ইসলামের অজানা অধ্যায়: ঘটনার ধারাবাহিকতার গুরুত্ব!

‘ইসলাম’ কে সঠিকভাবে বুঝতে হলে এর প্রবর্তক হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে জানতেই হবে; এর কোন বিকল্প নেই। তাঁকে জানার মাধ্যম হলো: ‘কুরআন, সিরাত ও হাদিস গ্রন্থ’। এই তিন গ্রন্থের মধ্যে ‘সিরাতই (মুহাম্মদের জীবনী)’ একমাত্র গ্রন্থ, যেখানে ঘটনার বর্ণনা ও পরিপ্রেক্ষিত সময়ের ধারাবাহিকতায় বর্ণিত (Chronologically discussed)। বলা হয়, এই তিন গ্রন্থের মধ্যে ‘কুরআনই’ সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য। কিন্তু কুরআনের আয়াতগুলো “নাজিলের সময়ের ধারাবাহিকতায়” লিখিত না হওয়া ও তাতে উল্লেখিত কোন নির্দিষ্ট বিশয়ের পরিপ্রেক্ষিত (শানে নজুল) বর্ণিত না থাকার কারণে, ‘সিরাত ও হাদিসের’ সাহায্য ব্যতিরেকে তার মর্মার্থ উদ্ধার সম্ভব নয়।

মহাকালের পরিক্রমায় কোন একটি নির্দিষ্ট স্থান ও সময়ের ইতিহাস হলো সেই নির্দিষ্ট স্থান ও কালের পারিপার্শ্বিক অসংখ্য ধারাবাহিক ঘটনা পরস্পরা ও কর্ম-কাণ্ডের সমষ্টি। এই ধারাবাহিক ঘটনা পরস্পরায় পূর্ববর্তী ঘটনা প্রবাহের পরিণাম পরবর্তী ঘটনা প্রবাহে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। ঘটনা পরস্পরার এই ধারাবাহিকতা-কে উপেক্ষা করে কোন ইতিহাসের স্বচ্ছ ধারণা পাওয়া সম্ভব নয়। সে কারণেই, নবী মুহাম্মদের ঘটনা বহুল জীবনের কর্ম-কাণ্ডের ধারাবাহিকতা-কে উপেক্ষা করে ইসলামের ইতিহাস সম্বন্ধে কোনরূপ স্বচ্ছ ধারণা পাওয়া অসম্ভব। এ বিশয়ে অতিরিক্ত সজাগ দৃষ্টি না রাখতে পারলে ইসলাম বিশ্বাসী ও অবিশ্বাসী অসংখ্য পণ্ডিত ও অপণ্ডিতদের লেখা, বক্তৃতা-বিবৃতি ও বিতর্কগুলোই (Debate) সুবিধা-জনক উদ্ধৃতিতে বিভ্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় শতভাগ।

‘ইসলামের অজানা অধ্যায়’ বইটি তে ‘মুহাম্মদের ব্যক্তি-মানস জীবনী’ ঘটনাপ্রবাহের বর্ণনা সময়ানুক্রমিক (Chronological); যা সূচীপত্রে উল্লেখিত (দ্বিতীয় – সপ্তম খণ্ড)। এই নিবন্ধটি-তে আমি এই বইটিতে প্রকাশিত সকল ধারাবাহিক ঘটনাগুলোর “শিরোনাম ও সময়কাল” একত্রে সন্নিবেশিত করেছি; যাতে উৎসাহী পাঠকরা তা কম্পুটার মাউসের এক-দুই ক্লিকেই অতি সহজেই খুঁজে পেতে পারেন।

প্রথম খণ্ড

কুরানে বিগ্যান!
আধুনিক মুহাম্মদ অনুসারীদের দাবীকৃত ‘কুরআনে বিজ্ঞান’ ও আল্লাহর নামে মুহাম্মদের ‘কসম ও শপথ’ এর কিছু নমুনা:

পর্ব ১: আকাশ তত্ত্ব
পর্ব ২: আকাশ ও পৃথিবীতত্ত্ব
পর্ব ৩: ভূ-তত্ব
পর্ব ৪: মানব-তত্ব
পর্ব ৫: দেহ-তত্ব
পর্ব ৬: ভ্রূণতত্ত্ব
পর্ব ৭: গোবর-তত্ত্ব
পর্ব ৮: কসম-তত্ত্ব
পর্ব ৯: পানি-চক্র তত্ত্ব

ইসলাম: উদ্ভট উটের পিঠে:
ইসলাম প্রচার শুরু করার পর অবিশ্বাসীদের প্রতি ‘আল্লাহর নামে’ মুহাম্মদের অভিশাপ বর্ষণ, বাক-বিতণ্ডা, যুক্তি-প্রতিযুক্তি, মুহাম্মদকে দেয়া তাঁদের ‘চ্যালেঞ্জ’, তাঁদেরকে দেয়া মুহাম্মদের চ্যালেঞ্জ; ইত্যাদি বিষয়ের আলোচনা:

পর্ব-১০: জ্ঞান তত্ত্ব
পর্ব-১১: অভিশাপ তত্ত্ব
পর্ব-১২: আবু-লাহাব তত্ত্ব
পর্ব-১৩: উদ্ভট তত্ত্ব
পর্ব-১৪: কুরান কার বাণী?
পর্ব-১৫: কুরানের ফজিলত!
পর্ব-১৬: কুরানের অ্যানাটমি
পর্ব-১৭: এ সেই কিতাব যাতে কোনোই সন্দেহ নেই! – এক
পর্ব-১৮: এ সেই কিতাব যাতে কোনোই সন্দেহ নেই! – দুই
পর্ব-১৯: এ সেই কিতাব যাতে কোনোই সন্দেহ নেই! – তিন
পর্ব-২০: অবিশ্বাসী পরহেযগার ও স্বেচ্ছাচারীর স্বেচ্ছাচার তত্ত্ব
পর্ব-২১: কানে-চোখে-মনে সিলমোহর তত্ত্ব
পর্ব-২২: নো সেন্স ও ননসেন্স (অর্থহীন আগড়ম বাগড়ম) তত্ত্ব
পর্ব-২৩: মুহাম্মদের মোজেজা তত্ত্ব – এক
পর্ব-২৪: মুহাম্মদের মোজেজা তত্ত্ব – দুই
পর্ব-২৫: মুহাম্মদের মোজেজা তত্ত্ব – তিন

মুহাম্মদের ব্যক্তি-মানস জীবনী (Psycho-biography)

দ্বিতীয় খণ্ড
আল্লাহর নামে মুহাম্মদের হুমকি,শাসানী, ভীতিপ্রদর্শন, অসম্মান ও দোষারোপ; মদিনায় হিজরতের পর অবিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে মুহাম্মদের আক্রমণাত্মক আগ্রাসী হামলা, নাখলা আক্রমণ, বদর যুদ্ধ, বদর যুদ্ধ পরবর্তী গুপ্ত-হত্যা, বনি কেউনুকা ও বানু নাদির গোত্র উচ্ছেদ ও তাঁদের সম্পদ লুণ্ঠন ও “তথাকথিত” ‘মদিনা সনদ’ বিষয়ের বিশদ আলোচনা:

হুমকি-শাসানী-ভীতি-অসম্মান ও দোষারোপ:
পর্ব-২৬: মক্কায় মুহাম্মদ
পর্ব-২৭: মদিনায় মুহাম্মদ

সন্ত্রাসী নব-যাত্রা:
(মদিনা হিজরতের [সেপ্টেম্বর ২৪, ৬২২] ছয় মাস পর থেকে শুরু)

পর্ব-২৮: নাখলা পূর্ববর্তী সাতটি ব্যর্থ হামলা
(মার্চ, ৬২৩ সাল – ডিসেম্বর, ৬২৩ সাল)

পর্ব-২৯: নাখলায় প্রথম সফল অভিযান
(জানুয়ারি, ৬২৪ সাল; বরাবর রজব, হিজরি ২ সাল)

বদর যুদ্ধ:
(মার্চ ১৫, ৬২৪ সাল; বরাবর ১৯শে রমজান, হিজরি ২ সাল)

পর্ব-৩০: বদর যুদ্ধ -১: কী তার কারণ? কে ছিল আক্রমণকারী?
পর্ব-৩১: বদর যুদ্ধ-২: লুণ্ঠন, সন্ত্রাস ও খুন বনাম সহিষ্ণুতা
পর্ব-৩২: বদর যুদ্ধ-৩: নৃশংস যাত্রার সূচনা
পর্ব-৩৩: বদর যুদ্ধ-৪: খুন ও নৃশংসতা অত:পর ঘোষণা: “আল্লাহই তাদেরকে হত্যা করেছেন”
পর্ব-৩৪: বদর যুদ্ধ-৫: মুহাম্মদের বিজয় ও কুরাইশদের পরাজয়ের কারণ
পর্ব-৩৫: বদর যুদ্ধ- ৬: বন্দি হত্যা ও নিষ্ঠুরতা
পর্ব-৩৬: বদর যুদ্ধ-৭: বন্দীদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত – কি ছিল ‘আল্লাহর’ পছন্দ?
পর্ব-৩৭: বদর যুদ্ধ- ৮: লুঠ ও মুক্তিপণের আয়ে জীবিকা-বৃত্তি
পর্ব-৩৮: বদর যুদ্ধ-৯: নিকট আত্মীয়রাও রক্ষা পায় নাই
পর্ব-৩৯: বদর যুদ্ধ-১০: আবু সুফিয়ান ও তাঁর স্ত্রী হিন্দের মহানুভবতা
পর্ব-৪০: বদর যুদ্ধ-১১: আবু আল আস আবার ও আক্রান্ত
পর্ব-৪১: বদর যুদ্ধ-১২: “তারা বলেঃ এ ভূখন্ডে আমরা ছিলাম অসহায়!”
পর্ব-৪২: বদর যুদ্ধ- ১৩: “শয়তানের বানী”- প্রাপক ও প্রচারক মুহাম্মদ!
পর্ব-৪৩: বদর যুদ্ধ-১৪: ইসলামী ‘প্রপাগান্ডার’ স্বরুপ

পর্ব-৪৪: ‘‘সিরাত রাসুল আল্লাহ’ ও ইবনে ইশাক
পর্ব-৪৫: ‘সিরাত’ এর অ্যানাটমি – মক্কা বনাম মদিনা

গুপ্ত-হত্যার নির্দেশ:
(বদর যুদ্ধের পর)

পর্ব-৪৬: আবু আফাক কে খুন
পর্ব-৪৭: আসমা-বিনতে মারওয়ান কে খুন
পর্ব-৪৮: ক্বাব বিন আল-আশরাফ কে নৃশংসভাবে খুন
পর্ব-৪৯: “হত্যা কর ইহুদিদের”- যাকে পারো তাকেই!
পর্ব-৫০: আবু রাফিকে খুন – প্রতারণার আশ্রয়ে!

মদিনার ইহুদি গোত্র উচ্ছেদ:
পর্ব ৫১: বনি কেইনুকা গোত্রকে উচ্ছেদ ও তাঁদের সম্পত্তি লুট!
(মার্চ ২৭, ৬২৪ সাল; বদর যুদ্ধের প্রায় দুই সপ্তাহ পর)

পর্ব-৫২: বনি নাদির গোত্রকে উচ্ছেদ ও তাদের সম্পত্তি লুট!
(অগাস্ট-সেপ্টেম্বর, ৬২৫ সাল; ওহুদ যুদ্ধের চার-পাঁচ মাস পর)

পর্ব-৫৩: মদিনা সনদ তত্ত্ব – তথাকথিত!

তৃতীয় খণ্ড
ওহুদ যুদ্ধ, ওহুদ যুদ্ধ পরবর্তী পরিস্থিতি, খন্দক যুদ্ধ, বানু কুরাইজা গণহত্যা, বানু লিহায়েন গোত্র হামলা, বানু আল মুসতালিক হামলা, নবী পত্নী আয়েশার বিরুদ্ধে অপবাদ, মুহাম্মদের যৌন জীবন, হুদাইবিয়া সন্ধি পূর্ববর্তী সাত মাসের ঘটনা প্রবাহ ও উম্মে কিরফার পাশবিক হত্যা-কাণ্ডের সবিস্তার আলোচনা:

ওহুদ যুদ্ধ:
(মার্চ ২৩, ৬২৫ সাল; বরাবর ৭ ই শওয়াল, হিজরি ৩ সাল)

পর্ব-৫৪: ওহুদ যুদ্ধ-১: কী ছিল তার কারণ?
পর্ব-৫৫: ওহুদ যুদ্ধ-২: নবীর যুদ্ধযাত্রা – পথিমধ্যেই এক অন্ধকে খুন!
পর্ব-৫৬: ওহুদ যুদ্ধ-৩: ইহুদিদের ভূমিকা কী ছিল?
পর্ব-৫৭: ওহুদ যুদ্ধ-৪: শুরু হলো যুদ্ধ!
পর্ব-৫৮: ওহুদ যুদ্ধ-৫: পরাজয়ের কারণ? গণিমতের লোভ!
পর্ব-৫৯: ওহুদ যুদ্ধ-৬: বিশ্বাসঘাতকতা!
পর্ব-৬০: ওহুদ যুদ্ধ-৭: আহত মুহাম্মদ!
পর্ব-৬১: ওহুদ যুদ্ধ-৮: আক্রান্ত মুহাম্মদ!
পর্ব-৬২: ওহুদ যুদ্ধ-৯: ‘নিহত মুহাম্মদ’ – গুজব!
পর্ব-৬৩: ওহুদ যুদ্ধ-১০: হামজার পরিণতি – নিকট আত্মীয়দের প্রথম!
পর্ব-৬৪: ওহুদ যুদ্ধ-১১: হিন্দার প্রতিশোধ স্পৃহা!
পর্ব-৬৫: ওহুদ যুদ্ধ-১২: আবু সুফিয়ানের উপাখ্যান
পর্ব-৬৬: ওহুদ যুদ্ধ-১৩: মুহাম্মদ ও সাফিয়ার হাহাকার!
পর্ব-৬৭: ওহুদ যুদ্ধ-১৪: হামজার শোকে ক্রন্দন!
পর্ব-৬৮: ওহুদ যুদ্ধ-১৫: হামরা আল-আসাদ অভিযান
পর্ব-৬৯: ওহুদ যুদ্ধ–১৬: নবী গৌরব ধুলিসাৎ!
পর্ব-৭০: ওহুদ যুদ্ধ–১৭: বিনষ্ট গৌরব পুনরুদ্ধারে কলা-কৌশল!
পর্ব-৭১: ওহুদ যুদ্ধ – ১৮: বন্দি হত্যা!

পর্ব-৭২: আল-রাজী দিবস (The day of Al-Raji)!
(জুন-জুলাই, ৬২৫ সাল; ওহুদ যুদ্ধের তিন-চার মাস পর)

পর্ব-৭৩: আবু সুফিয়ান কে হত্যার উদ্দেশ্যে গুপ্তঘাতক প্রেরণ!
(আল-রাজীর ঘটনার পরেই)

পর্ব-৭৪: বীর মাউনা (Bir Mauna) উপাখ্যান!
(জুলাই-আগস্ট ৬২৫ সাল; ওহুদ যুদ্ধের মাস চারেক পর)

পর্ব-৭৫: বনি নাদির গোত্র উচ্ছেদ: শেষ দৃশ্য!
(অগাস্ট-সেপ্টেম্বর, ৬২৫ সাল; বীর মাউনার ঘটনার পর)

পর্ব-৭৬: ধাতুল-রিকা (Dhatul-Riqa) হামলা
(নভেম্বর-ডিসেম্বর, ৬২৫ সাল)

খন্দক যুদ্ধ:
(ফেব্রুয়ারি-মার্চ, ৬২৭ সাল; ওহুদ যুদ্ধের দুই বছর পর)

পর্ব-৭৭: খন্দক যুদ্ধ -১: কী ছিল তার কারণ?
পর্ব-৭৮: খন্দক যুদ্ধ -২: খন্দক খনন
পর্ব-৭৯ : খন্দক যুদ্ধ -৩: সালমান ফারসীর উপাখ্যান!
পর্ব-৮০: খন্দক যুদ্ধ – ৪: বনি কুরাইজা গোত্রের ভূমিকা!
পর্ব-৮১: খন্দক যুদ্ধ – ৫: মুহাম্মদের উৎকোচ!
পর্ব-৮২: খন্দক যুদ্ধ – ৬: আলী ইবনে আবু তালিবের নৃশংসতা!
পর্ব-৮৩: খন্দক যুদ্ধ – ৭: সাদ বিন মুয়াদ গুরুতর আহত!
পর্ব-৮৪: খন্দক যুদ্ধ – ৮: বনি কুরাইজা গোত্রের সহিষ্ণুতা!
পর্ব-৮৫: খন্দক যুদ্ধ – ৯: মুহাম্মদ (সা:) এর প্রতারণার স্বরূপ!
পর্ব-৮৬: খন্দক যুদ্ধ – ১০: মিত্র বাহিনীর প্রত্যাবর্তন!

বনি কুরাইজা গোত্র অবরোধ ও গণহত্যা:
(মার্চ-এপ্রিল, ৬২৭ সাল; খন্দক যুদ্ধের শেষ হওয়ার পরেই)

পর্ব-৮৭: বনি কুরাইজা গণহত্যা-১: মুহাম্মদের অজুহাত “জিবরাইল”!
পর্ব-৮৮: বানু কুরাইজার গণহত্যা– ২: কী ছিল মুহাম্মদের অভিপ্রায়?
পর্ব-৮৯: বনি কুরাইজা গণহত্যা– ৩: “হত্যাকাণ্ড” প্রতিরোধের প্রচেষ্টা!
পর্ব-৯০: বনি কুরাইজা গণহত্যা–৪: রায় ঘোষণা-“ব্যাপক হত্যাকাণ্ড ও লুঠতরাজ”!
পর্ব-৯১: বনি কুরাইজা গণহত্যা-৫: “দলে দলে ধরে এনে গর্ত পাশে এক এক করে জবাই!”
পর্ব-৯২: বনি কুরাইজা গণহত্যা– ৬: “যৌনাঙ্গের লোম গজানো সকল পুরুষকে খুন!”
পর্ব-৯৩: বানু কুরাইজার গণহত্যা– ৭: “তাঁদের মা-বোন-স্ত্রী-কন্যাদের ভাগাভাগি ও বিক্রি!”
পর্ব-৯৪: বনি কুরাইজা গণহত্যা – ৮: কেন এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড?
পর্ব-৯৫: বনি কুরাইজা গণহত্যা– ৯: সা’দের মৃত্যুতে আল্লাহর আরশে কম্পন!

পর্ব-৯৬: বানু লিহায়েন অভিযান: আবারও শঠতার আশ্রয়!
(বনি কুরাইজা গণহত্যার মাস ছয়েক পর)

বানু আল-মুসতালিক হামলা:
(ডিসেম্বর, ৬২৭ – জানুয়ারি, ৬২৮ সাল; বরাবর শাবান, হিজরি ৬ সাল)

পর্ব-৯৭: বানু আল-মুসতালিক হামলা-১: মুহাজির ও আনসারদের মধ্যে কোন্দল
পর্ব-৯৮: বানু আল-মুসতালিক হামলা-২: “মুমিন বনাম মুনাফিক” –বিভাজনের শুরু!
পর্ব-৯৯: বানু আল-মুসতালিক হামলা- ৩: আবদুল্লাহ বিন উবাই পুত্রের আর্জি!
পর্ব-১০০: বানু আল-মুসতালিক হামলা-৪: মুহাম্মদের হামলার বৈশিষ্ট্য!
পর্ব-১০১: বানু আল-মুসতালিক হামলা-৫: বন্দি ভাগাভাগি ও বন্দিনীর সাথে যৌন-সঙ্গম!

আয়েশার প্রতি অপবাদ:
(বানু আল-মুসতালিক হামলা থেকে প্রত্যাবর্তনের পরেই)

পর্ব-১০২: আয়েশার প্রতি অপবাদ-১: এক অভিযুক্তের জবানবন্দি!
পর্ব-১০৩: আয়েশার প্রতি অপবাদ-২: মুহাম্মদ ও তাঁর অনুসারীদের প্রতিক্রিয়া!
পর্ব-১০৪: আয়েশার প্রতি অপবাদ-৩: মুহাম্মদের জবানবন্দি!
পর্ব-১০৫: আয়েশার প্রতি অপবাদ-৪: ব্যভিচার ও ধর্ষণের প্রমাণ “চার জন পুরুষ সাক্ষী!”
পর্ব-১০৬: আয়েশার প্রতি অপবাদ-৫: শরিয়া রাজ্যে ধর্ষণ ও তার অভিযোগ!
পর্ব-১০৭: আয়েশার প্রতি অপবাদ-৬: অপবাদকারীকে পুরস্কারে ভূষিত!

পর্ব-১০৮: হযরত মুহাম্মদের যৌন জীবন ও সন্তান জন্ম দানের ক্ষমতা!

পর্ব-১০৯: হুদাইবিয়া সন্ধি পূর্ববর্তী সাত মাস!
(জুলাই, ৬২৭ – ফেব্রুয়ারি, ৬২৮ সাল)

পর্ব-১১০: উম্মে কিরফা হত্যাকাণ্ড!
(জানুয়ারি, ৬২৮ সাল; বরাবর রমজান, হিজরি ৬ সাল)

চতুর্থ খণ্ড
‘হুদাইবিয়া সন্ধি’, খায়বার যুদ্ধ, ফাদাক আগ্রাসন, মুহাম্মদের মৃত্যুর পর তাঁর রেখে যাওয়া বিশাল সম্পত্তির উত্তরাধিকার নিয়ে নবী কন্যা ফাতিমা ও জামাতা আলী ইবনে আবু তালিব ও হাশেমী বংশের অন্যান্য লোকদের সাথে আবু বকর-উমর গংদের বিবাদ বিষয়ের বিশদ ও বিস্তারিত আলোচনা:

হুদাইবিয়া সন্ধি:
(মার্চ-এপ্রিল, ৬২৮ সাল; বরাবর জিলকদ, হিজরি ৬ সাল)

পর্ব-১১১: হুদাইবিয়া সন্ধি-১: প্রেক্ষাপট
পর্ব-১১২: হুদাইবিয়া সন্ধি- ২: তারা ছিলেন সশস্ত্র!
পর্ব-১১৩: হুদাইবিয়া সন্ধি-৩: The Devil is in the Detail!
পর্ব-১১৪: হুদাইবিয়া সন্ধি-৪: মক্কা প্রবেশের চেষ্টা!
পর্ব-১১৫: হুদাইবিয়া সন্ধি-৫: অশ্রাব্য-গালি ও অসহিষ্ণুতা বনাম সহিষ্ণুতা
পর্ব-১১৬: হুদাইবিয়া সন্ধি- ৬: উসমান ইবনে আফফান হত্যার গুজব!
পর্ব-১১৭: হুদাইবিয়া সন্ধি-৭: আল-রিযওয়ানের শপথ!
পর্ব-১১৮: হুদাইবিয়া সন্ধি-৮: চুক্তি প্রস্তুতি: কে এই সুহায়েল বিন আমর?
পর্ব-১১৯: হুদাইবিয়া সন্ধি-৯: চুক্তি আলোচনা!
পর্ব-১২০: হুদাইবিয়া সন্ধি-১০: আবু জানদাল বিন সুহায়েল উপাখ্যান!
পর্ব-১২১: হুদাইবিয়া সন্ধি-১১: উমর ইবনে খাত্তাবের অভিপ্রায়!
পর্ব-১২২: হুদাইবিয়া সন্ধি-১২: চুক্তি স্বাক্ষর -কী ছিল তার শর্তাবলী?
পর্ব-১২৩: হুদাইবিয়া সন্ধি- ১৩: সূরা আল ফাতহ!
পর্ব- ১২৪: হুদাইবিয়া সন্ধি-১৪: ‘আল ফাতহ’ বনাম আঠারটি হামলা!
পর্ব- ১২৫: হুদাইবিয়া সন্ধি-১৫: চুক্তি ভঙ্গ এক!
পর্ব- ১২৬: হুদাইবিয়া সন্ধি- ১৬: চুক্তি ভঙ্গ দুই!
পর্ব-১২৭: হুদাইবিয়া সন্ধি-১৭: চুক্তি ভঙ্গ তিন!
পর্ব-১২৮: হুদাইবিয়া সন্ধি-১৮: চুক্তি ভঙ্গ চার!
পর্ব-১২৯: হুদাইবিয়া সন্ধি- ১৯: চুক্তি ভঙ্গ পাঁচ!

খায়বার যুদ্ধ:
(জুন-জুলাই, ৬২৮ সাল; হুদাইবিয়া সন্ধি-চুক্তির দেড়-দুই মাস পর [মহরম, হিজরি ৭ সাল])

পর্ব-১৩০: খায়বার যুদ্ধ-১: কে ছিল হামলাকারী?
পর্ব-১৩১: খায়বার যুদ্ধ- ২: “হত্যা করো! হত্যা করো!”
পর্ব-১৩২: খায়বার যুদ্ধ- ৩: উমর ইবনে খাত্তাবের কাপুরুষতা!
পর্ব-১৩৩: খায়বার যুদ্ধ- ৪: আলী ইবনে আবু তালিবের বীরত্ব!
পর্ব-১৩৪: খায়বার যুদ্ধ- ৫: রক্তের হোলি খেলা – ‘নাইম’ দুর্গ দখল!
পর্ব-১৩৫: খায়বার যুদ্ধ – ৬: ‘জিহাদ’ এর ফজিলত!
পর্ব-১৩৬: খায়বার যুদ্ধ -৭: “আল্লাহু আকবর”- এক আতঙ্কের নাম!
পর্ব-১৩৭: খায়বার যুদ্ধ – ৮: আল-সাব বিন মুয়াধ দুর্গ লুণ্ঠন!
পর্ব-১৩৮: খায়বার যুদ্ধ -৯: আল-নাটার ইহুদিদের পরিণতি!
পর্ব-১৩৯: খায়বার যুদ্ধ -১০: যৌন-দাসী হস্তগত!
পর্ব-১৪০: খায়বার যুদ্ধ-১১: দাস মালিকানা বনাম দাস স্রষ্টা!
পর্ব-১৪১: খায়বার যুদ্ধ-১২: কিনানা বিন আল-রাবি কে নির্যাতন ও খুন!
পর্ব-১৪২: খায়বার যুদ্ধ-১৩: মুহাম্মদ (সাঃ) এর উদারতা ও সহানুভূতি!
পর্ব-১৪৩: খায়বার যুদ্ধ- ১৪: সাফিয়ার স্বপ্নদর্শন বিবাহ ও দাসত্বমোচন!
পর্ব-১৪৪: খায়বার যুদ্ধ-১৫: মুহাম্মদ কে হত্যা-চেষ্টার আশঙ্কা ও তার কারণ!
পর্ব-১৪৫: খায়বার যুদ্ধ-১৬: মুহাম্মদ কে হত্যা চেষ্টা! কারণ?
পর্ব-১৪৬: খায়বার যুদ্ধ-১৭: লুটের মালের হিস্যা নির্ধারণ!
পর্ব-১৪৭: খায়বার যুদ্ধ- ১৮: লুটের মাল -কারা ছিলেন হিস্যা বঞ্চিত?
পর্ব-১৪৮: খায়বার যুদ্ধ-১৯: লুটের মাল ভাগাভাগি -নাটা ও শিইখ অঞ্চল!
পর্ব-১৪৯: খায়বার যুদ্ধ-২০: লুটের মাল ভাগাভাগি -আল কাতিবা অঞ্চল!
পর্ব-১৫০: খায়বার যুদ্ধ-২১: খায়বারের ইহুদীদের পরিণতি!
পর্ব-১৫১: খায়বার যুদ্ধ-২২: লুটের মালের উত্তরাধিকার ও পরিণতি!
পর্ব-১৫২: খায়বার যুদ্ধ- ২৩: রক্ত মূল্য!

ফাদাক আগ্রাসনের হুমকি:
(খায়বার হামলা সমাপ্ত করার পরেই)

পর্ব-১৫৩: ফাদাক আগ্রাসন-১: প্রাণ ভিক্ষার আকুতি!
পর্ব-১৫৪: ফাদাক আগ্রাসন-২: গণিমতের উত্তরাধিকার – ফাতিমার মানসিক আর্তনাদ!
পর্ব-১৫৫: ফাদাক-৩: গণিমতের উত্তরাধিকার – যুক্তি ও প্রমাণ প্রত্যাখ্যান!
পর্ব-১৫৬: ফাদাক-৪: গণিমতের উত্তরাধিকার – সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রত্যাখ্যান!
পর্ব-১৫৭: ফাদাক-৫: নবী-পরিবারের দাবী ও ‘আমি শুনিয়াছি’ বাদ্য!
পর্ব-১৫৮: ফাদাক-৬: মুহাম্মদের বিশাল সম্পদ – কারা ছিলেন স্বত্বভোগী?

পর্ব-১৫৯: ওয়াদি আল-কুরা হামলা – কে ছিল আক্রমণকারী?
(খায়বার হামলা শেষে মদিনায় প্রত্যাবর্তন-কালে; পথিমধ্যে [সফর, হিজরি ৭ সাল])

পঞ্চম খণ্ড
তুরাবা ও নাজাদ আক্রমণ; অবিশ্বাসী বিভিন্ন শাসকদের কাছে মুহাম্মদ চিঠি প্রদান; নবী-পত্নী উম্মে হাবিবার উপাখ্যান; হুদাইবিয়া সন্ধি-চুক্তি পরবর্তী বছরে মুহাম্মদের ওমরা যাত্রা; আল-কাদিদে আল-মুলায়িহ গোত্রে ডাকাতি; আল-গাবা হামলা; আমর বিন আল-আ’স ও খালিদ বিন আল-ওয়ালিদের ইসলাম গ্রহণের কারণ; মুতা যুদ্ধ; নবী মুহাম্মদের সাফল্যের কারণ; ইত্যাদি বিষয়ের বিশদ আলোচনা:

পর্ব-১৬০: তুরাবা ও নাজাদ আক্রমণ – কে ছিল আগ্রাসী?
(ডিসেম্বর ৬২৮ – জানুয়ারি, ৬২৯ সাল)

মুহাম্মদের চিঠি:
(মার্চ, ৬২৮ – জুন, ৬৩২ সাল)

পর্ব-১৬১: মুহাম্মদের চিঠি -শাসকদের কাছে পত্রবাহক প্রেরণ!
পর্ব-১৬২: চিঠি-হুমকি -১: দামেস্ক ও পারস্যের শাসনকর্তার কাছে!
পর্ব-১৬৩: চিঠি হুমকি -২: খসরু পারভেজ-এর প্রতিক্রিয়া ও নির্দেশ!
পর্ব-১৬৪: চিঠি-হুমকি-৩: সম্রাট হিরাক্লিয়াস এর প্রতি – প্রেক্ষাপট!
পর্ব-১৬৫: চিঠি হুমকি-৪: হিরাক্লিয়াস এর স্বপ্ন-দর্শন!
পর্ব-১৬৬: চিঠি হুমকি- ৫: শঙ্কিত হিরাক্লিয়াস!
পর্ব-১৬৭: চিঠি হুমকি- ৬: সংকটে হিরাক্লিয়াস – ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া!
পর্ব-১৬৮: চিঠি হুমকি -৭: হিরাক্লিয়াসের শেষ প্রস্তাব!
পর্ব-১৬৯: চিঠি হুমকি -৮: হিরাক্লিয়াসের আকুতি ও বানু কুরাইজার আর্তনাদ!
পর্ব-১৭০: চিঠি হুমকি -৯: হুদাইবিয়ার আগে বনাম পরে – সময় অসঙ্গতি!
পর্ব-১৭১: চিঠি হুমকি -১০: হিরাক্লিয়াসের প্রতিক্রিয়া বিশ্লেষণ!
পর্ব-১৭২: মুহাম্মদের চিঠি -১১: আল-নাজ্জাসীর প্রতি!
পর্ব-১৭৩: মুহাম্মদের চিঠি-১২: উম্মে হাবিবার দুর্ব্যবহার ও নবীর আদর্শ!

পর্ব-১৭৪: নবী মুহাম্মদের ‘ওমরাহ’ ও কুরাইশদের সহিষ্ণুতা!
(মার্চ-এপ্রিল, ৬২৯ সাল; বরাবর জিলকদ, হিজরি ৭ সাল)

পর্ব-১৭৫: আল-কাদিদে আল-মুলায়িহ গোত্রে ডাকাতি!
(মে-জুন, ৬২৯ সাল; বরাবর সফর, হিজরি ৮ সাল)

পর্ব-১৭৬: আল-গাবা (খাদিরা) হামলা – কে ছিল আক্রমণকারী?
(নভেম্বর-ডিসেম্বর, ৬২৯ সাল; বরাবর শাবান, হিজরি ৮ সাল)

আমর বিন আল-আ’স ও খালিদ বিন আল-ওয়ালিদের ইসলাম গ্রহণ:
(মে-জুন, ৬২৯ সাল; মক্কা বিজয়ের মাস ছয়েক আগে)

পর্ব-১৭৭: আমর বিন আল-আ’স এর ইসলাম গ্রহণ – কারণ?
পর্ব-১৭৮: খালিদ বিন আল-ওয়ালিদের ইসলাম গ্রহণ – কারণ?

পর্ব-১৭৯: নবী মুহাম্মদের সাফল্যের চাবি: ঘৃণা-ত্রাস-প্রলোভন! (এক)
পর্ব-১৮০: নবী মুহাম্মদের সাফল্যের চাবি: ঘৃণা-ত্রাস-প্রলোভন! (দুই)
পর্ব-১৮১: মুহাম্মদ (সা:) এর সন্ত্রাস: নির্দেশ প্রদান!
পর্ব-১৮২: নবী মুহাম্মদের সন্ত্রাস: উৎসাহ-প্রলোভন ও হুমকি!
পর্ব-১৮৩: নবী মুহাম্মদের সন্ত্রাস: অনুসারীদের অনীহা!

মুতার যুদ্ধ:
(আগস্ট-সেপ্টেম্বর, ৬২৯ সাল; বরাবর জমাদিউল আউয়াল, হিজরি ৮ সাল)

পর্ব-১৮৪: মুতার যুদ্ধ -১: কে ছিল আক্রমণকারী?
পর্ব-১৮৫: মুতার যুদ্ধ-২: জাফর বিন আবু-তালিব খুন!
পর্ব-১৮৬: মুতার যুদ্ধ-৩: নবীর মোজেজা-পরাজয় ও পলায়ন!

ষষ্ঠ খণ্ড
মক্কা আক্রমণের অজুহাত, কুরাইশদের রক্ষার প্রচেষ্টা, মক্কা আক্রমণ ও বিজয় ও অতঃপর হত্যাকাণ্ড; কাবা ও তার আশেপাশের প্রতিমা ধ্বংস; অতঃপর বানু জাধিমা গোত্র আক্রমণ ও হত্যাকাণ্ড; হুনায়েন আগ্রাসন ও হত্যাকাণ্ড ও বিশাল ‘গনিমত’ অর্জন ও ভাগাভাগি; তায়েফ হামলা ও অবরোধ; ইত্যাদি বিশয়ের বিশদ ও বিস্তারিত আলোচনা:

মক্কা বিজয়:
(জানুয়ারি, ৬৩০ সাল; বরাবর রমজান, হিজরি ৮ সাল)

পর্ব-১৮৭: মক্কা বিজয়-১: আক্রমণের অজুহাত!
পর্ব-১৮৮: মক্কা বিজয়-২: আবু সুফিয়ানের সমঝোতার প্রচেষ্টা!
পর্ব-১৮৯: মক্কা বিজয়-৩: কুরাইশদের রক্ষার সর্বপ্রথম প্রচেষ্টা!
পর্ব-১৯০: মক্কা বিজয়-৪: আল আব্বাস ও আবু সুফিয়ানের বীরত্ব!
পর্ব-১৯১: মক্কা বিজয়-৫: উম্মে হানীর আর্তনাদ!
পর্ব-১৯২: মক্কা বিজয়-৬: ‘যেখানেই তাদের পাও’ – হত্যা করো!
পর্ব-১৯৩: মক্কা বিজয়-৭: ‘প্রতিমা’ ধ্বংসের সূচনা – কাবায় প্রথম!
পর্ব-১৯৪: মক্কা বিজয়-৮: ‘প্রতিমা ধ্বংস’- মক্কার ঘরে ঘরে!
পর্ব-১৯৫: মক্কা বিজয়-৯: নবীর ভাষণ ও দলে দলে ইসলাম গ্রহণ!
পর্ব-১৯৬: মক্কা বিজয়-১০: নবী মুহাম্মদের ক্ষমা ও তার স্বরূপ!
পর্ব-১৯৭: মক্কা বিজয়-১১: মক্কা অবমাননার সূচনা ও অতঃপর!

বানু জাধিমা হত্যাকাণ্ড:
(মক্কা বিজয়ের পরেই)

পর্ব-১৯৮: বানু জাধিমা হত্যাকাণ্ড -১: কে ছিল আক্রমণকারী?
পর্ব-১৯৯: বানু জাধিমা হত্যাকাণ্ড-২: খালিদ বিন ওয়ালিদের নৃশংসতা!
পর্ব-২০০: বানু জাধিমা হত্যাকাণ্ড-৩: কী ছিল তার কারণ?
পর্ব-২০১: বানু জাধিমা হত্যাকাণ্ড-৪: খুনির দায়মুক্তি ও পক্ষপাতিত্ব!

হুনাইনের যুদ্ধ:
(মক্কা বিজয়ের ১৫-দিন পর)

পর্ব-২০২: হুনাইনের যুদ্ধ -১: কে ছিল আক্রমণকারী?
পর্ব-২০৩: হুনাইনের যুদ্ধ-২: অনুসারীদের পলায়ন ও নবীর আর্তনাদ!
পর্ব-২০৪: হুনাইনের যুদ্ধ-৩: নবী মুহাম্মদ-কে হত্যা চেষ্টা!
পর্ব-২০৫: হুনায়েন যুদ্ধ-৪: ফেরেশতা-বাহিনী প্রেরণ ও তার কারণ!
পর্ব-২০৬: হুনায়েন যুদ্ধ-৫: হাওয়াজিনদের পরাজয় – কারণ?
পর্ব-২০৭: হুনায়েন যুদ্ধ-৬: নবীর সন্ত্রাস ও অবিশ্বাসীদের আতঙ্ক!
পর্ব-২০৮: হুনায়েন যুদ্ধ-৭: পিছু ধাওয়া ও রক্তের হোলি-খেলা!
পর্ব- ২০৯: হুনায়েন যুদ্ধ-৮: নবী মুহাম্মদের উদারতা- আবারও!
পর্ব-২১০: হুনায়েন যুদ্ধ-৯: ইমাম তিরমিজির ভাষ্য-অসংগতি সুস্পষ্ট!
পর্ব-২১১: হুনায়েন যুদ্ধ-১০: অতর্কিত আগ্রাসী আক্রমণ – যুদ্ধ নয়!

তায়েফ যুদ্ধ (অবরোধ):
(ফেব্রুয়ারি-মার্চ, ৬৩০ সাল; হুনায়েন আগ্রাসনের পরেই)

পর্ব-২১২: তায়েফ যুদ্ধ-১: কে ছিল আক্রমণকারী?
পর্ব-২১৩: তায়েফ যুদ্ধ-২: আঙ্গুর ক্ষেত ও সম্পদ ধ্বংসের আদেশ!
পর্ব-২১৪: তায়েফ যুদ্ধ-৩: আক্রমণের নেপথ্য কারণ- ‘গনিমত!’
পর্ব-২১৫: তায়েফ যুদ্ধ-৪: দাস মুক্তি ও প্রত্যাবর্তন – কারণ?
পর্ব-২১৬: হুনায়েনের গণিমত-১: বন্দীদের ফেরত দান – কারণ?
পর্ব-২১৭: হুনায়েনের গণিমত-২: বিশাল লুণ্ঠন ও পক্ষপাতদুষ্ট বণ্টন!
পর্ব-২১৮: হুনায়েনের গণিমত-৩: অনুসারীদের অসন্তোষ ও প্রতিবাদ!
পর্ব-২১৯: হুনায়েনের গণিমত-৪: আনসারদের বঞ্চনা ও নবীর ভাষণ!
পর্ব-২২০: হুনায়েনের গণিমত-৫: উৎকোচ প্রদান ও প্রত্যাবর্তন!

সপ্তম খণ্ড
হিজরি ৮ সালের রমজান মাসে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তাঁর অতর্কিত মক্কা আক্রমণ ও বিজয়; অতঃপর, বানু জাধিমা গোত্রের লোকদের ওপর আক্রমণ ও হত্যাকাণ্ড; অতঃপর হুনায়েন আগ্রাসন ও আল-তায়েফ অবরোধ শেষে তিনি মদিনায় প্রত্যাবর্তন করেন হিজরি ৮ সালের জিলকদ মাসের শেষে, কিংবা জিলহজ মাসের শুরুতে (মার্চ-এপ্রিল, ৬৩০ সাল)। এই ঘটনার পর থেকে হিজরি ৯ সালের জিলহজ মাসে সংঘটিত মক্কা বিজয় পরবর্তী প্রথম হজ্বের প্রাক্কালে (মার্চ-এপ্রিল, ৬৩১ সাল) ‘সুরা তাওবাহই’ বর্ণিত তাঁর সর্বশেষ চূড়ান্ত নির্দেশ পর্যন্ত সময়ে সংঘটিত নবী মুহাম্মদের মদিনা জীবনের বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহের ধারাবাহিক ও বিশদ আলোচনা:

পর্ব-২২১: কবি কা’ব বিন যুহাইরের হত্যা হুমকি ও অতঃপর!

পর্ব-২২২: উরওয়া বিন মাসুদ আল-থাকাফির হত্যাকাণ্ড!
(এপ্রিল-মে, ৬৩০ সাল)

পর্ব-২২৩: তামিম গোত্রের প্রতিনিধিদলের আগমন – কারণ?
(এপ্রিল-মে, ৬৩০ সাল; বরাবর মহরম, হিজরি ৯ সাল)

পর্ব-২২৪: বানু আমির-খাতাম ও কিলাব আগ্রাসন ও পিতৃহত্যা!
(মে-জুন, ৬৩০ সাল; বরাবর সফর, হিজরি ৯ সাল)

আল-ফুলস হামলা:
(জুন-জুলাই, ৬৩০ সাল; বরাবর রবিউল আওয়াল, হিজরি ৯ সাল)

পর্ব-২২৫: আল-ফুলস হামলা-১: হাতেম তাঈ গোত্রে আগ্রাসন!
পর্ব-২২৬: আল-ফুলস হামলা-২: হাতেম তাঈ গোত্র-পরিবারের পরিণতি!
পর্ব-২২৭: আল-ফুলস হামলা-৩: আ’দি বিন হাতেমের ইসলাম গ্রহণ!

তাবুক অভিযান:
(অক্টোবর-নভেম্বর, ৬৩০ – জানুয়ারি, ৬৩১ সাল; বরাবর রজব – রমজান, হিজরি ৯ সাল)

পর্ব-২২৮: তাবুক যুদ্ধ-১: নেপথ্য কারণ – ‘গুজবে অন্ধ-বিশ্বাস!’
পর্ব-২২৯: তাবুক যুদ্ধ-২: অনুসারীদের অনিচ্ছা ও নারী প্রলোভন!
পর্ব-২৩০: তাবুক যুদ্ধ-৩: ‘অশ্রুপাতকারী সাত’ ও অন্যান্য!
পর্ব-২৩১: তাবুক যুদ্ধ-৪: মুমিনদের গাফিলতি ও অনুপস্থিতি!
পর্ব-২৩২: তাবুক যুদ্ধ-৫: মুনাফিকদের সংখ্যা ও উপস্থিতি!
পর্ব-২৩৩: তাবুক যুদ্ধ-৬: নবীর অন্তরে আলী বিন আবু তালিব!
পর্ব-২৩৪: তাবুক যুদ্ধ-৭: আবু খেইথামার দোদুল্যমনতা!
পর্ব-২৩৫: তাবুক যুদ্ধ-৮: আবু যর আল-গিফারীর পরিণতি!
পর্ব-২৩৬: তাবুক যুদ্ধ-৯: আবু যর গিফারীর অশ্লীলতা ও মিথ্যাচার এবং!
পর্ব-২৩৭: তাবুক যুদ্ধ-১০: ‘যুদ্ধ নয়, আগ্রাসন’ – মুহাম্মদের ভাষণ!
পর্ব-২৩৮: তাবুক যুদ্ধ-১১: দলে দলে বশ্যতা স্বীকার – ‘বাঁচার আকুতি!’
পর্ব-২৩৯: তাবুক যুদ্ধ-১২: দুমাতুল জান্দাল হামলা – প্রথম ও দ্বিতীয়!
পর্ব-২৪০: তাবুক যুদ্ধ-১৩: ‘নবী মুহাম্মদ-কে হত্যা চেষ্টা’ – আবারও!
পর্ব-২৪১: তাবুক যুদ্ধ-১৪: মসজিদ ধ্বংসের আদেশ -অগ্নিদগ্ধ মুসল্লি!
পর্ব-২৪২: তাবুক যুদ্ধ-১৫: মসজিদ ধ্বংসের কারণ ও কৈফিয়ত!
পর্ব-২৪৩: তাবুক যুদ্ধ-১৬: মুমিনদের শাস্তি ও ভণ্ডদের মুক্তি -কারণ?
পর্ব-২৪৪: তাবুক যুদ্ধ-১৭: ‘মোজেজা প্রদর্শন’- এগারোটি!
পর্ব-২৪৫: তাবুক যুদ্ধ-১৮: সুরা তাওবার ‘দ্বিতীয় অংশ’- শেষ নির্দেশ!

পর্ব-২৪৬: বানু থাকিফ গোত্রের ইসলাম গ্রহণ ও তার কারণ!
(ডিসেম্বর, ৬৩০ সাল – জানুয়ারি, ৬৩১ সাল)

পর্ব-২৪৭: আবদুল্লাহ বিন উবাইয়ের মৃত্যু ও তার প্রতিক্রিয়া!
(ফেব্রুয়ারি-মার্চ, ৬৩১ সাল)

পর্ব-২৪৮: মক্কা বিজয় পর প্রথম হজ্জ ও সুরা তাওবাহর প্রথমাংশ!
(মার্চ-এপ্রিল, ৬৩১ সাল)

পর্ব-২৪৯: সুরা তাওবাহ-প্রথমাংশ-১: চূড়ান্ত নির্দেশ ‘তাদের হত্যা কর!’
পর্ব-২৫০: সুরা তাওবাহ-প্রথমাংশ-২: চূড়ান্ত শিক্ষা ‘তারা অপবিত্র!’
পর্ব-২৫১: আল-নাসিক ওয়া আল-মানসুখ ও সুরা তাওবাহ!
পর্ব-২৫২: চূড়ান্ত নির্দেশ পরবর্তী প্রতিক্রিয়া: দলে দলে ইসলাম গ্রহণ!

অষ্টম খণ্ড (অসমাপ্ত)
মক্কা বিজয় পরবর্তী প্রথম হজ্বের প্রাক্কালে ‘সুরা তাওবাহই’ বর্ণিত নবী মুহাম্মদের সর্বশেষ চূড়ান্ত নির্দেশ (মার্চ-এপ্রিল, ৬৩১ সাল) থেকে তাঁর মৃত্যুকাল পর্যন্ত সময়ে সংঘটিত নবী মুহাম্মদের মদিনা জীবনের বিভিন্ন ঘটনা প্রবাহের ধারাবাহিক ও বিশদ আলোচনা:

পর্ব-২৫৩: সুরা তাওবাহর ‘চূড়ান্ত নির্দেশ ও শিক্ষার’ প্রেক্ষাপট!
পর্ব-২৫৪: বানু হারিথ বিন কা’ব গোত্রের ইসলাম গ্রহণ – কারণ?
(আগস্ট-অক্টোবর, ৬৩১ সাল)
পর্ব-২৫৫: জুরাশে ইয়েমেনি উপজাতিদের উপর হামলা ও হত্যাকাণ্ড!
পর্ব-২৫৬: ইয়েমেনে আগ্রাসন ও হত্যাকাণ্ড – নেতৃত্বে আলী!
(ডিসেম্বর, ৬৩১ সাল – জানুয়ারি, ৬৩২ সাল)

পর্ব-২৫৭: ভণ্ড নবী মুসাইলিমা ও নবী মুহাম্মদ- মিল ও অমিল!
(ফেব্রুয়ারি-মার্চ, ৬৩২ সাল)
পর্ব-২৫৮: মুসাইলিমা হত্যা: রিদ্দা – আবু বকর ও খালিদের নৃশংসতা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *