একটি লাঁশ এবং তার স্বপ্ন

মধ্য দুপুরে কাঠফাটা রোদ ;
মাথার উপর এক ফালি অগ্নিকুন্ড ,
হেটে চলেছি তবুও ,
কিন্তু গন্তব্য ?
খুঁজে বেড়াচ্ছি ইতস্ততঃ …

ভেঙে পড়ছি ,তবুও দাড়াচ্ছি,
থামার তো কোনো সুযোগ নেই।
এপথের একদিকে হাজারো রঙিন প্রজাপতি ,
আরেকদিকে দাউ দাউ করে জ্বলছে শিখা।
হাটছি। তবুও হেটে চলেছি ,



মধ্য দুপুরে কাঠফাটা রোদ ;
মাথার উপর এক ফালি অগ্নিকুন্ড ,
হেটে চলেছি তবুও ,
কিন্তু গন্তব্য ?
খুঁজে বেড়াচ্ছি ইতস্ততঃ …

ভেঙে পড়ছি ,তবুও দাড়াচ্ছি,
থামার তো কোনো সুযোগ নেই।
এপথের একদিকে হাজারো রঙিন প্রজাপতি ,
আরেকদিকে দাউ দাউ করে জ্বলছে শিখা।
হাটছি। তবুও হেটে চলেছি ,
থামা যাবেনা ;
এ যে গন্তব্যের পথে অজানা যাত্রা ..

এ পথের একধারে ,কিছু ক্ষুদার্ত হায়েনা;
হিংস্র তবে চোখে নিষ্ঠুর মায়া;
কে জানে !
হয়তো ওরাও আর যান্ত্রিক মানুষগুলোকে;শিকার করে আর পৈশাচিক আনন্দ পায়না ।
কিন্তু বেঁচে থাকতে হলে মায়া করা অপরাধ ..
সেটা ওরাও বোঝে ,
সুযোগের অপেক্ষায়;
ঝাঁপিয়ে পড়বে ঠিক।।
আমি কিন্তু ওদের সামনে দিয়ে ,
দিব্যি হেঁটে চলে এলাম ।
পেছন ফিরে তাকালো, হায়েনাগুলো বার কয়েক;
হয়তো আমার মতো হাড্ডিসার দেখে,
নাক কুচকে গেছে কিছুটা।

কয়েক সহস্র মাইলে পেরিয়ে ঐতো আমি!
দাঁড়িয়ে গন্তব্যের সামনে ।
চিৎকার করে উঠলাম -”ইউরেকা ! ইউরেকা !”
আনন্দে চোখ বিস্ফারিত ,
হতবাক আমি।
এক পা ,দুই পা, এগিয়ে চলি…
কিন্তু হঠাৎ!
হোরাসের লাল রঙা রথ,
ছিন্নভিন্ন করে দিলো আমায় ,
আর আমি মুক্ত হাওয়ায় ভেসে দেখছি আমার শরীরটা।
স্বর্গের দুয়ারে লাঁশ দেখে ছোট জটলা বেঁধে গেছে,
আমি চিৎকার করলাম –
”এই কাদছো কেনো তোমরা !
এই যে দেখো না!আমি এইতো!”
কেউ দেখলোনা ,কেউ শুনলোনা ,কেউ মানলোনা ..
ওটা শুধু একটা লাশ ;
আর আমি হলাম মুক্ত যুবার পথ দেখানো স্বপ্ন।।
§সময় মাহমুদ§

৪ thoughts on “একটি লাঁশ এবং তার স্বপ্ন

  1. ভালোই।
    ব্লগের কবিদের

    ভালোই। :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:
    ব্লগের কবিদের সম্পর্কে একটা কমন অভিযোগ আছে, ইনারা কবিতা পোস্ট দিয়ে কই যে হারিয়ে যান আর খবর থাকে না। আবার নেক্সট কবিতা প্রসবের সময় হলে দেখা মেলে। এরকম পরিযায়ী কবি চাই না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *