মাহমুদপুর-উলিয়া সড়ক নিয়ে বাণিজ্য,জনজীবন বিপর্যস্ত!

গত বছরের বন্যায় জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর-উলিয়া সড়ক বেশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়,মাহপুদপুর বাজারের পশ্চিমে নোয়ারপাড়া ব্রিজ সংলগ্ন সড়কের বেশ খানিকটা অংশ ভেঙ্গে প্লাবিত হয়।

কিন্তু বিগত এক বছরেও রাস্তা মেরামতের কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।মাহমুদপুরের পশ্চিমে প্রচুর কৃষিজাত দ্রব্য উৎপাদিত হয় এবং পণ্য আনয়নের,পরিবহনের জন্য এটিই একমাত্র সড়ক।

তাই সুষ্ঠু যাতায়ত বা পণ্য পরিবহন সম্ভব হচ্ছে না।

এলাকাবাসীরা জানায়,রাস্তা মেরামত প্রসঙ্গে উক্ত এলাকার চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম মন্টু তালুকদারকে জানালে সে দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন বলে জানায়,কিন্তু আদৌ তিনি কোন পদক্ষেপ নেন নি।

গত বছরের বন্যায় জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর-উলিয়া সড়ক বেশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়,মাহপুদপুর বাজারের পশ্চিমে নোয়ারপাড়া ব্রিজ সংলগ্ন সড়কের বেশ খানিকটা অংশ ভেঙ্গে প্লাবিত হয়।

কিন্তু বিগত এক বছরেও রাস্তা মেরামতের কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।মাহমুদপুরের পশ্চিমে প্রচুর কৃষিজাত দ্রব্য উৎপাদিত হয় এবং পণ্য আনয়নের,পরিবহনের জন্য এটিই একমাত্র সড়ক।

তাই সুষ্ঠু যাতায়ত বা পণ্য পরিবহন সম্ভব হচ্ছে না।

এলাকাবাসীরা জানায়,রাস্তা মেরামত প্রসঙ্গে উক্ত এলাকার চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম মন্টু তালুকদারকে জানালে সে দ্রুত পদক্ষেপ নেবেন বলে জানায়,কিন্তু আদৌ তিনি কোন পদক্ষেপ নেন নি।

তারা আরও জানায়,এই ভাঙ্গা সড়ক নিয়ে বড় ধরনের অর্থ হাতানোর পাঁয়তারা করছেন এলাকার এই অসাধু এই চেয়ারম্যান ।সম্প্রতি ভাঙ্গা রাস্তায় বন্যার পানি জমলে তিনি টুলটুল নামের এক ঠিকাদারের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা নিয়ে সেখানে বাঁশের সাকো নির্মাণ ও পারাপারের জন্য নিয়মিত চাঁদা আদায় করার নির্দেশ দেন।

আমরা কয়েকজন সাংবাদিক উক্ত বিষয় নিয়ে তার মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তিনি এই ব্যাপারে কোন কথা বলতে রাজি হয় নি।

২ thoughts on “মাহমুদপুর-উলিয়া সড়ক নিয়ে বাণিজ্য,জনজীবন বিপর্যস্ত!

  1. শুধু এই রাস্তা না, বৃহত্তর
    শুধু এই রাস্তা না, বৃহত্তর ময়মনসিংহের প্রায় সব রাস্তায় কমবেশী খারাপ। দুই একটা রাস্তা ছাড়া। বুঝিনা ঐ এলাকার জনপ্রতিনিধিরা কি ঘাস কাটে? উত্তরবঙ্গের দারিদ্র থাকতে পারে, কিন্তু রাস্তাঘাট মাশাল্লাহ ফকফকা মসৃণ। 😀

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *