এখন ও ঠিক হয় নাই

অধ্যায় -১

অধ্যায় -১
বাপ্পি হাত ঘড়ির দিকে তাকালো সেই কখন থেকে অপেহ্মা করছে কিন্তু ৪টা আর বাজতেছেই না যেনো । ৪টার সময় ওর ফোন করার কথা । কিন্তু সে জানে কখনই ফোন আসবে না । তারপর ও সে অপেহ্মা করতেছে শুধু মাত্র ৯৯ এর মধ্যে ১% সম্ভাবনা নিয়ে । ঠিক ৪ টা বাজার পর যদি ফোন না আসে তবে সে নিজে থেকেই ফোন দিবে । গতকাল রাতেই জুহির সাথে সাতে ফোনে কথা হয়েছে । জুহি রাতে কথা বলতে চায় নি তাই বলেছে আগামিকাল বিকেল ৪টায় তুমাকে ফোন দিবো । এটা নতুন নয় । গত ২ মাস ধরে এমন চলে আসছে । মেয়েটার নাম জুহি । একদিন শপিং কমপ্লেক্সে দেখা । এই থেকেই বাপ্পির মাথা নষ্ট ।প্রেম ট্রেম এ পড়েনি কিন্তু এ মেয়েকে খুজে বের করতেই হবে । হন্য হয়ে ৪-৫মাস খোঁজার পর যখন আর জুহির দেখা পেল না তখন সে আশাই ছেড়ে দিছিলো । কিন্তু হটাত একদিন আবার দেখা ! তাও মেয়েটির কলেজের সামনে । খোঁজ খবর নিয়ে দেখল মেয়েটা তার সাথেই পড়ে । সাইন্সে । বাড়ি ঘর কোথায় কিছুই জানে না । এর পর শুরু হল আসল কষ্ট , ফোন নাম্বার জোগাড় করা যে কত কষ্টের এটা বাপ্পি হাড়ে হাড়ে টের পেল । এই কলেজের কত জনের সাথে যে বন্ধুত্ব করল শুধু নাম্বারের আশায় । কিন্তু যেদিন সে ফোন নাম্বার টা পেল তার খুশির আর সীমা রইল না । গত দেড় বছর ধরে যার কথা সেগেন্ডে সেকেন্ডে চিন্তা করে আসছে, যার জন্য জন্য ক্লাসের পর ক্লাস মিস করেছে, অনেক ঝামেলার পর ও যে এই মেয়েটির সাথে কথা বলতে পারবে এটা মনে করে সব কষ্ট দূর হয়ে গেলো নিমিষে। বাপ্পি নাম্বার টা ফোনে তুলে কাঁপা হাতে ডায়াল করল -নাম্বার টা গ্রামীন তার টাও গ্রামীন । প্রথম রিং এর সময় ই কল টা রিসিভ হয়ে গেলো । এরকম সাধারনত হয় যখন কেউ ফোন টিপাটিপি করছে ।
-হ্যালো আস্লামালিকুম ,ওপাশ থেকে তার কাঙ্খিত কন্ঠটা বলল ।
বাপ্পি কানে ফোন টা সেটে রাখল , কিন্তু জবাব দেয়ার মত প্রস্তুত না । পুরাই নার্ভাস ।
-ওয়ালাইকুমআসলাম । কেমন আছো ?
হটাত অপরিচিত একজনের কাছে ভাল থাকার ব্যাপার টা বলতে জুহি অভ্যস্থ না ।
সে উল্ট প্রশ্ন করল – কে আপ্নি ?
এরকম প্রশ্ন হবে আগে থেকে বাপ্পি চিন্তাই করে নি, তা নাহলে আগে থেকে সব উত্তর ঠিক করে রাখত । মূলত ফোন নাম্বার পাওয়ার খুশিতে সে কি কথা বলবে তা প্ল্যান করা ভুলে গেছে ।
এই যখন বাপ্পির অবস্থা তখন সে বলল আমি তুমার পরিচিত একজন । পরিচয় দিলেই চিনবা ! আগে বলো কেমন আছো ?
এইরকম কথা শুনে জুহির ও মনে আসল হয়ত ছেলেটা তার ফ্রেন্ড বা আত্নীয়ের মাঝে কেউ হবে ।
-জ্বি ভাল ।
-আচ্ছা পড়ালিখার খবর কি ?
-জ্বি ভাল ।
-কেমন ভালো ?
-আপ্নি কে বলুন ত ??
-আমি মানুষ ।
-সে ত বুঝতেই পারছি । আচ্ছা আপ্নি কেনো আমায় ফোন দিছেন ?
-কথা বলার জন্য ।
-কিন্তু আমি ত অপরিচিত কারো সাথে কথা বলি না ।
-আমি ও বলি না ।
-তবে আপ্নার পরিচয় দিন ?
-আমার পরিচয় দিলেই তুমি চিনবে । খুব কাছের মানুষ । কিন্তু আমি চাই পরিচয় না দিয়ে কথা বলতে ।
-কিন্তু আমি চাই না ।
এটা বলেই জুহি ফোন টা কেটে দিলো !
আর এদিকে ত বাপ্পি খুশিতে নাচ শুরু করে দিলো । নাচতে অবশ্য সমস্যা হল কারন মেস এ আরো ভাইয়েরা আছেন । সে ছাদে উঠে শুয়ে পড়ল । এত্ত খুশি তার জিবনে ও লাগে নি ।এটাই শুরু । মেয়েটার কন্ঠ যেন তাকে নতুন এক শক্তি দিছে । সে সব সময় খুশি । না । এটা প্রেম ও না ভালবাসাও না এটা শুধু লহ্ম্য পুরনের খুশি । এখন তাকে ভাল ভাবে সব এগিয়ে নিতে হবে ।

৮ thoughts on “এখন ও ঠিক হয় নাই

  1. অসমাপ্ত প্রেমের গল্প বললে ভুল
    অসমাপ্ত প্রেমের গল্প বললে ভুল হবে গল্পের সারাংশ মাত্র………… গল্পের নামটা পছন্দ হয়নি ………

  2. ধারাবাহিক লিখলে শিরোনামে
    ধারাবাহিক লিখলে শিরোনামে ১,২,৩ এভাবে উল্লেখ করে দিলে পাঠকের বুঝতে সুবিধা হবে। নাইলে সবগুলার শিরোনাম তো এক হয়ে যাবে। 😀

  3. পর্ব ১, ২, ৩ এভাবেও দেয়া যায়
    পর্ব ১, ২, ৩ এভাবেও দেয়া যায় । তবে ধারাবহিকটা ভিন্ন ভিন্ন শিরোনামে দিলে মন্দ হবে না মনে হয়………… ব্যতিক্রমের পাগল আমরা বাঙ্গালী………..

Leave a Reply to একেলা পথের পথিক Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *