মরীচিকার পরিসমাপ্তি


ধুপছায়ার আবেগ , ক্লান্তিলগ্নের বিমর্ষতায় অপ্রস্তুত এক রহস্য,
সদৃশ্যতা নিদারুন রুঢ়তার ছন্দে মোহিত -তবে কিঞ্চিত অপ্রতুল !
নিদ্রা বিভুরতায় স্বচ্ছ মোহে আবৃত কল্পে –
আমি বিভেদহীন -সদা জাগ্রত –
সুরহীন কণ্ঠে ক্রন্দন এঁর গন্ধ !
তুমি মৌনতা একফোঁটা স্বপ্নছেঁড়া ভালবাসায়-
নাহ !চাওয়াটা একটু বেশি হয়ে গেল কি !!
সন্দেও জাগে অপ্রতুল ভালবাসার অতীত এঁর ক্রন্দনে ।
অর্বাচীন গল্পের মোড়কে কবিতার সুর বড় অর্থহীন –
ছন্নছাড়া একচিলতে বাতাসে বালুকনা –
নাহ – ভুল করেছ মৌনতা – মরুভুমির নয় –
আমার অমীমাংসিত চেতনার নির্যাসরুপ বালুকনা !!!

ছন্দহীন ভালবাসা আমি শ্মশানচারী হতে দিব নাহ –
উন্মক্ত তরুনের রক্তের প্রদিপ- সে কেমনে নিভবে !
তাহলে কেন এসেছিল সেই ৫ ফেব্রুয়ারী !!
সবই এখন ধোঁয়াশা !!
হতাশা জাগে- কুণ্ডলিত পরিস্থিতির অস্পৃশ্য বাস্তব মোড়কে
ভয় হয় সহসা তবে কি মরীচিকা হয় শেষে-
আশার পিঠে স্বপ্নের বুননে গড়ে ওঠা সেই কোটি হৃদয়ের
এক লাইন এর গল্প –
একটায় দাবী – রাজাকার এর ফাসি !!!
প্রশ্ন জাগে – অনিঃশেষ বিস্ময় ডানাকাটা বাস্তবকর্ষে
স্বপ্নের বাতাস আজ কলুষিত -শুকনা পাতার মত চেতনা আজ বিধ্বস্ত ,
অনেকদিন হল – দিনের হিসাব বাতুলতায় অনির্দিষ্ট ,
স্বপ্ন দেখেছিলাম , সুর বেধেছিলাম – সুরকার আমি নয় !
আমি চেতনাধারি- আমি দেশ মাতার অপরাজেয় এক সন্তানতুল্ল ভৃত্য !

লাখো কণ্ঠের উৎফুল্ল চেতনা আমাকে দাও –
স্বপ্নের বাগিচা বুননের চেতনা আমাকে দাও –
শপথ করছি প্রিয় বঙ্গ মাতা –
তোমার আচল আমি পবিত্র ভালবাসায় আগলে রাখব –
প্রতিজ্ঞা করছি –
কোটি সন্তানের বঙ্গমাতা – ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের মাতা ,
শুনে নাও – আমি আসছি মুক্তিযুদ্ধের শপথকে বুকে লালন করে –
বিপ্লব হবে তরুন কণ্ঠে -বিপ্লব হবে সমস্ত সত্তা জুড়ে !
রক্তস্তূপ এ হয়ত পড়ে থাকবে একটি দেহ –
কিন্তু মানচিত্র আগলে রাখব চেতনা দিয়ে –
কাঙ্গাল দেশপ্রেম এর সুতায় বোনা বিপ্লবী মন্ত্রনা নিয়ে ।

উদবাস্তু খ্যাপাটে প্রলাপ কি শেষ হল !-
পশ্চিমের ঐ কোনা থেকে উকি দেয় মুখোশধারীরা –
ব্যাঙ্গপ্রলাপ চিরন্তন- নতুন সাজে নতুন বোতলে ।
ওরা এত উৎফুল্ল কেন !!
লজ্জাহীন মস্তকে হন্টন ধারা অবধারিত –
অবিরত চলমান নিয়ম – বাহ !!
ভাঙতে হবে, গড়তে হবে ভাঙ্গন ধরা ইটের গাঁথুনিতে ।
বিপ্লবসুরে দুইটা বানী -কখনো অবিনশ্বর কখনো চিরন্তন ,
কণ্ঠনালীর প্রকম্পনে উচ্চারিত সেই বিপ্লবী স্লোগান !!
পুনরায় আকাশে ডানা মেলবে –
নতুন চেতনা , নতুন ভালবাসা , পুরাতন চোখ এর নতুন ক্রন্দন –
জাগ্রত হবে – চির ভাস্বর দ্যুতিময়তায় অম্লান হবে বিপ্লবের সূর্যস্নানে,
নতুন স্বপ্নের কল্পে বাধা চেতনা নিয়ে সাম্যের নব জয়গানে মুখরিত হয়ে !!

””””””
””””””

২৮ জুন ২০১৩
মধ্যরাতের অপচেষ্টা

৩২ thoughts on “মরীচিকার পরিসমাপ্তি

  1. আশার পিঠে স্বপ্নের বুননে গড়ে

    আশার পিঠে স্বপ্নের বুননে গড়ে ওঠা সেই কোটি হৃদয়ের
    এক লাইন এর গল্প –
    একটায় দাবী – রাজাকার এর ফাসি !!!

  2. অবিরত চলমান নিয়ম – বাহ

    অবিরত চলমান নিয়ম – বাহ !!
    ভাঙতে হবে, গড়তে হবে ভাঙ্গন ধরা ইটের গাঁথুনিতে ।
    বিপ্লবসুরে দুইটা বানী -কখনো অবিনশ্বর কখনো চিরন্তন ,
    কণ্ঠনালীর প্রকম্পনে উচ্চারিত সেই বিপ্লবী স্লোগান !!
    পুনরায় আকাশে ডানা মেলবে !!
    নতুন স্বপ্নের কল্পে বাধা চেতনা নিয়ে সাম্যের নব জয়গানে মুখরিত হয়ে !!

    খুব ভাল লাগলো। জীবন বাবুর গন্ধ পেলাম।
    বানানটা সামলে নিয়ে 🙂 :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল: :বুখেআয়বাবুল:

    1. দ্রুত পোস্ট দিয়েছি । বানান
      দ্রুত পোস্ট দিয়েছি । বানান মনে হয় ঠিক আছে । তবুও দেখছি । ধন্যবাদ আপনাকে । :ফুল:

  3. সাধু হয়েছে কবিতাটা রিয়েলি।
    সাধু হয়েছে কবিতাটা রিয়েলি। কবি-আর কবিতা বেঁচে থাকবে এভাবেই… :গোলাপ:

  4. প্রথমতই মোশফেক ভাই আপনার
    প্রথমতই মোশফেক ভাই আপনার কালার-টা বিরক্তির উদ্রেক করে!!
    কবিতার স্টাইলে স্বাভাবিক বিন্যাশই ভাল হত…

    পরে পড়ে দেখি চমৎকার একটা কবিতা।।
    এত রঙ্গিন কবিতায় বারতি রং না করলেও চলত… 😉

    ভাঙতে হবে, গড়তে হবে ভাঙ্গন ধরা ইটের গাঁথুনিতে ।

    চমৎকার!!

    বিপ্লবসুরে দুইটা বানী -কখনো অবিনশ্বর কখনো চিরন্তন ,
    কণ্ঠনালীর প্রকম্পনে উচ্চারিত সেই বিপ্লবী স্লোগান !!
    পুনরায় আকাশে ডানা মেলবে !!
    নতুন স্বপ্নের কল্পে বাধা চেতনা নিয়ে সাম্যের নব জয়গানে মুখরিত হয়ে

    — কাব্যিক আশাবাদ… :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:

    1. হুম /। ঠিক করে দিয়েছি লিঙ্কন
      হুম /। ঠিক করে দিয়েছি লিঙ্কন ভাই । আর কাব্য এর ছোঁয়া কি দিতে পেরেছি । সাহস করে লিখে ফেললাম কবিতা 😀 😀

      1. অনেক ভাল!! লিখতে
        অনেক ভাল!! লিখতে থাকুন…
        চাইলেই সময় নিয়ে ভাল কিছু করা যায়!!
        আর ঘনঘন পোস্ট দিতে চাইলে শুধু পরিমাণটাই বেশী হয় মানে কিছু হয় না।।
        সে তুলনায় আপনারটা অনেক অনেক ভাল…
        এখন পরেতে ও দেখতে ভাল লাগছে! ধন্যবাদ… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা:

  5. পুরো কবিতা কোটেশনের মধ্যে
    পুরো কবিতা কোটেশনের মধ্যে দিয়েছেন কেন? দেখতে ভালো লাগছে না। কবিতা ভালো হয়েছে। কোটেশন উঠিয়ে দিন।

    1. আমিতো খেয়ালই করি নাই! মোশফেক
      আমিতো খেয়ালই করি নাই! মোশফেক ভাই বোল্ড করে কোট করেছেন!!
      স্বাভাবিক করে দিন!! অনেক ভাল লাগবে…

    2. ঠিক করে দিয়েছি আতিক ভাই ।
      ঠিক করে দিয়েছি আতিক ভাই । কোটেশন তুলে দিয়েছি । কবিতা ভাল লেগেছে শুনে খুশি হলাম । 😀

    1. হুম । হত্যার পর রাজাকারের
      হুম । হত্যার পর রাজাকারের রক্ত জিহ্বায় ছোঁয়াই.ওয়াক থু!!!!!!!
      চমৎকার বলেছেন / ঘৃণা আর অবজ্ঞার সর্বোচ্চ সীমা পরিলক্ষিত ।/ :থাম্বসআপ:

    1. ধন্যবাদ ভাই । দাবী থেকে পিছপা
      ধন্যবাদ ভাই । দাবী থেকে পিছপা হই নি -কিন্তু বিভক্তির সুর বাজছে । এটাই তো সমস্যা

        1. হুম । অপেক্ষেয় মান । বিকালের
          হুম । অপেক্ষেয় মান । বিকালের জন্য । :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি: :অপেক্ষায়আছি:

  6. আশার পিঠে স্বপ্নের বুননে গড়ে

    আশার পিঠে স্বপ্নের বুননে গড়ে ওঠা সেই কোটি হৃদয়ের
    এক লাইন এর গল্প –
    একটায় দাবী – রাজাকার এর ফাসি !!!

    এইটুকু বেস্ট।তাছাড়া পুরা কবিটা জোস

  7. হুম । ওইটা আমাদের প্রানের
    হুম । ওইটা আমাদের প্রানের দাবী । বেস্ট তো হবেই । ধন্যবাদ ভাই মন্তব্য এর জন্য । 🙂

    1. আপনাকে ধন্যবাদ এত সুন্দর
      আপনাকে ধন্যবাদ এত সুন্দর কবিতার জন্য :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  8. ভাঙতে হবে, গড়তে হবে ভাঙ্গন
    ভাঙতে হবে, গড়তে হবে ভাঙ্গন ধরা ইটের গাঁথুনিতে ।
    বিপ্লবসুরে দুইটা বানী -কখনো অবিনশ্বর কখনো চিরন্তন ,
    কণ্ঠনালীর প্রকম্পনে উচ্চারিত সেই বিপ্লবী স্লোগান !!
    পুনরায় আকাশে ডানা মেলবে –
    নতুন চেতনা , নতুন ভালবাসা , পুরাতন চোখ এর নতুন ক্রন্দন –
    জাগ্রত হবে – চির ভাস্বর দ্যুতিময়তায় অম্লান হবে বিপ্লবের সূর্যস্নানে,
    নতুন স্বপ্নের কল্পে বাধা চেতনা নিয়ে সাম্যের নব জয়গানে মুখরিত হয়ে !! দারুন !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *