তিনুর জন্মদিন

#১ সাকু গলির মোড়ে দোকানে চা খাচ্ছে । আজকে তার মনটা ম্যাদা মেরে আছে । কারণ তার বাচ্চা পার্টির একজনের মন খারাপ ।
সে হল ৪ বছর বয়সী তিনু , থাকে গলির মাথায় ঝুপড়ি ঘরে । আসলে সাকুর বাচ্চা পার্টির প্রায় সবাই ঝুপড়িতেই থাকে ।
আজ বাদে কাল তিনুর জন্মদিন । জন্মদিনে এ পৃথিবীতে কি কি করা হয় তা সে জানে না । গত কয়েকদিন ধরে দোকানে একটা নতুন চিপস এসেছে , দাম ১৫ টাকা । সেটাই আজ সকালে তার বাবার কাছে বারবার চাচ্ছিল । কিন্তু তার বাবা সেটা কিনে না দিয়েই ইট ভাঙতে চলে গেছে , সাথে একটা থাপ্পড় ফ্রি দিয়ে গেছে ।


#১ সাকু গলির মোড়ে দোকানে চা খাচ্ছে । আজকে তার মনটা ম্যাদা মেরে আছে । কারণ তার বাচ্চা পার্টির একজনের মন খারাপ ।
সে হল ৪ বছর বয়সী তিনু , থাকে গলির মাথায় ঝুপড়ি ঘরে । আসলে সাকুর বাচ্চা পার্টির প্রায় সবাই ঝুপড়িতেই থাকে ।
আজ বাদে কাল তিনুর জন্মদিন । জন্মদিনে এ পৃথিবীতে কি কি করা হয় তা সে জানে না । গত কয়েকদিন ধরে দোকানে একটা নতুন চিপস এসেছে , দাম ১৫ টাকা । সেটাই আজ সকালে তার বাবার কাছে বারবার চাচ্ছিল । কিন্তু তার বাবা সেটা কিনে না দিয়েই ইট ভাঙতে চলে গেছে , সাথে একটা থাপ্পড় ফ্রি দিয়ে গেছে ।

#২ সাকু জানে এখন কি করতে হবে – হয় তিনুকে নিয়ে ঘুড়ি ওড়াতে হবে , নাহয় চিপস কিনে দিতে হবে । তার পকেটে ৫ টাকা ছিল , সকালে চা খেয়ে তাও শেষ । অতঃপর সে তার ঘুড়ি , লাটাই নিয়ে বেরিয়ে পড়ল . . . .

#৩ আজ ২৫ জুলাই , তিনুর জন্মদিন । সাকুর প্ল্যান ছিল কত কিছু করবে ! কিন্তু আজ সকালে তার বন্ধুর সাথে কম্পিউটারের দোকানে যাবার ডাক পড়েছে । কিন্তু সে তার বাচ্চা পার্টির সবাইকে জন্মদিনের কথা মনে করিয়ে দিয়ে এসেছে ।

#৫ সন্ধ্যা হয়ে গেছে , এখনো কেউ তিনুকে জন্মদিনের জন্য কেউ কিছুই বলেনি । কেনই বা বলবে ? থাক , এক জন্মদিন নাহয় এভাবেই পার করল । তারপর তিনু সন্ধ্যার বেগুনি আকাশ দেখতে বাইরে আসল ।

#৬ ” শুভঅঅ জন্মদিন ”
সবাই চিৎকার করে উঠল ! তাদের মধ্যে সাকু সবচেয়ে জোরে ! সবাই তিনুকে ধরে ঘুরতে লাগল । তিনু তো অবাক ! এ তো সবারই মনে আছে ! তবুও তিনু অভিমান করার ভান করল । তখন সাকু তার হাতে সেই চিপসটা এগিয়ে দিল । আজকে মটর ঠিক করে সে একশ বিশ টাকা পেয়েছে । তিনু এখন চিপসটা বুকে আগলে রেখেছে । এটা এখন তার কাছে সোনার চেয়েও দামী , সে এখন পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী গরীব !

#১ (স)

১৩ thoughts on “তিনুর জন্মদিন

  1. অসাধারন ।বিশেষ করে এই
    অসাধারন ।বিশেষ করে এই লাইনটি[সে এখন পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী গরীব !]বাধিয়ে রাখার মত ।ধন্যবাদ ।

    পরবর্তী পোস্টে (#) ট্যাগ বাদ দিয়ে লিখার অনুরোধ থাকল ।অন্যদের কথা জানিনা তবে ব্লগে #ট্যাগ দিয়ে লিখা পড়তে আমার কাছে যেন কেমন কেমন লাগে । প্রয়োজনে নাম্বার বা বর্ন ইউজ করতে পারেন ।

  2. ভালোই লিখেছেন। তবে বয়স
    ভালোই লিখেছেন। তবে বয়স অনুযায়ী চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে পারেননি। তিনুর অভিব্যক্তি দেখে মনে হচ্ছে বয়সে সে অনেক বড়।

    1. সাকু ভাই বলছেন , ” এর বাইরেও
      সাকু ভাই বলছেন , ” এর বাইরেও সুন্দর পৃথিবী আছে – কারো কাছে চাঁদ সুন্দর , কারো কাছে সূর্য ॥ আমার কাছে সুন্দর হচ্ছে – প্রিয় মুখের হাসি “

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *