু তর্কে বহুদূর॥”
“ভক্তিতেই বিশ্বাসের জন্ম হয়॥”

৩ thoughts on “প্রাকৃতিক বিস্ময় : ছেলের ডাকে, পিতা জীবিত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *