মা, আপনি পারেন না এই দেশের মা হতে…….?




ছবিটা দেখে সত্যিই চমকে উঠেছিলাম । এমন অনেকেই হয়তো চমকে উঠেছেন। অনেক্ষণ তাকিয়ে ছবিটি দেখলাম। দেখলাম এ যেন আমার মায়েরই ছবি। ভোগাবাদী রাজনীতিতে অভ্যস্ত হয়ে আমরা ভাবতে ভুলে গেছি আমাদের দেশের সরকারপ্রধান একজন মমতাময়ী মা। তিনি তার সন্তানের জন্মদিনে নিজ হাতে রান্না করতে পারেন। আমরা ভুলে গেছি তিনিও আমাদেরই মতো রক্তমাংসের মানুষ। আমরা বিশ্বাস করতে শিখেছি কেউ প্রধানমন্ত্রী হলে গেলে তিনি দূর আকাশের তারা হয়ে যান। কয়েক স্তরের নিরাপত্তা, প্রটোকল ইত্যাদি ইত্যাদি কারণর এমনিতেই তারা সাধারণ্যের ধরাছোঁয়ার অনেক বাইরে থাকেন । ভোগবাদীতা আমাদের রাজনীতিকে কলুষিত করার সাথে সাথে আমাদের মনোজগতে উপনিবেশ স্থাপন করেছে। আমরা ভাবতে শিখেছি গণতন্ত্র জনগনের শাসন হলেও ক্ষমতা আসলে আমাদের হাতে নেই। আমরা তাদের হাতে জিম্মি। নেতা-মন্ত্রীরা আমাদের থেকে যোজন যোজন দূরে।

এতদিন আমরা পত্রিকায় কিংবা অনলাইনে দেখেছি অমুক দেশের প্রধানমন্ত্রী সাইকেল চালিয়ে কার্যালয়ে যাচ্ছেন। অমুক দেশের প্রধানমন্ত্রী রাস্তার ফুটপাতে দাঁড়িয়ে কফি খাচ্ছেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মেট্রোর সাধারণ কামরায় চড়ে অফিসে যাচ্ছেন। সোনিয়া গান্ধিকে পুত্রের সাথে সাধারণ গ্যালারিতে বসে ক্রিকেট ম্যাচ দেখছেন। আমরা এসব দেখেছি আর হাপিত্যেশ করেছি। অনেকের মতো আমার মনেও এতোদিন প্রশ্ন ছিল, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ঘরোয়া চালচলন কেমন ? তিনি কি বাংলার মায়েদের মতো রাঁধতে পারেন? এই ছবি দেখে সেই প্রশ্নের আর অবকাশ রইল না ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আজ আপনার দলের লোক না হয়েও আমার গর্ব করে বলতে ইচ্ছে করছে দেখ তোমরা, আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী নিজে হাতে রান্না করেন। তিনি একজন মা । তিনি সন্তানকে নিজ হাতের রান্না খাওয়ান। যেভাবে আমার মা আমার জন্য রাঁধে ঠিক একই ভাবে আমাদের প্রধানমন্ত্রীও রাঁধছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার পিতা শুধু আপনারই একারই ছিলেন না। তিনি ছিলেন এই গোটা জাতির জনক। অনেকের মত আমিও তাঁর কিছু ভুলের সমালোচনা করি । কিন্তু দেখুন তো, আন্তর্জাতিক চক্রান্তে বিশ্বাসঘাতকদের হাতে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত তিনি কিভাবে আগলে রেখেছিলেন গোটা জাতিকে। আজ আরেকটি ঘটনা আপনার প্রতি শ্রদ্ধা বাড়িয়েছে । সবহারা একাত্তরের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা রমা চৌধুরিকে বুকে টেনে নিয়েছেন, বিনিময় করেছেন অনুভূতি। আপনিও তো সবহারা । জানেন আপনি, এই সর্বত্যাগী মুক্তিযোদ্ধারা আর কিছুই চায় না। চায় রাজাকারমুক্ত দালালমুক্ত সোনার বাংলা। যে সোনার বাংলা গড়তে সর্বস্ব ত্যাগ করেছিলেন জাতির এই শ্রেষ্ঠ সন্তানেরা।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার কাছে আহ্বান রইল মুক্তিযোদ্ধাদের এই আশা পূরণে অযোগ্য-বিশ্বসঘাতক-তাঁবেদারদের দূর করে দিন আপনার চারপাশ থেকে । ভূলে যাবেন না, আপনি বঙ্গবন্ধুর কন্যা। আপনি একজন মা। পারবেন না আপনি গোটা জাতির মা হতে ?? আপনি পারবেন এই ভোগবাদী রাজনীতি থেকে বের হতে ?

১৩ thoughts on “মা, আপনি পারেন না এই দেশের মা হতে…….?

  1. মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার

    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনার কাছে আহ্বান রইল মুক্তিযোদ্ধাদের এই আশা পূরণে অযোগ্য-বিশ্বসঘাতক-তাঁবেদারদের দূর করে দিন আপনার চারপাশ থেকে । ভূলে যাবেন না, আপনি বঙ্গবন্ধুর কন্যা। আপনি একজন মা। পারবেন না আপনি গোটা জাতির মা হতে ?? আপনি পারবেন এই ভোগবাদী রাজনীতি থেকে বের হতে ?

    আশায় বুক বাঁধতে খুব ইচ্ছে করে। কিন্তু যখন দেখি সরকারের উপর মহলের নির্দেশেই রাজাকার সর্দার গুয়াজম গ্রেফতারের ১৯ মাসের একদিনও কারাগারে না কাটিয়ে দেশের সবচেয়ে এলিট সরকারী হাসপাতালে রাজসিক খানাদানায় দিন গুজরান কর, তখন আশাগুলো কর্পূরের মতো উবে যায় নিমিষেই।

    1. আশা আর নাই আতিক ভাই। এমনেতেই
      আশা আর নাই আতিক ভাই। এমনেতেই আমি বড় হতাশাবাদি মানুষ। তার উপর এই মোগলাই খানাদানা… :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট:

  2. আপনার আহ্বান প্রত্যেক সচেতন
    আপনার আহ্বান প্রত্যেক সচেতন মানুষের আহ্বান।

    সন্ধ্যায় ছবিটি দেখে অবাকই হয়েছিলাম। অবশ্য ভালও লেগেছিল।এ নিয়ে ইতিমধ্যে আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে। ব্লগেও আইসা গেছে।

  3. মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আজ

    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আজ আপনার দলের লোক না হয়েও আমার গর্ব করে বলতে ইচ্ছে করছে দেখ তোমরা, আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী নিজে হাতে রান্না করেন। তিনি একজন মা । তিনি সন্তানকে নিজ হাতের রান্না খাওয়ান। যেভাবে আমার মা আমার জন্য রাঁধে ঠিক একই ভাবে আমাদের প্রধানমন্ত্রীও রাঁধছেন।

    — আশায় বুক বাঁধতে ইচ্ছা করে…

  4. খুব ভালো লেগেছে
    খুব ভালো লেগেছে প্রধানমন্ত্রীর আজকের দুইটা নিউজ দেখে। আমরা আশা করব আগামী প্রতিটা দিন আপনি দলমত নিরবিশেষে সবার ভালবাসা পাবেন।

  5. গুরুত্বপুর্ণ বিষয়টি ইস্টিশন
    গুরুত্বপুর্ণ বিষয়টি ইস্টিশন ব্লগে তুলে আনার জন্য লেখককে অজস্র ধন্যবাদ।

    না, তিনি ৬৫পাউন্ড ওজনের কোন কেক রাঁধছেন না, বাংলার চিরচরিত একটি খাবার মোরগ পোলাও রাঁধছেন।
    না, আজ জাতীয় কোন নেতার মৃত্যু দিবস নয়, একমাত্র ছেলেটির জন্মদিন।
    না, এটা ভুয়া কোন জন্মদিন নয়, একমাত্র ছেলেটির জন্মদিন।যার বয়স কিনা বাংলা নামক দেশটির বয়সের সমান ।
    না, এটা কোন উপহাস কিংবা লোক দেখানো অভিনয় নয়, একজন মায়ের অকৃত্রিম ভালবাসার বহিপ্রকাশ ।
    স্যালুট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।
    স্যালুট মা।

    1. ভাল বলেছেন… সহমত!! কোন
      ভাল বলেছেন… সহমত!! কোন পাতানো জন্মদিনের হঠকারী উৎসব নয়;
      স্বতঃস্ফূর্ত মায়ের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ…
      স্যালুট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী :salute: :salute: :salute: :salute:

  6. আজকের ফেবু স্ট্যাটাসটাই তুলে
    আজকের ফেবু স্ট্যাটাসটাই তুলে দিলাম

    মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ,

    বাংলাদেশ ভুলে গিয়েছিলো আপনিও একজন মমতাময়ী ” মা ”

    পৃথিবীর সকল মায়েদের প্রতি শ্রদ্ধা ও ‪ভালোবাসা‬

  7. মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অধিকাংশ
    মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অধিকাংশ কাজ-কর্মই ভাল। কিন্তু অতি কথন আমার একেবারেই অপছন্দ। আমার বিশ্বাস উনি কথার সঠিক ব্যবহার করলে আরও জনপ্রিয় হবেন কোন সন্দেহ নাই..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *