জয় বঙ্গবন্ধুতে বামেদের চুলকানী’র কারণ

শেখ মুজিব কি মীরজাফর?
আপনি ও কি শেখ মুজিবরের ফাঁসি চাওয়া
লোকদের সাথে মঞ্চে ফঞ্চে যান?
—————————
এই শাহবাগ গণ-জাগরণ মঞ্চে যারা আছেন, সেই সব বামেদের সাথে কেন আমরা একমঞ্চে উঠি? গোঃআজমেরা যেমন অতীতের কৃতকর্মের কারণে ক্ষমায় চায়নি, বরং অস্বীকার করে, তেমনি এই বামেরা ও তো তেমন। তাহলে তাদের সাথে কেন আমরা একমঞ্চে উঠছি? তাদের কৃতকর্ম পড়ার জন্য ইতিহাস জানার দরকার নেই। কিছু শ্লোগান ই যথেষ্ট।



শেখ মুজিব কি মীরজাফর?
আপনি ও কি শেখ মুজিবরের ফাঁসি চাওয়া
লোকদের সাথে মঞ্চে ফঞ্চে যান?
—————————
এই শাহবাগ গণ-জাগরণ মঞ্চে যারা আছেন, সেই সব বামেদের সাথে কেন আমরা একমঞ্চে উঠি? গোঃআজমেরা যেমন অতীতের কৃতকর্মের কারণে ক্ষমায় চায়নি, বরং অস্বীকার করে, তেমনি এই বামেরা ও তো তেমন। তাহলে তাদের সাথে কেন আমরা একমঞ্চে উঠছি? তাদের কৃতকর্ম পড়ার জন্য ইতিহাস জানার দরকার নেই। কিছু শ্লোগান ই যথেষ্ট।

নিক্সন-মুজিব ভাই ভাই
এক রশিতে ফাঁসি চাই

সাম্রাজ্যবাদের মরণ ফাঁদ
১৯৭৩ সাল … ১৯৭৩ সাল …

ভিয়েতনামের বদলা নেব,
বাংলাদেশের মাটিতে (বাংলাদেশের পুলিশ মেরে থানা লুট করে বদলা নিচ্ছিল)

খুনিশাহী মুজিবশাহী
ধ্বংস হোক, ধ্বংস হোক… (বঙ্গবন্ধু কে হত্যার প্ররোচনা দান করেছিল এভাবে)

নিক্সনের দালালি করা
চলবে না, চলবে না … (বঙ্গবন্ধু কে যারা দালাল বলে, তারা যে বেজন্মা সেটা সবাই জানে)

বাংলার মীরজাফর
মজিবর মজিবর … (দেশদ্রোহীরা এটা বলতে পারে, কারণ বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ)

আপনারা এই শুয়োরদের সাথে একমঞ্চে উঠতে পারেন। আমি পারি না। কোন রকম মঞ্চের সাথে আমার সম্পৃক্ততা নাই। মঞ্চের চেতনা কে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু বাম দ্বারা পরিচালিত মঞ্চের আগে বা পিছে আমি নেই। একটা সময় আবেগের বশে এই বামদের সাথে একমঞ্চে উঠেছি। আর না …

যাই হোক, এদের মুখে জয় বঙ্গবন্ধু কেন উচ্চারিত হয় না এর চেয়ে বড় ব্যাখ্যা মনে হয় আর প্রয়োজন নেই। আরেক টা বিষয়, গোলাম আজমদের হেডকোয়ার্টের পাকিস্তান। আর বামেদের হেড কোয়ার্টার চীন বা রাশিয়া।

(বিঃদ্রঃ শ্লোগানগুলোর ব্যাখ্যা করুন নিজে নিজে)

২৪ thoughts on “জয় বঙ্গবন্ধুতে বামেদের চুলকানী’র কারণ

  1. সর্ব সাকুল্যে একটি বাম
    সর্ব সাকুল্যে একটি বাম বিদ্বেষী পোস্ট ।
    বিদ্বেষ সৃষ্টি, ছড়ানো, প্রশ্রয় সবটাই অনুচিত ।
    আওতার ভিতরে থেকে সমালোচনা করুন সেটাই ভাল এবং উচিৎ ।
    Anyway, যে আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয়ভাবে বাম সমর্থন করছে, বামদের মন্ত্রী বানাচ্ছে, বামদের কথায় উঠছে বসছে সেই আওয়ামীলীগের সামান্য একজন কর্মী বা সমর্থকের মুখে এধরনের কথা দ্বিচারিতা, দ্বিমুখী ছাড়া কিছুই নয় ।

      1. প্রশ্নের উত্তর এখানে কে দিবে?
        প্রশ্নের উত্তর এখানে কে দিবে? উপরে দেখেন যে এসজিএস শাহিন কি বলে … হা হা হা …

        1. আপনাদের আমাদের এই বাংলার
          আপনাদের আমাদের এই বাংলার প্রধান শত্রু কে?
          প্রথমে তাদের পরাজিত করুণ! তারপর এমন হাজারো সমস্যার সমাধান করা যাবে! কিন্তু যতদিন এই হেফাজত-জামাতিরা থাকবে ততদিন উদীচী থেকে পহেলা বৈশাখ, আর আদালত থেকে বিনোদনকেন্দ্র সর্বত্রই রক্ত ঝরবে…
          তাই নিজের স্বার্থেই কন্ট্রভারসি সৃষ্টি না করে একবার এক হউন!!

    1. প্রথমেই প্রতিবাদ জানাচ্ছি
      প্রথমেই প্রতিবাদ জানাচ্ছি আপনার কথার। বাম বিদ্বেষী পোষ্ট এর মানে কি? আমাকে কি প্রেম নিবেদন করে পোষ্ট করতে হবে? আমি প্রশ্ন রেখেছি। আপনি এই ব্লগের চামচামি করছেন কেন? বিদ্বেষ ছড়ানো আর জবাব চাওয়া এক না। এখন আম্লীগের বিরোধিতা করে পোষ্ট করলে তো একবারে আমাকে ইষ্টিশনের টিটি বানিয়ে দিতেন। আওয়ামীলীগ কি করছে না করলে আমার বিষয় না। আমি একজন মানুষ। আমার মতামত আছে। আমার মাঝে প্রশ্ন সৃষ্টি হতে পারে। সেসবের উত্তর দেয়ার সামর্থ্য থাকলে কথা বলেন। কর্মী ? মানে? কে কর্মী? এই ভদ্রলোক, আমি কর্মী ও না, নেতা ও না। আমি কোন দলের চামচা ও না আপনাদের মতো। ময়মনসিংহে আসেন,দেখে যান কর্মী নাকি কি। কোন রাজনৈতিক দলের চামচামি আপনি করতে পারেন, আমি না। আপনেরে তো ফেসবুকে ও গদাম দিছি মনে হচ্ছে। যাই হোক, যুক্তি উপস্থাপন করে কথা বলবেন।

  2. জামান ভাই, এই স্লোগানগুলোর
    জামান ভাই, এই স্লোগানগুলোর বেশির ভাগইতো জাসদের। যে জাসদ ১৪ দলীয় মহাজোটের অংশ।

    1. দিলেন তো ভাই মিথ্যা ইতিহাস
      দিলেন তো ভাই মিথ্যা ইতিহাস শুনিয়ে। আসল শ্লোগান দুইটাই তো মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম আংকেলের। মিথ্যা নাকি। একটু ইতিহাস ঘাটুন ভাই।

  3. তখন ছিলো ১৯৭৩ আর এখন ২০১৩,
    তখন ছিলো ১৯৭৩ আর এখন ২০১৩, তখন ছিলো বঙ্গবন্ধুর আমল আর এখন বঙ্গবন্ধু পরবর্তী আমল। আর কিছু চীনা-বাম ছাড়াতো , সকল বামেরা’ই সাধীনতার পক্ষে ছিলো এমনকি বঙ্গবন্ধু ‘সমাজতান্ত্রিক’পন্থায় দেশ পরিচালনা করেছেন, সেক্ষেত্রে ঐ বামেদের সাথে একসাথে মঞ্চে উঠলে সমস্যা কোথায় ???? আপনি বাম আর আম(শিবির) এক করে ফেলছেন !!!!! @জামান পায়েল :হাহাপগে: :হাহাপগে:

    1. সমস্যা? আমার পোষ্টে সমস্যার
      সমস্যা? আমার পোষ্টে সমস্যার কথা উল্লেখ আছে। রাজাকার আর বাম, তারা উভয় ই জয় বঙ্গবন্ধু বলতে লজ্জা বোধ করে। আর জয় বঙ্গবন্ধু ও বিষয় না, বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে কি এই বামেদের বিপ্লবের কোন ভূমিকা ছিল না? আর বামেরা বঙ্গবন্ধু কে যে মীর জাফর বলেছিল, সেটার বিষয়ে তাদের এখন বক্তব্য কি? মতিয়া খালা মঞ্চে উঠে, আর তোফায়েল সাহেব মঞ্চে উঠতে পারে না… এসব তো ভাই বুঝি। বিপ্লব আসার কত দেরী পাঞ্জেরী?

  4. মাননীয় স্পিকার থুক্কু ইস্টিশন
    মাননীয় স্পিকার থুক্কু ইস্টিশন মাস্টার , এই পোস্টের লেখক গন-জাগরন মন্চের কৰ্মীদের বিশেষ দলভুক্ত করে আক্রমন/বিদ্বেষমূলক পোস্ট প্রকাশ করেছে, আমি এই পোস্টের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। মাননীয় স্পিকার এইদিকে একটু খিয়াল কইরেন ।

    1. বাহ!!! গণ-জাগরণ মঞ্চ কি খোদা
      বাহ!!! গণ-জাগরণ মঞ্চ কি খোদা প্রেরিত কিছু নাকি যে, তার সমালোচনা করা যাবে না? বিদ্বেষ? দেশের কোন আইনে আহে বা ইষ্টিশনের কোন আইনে আছে এই মঞ্চ নিয়ে সমালোচনা করা যাবে না? চামচামি বন্ধ করেন।

      1. দেশের কোন আইনে আহে বা

        দেশের কোন আইনে আহে বা ইষ্টিশনের কোন আইনে আছে এই মঞ্চ নিয়ে সমালোচনা করা যাবে না? চামচামি বন্ধ করেন।

        আপনি রাজাকার/ছাগুদের চামচামি বন্ধ করেন । ভালো থাকেন ।

  5. ভালই বলতেছেন! জয় বঙ্গবন্ধু
    ভালই বলতেছেন! জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগানটা কোথায় ব্যবহার করতে হয় জনাব? খুন করতে?লুট করতে?ধর্ষন করতে? আজকে যে বামের বিরুধীতা করছেন কাল কিন্তু সেই বামদেরই প্রয়োজনে আব্বা ডেকে সালাম করেন আপনাদের মত সুবিধালীগরা ।কিবোর্ড বা কিপ্যাডে অনেক কিছুই বলা যায় করা যায় কিন্তু বাস্তবজীবনে মুরগীর ***[মডারেটেড] ছিড়াও কঠিন ।
    Anyway, শেষ লাইনটি ফেসবুকে আপনার একটি পোস্টে কমেন্টে বলেছিলাম বলেই ব্লক দিয়েছিলেন ।আর এখানে বলছেন আমাকে গদাম দিছেন!বাহ!
    মুরগির **[মডারেটেড] না ছিড়ে বাস্তবে যদি কিছু করতে পারতেন তবে ব্লক না করে প্রমান দিতে পারতেন।

  6. এবার বলি ভদ্র ভাষায়…
    প্রকৃত

    এবার বলি ভদ্র ভাষায়…

    প্রকৃত বাঙালী হয়ে থাকলে জয় বাংলার পরে অবশ্যই জয় বঙ্গবন্ধু বলবে ।তবে ক্ষেত্র বিশেষে ।সব জায়গায় যেমন জয় বাংলা বলা যাবে না তেমনি জয় বঙ্গবন্ধু ও বলা ঠিক নয় ।আপনি কি দেখাতে পারবেন বামেরা বিবৃতি বা ঘোষনা দিয়ে বলেছে, আমরা জয় বঙ্গবন্ধু বলতে পারবো না বা এই স্লোগানে আপত্তি আছে? আপনি গোলাম আজমের মুখে এই স্লোগানটি বলাতে পারবেন?
    যার যার রাজনৈতিক আদর্শ যার তার ।কেউ বঙ্গবন্ধু, কেউ শহিদ জিয়া,কেউ মউদুদি,কেউ মার্কস, লেনিন, গান্ধী ইত্যাদি ইত্যাদি আদর্শে রাজনীতি করে ।এটাই স্বাভাবিকতা ।কারো আদর্শে হস্তক্ষেপ করা উচিৎ নয় ।তবে কেউ যদি আপনার আদর্শকে কটাক্ষ করে তবে আপনি প্রতিবাদ বা ঘৃনা করতে পারেন ।যেমন আপনি উপরে যে স্লোগানের কথা বলেছেন ঐ সমস্থ স্লোগান যারা দিয়েছে তাদের তীব্র ভাষায় ঘৃনা করুন ।কিন্তু ঐ নষ্টাদের দোষ প্রজন্মের ঘাড়ে কেন চাপাচ্ছেন?

    আপনাদের মত বিদ্বেষীদের কারনেই যে কেউ বঙ্গবন্ধুকে কটাক্ষ করার সাহস দেখাচ্ছে ।আপনি গালি দিলে আরেকজন দিবে এটাই স্বাভাবিক।কৈ যে লোকটি সংসদে দাড়িয়ে ৭ই মার্চের ভাষনকে প্যারোডি হিসেবে উপস্থাপন করল তার বিরুদ্ধে কয়টা ব্লগ পোস্ট লিখেছেন?সাঈদি নিজামীর কোন হিন্দি চুলটা ছিড়ছেন?

    শাহবাগ মঞ্চে এখনি যান এবং যতক্ষন জবানে জোর থাকে ততক্ষন জয় বঙ্গবন্ধু বলে স্লোগান দিতে থাকুন ।কোন বাম বাধা দিলে ইস্টিশনে এসে যোগাযোগ করবেন ।

    1. বঙ্গবন্ধু’র সাথে জিয়ার তুলনা?
      বঙ্গবন্ধু’র সাথে জিয়ার তুলনা? আপনের মতো _____ এর সাথে কথা বলার কোন কারণ দেখিনা। ফেসবুকের ঝাল এইখানে মিটাতাছ?

  7. আপনার পোস্ট হচ্ছে যাদের
    আপনার পোস্ট হচ্ছে যাদের বিরদ্ধে আজ জাতি এক হওয়ার কথা তাদের স্বার্থ রক্ষার্থে!
    আপনি সুকৌশলে শাহ্‌বাগের চেতনার বিরদ্ধে বিদ্বেষ ছড়াতে চাচ্ছেন! তাতে জামাত-হেফাজতিরা ছাড়া আর কেউ লাভবান হবে না!! যদি আপনি সরল মনে এই পোস্ট দিয়ে থাকেন তবে সম্পাদন করুণ, কারণ তাহলে ধরে নিব আমরা সবাই একতাবদ্ধ থাকতে চাই রাজাকার প্রশ্নে…

  8. আমি ফেসবুকের ঝাল এখানে মেটাব
    আমি ফেসবুকের ঝাল এখানে মেটাব কেন? ফেসবুকে গদাম তো আমিই দিলাম ।আমার ভয়ে আপনি আমাকে ব্লক করেছেন, আপনার ভয়ে আমি নয় ।আশা করি বুঝতে পেরেছেন ।তাছাড়া আপনি কোন চ্যাটের *** যে, ফেসবুকে আপনার বন্ধু তালিকায় থাকাটা আমার জন্য এত জরুরী?
    আপনি বলেছেন আমি জিয়ার সাথে বঙ্গবন্ধুর তুলনা করেছি!না!
    কৈ আগরতলা আর কৈ চকির তলা।বঙ্গবন্ধুর তুলনা একমাত্র বঙ্গবন্ধুই।বঙ্গবন্ধুর সাথে চে গুয়েভারা কিংবা মহাত্মা গান্ধীকেও তুলনা করতে আমি একজন দ্বিধাবোধ করি আর জিয়া তো একজন স্বীকৃতি প্রাপ্ত খুনি।

    যাইহোক, অনুরোধ থাকলো আর বাম ডান নিয়ে বিদ্বেষ ছড়াবেন না ।পারলে একতাবদ্ধ করার চেষ্টা করুন ।যুদ্ধাপরাধের বিচারের প্রশ্নে বাম ডান সহ আমাদের সবাইকে একতাবদ্ধ থাকাটা জরুরী।বঙ্গবন্ধুর কৃতিত্ব আর সম্মান ঠুনকো কাঁচ নয় যে, দু চারজন কুলাঙ্গারের কথায় তা ভেঙ্গে টুকরা টুকরা হয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *