জীবনের শিক্ষা হতে বাম রাজনীতি ২০১৩ [এলিট বাম অধ্যায়]

আমি আগে ছিছকা বাম আর ছবির হাটের ভুয়া বামদের নিয়ে তরুন অধ্যায় লিখেছি, মাঝে এই লেখাটা দিতে অনেক সময় নিলাম, যা নেয়ার কথা ছিলো না, হটাত করে ফাইল মিস হয়ে যায়, তাই নতুন করে লেখা।

মুক্তিযুদ্ধ হতে শুরু করে বাংলার আন্দোলন এর প্রতিটা ধাপে ছিলো কম্যুনিস্ট আর বামদের জয় জয়কার। হটাত করে পচে যাওয়া কিভাবে শুরু হলো এটা জানা দরকার। উপমহাদেশে ব্রিটিশদের তুলোধুনো করে বিদায় করলো কম্যুনিস্টরা আর নাম হয়ে গেল গান্ধী’জীর এর দায় কে নিবে??
আমার উত্তর হবে আমাদের নিজেদের, আমাদের মূর্খতার।

উপমহাদেশ আর এসব পুরান আলাপ বাদ, আসি ২০১৩ সালে।


আমি আগে ছিছকা বাম আর ছবির হাটের ভুয়া বামদের নিয়ে তরুন অধ্যায় লিখেছি, মাঝে এই লেখাটা দিতে অনেক সময় নিলাম, যা নেয়ার কথা ছিলো না, হটাত করে ফাইল মিস হয়ে যায়, তাই নতুন করে লেখা।

মুক্তিযুদ্ধ হতে শুরু করে বাংলার আন্দোলন এর প্রতিটা ধাপে ছিলো কম্যুনিস্ট আর বামদের জয় জয়কার। হটাত করে পচে যাওয়া কিভাবে শুরু হলো এটা জানা দরকার। উপমহাদেশে ব্রিটিশদের তুলোধুনো করে বিদায় করলো কম্যুনিস্টরা আর নাম হয়ে গেল গান্ধী’জীর এর দায় কে নিবে??
আমার উত্তর হবে আমাদের নিজেদের, আমাদের মূর্খতার।

উপমহাদেশ আর এসব পুরান আলাপ বাদ, আসি ২০১৩ সালে।

হটাত করে বামদের বিরুদ্ধে আমি লেখা শুরু করার অনেক গুলো কারন ও বর্তমান আছে, এবার আমি যাদের বিরুদ্ধে লিখবো তাঁরা এই দেশের বাম কান্ডারী। কিন্তু তাঁদের এই হাল আমাকে পীড়া দেয়, আমি মুক্তি চাই, সিস্টেমটাকে হ্যাক করতে চাই, কিন্তু এইসব নস্ট বামদের দিয়ে তা হবে না, হচ্ছে না।

যারা আমাদের আদর্শ হবার কথা, তাঁরা আজ তত্ত্ব নিয়ে আর তাত্ত্বিক নিয়ে লড়াই করে, ২০০ বছরের পুরাতন শ্রেনী সংগ্রাম খুঁজে ফিরে। মুক্তির প্রশ্ন নিয়ে হিপোক্রেসিতে থাকা মস্ক আর পিকিং বামদের সুফল নিয়েছে আওয়ামীলীগ, আর চরমপন্থি আর সন্ত্রাসী হয়েছে সিরাজ শিকদাররা।

এলিট বামদের নিয়ে আমার অনেক সন্দেহ আছে, তাঁরা তাত্ত্বিক জ্ঞান কি কাজে লাগিয়েছে নাকি।
প্রথমে আসি সিপিবির কথায়,
বাংলাদেশের মস্কপন্থী বামদের দল, কিন্তু আচরন হচ্ছে আওয়ামীলীগ পন্থী, নামের মাঝে কম্যুনিস্ট ছাড়া আর কিছুই নাই সিপিবির। দলের আদর্শ ধুয়ে পানি খাওয়া নেতারা আর কি করবে??
আমি এদের এক নেতাকে জিজ্ঞাসা করে ছিলাম, আপনাদের মাঠের এত খারাপ অবস্থা কেন??
প্রথম কথা বিপ্লব একটা দীর্ঘ প্রক্রিয়া, এটা চলছে, চলবে। আমি বলেছিলাম আপনাদের বিপ্লব কিভাবে আসবে তাহলে??? বিপ্লব এরজন্য প্রস্তুতি কই?? বিপ্লব কি আপনার দরজায় এসে টোকা দিয়ে বলবে বিপ্লব এসেছে, বেরিয়ে আসুন!!!

কিছুই না বলে ফোন খানা নিয়ে চলে গেলো,

তোপখানার বাসদ অফিসে আমার বাবার সাথে যাওয়া আসা করা হতো, এখন আর যাই না, বয়স আর আমার কতো?? এবার ১৯, কিন্তু এর মাঝে তো কম খেল দেখি নাই।
তোপখানার বাসদ অফিসে গিয়ে দেখা যায় কমরেড খালেকুজ্জামান এর ঘরে বিরাট LCD মনিটর, এটা মে বি আমি ২০০৫ সালে দেখেছিলাম, এটা তখন এত বেশি নাই, মোট কথা বাংলাদেশে নাই, বিরাট এসি তাঁর ঘরে। শ্রমিকের জন্য লড়াই করা মানুষ, আর আমাকে বুর্জোয়া নিয়া বয়ান মারা মানুষের আদর্শ কেমন এটা??
আমি আর কি বলবো???

বাসদ এমন এক তাত্ত্বিক কে ফলো করে যে ইন্ডিয়াতে কিছুই করতে পারে নাই, তাঁর তত্ত্ব আমি নিজেই ভালো বুঝি নাই, ভাই তত্ত্ব নিয়ে আপনাদের এত ক্যাচাল কেন???
বাংলাদেশের ৪০% ভোট বামদের, কিন্তু নিজেদের মাঝে কামড়া কামড়ি করে নিজেদের ভোট গুলা দিয়ে যাচ্ছেন এ আর বি টিমে!!!

কমরেড জোনায়েদ ছাকীর কথা না বললে হয় না, ছাকী ছাহেব মাঠ নিয়া কিছুই জানেন না, তাঁর একটা ভালো চেহারা ছাড়া আর কিছুই দেখি না।

টু অল মাই এলিট বাম মাঠে আসেন। মাঠ নিয়া না জাইনা মন্দিরে বয়া থাকলে দেবতা হওয়া যায় না চ্যাটের বাল হওয়া ছাড়া। ন্যাপ এর কমরেড মোজাফর আঙ্কেল কিছুই করতে পারেন নাই, উনার কথা শোনার জন্য অনেক লোক পাওয়া যায়, কিন্তু ভোট নাই, কারন মাঠে ঘাটের মানুষ উনাকে চেনে না। তাঁরা মার্কা চেনে।

টু মাই এলিট বাম, আপনাদের আর একটা ঝামেলা আপনাদের কাছে আস্তিক হয়ে প্রবেশ করলে দাম পাওয়া যায় না, এর জন্য আপনারা মওলানা ভাসানির মতো মানুষের ভালবাসা পাবেন না। আপনারা সাম্য বুঝেন খালি নাস্তিকের কাছে, আস্তিক আপনাদের কাছে গেলে তাকে মূর্খ ভাবেন। আপনাদের কাছে নাস্তিকতাই কম্যুনিস্ট হবার প্রবেশ পথ হয় কিভাবে??? একটা কাজ করেন রাজনীতি ছেড়ে আপনারা পয়গম্বয় হয়ে যান।

টু অল মাই এলিট বাম, নিজেদের মাঝে তাত্ত্বিক ঝামেলা করার আগে এ বার কি ভেবে দেখেছেন আপনাদের সমস্যা কই?? ভোত নাই কেন?? ক্ষমতা নাই কেন???

কারন আপনারা মাঠের খবর জানেন না, আপনাদের বালছাল তত্ত্ব রিকশাওালা ভাইটা বুঝে না, সে বুঝে ভাত কোথায় পাবে, সে জানে না মুক্তি কি, আপনারা আপনাদের এই রুম ছেড়ে আর লোক দেখানো কাজ বাদ দিয়ে ১৯৬০ ১৯৬৫ সালের বামদের মতো মাঠে কাজ করতে চলে যান।

আর টু মাই নিউ কামান এলিট বাম, আপনারা ড্যাশ ক্যাপিট্যাল কিভাবে বুঝলেন আমি জানি না। আমি অনেক খোঁজ নিয়ে দেখসি, যারা নিজেদের এলিট ভাবে তাঁরা কিভাবে কম্যুনিস্ট, তাঁদের জিজ্ঞাসা করলেই বলে কম্যুনিস্ট মেনিফেস্টো আর ড্যাশ ক্যাপিট্যাল পড়েছি। যখন বলি ড্যাশ ক্যাপিট্যাল বুঝেছেন?? বলে হুম কিন্তু এটা নিয়ে প্রশ্ন করলে আর উত্তর দিতে পারে না, এসব মূর্খদের আড্ডা আর মিথ্যুক যতদিন থাকবে তত দিন আমি বাল ছিঁড়বো আর গেমস খেলবো, আর কিছুই হবে না।

পরের লেখা থাকবে ছাত্র ইউনিয়ন, ফ্রন্ট, ফেডারেশন, মৈত্রী নিয়ে।

৮ thoughts on “জীবনের শিক্ষা হতে বাম রাজনীতি ২০১৩ [এলিট বাম অধ্যায়]

  1. বাংলাদেশের ৪০% ভোট বামদের,
    বাংলাদেশের ৪০% ভোট বামদের, কিন্তু নিজেদের মাঝে কামড়াকামড়ি করে নিজেদের ভট গুলা দিয়ে যাচ্ছেন এ আর বি টিমে!!!

    — এই তথ্যটা কি গবেষনামুলক না আন্দাজি মার পুত?

    1. বাংলাদেশের সাম্যবাদী, ভাসানীর
      বাংলাদেশের সাম্যবাদী, ভাসানীর ভোট খাচ্ছে বি টিম, আর মস্কোর ভোট খাচ্ছে আওয়ামীলীগ, আমি হোম ওয়ার্ক ছাড়া কাজ করি না, আর এটা আমার জীবনের শিক্ষা, গুল মাইরা কাম করি না

  2. আপনাদের বালছাল তত্ত্ব

    আপনাদের বালছাল তত্ত্ব রিকশাওালা ভাইটা বুঝে না, সে বুঝে ভাত কোথায় পাবে, সে জানে না মুক্তি কি,

    কথা হইতাছে এইডা । বাংলার অধিকাংশ মানুষ রাজনীতি নাহ পেটনীতি বোঝে ।

Leave a Reply to হতাশা পন্থী Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *