জরুরী পোস্ট। ফ্লাডিং হিসেবে নিবেন না।

আমি ইস্টিসন মাস্টার এবং অন্যান্য শুভানুধ্যায়ী লেখকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। কেউ দয়া করে পোস্টটিকে ফ্লাডিং হিসেবে নিবেন না। অনেক দুঃখের সাথে লিখছি।

মজার ব্যাপার হইল, কেউ এক লাইনের জন্য হইলেও আমাকে একটুখানি ইনফরমেশন দিতে রাজি নয়। আরে বাবা আপনারা যদি আমাকে ব্লগে বেয়াদব ডাকার মত সাহস দেখাইতে পারেন, তাহলে সামান্য তথ্য দিতে কার্পণ্য কি? এক এক জন ব্লগার এক এক হাত উপরে চলে। সমস্যা কি? নিজেকে বাঙালি প্রমান করতে চাইছেন? করেন? আরেকজনের নাকের উপরে আইসা হাঁচি দেওয়ার মানে কি?


আমি ইস্টিসন মাস্টার এবং অন্যান্য শুভানুধ্যায়ী লেখকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। কেউ দয়া করে পোস্টটিকে ফ্লাডিং হিসেবে নিবেন না। অনেক দুঃখের সাথে লিখছি।

মজার ব্যাপার হইল, কেউ এক লাইনের জন্য হইলেও আমাকে একটুখানি ইনফরমেশন দিতে রাজি নয়। আরে বাবা আপনারা যদি আমাকে ব্লগে বেয়াদব ডাকার মত সাহস দেখাইতে পারেন, তাহলে সামান্য তথ্য দিতে কার্পণ্য কি? এক এক জন ব্লগার এক এক হাত উপরে চলে। সমস্যা কি? নিজেকে বাঙালি প্রমান করতে চাইছেন? করেন? আরেকজনের নাকের উপরে আইসা হাঁচি দেওয়ার মানে কি?

এক এক জন কত পণ্ডিত!!! আমি বাল ডাকি না ছাল ডাকি, সেইটা আমার ব্যাপার। আমি যদি বাজে কিছু লেখি তাতে ইস্টিসন মাস্টার দেখবেন। এক এক জনের রাতের ঘুম নষ্ট করে ফেললাম আমি মনে হয়!!!

ব্লগ একটি নিতান্তই ব্যক্তিগত বিষয়। সেই জায়গায় সে কারো গুষ্টি উদ্ধার করুক বা কাউকে ধর্ষণ করুক। তাতে কার কি আসে যায়? আপনার যদি ভাল লাগে তাহলে কমেন্ট করবেন, নয়ত ১০০০ হাত দূরে থাকবেন।

বাঙ্গালীর সমস্যা হচ্ছে আমরা খবরদারি করা ছাড়া কিছুই পারি না। নিজের আচার আচরন কৃষ্টি কালচার আপনি বই থেকে দেখে শিখতে পারবেন না। তা শিখতে হয় পারিপার্শ্বিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে। তাও যদি না শিখতে পারেন, তখন বলব গুগল থেকেও কিছু শেখা যায়। আমাদের অবস্থা এমন নয় যে, যা শিখতে চাই, তা তৎক্ষণাৎ হাতের কাছে পেয়ে যাবো। কেউ তো এক ফোঁটা ইনফরমেশন দিতেও রাজি নয়। খালি বড় বড় কথা।

স্কুলে পরার সময় শিক্ষক আপনাদের বই থেকে বুঝিয়ে পরিয়ে দিত। কোন শিক্ষক কি কখনও বলেছেন কি যে বই থেকে পরে নাও বা শিখে নাও? যদি কোন শিক্ষক এইটা করত, তাহলে আমরা তার ক্লাসও করতাম না। শ্রদ্ধাও হারিয়ে যেত ওই শিক্ষকের উপর থেকে। আপনাদের ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা তাই। কারো জানায় ভুল থাকলে তাকে জ্ঞান দিয়ে সাহায্য করতে পারেন। অযথা বেয়াদপ ডাকার মানে কি?

বাংলাদেশের কোন বিখ্যাত ব্যক্তিকে যদি আমি বাল ডেকে থাকি তাহলে সেইটা আমার সম্পূর্ণ নিজস্ব ব্যাপার। কেউ আমার কাছে একটি বারের মত জিজ্ঞেস করল না যে আমি কেন ডেকেছি। সব মিল্লা হই চই শুরু কইরা দিলো।

পরিশেষে একটা কথা বলি, আমি বেয়াদপ না। বেয়াদপ আপনারা ,যারা জ্ঞান অর্জনের নামে নিজের পেট ভরান। অপর ব্যক্তি কি জানল না জানল তাতে কারো মাথাব্যথা নাই।

এখন পর্যন্ত ইস্টিসন ব্লগে এই মারামারি খামচা খামচি শুরু হয় নাই। যেই নোংরামি হয় আমার ব্লগ অথবা সামু ব্লগে। ইস্টিসন মাস্টারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমি। সবাইকে তার নিজস্ব মতামত প্রকাশ করার সুযোগ দিন। সমালোচনা বা কমেন্ট করার নামে নোংরামি বন্ধ করুন।

৩৯ thoughts on “জরুরী পোস্ট। ফ্লাডিং হিসেবে নিবেন না।

  1. দস্যু বনহুর… এতো রেগে আছেন
    দস্যু বনহুর… এতো রেগে আছেন কেন? কুল ডাউন ব্রো…!

    আপনার একটা কথা ভালো লাগলো- “কেউ তো এক ফোঁটা ইনফরমেশন দিতেও রাজি নয়। খালি বড় বড় কথা।”
    ব্লগে বেশির ভাগের জন্যেই এই কথাটা চরম সত্য! তবে এটাই কিন্তু স্বাভাবিকও বটে! পরের লাইনে আপনি যেমনটা বললেন- “স্কুলে পরার সময় শিক্ষক আপনাদের বই থেকে বুঝিয়ে পরিয়ে দিত। কোন শিক্ষক কি কখনও বলেছেন কি যে বই থেকে পরে নাও বা শিখে নাও?”
    না, কোন শিক্ষক এমনটা বলতেন না কারণ, তারা আমাদের শিক্ষক ছিলেন!
    ব্লগে কেউ আপনার শিক্ষক নয়! এখানে আমরা একে অপরের প্রতিপক্ষের মত! আপনার কথা ভাল লাগলে একমত হবো, তালি দেব… পছন্দ না হলে সমালোচনা করে এক্কেবারে তুলো-ধুনা করে ছেড়ে দেব! এটাই স্বাভাবিক আচরন! এটা মেনে নিন…

    আজ আপনার পোস্টে বিতর্ক করলাম বলেই আমি আপনার স্থায়ী শত্রু হয়ে গেলাম- এমন তো নয়! আসলে এখানে আমরা সবাই বন্ধুর মত… সবাইকে নিজের সার্কেলের মনে করি। আপনি এই ব্লগটাকে মনে করতে পারেন একটা বন্ধুদের আড্ডা…
    আড্ডায় কী হয়? কেউ একজন ভালো কিছু বললে সবাই তাকে বাহাবা দেয়। আবার ভুল কিছু বললে কটাক্ষ করতেও ছাড়ে না! বন্ধুরাই তো বলবে! তাই না?

    তবে হ্যাঁ, আপনার সাথে আবারও একমত পোষণ করে একটা ব্যাপারে সবাইকে অনুরোধ করবো- কারো পোস্ট বা কমেন্ট ভালো না লাগলে বা তথ্য ঘাটতি আছে মনে হলে তাকে কাউন্টার না করে বরং তথ্য নির্ভর মন্তব্য করাটাই উত্তম। কারণ, গালাগালি বা কাদা ছুড়াছুড়ি দিয়ে আসলে কিছু শেখা যায় না! তথ্যের চেয়ে অকাট্য যুক্তি আর কি হতে পারে বলুন?

    দস্যু বনহুর সহ সবাইকে ধন্যবাদ…

    :ফুল: :ফুল: :ফুল:

    1. ভাই কি হয়েছে জানি না তবে উনি
      ভাই কি হয়েছে জানি না তবে উনি প্রথমেই যে বেগে দৌড় দিল কি আর বলব !! কে বলেছে শিক্ষক নেই রাহাত ভাই ., আতিক ভাই আর কায়সার ভাই আমার প্রায় প্রতি পোস্টের ভুল ধরিয়ে দিয়ে শুধরে দিতে সাহায্য করে .। বিশেষ করে আতিক ভাই ।এখন আমি যদি তাদের সমালোচনা স্বীকার না করে তর্ক করতাম, তাহলে কি এইটা হত??

      1. আতিক ভাইয়ের কথা আমি বলি নাই।
        আতিক ভাইয়ের কথা আমি বলি নাই। উনার সমালোচনা যুক্তিযুক্ত। হুদাই উনি তর্ক করেন না। ইস্টিশনে কিছু লোক আছেন, যারা হুদাই ভুল ধরতে ওস্তাদ। তাদের কথাই বলছি আমি

  2. জানি না কি হয়েছে তবে প্রথম
    জানি না কি হয়েছে তবে প্রথম তিন প্যারা পরেই আপনাকে বলছি এটা আর পাচটা ব্লগের মত নয় .। এটা ইস্টশন এখানে আমরা একটা পরিবার .। কত দিন ধরে ইস্টিশনের সাথে আছেন জানি না .।
    তবে পুরোনো পোস্টের দিকে লখ্য করবেন .। বুঝলেন

    আর আপনাকে কে কি করছে তা শুনার আর আগ্রহ নাই ভাই .। আপনার যা ইচ্ছা করতে পারেন সেটা অন্য ব্লগে করেন আর নিজস্ব ব্লগে পড়েন .।
    ইস্টিশনের পরিবার এর অন্তর্ভুক্ত না হতে পারলে সমালোচনা মেনে নিতে না পারলে সালাম !!!

    আর আমাদের ইস্টিশনের ছোট খাট ঝামেলা আমাদের মধ্যেই শেষ হয় ইস্টিশন মাস্টারের খুব কম প্রয়োজন পড়ে বুঝলেন আমরা এটাতেই অভ্যস্ত এর ব্যতিক্রম মনে করি কেউ চায় না চাইলে আমার মতা মতের বিরোধিতা করতে পারেন আর তার জন্য আপনাকে স্বাগতম .।

    শুভ রাত্রি

  3. ব্লগে যদি মতের বিরোধ নিয়ে
    ব্লগে যদি মতের বিরোধ নিয়ে তর্কাতর্কি নাই হবে তাইলে তো আলুনী আলুনী লাগবে। সবাই যদি সহমত সহমত বইলা পিঠ চাপড়ায় তাইলে ভাল্লাগবে না কইলাম। যাই হোক, আপনার খারাপ লাগছে সেইটা খুল্লাখুল্লি বইলা দিছেন এইটাও ভালো। সবার মাঝে মাঝে একটু সতর্কবানী শোনার দরকার আছে। ইদানিং দেখি কেউ কারো পোস্টে বা মন্তব্যে ভিন্নমত জানায়ে কিছু কইলেই ধরে নেয় জনমের তরে সে শত্রু হইয়া গেছে। কেনরে ভাই?

      1. আমি নির্দিষ্ট কোন মন্তব্য বা
        আমি নির্দিষ্ট কোন মন্তব্য বা পোস্ট নিয়া কই নাই কথাগুলা। জেনারালি বলছি। তাই ওইটাকে ব্যক্তিগতভাবে কেউ না নিলেই বান্দা খুশ হুয়া। 😀

    1. হুম সমালোচনা মেনে নিলে কি হয়
      হুম সমালোচনা মেনে নিলে কি হয় বলেন তো! তর্কের খাতিরে তর্ক বাড়াই শুধু আমরা , ভুল হলে বিপরীত মন্তব্য আসতেই পারে আর তা মেনে নেয়া টাই তো শ্রেয় তাই না

  4. ব্লগে আপনি যদি স্বাধীন ভাবে
    ব্লগে আপনি যদি স্বাধীন ভাবে কিছু লিখতে পারেন তবে সেখানে কোন পাঠকের তার মত করে মন্তব্য করার অধিকারও সেই পাঠকের আছে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি আইনকে সামনে যত কম আনা যায় ততই ভাল। আমার মত টাই সর্বজন গ্রাহ্য হবে এরকমই বা কেন আমি ভাববো।
    কে তথ্য কম দেয় বা কে ভাল মন্তব্য করে এই বিষয় গুলো সম্পূর্ণই তার উপর। কেউ যদি কোয়ালিটি বা এটিকেট বজায় রেখে ব্লগিং না করতে পারে তাহলে এক সময় তিনি নিজেই হারিয়ে যাবেন। কিন্তু এই চলমান দ্বান্দিক প্রক্রিয়ায় এরকম ঘটবেই। যার যার লেখার দায় তাকেই নিতে হবে এবং সে অনুসারে তিনি ফলও পাবেন।

  5. সহযোদ্ধা ব্লগার এবং দস্যু
    সহযোদ্ধা ব্লগার এবং দস্যু নিচের পোস্ট সহ ( বোল্ড করা ) লেখার অংশ বিশেষ পড়ুন । এই পোস্ট গুলো দস্যু বনহুরের । এখানে প্রতিটি লেখায় বাল শব্দটি পাবেন । একটা লেখায় পুটু মারার কথা বলেছেন । আপনার লেখার কনটেনট বিচার করছিনা । বাজে শব্দ, গালি গালাজ করে লেখা আপনার স্বভাব । এবং এই ধরণের নোংরা কথার ফোয়ারা কন গ্যাং রা করে তা আপনি জানেন এবং মানেন বলেই করেন –
    গন্তব্য কি তবে আওয়ামীলীগ?

    আর রইল কারা? বাম দল গুলা। এই দল গুলা হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে ফাতরা দল। স্বাধীনতার পর হতে এরা কেবল লেনিন স্তালিন এর বাল ফালান ছাড়া বাংলাদেশের রাজনীতিকে কোনভাবেই প্রভাবিত করতে পারে নাই।
    আমি মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান
    শুরুটা হয়েছিল অনেক আগে। তখন কম্যুনিজম এর বাল গজাতে শুরু হয়েছিল। এর মধ্যেই প্রেমে পড়ি প্রীতিলতার। দূরদর্শনের মত প্রেম কতই বা টেকে? কথা দিয়েছিলাম, চট্টগ্রাম এসেই দেখা করবো। যখন এলাম, শুনলাম সে নাকি আত্মহত্যা করেছে। ঝামেলায় জড়ালাম না। কম্যুনিজম এর বাল ছেঁটে ফেললাম। আমি মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। সুযোগ পেলেই কত কি করা যাবে!
    থামলে ভাল লাগে

    হর্তাকর্তা রা হাজার হাজার ফলোয়ার নিয়া একজন আরেকজনের উপর ঝাঁপাইয়া পড়ছেন। একজন আরেকজনের মুখোশ উন্মোচন করছেন, বাল ছিঁড়ছেন।
    রেশমা, সৃষ্টিকর্তা এবং আমি, ত্রিমুখী সংঘর্ষ

    আনন্দ উৎসব বেশিক্ষণ স্থায়ী হল না। বাসায় এসে নেট খুলে দেখলাম, মুন্নি সাহা নাকি বাল ছাল প্রশ্ন করেছিল।
    জয় বাংলা

    আজ অনেকদিন পর শাহবাগ গেলাম। স্লোগান আর জাগরণের গানে উজ্জীবিত তারুণ্য প্রস্তুত আগামীকাল কামরুজ্জামানের পুটু মারার দিনটি উদযাপনের জন্য… যদি পুটু মারতে না দেয়, তাহলে আমরা অবস্থান কর্মসূচীর মাধ্যমে তাকে রেপ করতে বাধ্য হব…
    আসুন ইতিহাস শিখি
    এই যেমন শাহ আমানতের কথাই ধরি। উনি এই বাংলাদেশের জন্য কোন বাল ফালাইছেন যে তার নামে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর করতে হবে?
    …………………… ঠিক সত্য রাশেদ খান মেননের বেলায়ও। চীনপন্থি রাজনৈতিক মেনন বাংলাদেশের জন্য কি করেছেন যে তার নামে একটা সড়ক নামকরণ করা লাগলো।
    —————- আপনি কমেন্ট সহ্য করার স্বাভাবিক ধৈর্য রাখেন না । ব্লগিং করতে নেমে পড়েছেন !!! উলটো নালিশ জানিয়ে বসলেন ইষ্টিশন মাস্টারের কাছে । আপনার আসুন ইতিহাস শিখি পোস্ট টি এবং কমেন্ট পড়ার পর স্বাভাবিক বোধ সম্পন্ন যে কেউ আপনার সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পাবে । আপনাকে আবারো স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি, আগের পোষ্টে আপনাকে খুব সুন্দরভাবে আমি কয়েকটা পরামর্শ দিয়েছি এবং সেখানে ব্যর্থ হলে আমি আপনাকে সাহায্য করার কথা বলেছি । আগে স্বীকার করুন আপনি আন্তরিকভাবে খুঁজে ছিলেন কিন্তু তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন নি । তারপর যদি আপনাকে তথ্য না দেই তখন লম্বা চউরা কথা বলেন । এই ব্লগে যারা সক্রিয় তারা যথেষ্ট আন্তরিক অবস্থান থেকে বন্ধুত্বপূর্ণ জায়গা থেকে ব্লগিং করে । সুতরাং এই ব্লগারদের সম্পর্কে অভিযোগ করার আগে আপনাকে দুবার নয় বেশ কয়েকবার ভাবতে হবে । পরিশেষে এই বলবো , সুস্থ ব্লগিং করুন । আমরা আপনার শত্রু নই, বন্ধু ।

    1. অনেক টা এই রকম !
      বাবার কাছে

      অনেক টা এই রকম !

      বাবার কাছে লিখা ছেলের চিঠি
      বাবা ভাল আছো ? বাল কত দিন ধরে তোমাদের দেখিনা .। বাল আর ভাল লাগে না .। যাই হোক অন্য কথায় চলে গিয়েছি বাল .। আমার কাছে কয়েক টা বই নেই কিনতে হবে বালের বইয়ের জন্য পড়তে পারি না .। যত তারাতারি পারো টাকা পাঠাউ নাইলে আবার সারের মাইর খেতে হবে বাল .।
      আহ ধুর উপরের সব বাল কাটা বাল .।

      মুদ্রা দোষ !! অথবা বর্তমান কালে টিনএজার দের কাছে ধুমপান যেমন স্টাইল উনার স্টাইল এমন !!!

  6. এখন পর্যন্ত ইস্টিসন ব্লগে এই
    এখন পর্যন্ত ইস্টিসন ব্লগে এই মারামারি খামচা খামচি শুরু হয় নাই। যেই নোংরামি হয় আমার ব্লগ অথবা সামু ব্লগে।
    আপনার সাথে আমিও সহমত .।
    আশা করি হবেও না !

    1. আমি ঘটনাটা ওনাকেই প্রথম
      আমি ঘটনাটা ওনাকেই প্রথম জানাই। উনি যা বলেছেন, তার কথাই আমি মেনে নিয়েছি। আপনাদের সহযোগিতা একান্ত কাম্য।

  7. কম্যুনিটি ব্লগ মানেই তো একটি
    কম্যুনিটি ব্লগ মানেই তো একটি মত এবং সে মতের ওপরে কম্যুনিটির অন্যদের দ্বিমত কিংবা সহমত। আমি নিজে ইষ্টিশনে তেমন একটা মন্তব্য করিনা ঠিকই তবে অন্যদের মন্তব্য খুবই উপভোগ করি। বিশেষ করে আতিক ভাই, শাহিন ভাই, রাইন আপু সহ কয়েকজনের মন্তব্য করার এত ধৈর্য্য দেখে আমি বিস্মিত। তাদের এই স্বতস্ফুর্তভাবে মন্তব্য করার কারনে ইষ্টিশনে এত সুন্দর একটা পরিবেশ আছে। আমু কিংবা সামুতে সব কিছু ছাড়া ছাড়া। সেগুলোতে “তুমি আমার পোষ্টে কমেন্ট কর, আমি তোমারটায় করব” এরকম একটা মানসিকতা আছে। কিন্তু এখানে আমি মাসে একটা কমেন্ট না করেও পোষ্ট দিলেই আমার পোষ্টে কমেন্টে ভরে যায়। অনেক নিম্নমানের পোষ্টেও এই জিনিসটা হয়। এটা খুবই ভাল একটা দিক।

    আমার মনে হয় বনহুর ভাইর এত কড়া কথা বলা ঠিক হয়নি। যেখানে আলোচনা হয় সেখানেই সমালোচনার জন্ম হয়। সে সমালোচনার মধ্যে কয়েকটা ‘সমালোচনার জন্য সমালোচনা’ না হয়ে ‘পোষ্টদাতাকে আটকানোর জন্য সমালোচনা’ হতে পারে। কিছু লোক থাকেই এমন। তাদেরকে ইগনর করুন। এত ঘটা করে যদি তাদের জন্য পোষ্টও দিয়ে ফেলেন তাহলে তো তাদের আরো সেলিব্রেটি বানিয়ে দিলেন।

    ইষ্টিশনের প্রতিটি ভাল মন্দ পোষ্ট কষ্ট করে পড়ে মন্তব্য জানানো কিছু নির্দিষ্ট মানুষের জন্য শুভেচ্ছা থাকল। তাদের কারনেই অনেক আত্ববিশ্বাসহীন লেখকও ভাল ব্লগার হয়ে উঠতে পারে। এরকম কিছু মানুষ পাশে ছিল বলেই রবার্ট ব্রুস বারবার পরাজিত হয়েও আবার ঘুরে দাড়ানোর শক্তি পেয়েছিল, এরকম কিছু মানুষ পাশে থেকে সাহস দিয়েছিল বলেই অনেক বড় সেলিব্রেটিদের ক্যরীয়ার প্রথমদিকের ফ্লপ সৃষ্টির পরেই থেমে যায়নি।

  8. যাক, একটা জিনিস ভালো লাগলো যে
    যাক, একটা জিনিস ভালো লাগলো যে আমার কমেন্ট দিয়ে শুরু এই কমেন্ট চক্রে আমি ঠিক সেইসব কমেন্টগুলোই দেখলাম যা সত্যি আশা করেছিলাম!
    আশা করি দস্যু বনহুরও সেটা বুঝতে পেরেছেন…

    আমি বরাবরের মতই ইস্টিশন পরিবারের প্রতি মুগ্ধ এবং আমার কনফিডেন্স আরো একধাপ বেড়ে গেল! খালি একটাই আপসোস- ফেসবুকের মত কারো মন্তব্যে লাইক দিতে পারলাম না! নইলে ধুমাইয়া লাইক দিতে পারতাম এই পোস্টের কমেন্টগুলোতে…
    😀

    1. সফিক ভাই, আপনাকে ধন্যবাদ।
      সফিক ভাই, আপনাকে ধন্যবাদ। সবাইকে ধন্যবাদ। যারা তথ্য দিয়ে সাহায্য করেছেন, তাদের কাছে কৃতজ্ঞ আমি।

      তবে যেই ব্যক্তি আমাকে বেয়াদব বলেছেন, তিনি কোন তথ্য না দিয়েই কথাটা বলেছেন। সেই লোক হইতে আমি ইস্টিশন পরিস্কার রাখব, কথা দিলাম।

      1. ভিলেনঃ
        চুপ কর বেয়াদব!
        ইলিয়াস

        ভিলেনঃ

        চুপ কর বেয়াদব!

        ইলিয়াস টনটনঃ

        শয়তান! তুই আমাকে বেয়াদব বলেছিস… তোকে খতম করে ইস্টিশন আমি পরিস্কার রাখব। ইস্টিশনের মাটি ছুঁয়ে কথা দিলাম মা!!!

        হি হি হি

        ছেলে পেলে কত ইমোশনাল! ভাবতেই ভালো লাগে!

      2. আপনি এখনও রেগে আছেন! এটা
        আপনি এখনও রেগে আছেন! এটা কিন্তু সত্যি দুঃখজনক! আপনি আমার কিছু পোস্ট (রাঁধুনী ব্যতিত অন্য কোন গল্প নয়)-এর কমেন্ট পড়লে দেখবেন কেউ কেউ আমাকে নারীবিদ্বেষী-মৌলবাদি ইত্যাদি ট্যাগ দিয়েছে একেবারেই যুক্তিহীন ভাবে নিজের মনের ধারনা থেকে! এমন কি “মাদা*চো*” গালিও (যদিও আসলে গালিটা দেয়া হয়েছিল উপমা হিসেবে!) শুনতে হয়েছে! দলবদ্ধ আক্রমন তো ছিলোই…!

        খুব স্বাভাবিক ভাবেই কমেন্টকারীদের ওপর সেই সময় রাগ/ক্ষোভ/অভিমান/বিরক্তি তৈরী হয়েছিল! কিন্তু আমার কমেন্টগুলো পড়লেই বুঝবেন- তাদেরকে ব্লক করার চেষ্টা কখনোই করিনি… এমন কি তাদের অনেকের সাথেই তারও পরে ফেসবুকে ফ্রেন্ড হয়েছি- অর্থাৎ, খাতির আরো বেড়েছে! তাতে কি আমার কোন ক্ষতি হয়েছে? আমি তো বরং মনে করি আমার আরো লাভ হয়েছে! এটলিস্ট একজন স্পষ্টভাষী বন্ধু পেয়েছি যে আমার কঠোর সমালোচনা করতে কখনও বিন্দু মাত্র দ্বিধা করে না।

        আপনাকে “বেয়াদপ” বলাটা আপনি আসলে কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না।
        আমি বলি কি- এতো সিরিয়াস হওয়ার দরকার নেই। আপনার পোস্টের বক্তব্য শুনে হয়তো ওনার কাছে মনে হয়েছে এই ভাষায় কথা বলাটা বেয়াদপির শামিল…
        এর মানে এই নয় যে আপনাকে উনি পারমানেন্টলি “বেয়াদপ” ঘোষণা করেছে!
        রাহাত মুস্তাফিজ ভাই একদম লাইন ধরে উল্লেখ করে দেখিয়েছেন আপনার পোস্টগুলোতে ২টা শব্দ ব্যবহারের আধিক্য যা আপত্তিজনক। অবশ্য এই শব্দগুলো বা এরচেয়েও আপত্তিকর শব্দ অনেকেই ব্যাবহার করে… তবে তারা কে তাকে কী বলল তা নিয়ে মাথা ঘামায় না!
        আপনি যেহুতু ঘামান, তাই পরবর্তিতে এধরনের শব্দগুলো এড়িয়ে চলুন। আশা করি যে আপনাকে বেয়াদপ বলেছে সে-ই আবার আপনার আরেক পোস্টে বাহাবা দিবে!

        আবারও অনুরোধ করছি- লীভ ইট ম্যান! গালি হিসেবে “বেয়াদপ” খুবই নিরিহ টাইপ… ডোন্ট বি সো সিরিয়াস! আপনি যে বেয়াদপ নন- তা আপনার চেয়ে ভালো আর কে জানে? এবার “তাকে”ও জানতে দিন… আপনি তাকে ব্লক করে দিলে বা এভোয়েড করে চললে সে তো তার ভুল কোনদিনই বুঝতে পারবে না! তাই না?

        :বুখেআয়বাবুল: লেটস চিয়ার আপ! :পার্টি: :পার্টি: :পার্টি:

  9. ইস্টিশন আমাদের পরিবারের মত।
    ইস্টিশন আমাদের পরিবারের মত। সমালোচনা সহ্য করতে হয়।সমালোচনার মাধ্যমেই তো আপনি নিজেকে শুধরে নেবেন। তবে নাভিদ ভাইয়ের বেয়াদপ বলাটা হয়তো ঠিক হয়নি। আর না জেনে আপনিও অশ্লীল ভাবে পোস্ট উপস্থাপন করা উচিৎ হয়নি।

  10. আপনি বলেছেন-
    আপনার যদি ভাল

    আপনি বলেছেন-

    আপনার যদি ভাল লাগে তাহলে কমেন্ট করবেন, নয়ত ১০০০ হাত দূরে থাকবেন।

    আপনার লেখা পড়ে ভাল লাগলে মন্তব্য করব, লেখা ভাল না লাগলে ১০০০ হাত দূরে থাকবো কেন? আপনি খারাপ লিখলে আপনার সমালোচনা করে আপনার নিজের লেখার মান বাড়ানোই আপনার কাজ। যদি কেউ আপনার লেখায় গিয়ে বলে, আপনার লেখা ভাল লাগেনাই তাহলে সেটা বলার সে অবশ্যই অধিকার রাখে। আপনি গোলাপ তুলতে এসে যদি কাটার ভয় করেন কেমনে চলবে?

  11. আসেন প্রাণে প্রাণ মেলাই…
    আসেন প্রাণে প্রাণ মেলাই… :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

    1. (No subject)
      :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

    1. আসেন, প্রাণে প্রাণ মেলাই…
      আসেন, প্রাণে প্রাণ মেলাই… :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

  12. আমি আমার ভুল সম্পূর্ণরূপে
    আমি আমার ভুল সম্পূর্ণরূপে স্বীকার করছি। সবার সহযোগিতা কামনা করছি। আমার দিক থেকে এটাই আমার শেষ বক্তব্য।

    1. আপনি খাঁটি গাভীর দুধ দিয়ে
      আপনি খাঁটি গাভীর দুধ দিয়ে তিনবার মুখ ধুয়ে তারপর আবার ব্লগিং শুরু করেন। আমি নিশ্চিত, এইবার আপনার সেলিব্রেটি ব্লগার হওয়া কেউ ঠেকাতে পারবেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *