ফানুস কখনও রঙিন হয়?

একটা ভাল মোবাইল কেনা দরকার। ভাঙাচোরা মোবাইল দিয়ে আর কতদিন। কল দিতে পারি না, রিসিভ করতে পারি না। তারপর ভাবলাম একটা ল্যাপটপ কিনব হাই কনফিগারেশনের। সবাইকে দেখিয়ে বলব, আমারও আছে। গেম এখন নিজের ল্যাপটপেই খেলতে পারব। সাথে ইন্টারনেটের স্পীড টাও বাড়িয়ে নিতে হবে। কিন্তু কোন কোম্পানির মডেম কিনব? শালারা যেই ডাকাত। ধুর! ব্রডব্যান্ডই নিয়ে ফেলব, ২ এমবিপিএস। যা আছে কপালে।


একটা ভাল মোবাইল কেনা দরকার। ভাঙাচোরা মোবাইল দিয়ে আর কতদিন। কল দিতে পারি না, রিসিভ করতে পারি না। তারপর ভাবলাম একটা ল্যাপটপ কিনব হাই কনফিগারেশনের। সবাইকে দেখিয়ে বলব, আমারও আছে। গেম এখন নিজের ল্যাপটপেই খেলতে পারব। সাথে ইন্টারনেটের স্পীড টাও বাড়িয়ে নিতে হবে। কিন্তু কোন কোম্পানির মডেম কিনব? শালারা যেই ডাকাত। ধুর! ব্রডব্যান্ডই নিয়ে ফেলব, ২ এমবিপিএস। যা আছে কপালে।

কিছু জামাকাপড়ও কিনতে হবে। একেবারে ব্র্যান্ড নিউ। বঙ্গবাজারের ২০০ টেকার প্যান্ট শার্ট পরতে পরতে একেবারে জাতটা চলেই গেল। এবার Ecstacy, Elegant, Rich man ছাড়া কোথাও ঢুকব না। জুতাটাও চেঞ্জ করতে হবে। কতদিন ভাল জুতা পরি নাই। চটি স্যান্ডেল ছিঁড়ে গেলে, প্ল্যাস্টিকের জুতা দিয়েই কাজ সারছি। আর না।

গুলশানে একটা ফ্ল্যাট কিনব। বেশি বড় না। মোটামুটি ৪-৫ রুম থাকলেই হবে। সাব-লেট বাসায় থাকতে থাকতে নিজের অস্তিত্বই হারাতে বসেছি।

ভাবলাম নিজের একটা গাড়ি দরকার। রাস্তায় বাসের মধ্যে জ্যামে গরমে ঘেমে নেয়ে একাকার হয়ে যাই। মানুষের গাড়িতেও চরতাম। আড়ালে আবডালে কিছু কথাও শুনতে হত। এবার নিজের একটা গাড়ি হবে। গাড়ির তো একটা ড্রাইভারও দরকার। অরিজিনাল লাইসেন্স ওয়ালা ড্রাইভার নিব। আমার পাশের ড্রাইভারটার মনে হয় লাইসেন্স নাই।
মা বাবা, বোনদের জন্যও কিছু কিনতে হবে। সে সব পরে ভাবা যাবে। আগে নিজের জন্য কিছু কিনে নেই। ২০ কোটি টাকা। সোজা কথা।

লেগুনার সামনের সিটে বসে সিগারেট খেতে খেতে এই স্বপ্নটাই দেখছিলাম। বাসায় ফিরে মোবাইলটা বের করে দেখি ওইটা চলছে না, নষ্ট হয়ে গেছে। মানিব্যাগে মাত্র ৫ টাকা আছে। কিভাবে মোবাইল কিনব? আমার তো আরও অনেক কিছুই কেনা বাকি?

প্রেমিকার দেওয়া ঘড়িটা আবার চলছে। কি মনে করে কে জানে? হয়ত আশা এখনও শেষ হয়ে যায়নি। ৫ টাকা মূল্যের জ্বলন্ত বিষ খেতে খেতে আবার সেই বিশ কোটি টাকার স্বপ্নটাই দেখতে বসলাম।

১৪ thoughts on “ফানুস কখনও রঙিন হয়?

  1. ভাই টাকা জিনিসটা খুবই
    ভাই টাকা জিনিসটা খুবই খারাপ।শুধু মানুষকে না পুরো পৃথিবীকে বদলে দেয়।

  2. আমার কাছে কিন্তু দারুন
    আমার কাছে কিন্তু দারুন লাগলো!
    বিশেষ করে এই লাইনটা- “প্রেমিকার দেওয়া ঘড়িটা আবার চলছে। কি মনে করে কে জানে? হয়ত আশা এখনও শেষ হয়ে যায়নি…”
    :ফুল:

    [কি জানি- হয়তো আমার অভিভূত হবার ক্ষমতাটা বরাবরই একটু বেশি… 😛 ]

  3. প্রেমিকার দেওয়া ঘড়িটা আবার
    প্রেমিকার দেওয়া ঘড়িটা আবার চলছে। কি মনে করে কে জানে? হয়ত আশা এখনও শেষ হয়ে যায়নি। ৫ টাকা মূল্যের জ্বলন্ত বিষ খেতে খেতে আবার সেই বিশ কোটি টাকার স্বপ্নটাই দেখতে বসলাম।
    শেষ অংশটা অসাধারণ ছিলো….

    Beneath the mask there is an idea and ideas are bullet-proof.

    ফেসবুক | পার্সোনাল ব্লগ

  4. চরন বাবুর গাড়ী আর আল্লার
    চরন বাবুর গাড়ী আর আল্লার দেওয়া বাড়ি আছে মাথার উপর টেনশন লইয়েন না চোখ বন্ধ করে বলে ফেলুন অল ইজ ওয়েল দেন একটা কিস করেন জলন্ত সিগারেটে দেখবেন নিজেরে রাজা রাজা মনে হবে ……… 😀

  5. শেষ লাইনটা সত্যিই অসাধারণ
    শেষ লাইনটা সত্যিই অসাধারণ একটি বাক্য। তবে বলি স্বপ্ন দেখা ভাল, তবে অবাস্তব স্বপ্ন না দেখাই ভাল….

  6. ভালো লেগেছে। মানুষের দেখা
    ভালো লেগেছে। মানুষের দেখা স্বপ্নগুলো এভাবেই পুড়ে যায় নিকোটিনের সাথে। আর মরীচিকা হয়ে মিলিয়ে যায় নিকোটিনের ধোঁয়াতে।

  7. স্বপ্নের রাজ্যে চলছি আমরা
    স্বপ্নের রাজ্যে চলছি আমরা ক্লান্ত যুগল চরণে ! শেষ হইয়াও শেষ হতে চায়না আমাদের চলার পথ… স্বপ্নই ভরসা আমাদের স্বপ্ন নিয়েই বেঁচে আছি এই ধরিত্রিতে……

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *