রাস্ট্র সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত করতে হলে আগে নিজে সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত হোন !

বাংলাদেশের হিন্দু বাবুরা অসাম্প্রাদায়িক রাস্ট্র চায়,ইন্ডিয়া পালাতে চায়না। কিন্তু ওনারা নিজেরাও সাম্প্রদায়িকতা থেকে মুক্ত নয় । আর ব্রাহ্মণ বাবুরাতো ঘরে চাল না থাকলেও কাকে এক ঘরে করা যায় , কে শুদ্র বাড়িতে খেয়ে ফেললো সেদিকে নজর ঠিকি রাখে ।


বাংলাদেশের হিন্দু বাবুরা অসাম্প্রাদায়িক রাস্ট্র চায়,ইন্ডিয়া পালাতে চায়না। কিন্তু ওনারা নিজেরাও সাম্প্রদায়িকতা থেকে মুক্ত নয় । আর ব্রাহ্মণ বাবুরাতো ঘরে চাল না থাকলেও কাকে এক ঘরে করা যায় , কে শুদ্র বাড়িতে খেয়ে ফেললো সেদিকে নজর ঠিকি রাখে ।

কিছুদিন আগের একটা ঘটনা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কোন এলাকার এক ব্রাহ্মণ ছেলে ভালবেসে এক অন্য সম্প্রদায়ের মেয়েকে বিয়ে করলো । ব্রাহ্মণ সমাজতো ক্ষেপে গেলো । সমাজে তাদের জায়গা নাই , তাদের একঘরে করে দেয়া হোক । কি আর করা মাসখানেক যাওয়ার পর ছেলের পরিবার আমার পিসাকে ধরে ঘটনাটা মিমাংসা করে দেয়ার জন্য । পিসা যথারীতি বিভিন্ন এলাকার ব্রাহ্মণ ডাকেন এটা শেষ করার জন্য । ঘটনার দিন সবার মধ্যে পাঁচ ব্রাহ্মণ রাজি নয় তাদের মেনে নিতে । তাদের আবার জাযনিক কাজ ছাড়া চলেনা । পেটে ভাত থাক আর না থাক ।

এখন কথা হল তারাই আবার অসাম্প্রাদায়িক রাস্ট্র দাবী করে । গ্রামে অন্য সম্প্রদায়ের লোকের হাতে খায়না আবার এরাই শহরে আসলে মুসলমানের হোটেলে ফ্রাই ভোজ করে । এগুলোই হচ্ছে সমাজের ভাইরাস । ধার্মিকতা করো ধর্মগ্রন্হ পড়ে , মাথা ভর্তি কুসংস্কার নিয়েনা ।

রাস্ট্র সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত করতে হলে আগে নিজে সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত হোন !

১৫ thoughts on “রাস্ট্র সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত করতে হলে আগে নিজে সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত হোন !

    1. সে এমন কিছু মানুষকে দায়ী
      সে এমন কিছু মানুষকে দায়ী করেছে যে,যারা নিজে সাম্প্রদায়িক হয়ে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রের জন্য দাবি করে।@এস জি এস শাহিন ভাই

  1. রাস্ট্র সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত

    রাস্ট্র সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত করতে হলে আগে নিজে সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত হোন !

    চমৎকার !!!!!!!!!!যথার্থ বলেছেন !!! :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  2. এখন কথা হল তারাই আবার

    এখন কথা হল তারাই আবার অসাম্প্রাদায়িক রাস্ট্র দাবী করে । গ্রামে অন্য সম্প্রদায়ের লোকের হাতে খায়না আবার এরাই শহরে আসলে মুসলমানের হোটেলে ফ্রাই ভোজ করে । এগুলোই হচ্ছে সমাজের ভাইরাস । ধার্মিকতা করো ধর্মগ্রন্হ পড়ে , মাথা ভর্তি কুসংস্কার নিয়েনা ।

    :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  3. সবাই যা বলার বলে ফেলেছে! নতুন
    সবাই যা বলার বলে ফেলেছে! নতুন করে আর কি বলব?
    একটা গল্প মনে গেল কেবল…

    আমার মায়ের মুখে শোনা গল্প। আজ থেকে প্রায় ৫০বছর আগের কথা। আমার নানাবাড়ির গ্রামের এক প্রভাবশালী ব্রাহ্মণ বাড়ির কুয়া থেকে এক মুসলমানের ছেলে পানি তুলে খেয়েছিল বলে ঐ ছেলেকে দিয়ে পুরো কুয়ার পানি সেঁচিয়ে পুরোহিত দিয়ে মন্ত্র পাঠ করিয়ে কুয়া “শুদ্ধ” করে নেয়া হয়েছিল!

    কারো প্রতি জুলুম করতে নেই। সে যে ধর্ম বা বর্ণেরই হোক না কেন।
    “সবার ওপরে মানুষ সত্য তাহার ওপরে নাই…”

    এই সহজ সত্য যে না মানে তার কপালের দুর্ভোগ কেউ কমাতে পারবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *