পাকি বীর্যের বাম্পার ফলন এবং একজন ডার্ক নাইটের কথা…

বিকালে আসরের নামাজ পড়তে মসজিদে গিয়েছি। নামাজ শেষে ইমাম সাহেব যখন মোনাজাত ধরলেন, তখন আর সবার মত আমিও হাত তুললাম। মোনাজাতের এক পর্যায়ে ইমাম সাহেব জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নির্মম হত্যাকাণ্ডকে স্মরণ করে তার ও তার পরিবারের সকল শহীদের বিদেহী আত্মার পরম শান্তি কামনা করলেন। তখন হঠাৎ পিছনে একটু হট্টগোলের আওয়াজ পেলাম। যা হোক , মোনাজাত শেষে ইমাম সাহেব যখন মিম্বর ছেড়ে সামনে আসলেন, কথা নাই বার্তা নাই হঠাৎ তার সামনে গিয়ে মহল্লার চিহ্নিত কিছু ছুপা ছাগু একটা অভিযোগ পেশ করল। কি সেই অভিযোগ?? ইমাম সাহেব কেন শেখ মুজিবের মত একজন বিতর্কিত লোকের জন্য মোনাজাত করলেন?? সারা মুসলিম জাহানের জন্য দোয়া করা যেতে পারে কিন্তু একটা নাস্তিক দলের প্রতিষ্ঠাতার জন্য দোয়া করা উচিৎ না। কারন তার দল দেশের ইসলামের কাণ্ডারিদের অত্যাচার-নির্যাতন করছে। এইসব উদ্ভট,আজাইরা অভিযোগের পর অভিযোগে ইমাম সাহেবকে ওরা বেকায়দায় ফেলে দিল। এখানে প্রসঙ্গক্রমে বলতে হয়, আমাদের মহল্লার বেশিরভাগ মানুষ প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ, প্রকাশ্য-ছুপা নানা উপায়ে জামাতে ইসলামিকে সমর্থন করে। আর যারা সামনাসামনি করে না, তারা তাবলিগে জামায়াত নামে জামাতের একটা কাভার সংগঠনের সদস্য।একমাত্র ইমাম সাহেবকে ওদের এই কাজে কখনও সামিল হতে দেখিনি। তার আচার-ব্যবহার তিনি আজ ২৬ বছর এই মসজিদের ইমাম। তারা এলাকায় ইসলামি দাওয়াত দেয়ার নামে মানুষজনকে মউদুদি ইসলামের দাওয়াত দিয়ে দুনিয়াতেই বেহেশতের টিকিত প্রদান করে। খুব অল্প সংখ্যক মানুষ মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে বিশ্বাসী। তো এই কথাটা শোনার পর মাথার তার ছিঁড়ে গেলো।এমনিতেই রাজাকারের বিচার চাওয়ার অপরাধে আমি নাস্তিক হিসাবে বেশ জনপ্রিয়। তাই সামনে গিয়ে সহজ বাংলায় প্রথমে বললাম, কেন আঙ্কেল, যে মানুষটা না থাকলে প্রতিদিন ভাত খাওয়ার বদলে হয়তোবা ফাকিস্তানের আন্তর্জাতিকমানের জঙ্গি ভায়াদের জিহাদি গ্রেনেড খাওয়া লাগত, তার মৃত্যুবার্ষিকীতে সামান্য দোয়া চাওয়াতে কোন মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে গেছে?? প্রথম রিপ্লাইটা ছিল , “”ওই নাস্তিক পুলা, তুমি এইখানে ক্যান?? আর মুরুব্বিদের কথার মাঝে বেয়াদবি কর ক্যান?? উত্তর দিলাম– আঙ্কেল, আমি নাস্তিক নাকি আস্তিক, সেইটা বিচার করার ভার আপনাকে দেই নাই। আর ৭১রে যখন কিছু পাকি শুয়োরের বাচ্চা আমার বাঙলা মায়ের ইজ্জত নিয়ে ছিনিমিনি খেলার চেষ্টা করছিলো, তখন আপনার মত দাড়িটুপি লাগানো মহামান্য আস্তিকেরা মাথা তুলে দাঁড়ানোর সাহস করে নাই। বরং ওই নিকৃষ্ট কীটগুলার পা চাটতেই বিজি ছিল। ওদের পিছ দিয়ে উপযুক্ত বাঁশটা দিয়েছিল কিন্তু আমার মত এইরকম বেয়াদব কিছু ছেলেই। কারনটা জানেন?? কারন বঙ্গবন্ধু আপনাদের মত চুচিল শ্রেণীর কোন মানুষ ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন সত্যিকারের বিদ্রোহী,একজন দূরদর্শী মহান নেতা। আপনাদের ভাষায় মুরব্বি না মানা বেয়াদব। ইমাম সাহেব পরে আমাকে থামালেন। চলে আসলাম সেখান থেকে।

আজ জাতির পিতাকে হত্যার ৩৮ বছর পুরো হল। আমরা সারা পৃথিবীতে ৭১রের পর পরিচিত ছিলাম বীরের জাতি হিসাবে। কিন্তু ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট আমাদেরকে এক নতুন পরিচয়ে পরিচিত করে। তা হল আমরা এক কাপুরুশ অধম জাতি। যাদের পিতাকে তাদের সামনে সামান্য কিছু জুনিয়র আর্মি অফিসার নির্মমতার চরম পরাকাষ্ঠা দেখিয়ে হত্যা করে লাশের বুকের উপর দাঁড়িয়ে চিৎকার করে বলে, আমি হত্যা করেছি, কোন সমস্যা?? আর আমরা তাদের চিৎকার শুনে ভয় পেয়ে গর্তে লুকাই।তারপর তাদের প্রমোশন হয়, তারা পৃথিবীর অন্যান্য দেশের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক স্থাপনে ভুমিকা পালন করে। দেশের প্রতিষ্ঠাতাকে হত্যাকারীর পুরস্কার হল বীরের সম্মান। কি বিচিত্র সেলুকাস এই দেশ!!!

যে মানুষটা আমাদের দেশের স্বাধীনতা আনতে গিয়ে তার প্রায় পুরো জীবনটাই উৎসর্গ করেছেন, তাঁকে আমরা ১টা বছরও সময় দেই নাই। কিছু নিকৃষ্ট জঘন্য জানোয়ারের প্রোপাগান্ডায় বিশ্বাস করে বাকশাল বাকশাল রব তুলে তার স্বপ্নের কবর রচনা করেছি বা করতে সাহায্য করেছি আজ থেকে ৩৮ বছর আগে। আজকের এই দিনে তার কাছে ক্ষমা চাইবার ভাষা জানা নেই। তবে সহযোদ্ধা এক ভাইয়ের সাথে গলা মিলিয়ে বলতে পারি—

“””” আপনি খুশী থাকেন আমাদের ফাকড আপ ডেমোক্রেসী নিয়া। আমি না। আমরা ঘুড়ে দাঁড়াবো। দাঁড়াবোই। একদিন আর আমরা অন্য দেশের চোখ রাঙ্গানিতে ভয় পাবো না। একদিন! একদিন! সেইদিনের অপেক্ষায় ইতিহাস আমার শিক্ষা। চোখের অশ্রু আমার শক্তি। বঙ্গবন্ধু আমার প্রেরণা। তাঁর আইডিওলজি আমার বেদবাক্য।

তোমার নেতা আমার নেতা – শেখ মুজিব, শেখ মুজিব।”””

৩৩ thoughts on “পাকি বীর্যের বাম্পার ফলন এবং একজন ডার্ক নাইটের কথা…

    1. এইগুলারে যেইখানে পাওয়া যাবে,
      এইগুলারে যেইখানে পাওয়া যাবে, সেইখানেই নিশ্চিহ্ন করা দরকার। পিতার হত্যাকারীদের কোন ক্ষমা নেই :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: … যারা সেই হত্যাকে জায়েজ করার চেষ্টা করবে, তারাও সমান অপরাধী… বহুত হইছে… আর না… আতিক ভাইকে :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ফুল: :ফুল:

  1. সাহসী ভুমিকার জন্য ধন্যবাদ
    সাহসী ভুমিকার জন্য ধন্যবাদ ।

    [আমরা ঘুড়ে দাঁড়াবো। দাঁড়াবোই। একদিন আর আমরা অন্য দেশের চোখ রাঙ্গানিতে ভয়পাবো না। একদিন! একদিন! সেইদিনের অপেক্ষায় ইতিহাস আমার শিক্ষা। চোখেরঅশ্রু আমার শক্তি]
    — সহমত ।

    1. ওদের উপযুক্ত মুগুর না দিলে এই
      ওদের উপযুক্ত মুগুর না দিলে এই ফলন বাড়তেই থাকবে :টাইমশ্যাষ: :টাইমশ্যাষ: … শাহিন ভাইকে :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ফুল: :ফুল:

  2. এই ফলাদির বাম্পার ফলনের পেছনে
    এই ফলাদির বাম্পার ফলনের পেছনে আছে হাইব্রিড বীজ এবং ফ্রি সার। এইসবের জন্য আমরা কোন অংশে কম দায়ী না। তা না হলে যেই জিনিস ২০০ বছরে উন্নতি করতে পারে নাই সেটা ৪২ বছরে এত ব​ড় ফলন কীভাবে দেয় তা ভাবার সম​য় আসছে।

    1. যদি এখনি সম্মিলিতভাবে ওদের
      যদি এখনি সম্মিলিতভাবে ওদের ঝাড়ে-বংশে নির্মূল করার উদ্যোগ না নেয়া হয়,তবে একদিন পুরো সোনার বাংলাই এই নোংরা জিনিসে সয়লাব হয়ে যাবে। প্রতিবাদি হতে হবে আজই, এক্ষুনি :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: …

      রাইন আপুকে :তালিয়া: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :ফুল: :ফুল:

  3. আঙ্কেল, আমি নাস্তিক নাকি

    আঙ্কেল, আমি নাস্তিক নাকি আস্তিক, সেইটা বিচার করার ভার আপনাকে দেই নাই। আর ৭১রে যখন কিছু পাকি শুয়োরের বাচ্চা আমার বাঙলা মায়ের ইজ্জত নিয়ে ছিনিমিনি খেলার চেষ্টা করছিলো, তখন আপনার মত দাড়িটুপি লাগানো মহামান্য আস্তিকেরা মাথা তুলে দাঁড়ানোর সাহস করে নাই। বরং ওই নিকৃষ্ট কীটগুলার পা চাটতেই বিজি ছিল। ওদের পিছ দিয়ে উপযুক্ত বাঁশটা দিয়েছিল কিন্তু আমার মত এইরকম বেয়াদব কিছু ছেলেই। কারনটা জানেন?? কারন বঙ্গবন্ধু আপনাদের মত চুচিল শ্রেণীর কোন মানুষ ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন সত্যিকারের বিদ্রোহী,একজন দূরদর্শী মহান নেতা। আপনাদের ভাষায় মুরব্বি না মানা বেয়াদব। ইমাম সাহেব পরে আমাকে থামালেন। চলে আসলাম সেখান থেকে।

    রাআদ ভাই– :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :salute:

    1. মেজাজটা চরম খারাপ হয়ে গিয়েছিল
      মেজাজটা চরম খারাপ হয়ে গিয়েছিল তারিক ভাই, গত ৫ বছর এইসব চুচিল সামনে আসবার সাহস পায় নায়। সামনে নির্বাচন, তাই গত তিন-চার মাস ধরে পুরো এলাকা জুড়ে এক রামরাজত্ব কায়েম করতে চাইছে এই শুয়োরগুলো… :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি:

      আপনাকেও :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ফুল: :ফুল:

  4. আপনার তাৎক্ষনিক রুদ্র সত্য
    আপনার তাৎক্ষনিক রুদ্র সত্য ভাষণের জন্য আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ !!!
    আমরা চুপ করে মুখ বুজে থাকি বলেই ওদের এতো বাড় বেড়েছে । ওদেরকে মুখের উপর চরম জবাব দিয়ে দিতে হবে ।
    — নর পিশাচ খন্দকার মোস্তাক ‘ ইনডেমনিটি অর্ডিন্যান্স ‘ জারি করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার চিরদিনের জন্য বন্ধ করে দিতে চেয়েছিল, পারেনি । সত্যের জয় হবেই । ৭৫ পরবর্তী অল্প সময়ের মধ্যে কারা বাঙালি জাতীয়তাবাদকে বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদে রুপান্তর করেছিলো, কারা ১৯২২ সালে রচিত নজরুলের ভাঙ্গার গানে ব্যবহৃত জয় বাংলা শ্লোগানকে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ বানিয়েছিল,

    কারা বলেছিল জয় বাংলা শ্লোগান হিন্দুর, কারা মুক্তি যুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধর্ষণ করে মৌলবাদী অপ দর্শনে দেশকে পরিচালিত করেছিলো, কারা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিদেশি দূতাবাসে, মিশনে চাকুরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিলো, কারা ইতিহাস বিকৃত করে কয়েকটি প্রজন্মেকে বিভ্রান্ত করেছিলো তাদের আমরা চিনি ।

    এ দেশ, এ জাতির দুর্ভাগ্য একাত্তরের পরাজিত সংখ্যালঘু শকুনরা স্বাধীনতার ৪২ বছর পরেও প্রবল প্রতাপে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ক্ষমতার সহায়তায় । তারাই আজ কেক কেটে তথাকথিত দেশনেতৃর ৬৯ তম জন্ম উৎসব পালন করছে জাতীয় শোক দিবসে । বিভ্রান্ত, আত্মঘাতী বাঙালি তবু ঘুমিয়ে থাকবে ! জেগে ওঠার দারুণ সময় আজ । ঘাতকের প্রতি ক্ষমাহীন হবার অগ্নি সময় আজ …

    1. ৭৫ পরবর্তী অল্প সময়ের মধ্যে

      ৭৫ পরবর্তী অল্প সময়ের মধ্যে কারা বাঙালি জাতীয়তাবাদকে বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদে রুপান্তর করেছিলো, কারা ১৯২২ সালে রচিত নজরুলের ভাঙ্গার গানে ব্যবহৃত জয় বাংলা শ্লোগানকে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ বানিয়েছিল,
      কারা বলেছিল জয় বাংলা শ্লোগান হিন্দুর, কারা মুক্তি যুদ্ধের অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে ধর্ষণ করে মৌলবাদী অপ দর্শনে দেশকে পরিচালিত করেছিলো, কারা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিদেশি দূতাবাসে, মিশনে চাকুরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিলো, কারা ইতিহাস বিকৃত করে কয়েকটি প্রজন্মেকে বিভ্রান্ত করেছিলো তাদের আমরা চিনি

      এই বিষয়গুলো ধারাবাহিকভাবে যদি গত ৫ বছর ধরে এই সরকার প্রচার করতে পারত এবং জনগনের এই বিষয়ে সকল ভ্রান্ত ধারনা মুছে দিতে পারত, তবে হয়তোবা আজ জাতির পিতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা অপরাধ বলে বিবেচিত হত না… :মনখারাপ:

      আপনাকে অসংখ্য :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ:

  5. এরূপ বাস্তব অবস্থার মোকাবেলা
    এরূপ বাস্তব অবস্থার মোকাবেলা আমাকে প্রায়শঃই করতে হয়। আপনার সাহসী ভুমিকার জন্য ধন্যবাদ…..

    1. যখনি এ ধরনের পরিস্থিতির শিকার
      যখনি এ ধরনের পরিস্থিতির শিকার হবেন, তখনি উপযুক্ত মুগুর দেবেন। মানুষের সাথে ভদ্র আচরণ করা যায়, ফাকিস্থানপ্রেমী জানোয়ারের সাথে কখনই না। আপনাকে ধন্যবাদ… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :ফুল:

  6. সহমত।আপনাকে ধন্যবাদ
    সহমত।আপনাকে ধন্যবাদ তাত্‍ক্ষণিক উচিত জবাব দেবার জন্য।ভেঙে দেবো,গুড়িয়ে দেবো,রাজাকারদের দেশ থেকে উড়িয়ে দেব।

    1. ভেঙে দেবো,গুড়িয়ে

      ভেঙে দেবো,গুড়িয়ে দেবো,রাজাকারদের দেশ থেকে উড়িয়ে দেব।

      :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :ফুল:

    1. ওটা আমার কর্তব্য ছিল। আমরা
      ওটা আমার কর্তব্য ছিল। আমরা সবাই যদি এভাবে ওদের গদামের উপর রাখি, তবে ওরা এই কথাগুলো বলার মত দুঃসাহস পাবে না… :টাইমশ্যাষ: :জলদিকর: :অপেক্ষায়আছি:

  7. আপনার সাহসের জন্য
    আপনার সাহসের জন্য :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:
    কিন্তু ভয় হল এই পাকি বীর্যের বাম্পার ফলন যদি আবার ক্ষমতায় আসে, তবে শেখ মুজিব তো থাকবেই না বাংলাদেশও পাকিস্তান আফগানিস্তান হয়ে যাবে। :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি:

    1. একটু সংশোধনী হবে…
      একটু সংশোধনী হবে… বাংলাদেশের নতুন নাম হবে বাংলাস্থান… :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: বহুত দেরি হয়ে গেছে, আর সময় নাই… ঘুরে দাড়াতে হবে এখনি। নইলে মুক্তিযুদ্ধ বলে যে কিছু একটা হয়েছিল, সেটাই মানুষকে ভুলিয়ে দেয়া হবে… স্বপ্নচারীকে ধন্যবাদ… :ধইন্যাপাতা: :ফুল:

  8. বাংলামায়ের পতাকা আর যেন
    বাংলামায়ের পতাকা আর যেন পদদলিত না হয়,
    ফাকিস্তানী বীর্য যেন আর ক্ষমতায় না আসতে পারে,
    এই কমনাই করি।
    জয় বাংলা।

    1. তার জন্য আমাদের পালন করতে
      তার জন্য আমাদের পালন করতে ক্লান্তিহীন সংশপ্তকের ভূমিকা … রাতের আঁধারে পেছন থেকে ওরা আমাদের একের পর এক শেষ করে ফেলতে পারে, কিন্তু আমাদের পিছু হঠা চলবে না। সব বিভেদ ভুলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াতে হবে এই নিকৃষ্ট কীটগুলোকে দমন করতে… এবং সেটা এখনই… :জলদিকর: :জলদিকর: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:

      জয় বাঙলা :bow: :bow: :bow: … জয় বঙ্গবন্ধু… :salute: :salute: :salute:

  9. আঙ্কেল, আমি নাস্তিক নাকি

    আঙ্কেল, আমি নাস্তিক নাকি আস্তিক, সেইটা বিচার করার ভার আপনাকে দেই নাই। আর ৭১রে যখন কিছু পাকি শুয়োরের বাচ্চা আমার বাঙলা মায়ের ইজ্জত নিয়ে ছিনিমিনি খেলার চেষ্টা করছিলো, তখন আপনার মত দাড়িটুপি লাগানো মহামান্য আস্তিকেরা মাথা তুলে দাঁড়ানোর সাহস করে নাই। বরং ওই নিকৃষ্ট কীটগুলার পা চাটতেই বিজি ছিল। ওদের পিছ দিয়ে উপযুক্ত বাঁশটা দিয়েছিল কিন্তু আমার মত এইরকম বেয়াদব কিছু ছেলেই। কারনটা জানেন?? কারন বঙ্গবন্ধু আপনাদের মত চুচিল শ্রেণীর কোন মানুষ ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন সত্যিকারের বিদ্রোহী,একজন দূরদর্শী মহান নেতা। আপনাদের ভাষায় মুরব্বি না মানা বেয়াদব। ইমাম সাহেব পরে আমাকে থামালেন। চলে আসলাম সেখান থেকে। – See more at: http://istishon.blog/node/4138#sthash.6EcyMQmg.dpuf

    :bow: :bow:

    1. আপনাদের দেখেই ভরসা পাই ভাই…
      আপনাদের দেখেই ভরসা পাই ভাই… :থাম্বসআপ: এই জারজদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবসময় পাশেই থাকবেন… :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

      জয় বাংলা
      জয় বঙ্গবন্ধু… :bow: :bow: :bow:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *