অফুরন্ত প্রতীক্ষা

সেথায় আমি দাঁড়িয়ে আছি
তোমারই প্রতীক্ষায়,
যাবে তুমি এই পথ ধরে
দেখবো আমি তোমায়।

সেই তুমি আজ কেন আসছও না?
আমি যে দাঁড়িয়ে আছি ঢায়।
চলছে ঘড়ির, কাটছে সময়
আমি যে তোমারই অপেক্ষায়।



সেথায় আমি দাঁড়িয়ে আছি
তোমারই প্রতীক্ষায়,
যাবে তুমি এই পথ ধরে
দেখবো আমি তোমায়।

সেই তুমি আজ কেন আসছও না?
আমি যে দাঁড়িয়ে আছি ঢায়।
চলছে ঘড়ির, কাটছে সময়
আমি যে তোমারই অপেক্ষায়।

সেই তোমার নরম ঠোটের স্পর্শ
আনল দেহে বজ্র সম ঝাঁকুনি
আজ যে এই চোখ শুধু চায়
তোমার কাজল কালো চোখের চাহনি।

এই অভিমান কিসের এত
আসো তুমি ফিরে;
আর একলা রেখে আসবো না তোমায়
রাস্তার ঐ পারে।

দিন শেষে রাত হয়ে যায়
তুমি কেন আসো না
আমার প্রতীক্ষার প্রহর যে
আর ফুরায় না।

{{বিঃদ্রঃ আমি কবিতা লেখায় ও বুঝায় খুব কাচা। মনের মধ্যে দৌড়াচ্ছিল তাই লিখে ফেললাম}}

১৩ thoughts on “অফুরন্ত প্রতীক্ষা

    1. মজা লন
      আমার কবিতা ভাল

      মজা লন
      আমার কবিতা ভাল হয়???
      যাই হোক আপনার টাইম তো শেষ ঈদ পর্যন্ত থাকবেন বলেছিলেন এখন ও

      1. আমি আর করতাছি কমেন্ট?বাঁচাল
        আমি আর করতাছি কমেন্ট?বাঁচাল যাত্রী থেকে ইস্টিশন মাস্টার সাহেব আর একদিনেই খেদায় দিবে

    1. আই জানি কবিতাটা ভাল হয়নি তবুও
      আই জানি কবিতাটা ভাল হয়নি তবুও দিলাম। মনের মধ্যে লাইন গুলো ঘুরছিল তাই। আপনি তো ফেসবুকে দেখেছেন ই কাহিনী টা কি। :লইজ্জালাগে: :লইজ্জালাগে:

  1. সত্যি কথা বলি? কবিতা ভালো হয়
    সত্যি কথা বলি? কবিতা ভালো হয় নাই জয়। গদ্য নিয়েই থাকেন আপাতত। লেখার হাত আরও পাকা হলে কবিতায় হাত দিয়েন। কবিতা খুব কঠিন জিনিস।

    1. হুম। ভাই। সেই ঠোটের অংশের কথা
      হুম। ভাই। সেই ঠোটের অংশের কথা বলছেন তো?
      সবাই লিখা আমিও চেষ্টা করলাম, কিন্তু হল না!!

      যাই হোক পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *