ছোটগল্প – স্কুল প্রেম

সোনামণি ফ্রকের নিচে কলম লুকিয়ে রেখেছে । ফাত্তাহকে তার কিছুক্ষন ডিগবাজী খাওয়ানোর ইচ্ছা । ফাত্তাহ কলম এইধার ওধার খুজবে , পাবে না । একে ওকে বলবে , পাবে না । একসময় বিরক্ত হয়ে ক্লাসে জোরে জোরে কথা বলবে আর ঘামবে ( ফাত্তাহ টেনশনে সহজেই দিশা হারিয়ে ফেলে , এই সময় তার প্রচুর ঘাম হয় ) ফাত্তাহর কর্মকাণ্ডে মিজান স্যার তাকে “ আইই চউউপ “ বলে বকা দিবে । ফাত্তাহ বকা খেয়ে মুখ গোমড়া করে বসে থাকবে ( ফাত্তাহ বকা সহ্য করতে পারে না , একটু আদুরে তো ! ) তার নাকের ফুটো ফুলে ফুলে উঠবে , কান লাল হয়ে যাবে । তখন সোনামণি টুক করে তার পায়ের কাছে কলম ফেলে দিবে


সোনামণি ফ্রকের নিচে কলম লুকিয়ে রেখেছে । ফাত্তাহকে তার কিছুক্ষন ডিগবাজী খাওয়ানোর ইচ্ছা । ফাত্তাহ কলম এইধার ওধার খুজবে , পাবে না । একে ওকে বলবে , পাবে না । একসময় বিরক্ত হয়ে ক্লাসে জোরে জোরে কথা বলবে আর ঘামবে ( ফাত্তাহ টেনশনে সহজেই দিশা হারিয়ে ফেলে , এই সময় তার প্রচুর ঘাম হয় ) ফাত্তাহর কর্মকাণ্ডে মিজান স্যার তাকে “ আইই চউউপ “ বলে বকা দিবে । ফাত্তাহ বকা খেয়ে মুখ গোমড়া করে বসে থাকবে ( ফাত্তাহ বকা সহ্য করতে পারে না , একটু আদুরে তো ! ) তার নাকের ফুটো ফুলে ফুলে উঠবে , কান লাল হয়ে যাবে । তখন সোনামণি টুক করে তার পায়ের কাছে কলম ফেলে দিবে

– “ এই ফা , দেখ তো এইটা তোর কলম না !! কি অবাক করা কাণ্ড , নিজের পায়ের কাছে কলম রেখে ওয়াশিংটন দিল্লী কলম খুঁজে বেড়াচ্ছিস আর সবাইকে বিরক্ত করছিস !! নাহ তোকে নিয়ে আর পারলাম না ! “ সোনামুনি মৃদু শাসন করবার ছলে ফাত্তাহকে কথাগুলো বলবে । ফাত্তাহ কলম পেয়ে যেন জান ফিরে পাবে এমন একটা একটা হাসি হেসে সোনামনিকে বলবে – ‘ থ্যাংকস ‘
সোনামণির কাছে এই হাসিযুক্ত ‘ থ্যাংকস ‘ এর গুরুত্ব আছে । একটু বেশী ই আছে ।

ফাত্তাহ কলম খুঁজছে । তার কপালে বাজ পড়ছে । চশমাটা একবার খুলে শার্টের কোনায় মুছে নিল । তারপর হাই তুলতে তুলতে বলল
– এই নিহা , তোর কাছে কি একটা এক্সট্রা কলম হবে ।

নিহা ( ফর্সা করে অহংকারী মেয়েটি , যে ক্লাস এ সবসময় ফাত্তার আশেপাশে বেল্লিল্লাহর মতো ঘুরঘুর করে ) কাছ থেকে কলম নিয়ে ফাত্তাহ মিজান স্যারের দেয়া সন্ধি বিচ্ছেদ সলভ করা শুরু করলো । স্যার বলেছে আজ যারা এই ১০ টা সন্ধি বিচ্ছেদ সলভ করতে পারবে স্যার তাদের মিডট্রামে বোনাস ৫ মার্ক অ্যাড করে দিবেন ।

ক্লাসের সবাই মাথা চুলকাতে চুলকাতে সন্ধি বিচ্ছেদ সলভ করছে । এতসহজে ৫ মার্ক হাতছাড়া করতে কেউ রাজি না । সোনামণি কিছু লিখছে না । সে মুখ ভাঁড় করে বসে আছে । তার এক হাত ফ্রকের নিচে শক্ত করে কলম ধরা । ইচ্ছা করছে কলমের শিশটা নিজের ঊরুতে বিঁধিয়ে দিতে । খুব বেশী কি ব্যাথা পাওয়া যাবে ? এ আগে সোনামণি মা’র সাথে রাগ করে ব্লেড দিয়ে ডানপায়ের তলা কেটেছিল । অনেক রক্ত বের হয়েছিল ঠিক ই কিন্তু তেমন ব্যাথা করেনি । কেমন অবশ অবশ লাগছিল । বাবা তাকে কোলে নিয়ে দৌড়ে ক্লিনিকে যায় । বেশকিছু ব্লাড চলে যাবার পর রক্ত পড়া বন্ধ হয় । স্কুলে বাবা নেই । এইখানে কে তাকে কোলে করে ক্লিনিকে নিয়ে যাবে ? ফাত্তাহ ?

জীবনেও না । সোনামণি নিশ্চিত , সে যদি কলমের শিশ তার ঊরুতে বসিয়ে দেয় ফাত্তাহ সেটা দেখেও না দেখার ভান করে নিহাকে বলবে
— নিহা তোমার কলমটা না অনেক সুন্দর , ঠিক তোমার মতো সুন্দর । চলো তোমাকে নিয়ে আজ টিফিন পিরিয়ডে একটা গোপন জায়গায় যাবো । সেখানে আগে শুধু আমি আর সোনামণি যেতাম । সেই গোপন জায়গা থেকে সম্পূর্ণ স্কুল দেখা যায় কিন্তু কেউ আমাদের দেখতে পায় না । আমরা সেখানে বসে বসে মানুষ দেখি , কমেন্ট করি আর সান্ডউইচ খাই । আজ যেহেতু সোনামণি ঊরুতে কলমের শিশ বিঁধিয়ে বসে আছে তাই আজ আর সে হাঁটতে পারছে না । তাই আজ শুধু তুমি আর আমি যাবো ।

সোনামণির চোখ ভর্তি পানি টলমল করছে যেন একটু টোকা লাগলেই ভেসে যাবে ক্লাস রুম ।
– সু ! যা তো খাতা দুইটা স্যারের কাছে জমা দিয়ে আয় ।

সোনামণি তাকিয়ে দেখলো , ফাত্তাহ দুইটা খাতায় স্যারের সন্ধি বিচ্ছেদ সলভ করেছে । একটা নিজের খাতা আরেকটা সোনামণির খাতা ।
সোনামণি প্রাণপণ চেষ্টা করছে ক্লাস রুম যেন বন্যা না হয় , কিন্তু তার চোখ মনে হয় বাঁধা মানবে না ।
– আচ্ছা তুই একহাত জামার নিচে রেখে দিয়েছিস কেন ? সমস্যা কি ?

বন্যা হয়েই গেল । সোনামণি ভ্যা ভ্যা করে কাঁদছে । ক্লাসের সবাই সব কাজ বাদ দিয়ে অবাক নয়নে সোনামণির দিকে তাকিয়ে আছে । ক্লাস ফাইভের একটা মেয়ে ক্লাস রুমে হটাত ভ্যা ভ্যা করে কাঁদছে ব্যাপারটা অবশ্যই অবাক হবার মতো ।

২২ thoughts on “ছোটগল্প – স্কুল প্রেম

  1. কোন বিশেষণ ব্যবহার করে
    কোন বিশেষণ ব্যবহার করে প্রশংসা করব বুঝতে পারছি না। অসম্ভব ভালো লাগল। আশা রইল।

  2. মিষ্টি একটা অনুভুতি !! চমৎকার
    মিষ্টি একটা অনুভুতি !! চমৎকার একটা ভাল লাগা জন্মাল । বেশ আরাম পেলাম :ফুল:

  3. অসম্ভব সুন্দর একটা গল্প পড়লাম
    অসম্ভব সুন্দর একটা গল্প পড়লাম ।আর ছোটবেলার কিছু ঘটনার কথাও মনে পড়লো ।ধন্যবাদ আপনাকে

  4. আহা স্কুল জীবনের কথা মনে
    আহা স্কুল জীবনের কথা মনে করায়ে দিলেন… :দিবাস্বপ্ন: :দিবাস্বপ্ন: :দিবাস্বপ্ন: :দিবাস্বপ্ন: :দিবাস্বপ্ন:
    এই গল্প যে কারো কাছে চমৎকার লাগতে বাধ্য। (প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা হিসেবে এটেস্টেড করে দিলাম :বিগবস: )
    :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

    1. আতিক ভাই , কমেন্ট অফ দ্যা উইক
      আতিক ভাই , কমেন্ট অফ দ্যা উইক :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

    2. সিরিয়াসলি আতিক ভাই এর কমেন্ট
      সিরিয়াসলি আতিক ভাই এর কমেন্ট টা ”কমেন্ট অভ দা উইক ” :নৃত্য: :নৃত্য:

  5. অনেকক্ষন ভেবে প্রশংসা করার মত
    অনেকক্ষন ভেবে প্রশংসা করার মত বিশেষন খুঁজে পেলাম না!
    :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *