পাপিয়া-প্রানীর ব্যাপারে কিছু কথা

একজন সারমেয় জাতের তৃতীয় শ্রেনীর অমানুষের মুখ থেকে সভ্য জাতীয় কিছু শোনার আশা যিনি করেন, শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ভাষায় তাকে নির্দ্বিধায় “……মূর্খ অর্বাচীন বলা যাবে না- সে আসলে ধূর্ত শয়তান। শান্তিপ্রিয় মানুষের সে বিনাশ চায় আসলে।’’


একজন সারমেয় জাতের তৃতীয় শ্রেনীর অমানুষের মুখ থেকে সভ্য জাতীয় কিছু শোনার আশা যিনি করেন, শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ভাষায় তাকে নির্দ্বিধায় “……মূর্খ অর্বাচীন বলা যাবে না- সে আসলে ধূর্ত শয়তান। শান্তিপ্রিয় মানুষের সে বিনাশ চায় আসলে।’’

পাপিয়া নামের একজন অখ্যাত মহিলা সংসদে দাঁড়িয়ে অনেক অকথ্য গালিগালাজ করে থাকেন যা বিশ্বের যে কোন সভ্য সমাজেই ধিকৃত হবে নিশ্চিত। তিনি একজন কূলাঙ্গার আর নারীসমাজের কলঙ্ক। আর এই মহিলার কন্ঠ থেকে যখন ‘মা’ শহীদ জননীর বিরুদ্ধে মিথ্যা নোংরামী উচ্চারিত হয়, আমরা কেন তাতে অবাক হই? হতে পারে সে সংসদ সদস্য, তাই বলে কি গরু-ছাগলদের সাথে মানুষ্যকূলের পার্থক্য আমরা বুঝবো না?

যোগ্যতাহীন অসভ্য একজন সারমেয় যখন শহীদ জননীকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় কথা বলেন, তখন আসলে তিনি তার যোগ্যতাহীনতাকেই অকপটে স্বীকার করেন। আর এই জঘন্য ‘পাপিয়া’-র বচনে মনে কষ্ট পাওয়াও হচ্ছে নিজেকে পাপিয়ার স্তরে নামিয়ে এনে ‘পাপিয়া-প্রানী’ কে অহেতুক গুরুত্ব দেয়া বা তাকে গুরুত্বপূর্ন বলে বিবেচনায় নেয়া। আমি জেনে শুনে তা করছি না।

তবে সংসদের মত পবিত্র জায়গায় দাঁড়িয়ে সমাজের উচ্ছিষ্ট পাপিয়া-প্রানীদের অশিক্ষিত বর্বরতা বন্ধের জন্য স্পিকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি। আমাদের মনে রাখতে হবে, সংসদ কোন মদ্যপ ভাড়দের আশ্র্য়স্থল না। আর তা না হলে এর দাঁতভাঙ্গা জবাব আমরা দিতে জানি। শহীদ জননীর সন্তানেরা মরে যায়নি।

জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু

৬ thoughts on “পাপিয়া-প্রানীর ব্যাপারে কিছু কথা

  1. সংসদের মত পবিত্র জায়গায়

    সংসদের মত পবিত্র জায়গায় দাঁড়িয়ে সমাজের উচ্ছিষ্ট পাপিয়া-প্রানীদের অশিক্ষিত বর্বরতা বন্ধের জন্য স্পিকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

    সহমত।

  2. পাপিয়ার মত প্রাণীরে পা দিয়া
    পাপিয়ার মত প্রাণীরে পা দিয়া পিষে পটল তুলার ব্যবস্থা করায় দেওয়া উচিত…………… সহমত প্রকাশ করিলাম :আমিওআছি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *