কবি নির্মলেন্দু গুণের প্রতি :

বসে আছি ভর দুপুর বেলা , উদাসমনে ।
মাথার উপর বিশাল সূর্য ক্রমেই রাগ বাড়িয়ে
আমাকে তরলের মত ফুটিয়ে শরীর থেকে
হাজার হাজার জলকণার ঘামীয় বাস্প বের করে দিচ্ছে ।

কিন্তু আমিও কম ত্যাঁদড় না !
আমি ঠিকই খুঁজে খুঁজে একটি নিরিবিলি
কামরাঙ্গার ছায়াতল বের করে ফেলেছি ,
সেখানে ছায়া রঙের ঘাসের চাদরে বসে
গ্রীষ্মের গরমে মাথা নষ্ট কোকিলের গান শুনছি …



বসে আছি ভর দুপুর বেলা , উদাসমনে ।
মাথার উপর বিশাল সূর্য ক্রমেই রাগ বাড়িয়ে
আমাকে তরলের মত ফুটিয়ে শরীর থেকে
হাজার হাজার জলকণার ঘামীয় বাস্প বের করে দিচ্ছে ।

কিন্তু আমিও কম ত্যাঁদড় না !
আমি ঠিকই খুঁজে খুঁজে একটি নিরিবিলি
কামরাঙ্গার ছায়াতল বের করে ফেলেছি ,
সেখানে ছায়া রঙের ঘাসের চাদরে বসে
গ্রীষ্মের গরমে মাথা নষ্ট কোকিলের গান শুনছি …

এর মধ্যে মাথার ভিতরে কোত্থেকে যেন ঢুকে পড়ল
আকাশ আর মেঘ ,
মাথা নষ্ট কোকিলের গান শুনতে শুনতে
আমার ও মাথা নষ্ট হয়ে গিয়েছে ,
শুধু পার্থক্য কোকিল ভাবল বসন্ত আর আমি বর্ষা …

মধ্যগ্রীষ্মের এই দুর্দান্ত কঠিন রোদের মধ্যে
বসে বসে আমি ভাবছি বৃষ্টির কথা !
অঝোর ধারায় বৃষ্টি হচ্ছে
আর আমি বৃষ্টিতে ভিজছি একা একা …
হয়ত হাজার মাইল দূরে কোন এক তরুণী
চুল খুলে বৃষ্টি ছুঁয়ে হাঁটছে ছাদে , সে –ও একা
বৃষ্টিতে ধুয়ে নিচ্ছে মনের সকল ব্যাথা …
ভাবছে কোন এক চতুর প্রেমিকের কথা ।

এদিকে বৃষ্টিতে ভিজে জবুথবু আমি
বোকা প্রেমিকের মতই বলতে পারছি না তাকে
যদি কখনো ইচ্ছে হয় তো ভালবেসো আমাকে …

আমরা দুজন একসাথে বৃষ্টিতে ভিজব ,
পড়ন্ত বিকেলে হাতে হাত রেখে রিক্সায় ঘুরব ,
রাতের পর রাত জেগে কত কথা বলব ,
তুমি শাসন করবে আর আমি ইচ্ছাকৃত ভুল করব ,
তোমাকে নিয়ে হাজার হাজার কবিতা লিখব ,
একসাথে দুজন মিলে সেই কবিতা পড়ব …

তাই কবিতার পর কবিতা লিখে যাই
শব্দে শব্দে তাকে সাজাই ,
দুইকে আমি এক করতে পারি না ,
এক কেই তাই দুই বানাই ,
গ্রীষ্মের প্রখর রোদে শ্রাবণ বর্ষণ দেখে
সেই বর্ষণে ভিজতেও চাই … !!

অথচ কেউ জানতে চায় না
আমার ভাবনারা কেন এমন এলোমেলো
কেন আমার চোখ মাঝে মাঝে ঘোলাটে ,
মাঝে মাঝে পশ্চিমাকাশের মত লাল টকটকে !

এতটুকু ভালবাসা আমি চাই নি তার কাছে
শুধু চেয়েছিলাম সে আমার কবিতাগুলো পড়ুক ,
কেন আমি চোখ লাল করে এলোমেলো ভাবনা
নিয়ে ঘুরে বেড়াই তা একটু অন্তত ভাবুক ।

কিন্তু কেউ ভাবে নি গুণ দাদা … !
ভাবতেও চায় না কেউ … !!

তবুও আমি রোজ এই রকম চোখ লাল করে
ঘরে ফিরে তাকে নিয়ে কবিতা লেখি …
আমাকে যে তার জন্য পৃথিবীর সেরা প্রেমের
কবিতাটি লিখতেই হবে …

তবেই না সে আমার কথা ভাববে …

৩ thoughts on “কবি নির্মলেন্দু গুণের প্রতি :

  1. এদিকে বৃষ্টিতে ভিজে জবুথবু

    এদিকে বৃষ্টিতে ভিজে জবুথবু আমি
    বোকা প্রেমিকের মতই বলতে পারছি না তাকে
    যদি কখনো ইচ্ছে হয় তো ভালবেসো আমাকে …
    আমরা দুজন একসাথে বৃষ্টিতে ভিজব ,
    পড়ন্ত বিকেলে হাতে হাত রেখে রিক্সায় ঘুরব ,
    রাতের পর রাত জেগে কত কথা বলব ,
    তুমি শাসন করবে আর আমি ইচ্ছাকৃত ভুল করব ,
    তোমাকে নিয়ে হাজার হাজার কবিতা লিখব ,
    একসাথে দুজন মিলে সেই কবিতা পড়ব …

    খুব ভাল লেগেছে আমার কাছে।

Leave a Reply to দুরন্ত জয় Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *