বাবা…তোমাকে অনেক মিস করি!! এ লেখা তোমার জন্য!!

গতকাল জীবনে প্রথম কাঁঠাল কিনলাম, আর প্রায় ৭ বছর পর কাঁঠাল খেলাম!আমাদের এইখানটায় যে কাঁঠাল পাওয়া যায়না তা কিন্তু না, কিছু নির্দিষ্ট বাঙালি গ্রোসারিতে পাওয়া যায় এবং বেশ এক্সপেন্সিভ। তবে, আমার এই ৭ বছর কাঁঠাল না খাওয়ার পিছনে কিন্তু এইসব এক্সপেন্সিভ-টেক্সপেন্সিভ কোন কারন না, টাকাপয়সার ব্যাপারে আমি আজীবনই এলোমেলো, বেহিসেবি!! আসলে ব্যাচেলর জীবনের আইলসামিটাই এর জন্য দায়ী; আমি বাজারে যাবো, দরদাম করে টিপেটুপে কাঠাল কিনবো, তারপর সেই কাঠাল কান্ধে নিয়া বাসায় আসবো- এই বস্তু এই কাহিনি আসলে কখনো মাথাতেই আসে নাই!! যা হোক, এখন আমি সংসারি মানুষ, এখন আমার কাঁঠাল কেন, অনেক হাবিজাবি অজাবিন বস্তুই কেনা লাগে!! এনিওয়েস..

কাঁঠাল কিনতে দোকানে ঢুকেই মনটা খারাপ হয়ে গেল, বারবার খালি আমার বাবার কথা মনে হচ্ছিল!! বাবা খুব পছন্দ করতেন!! আমি এক একটা কাঁঠাল ধরি আর আমার মেয়েমানুষের মত চোখ ভিজে যায়!! মনে পরে, বড় সাইজের এক বোল কাঁঠাল আব্বা একলাই সাবাড় করে ফেলতেন। খেতে খুব পছন্দ করতো মানুষটা!! আমাদের ডাইনিং টেবিল্টায় খালি গায়ে বসে মানুষটা খাচ্ছেন আর ঘামছেন এই দৃশ্যটা খালি চোখে ভাসছিল!!

অথচ, আমি কিন্তু বাবাকে এভাবে মিস করার কথা না!! বাবার সাথে আমার সেই ছোটবেলা থেকেই অদ্ভুত একটা দূরত্ব ছিলো, হয়তো আমার বেড়ে উঠার সময় উনি বাইরে ছিলেন বলেই; আমার ছোট ভাইগুলো বরং অনেক ক্লোজ ছিলো উনার সাথে, অনেকেই নিজের বাবা সম্বন্ধে বলতে গিয়ে বলে, আমার বাবা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ বাবা ছিলেন! আমার বাবা কিন্ত কখনোই সেই শ্রেষ্ঠ বাবা ছিলেন না!! আমার বাবা খুব সাধারন একজন মানুষ ছিলেন, আর দশটা মানুষের মত হাজারো মানবীয় দোষ ত্রুটি ছিলো উনার।

তবে অদ্ভুত একটা কোয়ালিটি ছিলো বাবার- টাকা চাইলে উনি কানে শুনতেন না!! মনে হতো, আপনি মানুষটা যে উনার সামনে দাঁড়াই আছেন এটাই উনি দেখেন নাই!! এবং এটা শুধু আমি না, বাসার সবার ক্ষেত্রে; প্রায়ই আমার সাথে এটা সেটা নিয়ে লাইগা যাইতো..বাবার এইসব নিয়ে আমি প্রায়ই মেজাজ খারাপ করতাম!! মনে পরে, একবার রাগ করে প্রায় দেড় বছর আমি উনার সাথে কথাই বলিনি!! আর এখন মনে হয়, ইস বাবার সাথে একটু কথা বলা যেত!! আর এখন আমি প্রতিনিয়ত মানুষটাকে মিস করি, এখন এসব মনে পরলে চোখের পানি সামলানোটাই মুশকিল হয়ে যায়!! অথচ, এমনটা হওয়ার কথা কিন্তু না!!! মোটেই না!!!

মানুষের জীবনটা আসলেই অদ্ভুত!!! তাই না??!!

৪ thoughts on “বাবা…তোমাকে অনেক মিস করি!! এ লেখা তোমার জন্য!!

  1. পৃথিবীর সব বাবা’রাই নিজ
    পৃথিবীর সব বাবা’রাই নিজ সন্তানের কাছে শ্রেষ্ট বাবা।
    আমার বাবাও তেমনি ব্যাতিক্রম নন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *