কদুলীমালা

সেই তুমি বলেছিলে,
শতাব্দীর গলিপথ পারি দিয়ে হলেও
হৃদয়ের চৌকাঠে ফিরে আসবে।
আজ বহু শতাব্দী কেটে গেলো ।
চৌকাঠে বসে আছি-
আমি আর তোমার ফেলে রাখা স্মৃতি ।
এই বুঝি জগতের রীতি ।
অপেক্ষায় থেকে থেকে,
শুকিয়েছে শিঊলির মালা ।
ফিরে এসো পুষ্পরেণু! আমার কদুলীমালা!



সেই তুমি বলেছিলে,
শতাব্দীর গলিপথ পারি দিয়ে হলেও
হৃদয়ের চৌকাঠে ফিরে আসবে।
আজ বহু শতাব্দী কেটে গেলো ।
চৌকাঠে বসে আছি-
আমি আর তোমার ফেলে রাখা স্মৃতি ।
এই বুঝি জগতের রীতি ।
অপেক্ষায় থেকে থেকে,
শুকিয়েছে শিঊলির মালা ।
ফিরে এসো পুষ্পরেণু! আমার কদুলীমালা!
……………………………………
বহু দিন গুনে গুনে পুর্নিমা কেটে গেলো
কত আলো বিষাদে নীলিমায় ম্লান হলো !
তুমি শুধু করে গেলে খেলা ।
ফিরে এসো পুষ্পরেণু! আমার কদুলীমালা!
জং ধরা জানালার গ্রীলে
যতবার ডেকেছি, তুমি এসেছিলে ।
থাই গ্লাসে আটকানো জানালায়
উকি মেরে চেয়ে দেখি তুমি নাই ।
দরজায় গিয়ে দেখি চাইনিজ তালা।
ফিরে এসো পুষ্পরেণু! আমার কদুলীমালা!
……………………………
সেই তুমি বলেছিলে,
আমার দেয়া নাকফুলটা পরে
কেমেষ্ট্রি স্যারে ক্লাশে, দেয়াল ঘেসে বসবে।
সেই থেকে অপেক্ষায় আছি ।।
চৈত্রের ঝরা পাতার ক্রন্দন শুনি
মাঝে মাঝে ডেকে যায়, দু-টাকার ফেরিওয়ালা ।
ফিরে এসো পুষ্পরেণু! আমার কদুলীমালা!

৪ thoughts on “কদুলীমালা

  1. ছন্দের মিলন লক্ষণীয় এখানে ।
    ছন্দের মিলন লক্ষণীয় এখানে । সাবলীল ঢং এ অনুভুতির প্রকাশ ঘটিয়েছেন । বেশ পরিচ্ছন্ন লাগল কবিতাটা । লিখতে থাকুন । শুভেচ্ছা রইল । :ফুল:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *