একজন মুক্তিযোদ্ধার সাথে এক মুহুর্ত… … …

দোকানে যে কোন মুক্তিযোদ্ধা এলে তাদের কাছ থেকে টাকা কম নিই, কারণ জিজ্ঞেস করলে বলি আপনি দেশের জন্য জীবন বাজী রেখেছিলেন, আর আমি সামান্য একটু কি করতে পারবো না?

এমনি একজন মুক্তিযোদ্ধার সাথে কথা হচ্ছিলো,

কথায় কথায় বললাম আমি গণজাগরণ মঞ্চের সাথে যুক্ত ও একজন অনলাইন একটিভিস্ট।
তিনি জানতে চাইলেন ব্লগার কি না। আমি বেশ দ্বিধার সাথে বললাম, আমি ব্লগার কি না জানি না, তবে মাঝে মাঝে ব্লগ লিখি।

কথাটা শুনার সাথে সাথে তিনি আমাকে জড়িয়ে ধরলেন আর কান্না জড়িত কণ্ঠে বলতে লাগলেন,

————————————————————————————–
” আমার বড় ইচ্ছে ছিলো একজন ব্লগারকে দেখার।
বাবা,
মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদেরকেও শয়তানেরা কাফের আখ্যা দিয়েছে, আমরা দমে যাইনি।
চোখে স্বপ্ন ছিলো স্বাধীন দেশ, স্বাধীন বাংলা।
তোমরাও হাল ছেড়ো না, এই বাংলার মাটিতে সকল রাজাকার আর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শেষ হবার আগে থেমে যেয়ো না, একটি সুন্দর সোনার বাংলা গঠনের জন্য এদের বিচারটা খুব জরুরী।
জানি,
আমাদের মতই তোমাদের এই আন্দোলনে কোন ব্যক্তিগত লাভ নেই, তবু থেমে যেয়োনা। হয়ত টাকা পয়সা দিতে পারবো না, কাজের চাপের জন্য সময়ও দিতে পারবো না।

কিন্তু কথা দিচ্ছি,
তোমার জন্য আমার জীবনটা আবার বাজী রাখলাম, যে কোন বিপদ আপদে আমাকে খুজ করো। চাওয়া একটাই হাল ছেড়োনা।
————————————————————————————–

তার চোখের জলে আমার পিঠ ভিজে যাচ্ছিলো, আমিও চোখের পানি আটকাতে পারছিলাম না। মনে হচ্ছিলো, আমার সমস্ত চেষ্টা, সমস্ত কার্যক্রম আজ পূর্ণতা পেয়েছে।

তাকে বললাম,
জাতির একজন শ্রেষ্ট সন্তান যদি আমাকে রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দেয়, আমাকে সামনে এগিয়ে যাবার সাহস যোগায়, তাহলে এ জীবনে আর কি কোন কিছুর প্রয়োজন আছে?

কথা দিচ্চি,
প্রতিটি যুদ্ধাপরাধীর ফাসির রায় কার্যকর হবার আগে নীরব হবো না, নীথর হবো না যতদিন না পর্যন্ত স্বাধীনতা বিরুধী, দেশদ্রোহি ও শয়তানের প্রেতাত্মা জামাত-শিবির এদেশ থেকে নির্মূল হচ্ছে।

আপনাদের দেখানো পথ ও অনুপ্রেরণাই আমাদের পাথেয়।
জয় বাংলা।

৯ thoughts on “একজন মুক্তিযোদ্ধার সাথে এক মুহুর্ত… … …

  1. আমিও তাঁকে বলতে চাইঃ
    জাতির

    আমিও তাঁকে বলতে চাইঃ
    জাতির একজন শ্রেষ্ট সন্তান যদি আমাকে রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দেয়, আমাকে সামনে এগিয়ে যাবার সাহস যোগায়, তাহলে এ জীবনে আর কি কোন কিছুর প্রয়োজন আছে?
    কথা দিচ্চি,
    প্রতিটি যুদ্ধাপরাধীর ফাসির রায় কার্যকর হবার আগে নীরব হবো না, নীথর হবো না যতদিন না পর্যন্ত স্বাধীনতা বিরুধী, দেশদ্রোহি ও শয়তানের প্রেতাত্মা জামাত-শিবির এদেশ থেকে নির্মূল হচ্ছে…
    খুব ভাবতে ইচ্ছা করছিল আমিও আপনার যায়গায়… :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:
    অনেকদিন পর লিখলেন পৃথু-দা! আপনার লিখায় অন্যরকম কিছু থাকে :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

  2. হ্যা, এই মুক্তিযোদ্ধার সাথে
    হ্যা, এই মুক্তিযোদ্ধার সাথে পরিচিত হয়ে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি।

    তবে, তাদের দেশপ্রেমের সাথে আমাদের দেশপ্রেমে ভাবনা একদম নস্যি।

  3. আপনি খুব ই ভাগ্যবান জাতির এই
    আপনি খুব ই ভাগ্যবান জাতির এই বীরদের কত জন দেখার সুযোগ পায় ?
    আমার বাবার চাচা মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন কিন্তু আমি খুব ছোট থাকতে তিনি মারা যান .।

    তাদের যেন আমরা হতাশ না করি!

    আপনার কথাই আপনাকে বলল – এক জন পতিতা ……… আমি তার সাথে তাল মিলিয়ে বলব জয় বাংলা

Leave a Reply to পৃথু স্যন্যাল Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *