বঙ্গবন্ধুকে রেজার লাল সালাম।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ।

বঙ্গবন্ধু হল ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী ।বাংলাদেশ রাষ্ট্র তার হাত ধরেই জন্ম লাভ করে।বাংলাদেশের অন্যতম ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রানভোমরাও তিনি।যুদ্ধপরবর্তী সময় তার হাত ধরেই বাঙ্গালীরা এগোতে থাকে স্বপ্নের বাংলাদেশের পথে।

তখন ও ভোর হয়নি । আকাশে হালকা একটা আলো । ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর রোডের ৬৭৭ নম্বর বাড়িতে সবাই গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন । তখন বাড়িতে গার্ড পরিবর্তনের সময় । বাড়িতে ছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান , তাঁর স্ত্রী বেগম মুজিব , পুত্র শেখ কামাল , শেখ জামাল , শেখ রাসেল , পুত্রবধুরা এবং ভাই শেখ নাসের । ডিউটিতে আছেন বঙ্গবন্ধুর ব্যাক্তিগত সহকারী এ এফ এম মহিতুল ইসলাম , ১ টার দিকে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন ।



বঙ্গবন্ধু হল ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী ।বাংলাদেশ রাষ্ট্র তার হাত ধরেই জন্ম লাভ করে।বাংলাদেশের অন্যতম ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রানভোমরাও তিনি।যুদ্ধপরবর্তী সময় তার হাত ধরেই বাঙ্গালীরা এগোতে থাকে স্বপ্নের বাংলাদেশের পথে।

তখন ও ভোর হয়নি । আকাশে হালকা একটা আলো । ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর রোডের ৬৭৭ নম্বর বাড়িতে সবাই গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন । তখন বাড়িতে গার্ড পরিবর্তনের সময় । বাড়িতে ছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান , তাঁর স্ত্রী বেগম মুজিব , পুত্র শেখ কামাল , শেখ জামাল , শেখ রাসেল , পুত্রবধুরা এবং ভাই শেখ নাসের । ডিউটিতে আছেন বঙ্গবন্ধুর ব্যাক্তিগত সহকারী এ এফ এম মহিতুল ইসলাম , ১ টার দিকে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন । হঠাৎ করে একটা ফোন আসল । ঘুমের মধ্যে ফোন ধরলেন তিনি। ফোনের অপর পাশে ছিলেন স্বয়ং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান । তখন ঘড়িতে পাঁচটা বাজতে যাচ্ছে । বঙ্গবন্ধু মহিতুল ইসলাম কে বললেনপুলিশ কন্ট্রোল রুম এর সাথে যোগাযোগ করতে । এইমাত্র তিনি খবর পেয়েছেন তাঁর ভগ্নিপতি আব্দুর রবের বাড়িতে আক্রমন করা হয়েছে । মহিতুল পুলিশ কন্ট্রোল রুমে ডায়াল করেন কিন্তু কিছুতেই সংযোগ পান না । তারপর তিনি গনভবন এক্সচেঞ্জ এর সাথে সংযোগ স্থাপনের চেষ্টা করেন । অপর পাশে কেউ একজন ফোন ধরে , কিন্তু কোন কথাবলে না । বঙ্গবন্ধু অস্থির হয়ে মহিতুল ইসলাম কে জিজ্ঞেস করেন যে কেন তিনি পুলিশ এর সাথে যোগাযোগ করেন নি , মহিতুল ইসলাম তাঁকে জানান দুঃসংবাদ টি -তিনি কোথাও যোগাযোগ করতে পারছেন না । বিরক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু রিসিভার টি মহিতুল ইসলাম এর কাছ থেকে নিয়ে নেন ।”প্রেসিডেন্ট শেখ মুজিবুর রহমান বলছি ” – তিনি উচ্চারন করেন , আর সাথে সাথে মহিতুল ইসলাম এর অফিস এর কাচ ভেঙ্গে যায় গুলিতে । বঙ্গবন্ধু তখন ও বুঝতে পারেন নি যে তাঁকে হত্যা করার মিশন শুরু হয়ে গেছে । তিনি এও বুঝতে পারেন নি যে আকাশের হালকা আলো যেই ভোর এ রূপ নিচ্ছে সেই ভোর তিনি দেখতে পারবেন না । – সেই ভোর , যে ভোর ছিল সবচেয়ে অন্ধকার রাতের চেয়েও অন্ধকার । হাবিলদার মোহাম্মাদ কুদ্দুস সিকদার তখন সাত জন গার্ড কে সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর বাসস্থানের পতাকা স্ট্যান্ডে জাতীয় পতাকা লাগাচ্ছিলেন । তখনই তিনি গুলির শব্দ শুনতে পান । গার্ড রা দ্রুত বাউন্ডারি ওয়াল এর পিছনে অবস্থান নিয়ে নেন।তাঁদের সামনে দিয়েই কাল এবং খাকি ইউনিফর্ম এর আর্মির লোকেরা ঢুকে পড়ে বাড়িতে। “হ্যান্ডস আপ ” -গার্ডদের উদ্দেশ্যে চিৎকার করে তারা। সেই সাথে হয় দুঃস্বপ্নের সূচনা। বঙ্গবন্ধুর কাজের ছেলে আবদুল বঙ্গবন্ধুর পাঞ্জাবি আর চশমা এনে বঙ্গবন্ধুর হাতে দেয় । সেগুলো পরে নিয়ে বঙ্গবন্ধু সেন্ট্রিদের উদ্দেশ্যে চিৎকার করে ওঠেন -“চারপাশে ফায়ারিং হচ্ছে। তোমরা কি করছ ?” সাথে সাথে তিনি উঠে ওপরে যান তাঁর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কাছে । জাতির পিতা খনও জানতেন না এটাই তাঁর পরিবারের সাথে তাঁর শেষ দেখা। আরেকজন হাউজহেল্পার রমা বঙ্গবন্ধুর বেডরুমের বাইরে বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিল । তখন ভোর পাঁচটা। হঠাৎ করে বেগম মুজিব ঘর থেকে বেরিয়ে এসে বললেন -” আব্দুর রব শেরনিয়াবাতের বাড়ি আক্রমণের শিকার। ” রমা ঘুম থেকে লাফিয়ে উঠে গেল ।
এভাবেই শুরু হয় পচাত্তরের গনহত্যার।আমাদের প্রিয় মুজিব পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলার মিশন নিয়ে এসে বাড়িতে থাকা সকলকে মেরে ফেলে তারা।তবে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে তারা মারতে পারেন নি।
আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের মেয়ে শেখ হাসিনার কাছে আমাদের অনেক কিছু চাওয়া।আমাদের বঙ্গবন্ধুকে বের করে নিয়ে আসতে হবে একটি দলের রাজনৈতিক পরিচয় থেকে,তাকে বুকে ধারন করে বলতে হবে জয় বঙ্গবন্ধু।জয় বাংলার পরে জয় বঙ্গবন্ধু বলতে দ্বিধা করা যাবেনা।একদিন আমাদের জয় সুনিশ্চিত।

উত্‍সর্গ-নাভিদ কায়সার রায়ান

২৪ thoughts on “বঙ্গবন্ধুকে রেজার লাল সালাম।জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু ।

  1. শোক হোক শক্তি। পিতা হারানোর
    শোক হোক শক্তি। পিতা হারানোর শোকে আসুন দিগুন দ্রোহে জ্বলি।
    এদেশ তোমার আমার, সব রাজাকার হোক আমার দ্রোহের বলি…

  2. আচ্ছা, প্রতি পোস্টের শিরোনামে
    আচ্ছা, প্রতি পোস্টের শিরোনামে “রেজা ভাইয়ের” নাম লেখার দরকার কি? দেখতে বিশ্রী লাগে। এরপর আর দিয়েন না।

  3. আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের মেয়ে

    আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের মেয়ে শেখ হাসিনার কাছে আমাদের অনেক কিছু চাওয়া।আমাদের বঙ্গবন্ধুকে বের করে নিয়ে আসতে হবে একটি দলের রাজনৈতিক পরিচয় থেকে,তাকে বুকে ধারন করে বলতে হবে জয় বঙ্গবন্ধু।জয় বাংলার পরে জয় বঙ্গবন্ধু বলতে দ্বিধা করা যাবেনা।একদিন আমাদের জয় সুনিশ্চিত।

    সহমত

    আর ভাই একটা কথা শুনেনে, আপনার পোস্ট দেখলেও মনে সর্ব প্রথম যে প্রশ্ন যাগে সেটা হল “এটাও কি কপি পেস্ট” । আপনি উৎসর্গে আমাদের কায়সার ভাই এর নাম দিয়েছেন। এর আগের পোস্টে তিনি আপনার কপি পেস্টের প্রতিবাদ করেছিলেন। তাই তাকে উদ্দেশ্য করে এটা দেয়া যে আপনিও লিখতে পারে! কিন্তু ভাই এটাও যে কপি পেস্ট নয় এর নিশ্চয়তা কি? হয়তো কোথা থেকে তুলে দিয়েছেন। তা তো আমরা জানি না!!!

    তাই এমন কিছু করার আগে ভেবে করবেন। এটা ইস্টিশন, আমরা এখানে পরিবারের মত থাকি।

    1. আমি ১০০% নিশ্চিত এটাও কপি
      আমি ১০০% নিশ্চিত এটাও কপি পেস্ট। শুধু আগে পরে কিছু কথা যোগ করা হয়েছে।
      কেউ কেউ এসব করেই মজা পায়!

      এটা ইস্টিশন, আমরা এখানে পরিবারের মত থাকি।

      কথাটা ভাল্লাগসে!

      :ভালাপাইছি:

  4. বঙ্গবন্ধু একবার আক্ষেপ করে
    বঙ্গবন্ধু একবার আক্ষেপ করে বলেছিলেন, Nobody understands what I do for my country.

    ভাই, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লিখেছেন দেখে খুব ভালো লাগলো। আমার মনে হয় বঙ্গবন্ধুর সেই আক্ষেপ এতে কিছুটা হলেও প্রশমিত হবে।

    কি অবস্থা! উত্‍সর্গ-নাভিদ কায়সার রায়ান

    :কেউরেকইসনা:

    1. আরে বস, এতো মাইন্ড খাইলে কি
      আরে বস, এতো মাইন্ড খাইলে কি চলে! লেখা লেখি করলে আমার মতো দুই একটা ফাজিল একটু ডিস্টার্ব করবেই। তাতে কি থেমে থাকলে চলবে? লেখা চালায় যান।

    2. বচ মাইন্ড খাইয়েন না!! যত দোষ
      বচ মাইন্ড খাইয়েন না!! যত দোষ নন্দ ঘোষ কোথা শুনেন নাই?

      যাই হোক আগামিতে ভাল পোস্ট লিখবেন আশা করি .।

  5. লেখা আপনার হোক আর যার হোক সেই
    লেখা আপনার হোক আর যার হোক সেই প্রশ্ন না তুলেই বলছি লেখাটি মন্ত্রমুগ্ধের মতো পড়লাম ! আর হ্যাঁ, যেহেতু আপনি প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন না সুতরাং লেখাটি হয় আপনি কারো সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বা কোন বই বা পত্রিকা থেকে সংগ্রহ করেছেন । অথবা আপনার অধ্যয়ন, গবেষণা’র ফসল এই লেখা । তাই সূত্র উল্লেখ করে দিতে পারলে ভালো হতো । আর সূত্র উল্লেখ করা দুর্বলতা নয় । এটা সবলতার পরিচায়ক ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *